The Daily Ittefaq
ঢাকা, বৃহস্পতিবার ১২ জুন ২০১৪, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২১, ১৩ শাবান ১৪৩৫
সর্বশেষ সংবাদ দেশে সংকট নেই, বিএনপিই মহাসংকটে : নাসিম | রাঙ্গামাটির নানিয়ারচরে পাহাড়ি দুই গ্রুপের 'বন্দুকযুদ্ধে' নিহত ২ | হাইকোর্ট বিভাগে স্থায়ী হিসেবে ৫ বিচারপতির শপথ গ্রহণ | দেশে ফিরলেন সোমালিয়ায় অপহৃত ৭ বাংলাদেশি নাবিক

এলো সেই মাহেন্দ্রক্ষণ

দেবব্রত মুখোপাধ্যায়

"আজি এ প্রভাতে রবির কর

কেমনে পশিল প্রাণের পর,

কেমনে পশিল গুহার আঁধারে প্রভাতপাখির গান!

না জানি কেন রে এত দিন পরে জাগিয়া উঠিল প্রাণ।

জাগিয়া উঠেছে প্রাণ,

ওরে উথলি উঠেছে বারি,

ওরে প্রাণের বাসনা প্রাণের আবেগ রুধিয়া রাখিতে নারি।"

- রবীন্দ নাথ ঠাকুর; নির্ঝরের স্বপ্নভঙ্গ

অবশেষে চার বছর ঘুরে আবারও সেই মহা উন্মাদনা, সেই মহাযজ্ঞ এবং সেই মহা উত্সবের সামনে দাঁড়িয়েছি আমরা। আমরা একবার ধর্ম, বর্ণ, মত, পথ, জাতি নির্বিশেষে সারা পৃথিবীর মানুষ একসুরে মেতে ওঠার পালা। আবারও সবাই মিলে একটা মাস ধরে ফুটবলের সুরে কথা বলার পালা শুরু হল। আরও একবার সবাইকে নিমন্ত্রণ, সবাইকে স্বাগত বিশ্বের বৃহত্তম এই মিলনমেলায়। ফুটবল বিশ্বকাপ কেন পৃথিবীর এই বৃহত্তম আয়োজন, কিভাবে সে আমাদের সবাইকে এক করে ফেলে; সেটা আজকে আর বুঝিয়ে বলার দরকার নিশ্চয়ই নেই। পৃথিবীর এক প্রান্তে, এই বাংলাদেশে বসেও আমরা ফুটবল বিশ্বকাপের সেই নাচন টের পাই রক্তে। তারপরও একটু যুক্তি দিয়েও বোঝার চেষ্টা করতে পারি আমরা। পৃথিবীতে এমন মহাযজ্ঞ কম হয় না। আরও অনেক খেলার বৈশ্বিক আসর হয়, ক্রীড়া জগতের মহত্তম আয়োজন অলিম্পিক হয়; তারপরও ফিফা বিশ্বকাপ কেন সেরা?

এই শ্রেষ্ঠত্বের প্রথম কারণটা ঠিক পাবেন ছোট্ট একটা পরিসংখ্যানে। জাতিসংঘের সদস্য রাষ্ট্র পৃথিবীতে ১৯৩টি। আর বিপরীতে ফুটবলের বৈশ্বিক নিয়ন্ত্রক সংস্থা ফিফার সদস্যসংখ্যা ২০৯টি!

মজার ব্যাপার হল, আমরা জানি আর নাই জানি, এসব ক'টি দেশ কিন্তু বিশ্বকাপ খেলে!

আসলে আজ থেকে ব্রাজিলে যে আসর শুরু হচ্ছে, প্রতি চার বছরে যে আসর শুরু হয়, তার নাম 'বিশ্বকাপ ফাইনালস' বা 'বিশ্বকাপ চূড়ান্ত পর্ব'। আসল বিশ্বকাপ শুরু হয়, প্রায় প্রতিটি সদস্য রাষ্ট্রকে নিয়ে বাছাইপর্বের ভেতর দিয়ে; শুধু স্বাগতিক দেশ এবং সমস্যায় থাকা কোনো কোনো দেশ অংশ নেয় না। খুবই উল্লেখযোগ্য ব্যাপার হল, বিশ্বকাপের সামগ্রিক রেকর্ড হিসেবে ফিফা যে রেকর্ড সংরক্ষণ করে, সেখানে কিন্তু এই বাছাইপর্বের প্রতিটি ম্যাচের খুঁটিনাটিও বিশ্বকাপের রেকর্ড হিসেবে সংরক্ষিত হয়। ফলে বিশ্বকাপ শুধু এই ৩২ দেশের লড়াই নয়; এটা আমার-আপনার দেশেরও লড়াই। এই বিশ্বকাপে আমি আছি, আপনি আছেন। এই বিশ্বকাপে আমাদের ফুটবলারদের নাম আছে, আমাদের দেশের নামও আছে!

