The Daily Ittefaq
ঢাকা, শুক্রবার, ২৪ জানুয়ারি ২০১৪, ১১ মাঘ ১৪২০, ২২ রবিউল আওয়াল ১৪৩৫
সর্বশেষ সংবাদ বিশ্ব ইজতেমা শুরু, তুরাগ তীরে মুসল্লিদের ঢল | ইজতেমা প্রাঙ্গণে ২ মুসল্লির মৃত‌্যু | বিএনপিকে নাকে খত দিতে হবে : আমু | দশম জাতীয় সংসদের চিফ হুইপ হলেন আ স ম ফিরোজ | দখলকারী শক্তি পরাভূত হবেই: খালেদা জিয়া

ইসলামে দাওয়াতের গুরুত্ব

জি এম মুজিবুর রহমান 

আল্লাহর পথে দাওয়াত বা আহবান করা একটি মর্যাদাপূর্ণ কাজ। দাওয়াতের কাজ প্রত্যেক নবীর বৈশিষ্ট্য ছিল। আর মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা) তাঁর উম্মতকে তাঁর অবর্তমানে এই দাওয়াতের কাজ করার নির্দেশ দিয়ে গেছেন। দাওয়াতের ৪টি ভিত্তি রয়েছে। যা দাওয়াত সফল হওয়ার ক্ষেত্রে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। সেগুলো হলো- আহবান, আহবানকারী, আহূত ব্যক্তি ও দাওয়াতের নিয়ম পদ্ধতি। এই ৪টি বিষয় ঠিক করে নিয়ে দাওয়াত পরিচালিত হলে দাওয়াতের সফলতা আসতে পারে। দাওয়াত ও তাবলীগের মূলনীতি এবং পূর্ণাঙ্গ কার্যক্রমের পথ নির্দেশনা দিয়ে পবিত্র কুরআনে বলা হয়েছে, 'আপনার পালন কর্তার পথের প্রতি লোকদেরকে আহবান করুন জ্ঞানের কথা বুঝিয়ে ও উপদেশ শুনিয়ে। আর উত্তম পন্থায় আপনি তাদের সাথে বিতর্ক করুন। নিশ্চয়ই আপনার প্রতিপালক সে ব্যক্তি সম্পর্কে বিশেষভাবে জ্ঞাত রয়েছেন, যে ব্যক্তি তাঁর পথ থেকে বিচ্যুত্ হয়ে পড়েছে এবং তিনি সেই লোকদেরকেও ভাল করে জানেন যারা সঠিক পথে রয়েছে' (সূরা নাহাল-১২৫)। আল্লাহর পথে দাওয়াতের ক্ষেত্রে বুদ্ধিদীপ্ত বক্তব্য দিতে হবে। উপদেশমূলক কথাবার্তা বলার সময় বিনয়-নম্রতা ও শিষ্টাচারের নীতি অবলম্বন করতে হবে। জ্ঞানী ও সুধীজনদের মাঝে দাওয়াতের সময় হেকমত ও যুক্তিপূর্ণ কথা বলতে হবে আর সাধারণ মানুষের মাঝে সদুপদেশ সহকারে কথা বলতে হবে। দাঈ বা আহবানকারীকে জাতিগত বা গোত্রত গোঁড়ামি থেকে মুক্ত থাকতে হবে। দাওয়াতের বিষয় হলো ইসলাম; দাওয়াতের মাধ্যমে ইসলামের প্রতিটি হালাল বিষয় মানার আদেশ ও হারাম থেকে বিরত থাকার জন্য নিষেধ করা। যে দ্বীনে হক্কের দিকে মানুষকে ডাকা হবে সে হক্ক থেকে যেন দাঈকে কোন জাতির শত্রুতা বা মিত্রতা বিচ্যুত্ করতে না পারে। পবিত্র কোরআনে বলা হয়েছে, 'হে ঈমানদারগণ! আল্লাহর জন্য সত্য নীতির উপর স্থায়ীভাবে দণ্ডায়মান থাক এবং ইনছাফের সাক্ষ্যদাতা হও। কোন বিশেষ দলের শত্রুতা তোমাদেরকে যেন এতটা উত্তেজিত না করে যে, তোমরা ইনছাফ ত্যাগ করে ফেলবে। ন্যায়বিচার কর। এটা তাক্বওয়ার অধিক নিকটবর্তী' (সূরা মায়েদা-৮)। আল্লাহ অন্যত্র বলেন, 'অতএব, আপনি উপদেশ প্রদান করুন, আপনি তো একজন উপদেশদাতা মাত্র। আপনি তাদের কর্ম নিয়ন্ত্রক নন' (সূরা গাশিয়া-২১ ও ২২)। দাওয়াতের মূল লক্ষ্য হলো, অন্যায়, মন্দ ও ধর্মের নামে অধর্মের কাজ থেকে মানুষকে পবিত্র কোরআন ও সহীহ হাদীসের দিকে আহবান করা। এজন্য দাঈ-এর প্রথম কাজ হলো মানুষকে তাওহীদের দিকে আহবান জানানো। মহানবী (স.) যখন মুয়াজ (রা.)-কে ইয়ামানে প্রেরণ করেন তখন তাকে উদ্দেশ্য করে বলেন, 'সেখানকার অধিবাসীদেরকে সাক্ষ্য দানের প্রতি আহবান করবে যে, আল্লাহ ব্যতীত কোন উপাস্য নাই এবং আমি আল্লাহর রসূল। যদি তারা তা মেনে নেয় তবে তাদেরকে অবগত করাবে যে, আল্লাহ তা'য়ালা তাদের উপর দিন ও রাতে পাঁচ ওয়াক্ত ছালাত ফরজ করেছেন। যদি তারা সেটাও মেনে নেয় তবে তাদেরকে অবগত করাবে যে, আল্লাহ তা'য়ালা তাদের উপর তাদের সম্পদের মধ্য থেকে ছাদকাহ (যাকাত) ফরজ করেছেন, যা তাদের ধনীদের নিকট থেকে গৃহীত হয়ে দরিদ্রদের মাঝে বিতরণ করা হবে' (বুখারী হা/১৩৯৫)। দাওয়াতের কাজ অনেক ত্যাগের ও কষ্টের মাধ্যমে করতে হয়। আল্লাহর উপর গভীর ঈমান, ধৈর্য ও অনেক ত্যাগের মাধ্যমে একাজ করা সম্ভব। মুমিনের জন্য যথাসাধ্য দাওয়াতের কাজ করা কর্তব্য। পবিত্র কোরআনে আছে, 'তোমাদের মধ্যে এমন একটি দল থাকা উচিত্ যারা আহবান জানাবে সত্কর্মের প্রতি, নির্দেশ দেবে ভালো কাজের এবং বারণ করবে অন্যায় কাজ থেকে, আর তারাই হলো সফলকাম' (সূরা আল-ইমরান-১০৪)। কবি রবীন্দ্র নাথ ঠাকুর বলেন, 'মানুষ একবার জন্মায় গর্ভের মধ্যে, আবার জন্মায় মুক্ত পৃথিবীতে। মানুষের এক জন্ম আপনাকে নিয়ে, আরেক জন্ম সকলকে নিয়ে।' নিজে বাঁচার জন্য নয় বরং সকলকে নিয়ে বাঁচার চেষ্টা করতে হবে। দাওয়াতী কাজে নিজেকে সম্পৃক্ত করতে পারলে নিজের জীবনকে আরও ধর্মের প্রতি গতিশীল ও নেক আমলে পরিপূর্ণ করার সুযোগ পাওয়া যায়। জীবন থেকে ক্রমে ক্রমে অন্যায়, অপকর্ম, অসত্সঙ্গ, পাপকর্ম দূর হতে থাকে। জীবন পবিত্রময় হয়ে উঠতে পারে। আল্লাহর পথে দাওয়াত দেয়া একান্তই নেকীর কাজ। মানুষের সর্বোত্তম ও সর্বোত্কৃষ্ট কথা সেটাই যাতে অপরকে হকের দাওয়াত প্রদান করা হয়। আল্লাহর পথে আহবান করার মত উত্কৃষ্ট ও উত্তম কথা আর কিছুই হতে পারে না। মাহন আল্লাহ বলেন, 'যে আল্লাহর পথে দাওয়াত দেয়, সত্ কর্ম সম্পাদন করে এবং বলে, 'আমি মুসলিম' তার কথা অপেক্ষা উত্তম আর কার কথা হতে পারে?' (সূরা হামীম সাজদাহ-৩৩)।

