The Daily Ittefaq
ঢাকা, বুধবার, ২২ জানুয়ারি ২০১৪, ০৯ মাঘ ১৪২০, ২০ রবিউল আওয়াল ১৪৩৫
সর্বশেষ সংবাদ চাঁপাইনবাবগঞ্জে নারী ইউপি সদস্যের রগ কর্তন | জাহাঙ্গীরনগরের ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য এম এ মতিন | ৭ মন্ত্রী-এমপির সম্পদ তদন্তে দুদকের অনুসন্ধান কর্মকর্তা নিয়োগ | ট্রাফিক ব্যারাকে লাশ, পুলিশ কন্সটেবল গ্রেফতার

বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়

ভ্রমণ যখন অর্কিডের বাগানে

আশিফুল ইসলাম মারুফ

অর্কিড ফুল, যার কোন সুগন্ধ নেই আছে শুধু সৌন্দর্য আর রঙের বাহার। এক সময় অর্কিড ফুল আমাদের দেশে আসতো বিদেশ থেকে। এখনও আসছে। তবে দেশের অনেকটা চাহিদা মিটিয়ে বিদেশে যাচ্ছে ফুলবাড়ীয়ার অর্কিড ফুল।

ফুলটিতে কোন সুগন্ধি না থাকলেও ফুলের বৈশিষ্ট্য হচ্ছে গাছ থেকে উত্তোলনের পর ২ থেকে ৩ সপ্তাহ পর্যন্ত তাজা থাকে। বিশাল এ বাগানে এখন শুধু অর্কিড ফুলের শোভা। অর্কিড ফুল ৫ প্রজাতির, ২৫টি জাত। ফুলবাড়ীয়ায় চাষ হচ্ছে ২ প্রজাতির প্রায় ২০টি জাত। অনসিডিয়াম, ভ্যান্ডা, ক্যাটোলিয়া, ডেনড্রোবিয়াম ও মোকারা। তন্মধ্যে ডেনড্রোবিয়াম প্রজাতির রয়েছে ১৩টি ও মোকারা প্রজাতির ৬টি জাত। ডেনড্রোবিয়াম প্রজাতির অর্কিড ফুলের চারা মাটিতে নয় রোপণ করতে হয় নারিকেলের ছোবলার উপর উঁচু জায়গায়। মোকারা প্রজাতির ফুল চাষ মাটিতে হয় তবে মাটির উপর প্রায় ৩ ইঞ্চি উঁচু করে কাঠের টুকরো দিতে হয়। ব্যয়বহুল এই ফুল চাষ পদ্ধতি মাথায় আনেন বিদেশে চাকরিরত অবস্থায় ইতিমাত উদৌল্লাহ নামের এক প্রকৌশলী। তিনি থাইল্যান্ড থাকাকালীন সময়ে দেখতে পান অর্কিড ফুল চাষ করে কোটি কোটি ডলার বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করছে। সেখান থেকে তিনি স্বপ্ন দেখেন নিজের দেশে অর্কিড চাষ করে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করা সম্ভব। সেই স্বপ্ন বাস্তবায়নে দেশে খুঁজতে থাকেন একটি জায়গা। যেখানে গড়ে তোলা সম্ভব অর্কিড ফুল চাষ। অবশেষে আবহাওয়া বিশ্লেষণ করে খুঁজে পান নির্জন এলাকা ফুলবাড়ীয়া।

বাগান শুরুর প্রথমে থাইল্যান্ড থেকে নিয়ে আসেন অর্কিড বিশেষজ্ঞ একটি দল। প্রথমে ২ লাখ চারা রোপণের মাধ্যমে প্রায় ৩ বছর থাই প্রযুক্তিতে অর্কিড চাষ করেন। থাইল্যান্ড থেকে শুধু চারা ক্রয় করে নয়, নিয়ে আসা হতো কীটনাশক ও সার। এতে খরচ হতো বেশি। বর্তমানে এসব এখন অতীত। এখন দেশীয় অর্কিড বাগানটি পুরোপুরি স্বয়ংসম্পূর্ণ এবং স্বাবলম্বী। এখন আর বিদেশের উপর নির্ভরশীল নয়, দেশীয় প্রযুক্তিতে অর্কিড চাষ করছে। অর্কিডের ৫টি প্রজাতির ২৫টি জাতের অর্কিড চারা নিয়ে যাত্রা শুরু হলেও বিশ্লেষণ করে ২টি প্রজাতির ২০টি জাতের অর্কিড ফুল চাষ করে ৭ একর জায়গা থেকে এখন ২৭ একরে পরিণত হয়েছে বিশাল আকৃতির দেশের সর্ববৃহত্ ফুলবাড়ীয়ার অর্কিড ফুলের বাগান। বাগানের ২টি অর্কিড প্রজাতির ২০ জাতের একটি গাছ থেকে ৩ হতে ৪ বছর ফলন পাওয়া যায়। সারা বছর ফুল ফোটলেও বর্ষাকালে ফলন হয় বেশি।