এই যে গৌরব পৃথিবীজুড়ে ফুটবল বিশ্বকাপ ছড়িয়ে দিতে পারে, এর তুলনা কোথায়! অবশ্য এসব রেকর্ড জেনে তো আর মানুষ বিশ্বকাপের আনন্দে মাতে না। ফলে এসব রেকর্ড দিয়ে এই মেতে ওঠার ব্যাখ্যাও পাওয়া যাবে না। বিশ্বকাপের আনন্দে মেতে ওঠাটা এক ব্যাখ্যাতীত ব্যাপার। কেন মির পায়ের জাদু দেখে আপনার চোখে পানি আসবে, কেন নেইমারের খেলা দেখে আপনি মোহাবিষ্ট হবেন, কেন আফ্রিকার কোনো এক খেলোয়াড়ের উদযাপন দেখে আপনি দরাজ গলায় হেসে উঠবেন, কেন প্রিয় দলের হার দেখে হাউ মাউ করে কাঁদবেন; এর কোনো ব্যাখ্যা হয় না।

তাই আসুন, ব্যাখ্যা ছাড়াই আরেকবার মেতে উঠি। অবশ্য এই মেতে ওঠা ব্যাপারটা চলতি বিশ্বকাপে একটু প্রশ্নের মধ্যে পড়ে গেছে। খোদ ব্রাজিলই যে পুরোপুরি মেতে উঠছে না!

ব্রাজিল হল ফুটবলতীর্থ। সারা পৃথিবীর চরম ব্রাজিলবিদ্বেষী মানুষটিও মানেন, ফুটবলের এক প্রতিশব্দের নাম ব্রাজিল। পৃথিবীর যে প্রান্তেই ফুটবল হোক না কেন, ব্রাজিলের মানুষ আমাজন থেকে কোপাকাবানা বিচ; সব জায়গাতে উত্সবে মাতেন। আমরা বড়ই হয়েছি ব্রাজিলের উত্সবের রঙ দেখতে দেখতে। আজ সেই ব্রাজিলের নিজের আঙিনায় যখন বিশ্বকাপ; তখন সবচেয়ে ফুটবলপ্রেমী এই জাতিটি একটু যেন ম্লান হয়ে আছে। কেন? কারণ, অর্থনৈতিক বৈষম্য আর বিশাল ব্যয়ের চাপে কষ্টে পড়ে যাওয়া ব্রাজিলিয়ানদের বিক্ষোভ আর প্রতিবাদ। আমরা একটু ভেবে দেখতে পারি, সেজন্য আদৌ কী বিশ্বকাপের রঙ ম্লান হয়ে যাবে?

মনে হয়, না।

ব্রাজিলে যে অর্থনীতিতে, স্বাস্থ্যখাতে ও শিক্ষাখাতে সমস্যা, এটা কিন্তু বিশ্বকাপের সময়ই তৈরি হয়নি। যদিও ব্রাজিল পৃথিবীর সপ্তম বৃহত্তম অর্থনৈতিক শক্তিধর দেশ। কিন্তু অর্থনীতিবিদরা বলেন, ব্রাজিলের ওপরে ফাঁপা একটা সমৃদ্ধ চেহারা; ভেতরে কোটি কোটি অভুক্ত মানুষ। এই ব্রাজিলে আছে ৪৬ জন বিলিয়নিয়ার। আবার এই দেশেই ১৬ মিলিয়ন মানুষের মাসিক আয় ৪৪ ডলারেরও কম। মানে, ওখানে সমস্যাটা মারাত্মক অর্থনৈতিক বৈষম্যের এবং রাজনীতিবিদদের লুটপাটের। এমন একটা দেশে একটা মেগা ইভেন্ট আয়োজন করতে গেলে এই সমস্যার মুখোমুখি হতেই হবে।