font
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন
বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া বলেছেন, 'এই সরকারের আয়ু এক বছরও হবে না।' আপনিও কি তাই মনে করেন?
6 + 1 =  
ফলাফল
আজকের নামাজের সময়সূচী
আগষ্ট - ৩
ফজর৪:০৬
যোহর১২:০৫
আসর৪:৪২
মাগরিব৬:৪৩
এশা৮:০৩
সূর্যোদয় - ৫:২৯সূর্যাস্ত - ০৬:৩৮
archive
বছর : মাস :
The Daily Ittefaq
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: তাসমিমা হোসেন। উপদেষ্টা সম্পাদক হাবিবুর রহমান মিলন। ইত্তেফাক গ্রুপ অব পাবলিকেশন্স লিঃ-এর পক্ষে তারিন হোসেন কর্তৃক ৪০, কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ থেকে প্রকাশিত ও মুহিবুল আহসান কর্তৃক নিউ নেশন প্রিন্টিং প্রেস, কাজলারপাড়, ডেমরা রোড, ঢাকা-১২৩২ থেকে মুদ্রিত। কাওরান বাজার ফোন: পিএবিএক্স: ৭১২২৬৬০, ৮১৮৯৯৬০, বার্ত ফ্যাক্স: ৮১৮৯০১৭-৮, মফস্বল ফ্যাক্স : ৮১৮৯৩৮৪, বিজ্ঞাপন-ফোন: ৮১৮৯৯৭১, ৭১২২৬৬৪ ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭২, e-mail: [email protected], সার্কুলেশন ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭৩। www.ittefaq.com.bd, e-mail: [email protected]
Copyright The Daily Ittefaq © 2014 Developed By :