The Daily Ittefaq
ঢাকা, মঙ্গলবার, ৩১ ডিসেম্বর ২০১৩, ১৭ পৌষ ১৪২০, ২৭ সফর ১৪৩৫
সর্বশেষ সংবাদ বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান এম মোরশেদ খানের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা | ৩ জানুয়ারি জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

উন্নয়নশীল বিশ্ব ও গণতন্ত্রের ধারাবাহিকতা

ন তু ন প্র জ ন্মে র ভা ব না

গণতন্ত্রের ধারাবাহিকতা

রক্ষা করা

অপরিহার্য

একটি দেশ স্বাধীন হবার পর কি কি বৈশিষ্ট্য দ্বারা তাকে চিহ্নিত করব নাকি পরাধীনতার শৃঙ্খলে আবদ্ধ থাকব। অর্থনৈতিক উন্নয়ন একটি দেশের মূল চালিকাশক্তি। আর একটি কথা অর্থনৈতিক উন্নয়নের পথে যেসব বাধা আমাদের জন্য প্রতিবন্ধকতা তৈরি করছে রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতা তার মধ্যে অন্যতম। যা আমার মতো সাধারণ কোন জনগণ সহ্য করতে পারে না। উন্নয়নশীল এই দেশে কি কি প্রতিকূল অবস্থা আছে তা দূর করতে হবে। এগিয়ে যেতে হবে উন্নয়নের পথে, গড়তে হবে সোনার বাংলা। ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়তে আমাদের সবাইকে কাজ করতে হবে। দেশ উন্নয়নের ভারে সমৃদ্ধ হলে তার সুফল সবাই ভোগ করে। সফলতা বা বিফলতা বড় শক্তিশালী ধর্ম যা কেউ ঠেকাতে পারে না। সফলতা যেমন সবাইকে ভোগ করতে হবে ঠিক তেমনি বিফলতার গ্লানিও ভোগ করতে হবে। আমরা হাসতেও পারি, কাঁদতেও পারি। হাসির যেমন আওয়াজ হয় তেমনি কান্নারও আওয়াজ হয়। কিন্তু দু'টির আওয়াজ পত্রিকার শিরোনামে প্রকাশ হবার পর মিলিয়ে যায়। আমরা বড় অদ্ভুত ধর্মের চর্চা করি। দেশের উন্নয়নে সবাইকে একযোগে কাজ করতে হবে। কারণ দেশ আমার, আপনার সবার। আর সবচেয়ে বড় কথা এই দেশ আমার মা।

মো. মুজাফির হোসাইন সিদ্দিকী

অর্থনীতি (সম্মান), তৃতীয় বর্ষ

মৌলভীবাজার সরকারি কলেজ।

গণতন্ত্রের ধারাবাহিকতা

বজায় রাখতে হলে সকলকে

গণতন্ত্রমনা হতে হবে

জনগণের জানমাল নিরাপত্তার ব্যবস্থা করার কথা তো দূরে থাক, তাদের সৃষ্ট রাজনৈতিক হুংকারে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে দেশ, জাতি, সমাজ, জীবন ব্যবস্থা। আমরা জিম্মি হয়ে পড়ছি তাদের রাজনৈতিক হুংকারে। যে জনগণ সকল ক্ষমতার উত্স, সেই জনগণ আজ জিম্মি হয়ে আছে আমাদের কিছু রাজনৈতিক দলের কাছে। আজ আমরা চাই সেই গণতন্ত্র, যে গণতন্ত্রে আসবে দেশপ্রেমী, মানবপ্রেমী, কল্যাণপ্রেমী, সামপ্রদায়িকতাহীন মানুষ, যাকে আমরা সত্যিকার অর্থে "রাজনীতিবিদ বা রাষ্ট্রনায়ক" বলতে পারি। যারা আমাদের নিয়ে যাবে উন্নতির শীর্ষে, পরিচয় করিয়ে দিবে আমাদের দেশটাকে উন্নত বিশ্বের সাথে। প্রচলিত হোক ভাল রাষ্ট্রনায়কের ভালো রাষ্ট্রনীতি। আবির্ভাব ঘটুক একদল ভালো ও জ্ঞানী মানুষের। "গণতন্ত্র" শব্দটি শুধুমাত্র ব্যবহার না করে গণতান্ত্রিক অধিকারটি বিলিয়ে দিবে আমাদের মাঝে আর বজায় রাখবে গণতন্ত্রের ধারাবাহিকতা।