ঠিক এমনই একটি ফুলের বাগানে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বাকৃবি) কৃষি অনুষদের ৩য় বর্ষের শিক্ষার্থীদের যাওয়ার সুযোগ হয়েছিল ফসল উদ্ভিদ বিজ্ঞান বিভাগের উদ্যোগে আয়োজিত শিক্ষা সফরে। ওই দিন সকালে শীতের কাঁপুনী উপেক্ষা করে তিন সেকশনের প্রায় আড়াই শতাধিক শিক্ষার্থী ও প্রায় ডজনখানেক শিক্ষক মিলে অর্কিডের আদ্যোপান্ত সম্পর্কে জানার জন্য বের হই আমরা।

বাগানটির ব্যবস্থাপক তরুণ কৃষিবিদ কাজী শরীফ উদ্দিন মাহামুদ জানান, বাগান দেখাশোনা ও পরিচর্যাসহ সব মিলিয়ে কর্মরত আছে ৬০জন। বর্তমানে ৩ লাখের মতো চারা রয়েছে। এর মধ্যে প্রায় ১ লাখ গাছে ফুল ফুটছে। প্রতি মাসে এই বাগান থেকে ৩০ থেকে ৪০ হাজার ফুলের স্টিক বিক্রি হচ্ছে। বছরে এর সংখ্যা প্রায় ৫ লাখ। ১০ থেকে ১৫ টাকা উত্পাদন খরচের প্রতি স্টিক ২০ থেকে ২৫ টাকায় বিক্রি হয়। সব মিলিয়ে বছরে ৫০ থেকে ৬০ লাখ টাকার অর্কিড ফুল বিক্রি হচ্ছে। তিনি আরও জানান, বর্তমানে দীপ্ত অর্কিড লিমিটেড শুধু অর্কিড ফুল নয়, ছোট ছোট বাগান করতে আগ্রহীদের অর্কিড চারা বিক্রিতে প্রস্তুত রয়েছে।

font
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন
তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেছেন, 'সাতক্ষীরায় যৌথ বাহিনীর অভিযান নিয়ে খালেদা জিয়া যা বলেছেন, তা দেশের জন্য অপমানজনক। এ জন্য জনগণের কাছে তার মাফ চাইতে হবে।' আপনি কি তার সাথে একমত?
4 + 3 =  
ফলাফল
আজকের নামাজের সময়সূচী
ফেব্রুয়ারী - ২১
ফজর৫:১১
যোহর১২:১৩
আসর৪:২০
মাগরিব৬:০০
এশা৭:১৩
সূর্যোদয় - ৬:২৭সূর্যাস্ত - ০৫:৫৫
archive
বছর : মাস :
The Daily Ittefaq
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: তাসমিমা হোসেন। উপদেষ্টা সম্পাদক হাবিবুর রহমান মিলন। ইত্তেফাক গ্রুপ অব পাবলিকেশন্স লিঃ-এর পক্ষে তারিন হোসেন কর্তৃক ৪০, কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ থেকে প্রকাশিত ও মুহিবুল আহসান কর্তৃক নিউ নেশন প্রিন্টিং প্রেস, কাজলারপাড়, ডেমরা রোড, ঢাকা-১২৩২ থেকে মুদ্রিত। কাওরান বাজার ফোন: পিএবিএক্স: ৭১২২৬৬০, ৮১৮৯৯৬০, বার্ত ফ্যাক্স: ৮১৮৯০১৭-৮, মফস্বল ফ্যাক্স : ৮১৮৯৩৮৪, বিজ্ঞাপন-ফোন: ৮১৮৯৯৭১, ৭১২২৬৬৪ ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭২, e-mail: [email protected], সার্কুলেশন ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭৩। www.ittefaq.com.bd, e-mail: [email protected]
Copyright The Daily Ittefaq © 2014 Developed By :