The Daily Ittefaq
ঢাকা, বুধবার, ২৫ ডিসেম্বর ২০১৩, ১১ পৌষ ১৪২০, ২১ সফর ১৪৩৫
সর্বশেষ সংবাদ টেস্ট ক্রিকেট থেকে বিদায় নিচ্ছেন ক্যালিস | বাগদাদে চার্চের সন্নিকটে গাড়িবোমা বিস্ফোরণ, নিহত ১৫ | কাল সারাদেশে ১৮ দলের বিক্ষোভ সমাবেশ | রাজধানীতে পেট্রোল বোমায় দগ্ধ হয়ে পুলিশের মৃত্যু | আগুনে প্রাণ গেল আরও দুই পরিবহন শ্রমিকের

অভিযাত্রায় বাধা দিলে পরিণতি ভয়াবহ: খালেদা জিয়া

ইত্তেফাক রিপোর্ট

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া দিনভর গুলশানে তার বাসভবনে অবরুদ্ধ থাকার পর সন্ধ্যায় নির্বিঘ্নে তার রাজনৈতিক কার্যালয়ে গিয়ে বড় দিনের এক সমাবেশে সরকারকে সামধান করে দিয়ে বলেছেন, ২৯ ডিসেম্বর গণতন্ত্রের অভিযাত্রায় বাধা দিবেন না। যদি আমাদের এই কর্মসূচি পালন করতে না দেয়া হয় তাহলে পরিণতি হবে ভয়াবহ, কঠিন। আমাদের কর্মসূচি শান্তিপূর্ণ। আমরা শান্তিপূর্ণভাবে সমাবেশ করব।

তিনি বলেন, যত চেষ্টাই করেন ক্ষমতায় আকড়ে থাকতে পারবেন না, থাকতে দেয়া হবে না। দেশবাসীর উদ্দেশে খালেদা জিয়া বলেন, কেউ দয়া করে ভোট কেন্দ্রে যাবেন না। তারা ১৫৪টি আসন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নিয়েছে। ৩০০টি সিট জিতে নিক তাতে কিছু হবে না।

বড় দিন উপলক্ষে বাংলাদেশ খ্রিস্টান এসোসিয়েশনের সদস্যরা এই বড় দিনের অনুষ্ঠানে যোগ দেন। বেগম খারেদা জিয়া তাদের নিয়ে বড় দিনের কেক কাটেন এবং শুভেচ্ছা বিনিময় করেন।

এদিকে মঙ্গলবার রাত দুইটা থেকে খালেদা জিয়া গুলশানের বাসভবন ফিরোজা অবরুদ্ধ করে রাখে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। সেখানে তাকে ঢুকতে দেয়নি, বের হতেও দেয়া হয়নি। দুপুরে জাতীয় সংসদের বিরোধী দলীয় চিফ হুইপ জয়নাল আবদিন ফারুক বেগম জিয়ার বাসায় ঢুকতে চাইলে পুলিশের বাধায় ফিরে যান।

অপরদিকে বেগম জিয়া রাজনৈতিক কার্যালয়ও অবরুদ্ধ করে রাখে পুলিশ। সেখানে কাউকে প্রবেশ ও বের হতে দেয়নি। সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় খালেদা জিয়া তার রাজনৈতিক কার্যালয়ে যান। সেখানে খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের পূর্বনির্ধারিত শুভেচ্ছা বিনিময় অনুষ্ঠানে অংশ নেন।

খালেদা জিয়ার তার বাসা ও অফিস পুলিশ ঘিরে রাখায় ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, এর নাম কি গণতন্ত্র? আমার বাড়ি অফিস ঘিরে রাখার মানে কী? আমরা কথা বলতে পারবো না, সমাবেশ করতে পারবো না-এটা হতে পারে না। এই সরকার চরম স্বৈরাচার। দেশের মানুষ আজ আতঙ্ক-ভীত সন্ত্রাস্ত। কেউ নিরাপদ নয়। আমরা নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন চেয়েছি। কিন্তু তারা চান কোন দল যেন নির্বাচনে অংশ না নেয়। তারা ভাগাভাগি করেছে। এ দেশ যেন জনগণের দেশ নয়। আওয়ামী লীগের পৈত্রিক সম্পত্তি হয়ে গেছে।

