The Daily Ittefaq
ঢাকা, মঙ্গলবার, ৩১ ডিসেম্বর ২০১৩, ১৭ পৌষ ১৪২০, ২৭ সফর ১৪৩৫
সর্বশেষ সংবাদ বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান এম মোরশেদ খানের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা | ৩ জানুয়ারি জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

নির্বাচনী খরচের হিসাব না জানালে ৭ বছরের জেল

ইত্তেফাক রিপোর্ট

দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণকারী প্রার্থীদের খরচের হিসাব নির্বাচন কমিশনে (ইসি) জমা না দিলে প্রার্থীর দুই থেকে সর্বোচ্চ ৭ বছর পর্যন্ত জেল ও জরিমানা হতে পারে। এ জন্য সরকারিভাবে ফলাফল প্রকাশের ৩০ দিনের মধ্যে নির্বাচনী ব্যয়ের হিসাব নির্বাচন কমিশনে জমা দিতে হবে সব প্রার্থীকে। ব্যয়ের হিসার জমা দেয়ার বিষয়ে রিটার্নিং কর্মকর্তাকে নির্দেশনা দিয়ে ইসির জারি করা এক পরিপত্র থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

উপ-সচিব মিহির সারওয়ার মোর্শেদ-স্বাক্ষরিত ওই পরিপত্রে বলা হয়েছে—নির্বাচিত প্রার্থীর নাম সরকারি গেজেটে প্রকাশিত হওয়ার পর ৩০ দিনের মধ্যে প্রার্থীর নির্বাচনী এজেন্ট বা প্রার্থীকে সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে নির্বাচনী ব্যয়ের হিসাব দাখিল করতে হবে। এমনকি বিনা-প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত এবং সব পরাজিত প্রার্থীকেও তার ব্যয়েব হিসাব রিটার্নিং কর্মকর্তা এবং এর এফিডেভিটের অনুলিপি নির্বাচন কমিশনে ডাকযোগে পাঠাতে হবে। এ জন্য রিটার্নিং কর্মকর্তা সব প্রার্থীকে ব্যয়ের হিসাব দাখিল করার কথা জানিয়ে দেবেন। এর পরও কোনো প্রার্থী এ আদেশ লঙ্ঘন করলে, তা শাস্তিযোগ্য অপরাধ হিসেবে বিবেচিত হবে। আর এ অপরাধের শাস্তি হিসেবে দুই থেকে সাত বছর পর্যন্ত জেল, জরিমানা বা উভয় দণ্ডের বিধান রয়েছে। এ ক্ষেত্রে রিটার্নিং কর্মকর্তা নিজেই কমিশনের পূর্বানুমতি ছাড়াই আইন অমান্যকারী প্রার্থীর বিরুদ্ধে হাইকোর্টে মামলা করবে বলে পরিপত্রে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

এ ছাড়া, প্রার্থীদের নির্বাচনী ব্যয়ের হিসাবসহ নির্বাচনী দলিল, দস্তাবেজ রিটার্নিং কর্মকর্তা তার কার্যালয়ে এক বছর পর্যন্ত সংরক্ষণ করবেন। এই দলিল দস্তাবেজ জনসাধারণের জন্য এক শ টাকা ফি প্রদান-সাপেক্ষে উন্মুক্ত রাখা হবে।

গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ অনুসারে—প্রার্থীকে নির্বাচনী ব্যয় করার জন্য ব্যাংক হিসাব খোলা বাধ্যতামূলক। ব্যাংক হিসাব থেকেই প্রার্থীকে নির্বাচনী ব্যয় করতে হয়। এ ছাড়া, প্রতিটি খাতে ব্যায়ের ভাউচারসহ মোট হিসাব রিটানিং কর্মকর্তার কাছে দাখিল করারও বিধান রয়েছে। তবে প্রার্থীদের নির্বাচনী ব্যায়ের সীমা নির্ধারণ করা হয়েছে ২৫ লাখ টাকা। এর বেশি কোনো প্রার্থী ব্যয় করতে পারবেন না।