হ্যাঁ, বিশ্বকাপ উপলক্ষে এই কোটি কোটি ডলার যে ব্যয় করছে ব্রাজিল সরকার, সেটা সাধারণ করদাতাদের মাথার ওপর দিয়েই যাচ্ছে। ফলে এই সময়টাতে তারা বাড়তি ক্ষুব্ধ হবেন, এই স্বাভাবিক। তবে এটাও ঠিক যে বিশ্বকাপের এই বিপুল ব্যয়ের বিপরীতে আয়েরও চিত্র আছে। পর্যটন খাতে কয়েক বিলিয়ন ডলার নিট লাভ করবে ব্রাজিল। বলা হচ্ছে, এই ব্যয়ের বিপরীতে ব্রাজিল প্রায় ১৬.৩ বিলিয়ন ডলার পর্যটন ব্যবসা করবে। তারপরও বিশ্বকাপ উপলক্ষে যাওয়া লাখো লাখো পর্যটকের হাত থেকে বেরোনো ডলার খুচরা ব্যবসায়ীদের হাত পর্যন্ত পৌঁছাবে, এই উপলক্ষে সাময়িক হলেও হাজার হাজার কর্মসংস্থান তৈরি হবে। ফলে সাধারণ মানুষ এই অর্থনৈতিক ঘুর্ণনের একেবারে বাইরে থাকবেন, তা নয়। তবে এটাই ঠিক যে, বিশ্বকাপে কোনো লাভ ব্রাজিলিয়ানদের হোক ছাই নাই হোক, আগের সেই বৈষ্যমের অবসান হবে না। এখন কথা হল, বিশ্বকাপের দায় কী কোনো দেশে বৈষম্য বা সাধারণ মানুষের ক্ষুধা মেটানো? না। বিশ্বকাপের দায় বিশ্বকে ফুটবল আনন্দ দেয়া। আর সেই আনন্দ পৃথিবীর সবচেয়ে বেশি পেতে জানে ব্রাজিলিয়ানরা।

আমরা নিশ্চিত, আজ রাতেই যখন সাও পাওলোতে বেজে উঠবে সাম্বার সুর, আজ রাতেই যখন সাও পাওলো রঙিন হয়ে উঠবে লাতিন আলোতে; বদলে যাবে সব। নেইমার আজ রাতে যেই বলে প্রথম লাথিটা মারবেন, যেই বল নিয়ে ছুট দেবে অস্কার; বদলে যাবে পৃথিবীর চেহারা। সব ভুলে যাবেন ব্রাজিলিয়ানরা। সব কষ্ট একটা মাসের জন্য তোলা থাকবে। ব্রাজিল আরও একবার মেতে উঠবে সাম্বার সুরে।

আমরা তাহলে আর কীসের অপেক্ষায় বসে আছি! আসুন, আর কোনো জটিলতা নয়, আর কোনো নেতিবাচক ভাবনা নয়। এবার সারা পৃথিবীর সঙ্গে আমরাও ফুটবল-আনন্দে মেতে উঠি, করি ফুটবল উল্লাস।

font
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন
প্রশ্নপত্র ফাঁস রোধে আইন করে কঠোর শাস্তি করার পাশাপাশি তথ্যপ্রযুক্তি বাড়ানোর আশ্বাস দিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী নূরুল ইসলাম নাহিদ। এই আশ্বাস দ্রুত বাস্তবায়িত হবে কি?
9 + 8 =  
ফলাফল
আজকের নামাজের সময়সূচী
ফেব্রুয়ারী - ১৯
ফজর৫:১৩
যোহর১২:১৩
আসর৪:২০
মাগরিব৫:৫৯
এশা৭:১২
সূর্যোদয় - ৬:২৯সূর্যাস্ত - ০৫:৫৪
archive
বছর : মাস :
The Daily Ittefaq
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: তাসমিমা হোসেন। উপদেষ্টা সম্পাদক হাবিবুর রহমান মিলন। ইত্তেফাক গ্রুপ অব পাবলিকেশন্স লিঃ-এর পক্ষে তারিন হোসেন কর্তৃক ৪০, কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ থেকে প্রকাশিত ও মুহিবুল আহসান কর্তৃক নিউ নেশন প্রিন্টিং প্রেস, কাজলারপাড়, ডেমরা রোড, ঢাকা-১২৩২ থেকে মুদ্রিত। কাওরান বাজার ফোন: পিএবিএক্স: ৭১২২৬৬০, ৮১৮৯৯৬০, বার্ত ফ্যাক্স: ৮১৮৯০১৭-৮, মফস্বল ফ্যাক্স : ৮১৮৯৩৮৪, বিজ্ঞাপন-ফোন: ৮১৮৯৯৭১, ৭১২২৬৬৪ ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭২, e-mail: [email protected], সার্কুলেশন ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭৩। www.ittefaq.com.bd, e-mail: [email protected]
Copyright The Daily Ittefaq © 2014 Developed By :