খালেদা জিয়া বলেন, ২৯ ডিসেম্বর আমরা শান্তিপূর্ণ সমাবেশ আহ্বানের পর থেকে সরকারের হুমকি-ধামকি শুরু হয়েছে। তারা জনগণের দল নয়, জনগণের সাথে সম্পর্ক নেই। তাদের মন্ত্রী-এমপিরা হাজার হাজার কোটি টাকার মালিক হয়েছে। তারা নিজেরা এ হিসাব দিয়েছে। যদিও এ হিসাব সঠিক নয়। সম্পদের লোভে তারা ক্ষমতা থেকে সরতে চায় না। নিরাপেক্ষ নির্বাচন করতে তারা ভয় পায়। একটা প্রহসন হয়ে গেছে এ নির্বাচন। তিনি বলেন, নির্বাচন কমিশন ব্যর্থ, মেরুদণ্ডহীন, অপদার্থ। তারা সরকারের আজ্ঞাবহ হয়ে গেছে।

প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশে খালেদা জিয়া বলেন, দেশ ও জনগণের কল্যাণ চাইলে জিদ ও প্রতারণা ছেড়ে নির্বাচনী তফসিল বাতিল করে আলোচনায় আসুন। এখনো সংবিধান সংশোধনের সুযোগ আছে। আমরা ফর্মুলা দিয়েছি। আলোচনা করে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন করুন।

খালেদা জিয়া বলেন, ২৯ ডিসেম্বর শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি হবে। সর্বস্তরের মানুষ আসবে। উত্সবমুখর পরিবেশে হবে। এই শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি কেন বাধা দিবেন। আপনারা আপনাদের অফিসের সামনে সমাবেশ করতে পারলে আমরা কেন পারবো না। তিনি বলেন, সরকার নিজেদের লোক দিয়ে বাঁচ পোড়াচ্ছে, আগুন দিচ্ছে মানুষ মারছে। এটা নতুন নয়, ১৯৯৬ সালেও তারা এটা করেছে। তাদের হাতে শুধু রক্ত। এই সরকারের অধীনে কোনো ধর্মের মানুষই নিরাপদ নয়। এ সময় তিনি সাতক্ষীরায় বর্বরতার চিত্র তুলে ধরেন।

তিনি বলেন, দিলীপ বড়ুয়ার সাথে আমার সম্পর্ক ভাল ছিল। তিনি আমার সাথে দেখা-সাক্ষাত্ করতেন। কিন্তু তাদের সঙ্গে গিয়ে সে আজ অবৈধ অনেক টাকার মালিক হয়েছেন।

বাংলাদেশ খ্রীষ্টান এসোসিয়েসনের সভাপতি এলবার্ট পি কস্টার সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন ডেবেট রোজারিও,মার্সেল এল চিলং, মিস শুভ্র, ফাদার আলবার্ট রোজারিও প্রমুখ।

সর্বশেষ আরো খবর -
font
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন
বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া বলেছেন, 'সরকারের অনড় অবস্থানের কারণে সঙ্কটের সমাধান হয়নি।' আপনিও কি তাই মনে করেন?
5 + 4 =  
ফলাফল
আজকের নামাজের সময়সূচী
নভেম্বর - ১৪
ফজর৫:১১
যোহর১১:৫৩
আসর৩:৩৮
মাগরিব৫:১৭
এশা৬:৩৪
সূর্যোদয় - ৬:৩২সূর্যাস্ত - ০৫:১২
archive
বছর : মাস :
The Daily Ittefaq
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: তাসমিমা হোসেন। উপদেষ্টা সম্পাদক হাবিবুর রহমান মিলন। ইত্তেফাক গ্রুপ অব পাবলিকেশন্স লিঃ-এর পক্ষে তারিন হোসেন কর্তৃক ৪০, কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ থেকে প্রকাশিত ও মুহিবুল আহসান কর্তৃক নিউ নেশন প্রিন্টিং প্রেস, কাজলারপাড়, ডেমরা রোড, ঢাকা-১২৩২ থেকে মুদ্রিত। কাওরান বাজার ফোন: পিএবিএক্স: ৭১২২৬৬০, ৮১৮৯৯৬০, বার্ত ফ্যাক্স: ৮১৮৯০১৭-৮, মফস্বল ফ্যাক্স : ৮১৮৯৩৮৪, বিজ্ঞাপন-ফোন: ৮১৮৯৯৭১, ৭১২২৬৬৪ ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭২, e-mail: [email protected], সার্কুলেশন ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭৩। www.ittefaq.com.bd, e-mail: [email protected]
Copyright The Daily Ittefaq © 2014 Developed By :