পর্যবেক্ষণে আশানুরূপ সাড়া মেলেনি:

নির্বাচন পর্যবেক্ষণের বিষয়ে সার্কভুক্ত দেশের কাছ থেকে এখনো আশানুরূপ সাড়া মেলেনি। এবার নির্বাচনে বিদেশি পর্যবেক্ষকদের থাকা-খাওয়াসহ আনুষঙ্গিক ব্যয়ের জন্য এক কোটি টাকা বরাদ্দ রেখেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। সার্কভুক্ত দেশগুলোর নির্বাচন কমিশনের সংগঠন 'ফোরাম অব ইলেকশন ম্যানেজমেন্ট বডিস (এফইএমবি)'-এর প্রতিনিধিরা নির্বাচন পর্যবেক্ষণে এলে তাদের জন্য এই টাকা খরচ করা হবে। এ জন্য আফগানিস্তান, ভারত, ভুটান, মালদ্বীপ, নেপাল, পাকিস্তান ও শ্রীলংকার নির্বাচন কমিশনের সাথে যোগাযোগ রাখা হচ্ছে। প্রতিটি নির্বাচন কমিশন থেকে দুজন করে প্রতিনিধি পাঠাতে অনুরোধ করা হয়েছে। সে হিসেবে মোট ১৪ জন প্রতিনিধি আসার কথা। কিন্তু এখন পর্যন্ত মালদ্বীপ, ভূটান ও নেপালের কাছ থেকে পর্যবেক্ষক পাঠানোর বিষয়ে ইতিবাচক সাড়া পাওয়া গেছে। আফগানিস্তানের সঙ্গে এখনো যোগাযোগই করতে পারেনি কমিশন। ভারত, পাকিস্তান ও শ্রীলংকা থেকে এখনো পর্যবেক্ষণের বিষয়ে সিদ্ধান্ত জানানো হয়নি। এ সব পর্যবেক্ষকের জন্য হোটেল রূপসীতে কক্ষ বরাদ্দ রাখা হয়েছে।

সর্বশেষ আরো খবর -
font
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, 'বিরোধীদল সরকারের বিরুদ্ধে নয়, জনগণের বিরুদ্ধে আন্দোলন করছে।' আপনিও কি তাই মনে করেন?
5 + 1 =  
ফলাফল
আজকের নামাজের সময়সূচী
সেপ্টেম্বর - ১৮
ফজর৪:২৯
যোহর১১:৫৩
আসর৪:১৭
মাগরিব৬:০৩
এশা৭:১৬
সূর্যোদয় - ৫:৪৫সূর্যাস্ত - ০৫:৫৮
archive
বছর : মাস :
The Daily Ittefaq
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: তাসমিমা হোসেন। উপদেষ্টা সম্পাদক হাবিবুর রহমান মিলন। ইত্তেফাক গ্রুপ অব পাবলিকেশন্স লিঃ-এর পক্ষে তারিন হোসেন কর্তৃক ৪০, কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ থেকে প্রকাশিত ও মুহিবুল আহসান কর্তৃক নিউ নেশন প্রিন্টিং প্রেস, কাজলারপাড়, ডেমরা রোড, ঢাকা-১২৩২ থেকে মুদ্রিত। কাওরান বাজার ফোন: পিএবিএক্স: ৭১২২৬৬০, ৮১৮৯৯৬০, বার্ত ফ্যাক্স: ৮১৮৯০১৭-৮, মফস্বল ফ্যাক্স : ৮১৮৯৩৮৪, বিজ্ঞাপন-ফোন: ৮১৮৯৯৭১, ৭১২২৬৬৪ ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭২, e-mail: [email protected], সার্কুলেশন ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭৩। www.ittefaq.com.bd, e-mail: [email protected]
Copyright The Daily Ittefaq © 2014 Developed By :