রফিকুল ইসলাম রাসেল

বিএসএস (স্নাতক)

আবুজর গিফারী কলেজ, ঢাকা।

গণতন্ত্রের ধারাবাহিকতা রক্ষায়

রাজনৈতিক দলকে নমনীয় ও

ভোটারদের হতে হবে সুবিবেচক

রাষ্ট্র পরিচালনার জন্য গণতন্ত্র নিঃসন্দেহে যেকোন দেশের জন্য একটি সর্বজন গ্রহণযোগ্য মাধ্যম। সেটি একটি উন্নয়নশীল দেশের জন্য কতটা জরুরি তা বাড়িয়ে বলার অপেক্ষা রাখে না। গণতন্ত্র কি? তা যদি হয় জনসাধারণ কর্তৃক দেশ শাসন? তাহলে আমরা এখন কোন অবস্থানে আছি? আমরা কি গণতান্ত্রিক পরিমন্ডলের মধ্যে আছি? কোন কোন প্রভাবশালী দল গণতন্ত্রের নামে অগণতান্ত্রিক কার্যক্রমে লিপ্ত হচ্ছে আবার যারা যখন ক্ষমতায় থাকেন তখন তারা গণতন্ত্র রক্ষায় অগণতান্ত্রিক পন্থায় সেসব কার্যক্রম প্রতিহত করার চেষ্টা করছে। দু'পক্ষই গণতন্ত্র রক্ষার পবিত্র দায়িত্ব পালন করছে। মাঝামাঝি অবস্থানে আমরা যারা সাধারণ মানুষ আছি তাদের জীবন ওষ্ঠাগত। আমার প্রশ্ন—গণতন্ত্র কাদের জন্য? যেখানে সাধারণ মানুষই নিরাপদ নয়। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ উপায় আমরা যারা সাধারণ মানুষ আছি তাদের এক্ষেত্রে প্রত্যেককে সুবিবেচক হতে হবে। রক্ষা পাবে গণতান্ত্রিক ধারাবাহিকতা।

ম. শহিদুল্লাহ,

বিবিএস(৪র্থ বর্ষ),ব্যবস্থাপনা বিভাগ

সরকারি সোহরাওয়ার্দী কলেজ, পিরোজপুর।

গণতন্ত্র রক্ষায় সাধারণ

মানুষকে জিম্মি করে

ধ্বংসযজ্ঞ চালানো হচ্ছে

আগুনে পুড়ে কয়লা হয়েছে,সিদ্ধ হয়েছে, রাজপথ লাল হয়েছে তাজা রক্তে, চার দেয়ালের মাঝে বাঁচার জন্য ছটফট করেছে, কিন্তু বাঁচতে পারেনি, নির্মম মৃত্যু তাদের আলিঙ্গন করেছে। শিশু-কিশোর, যুবক-যুবতী আর মধ্য-বয়সীরাও রেহাই পায়নি অস্বাভাবিক মৃত্যু থেকে। ২০১৩ সালে গণতান্ত্রিক সোনার বাংলার চিত্র ছিলো এমনই। দেশের ইতিহাসে ২০১৩ সালের মতো অস্বাভাবিক মৃত্যু আর কখনও হয়নি। কর্মক্ষেত্রে, রাজনীতির শিকারে অস্বাভাবিক মৃত্যুর মিছিলে যোগ দিয়েছেন ২ হাজার ২২৩ জন (২৯ ডিসেম্বর)। বর্তমানে রাজনৈতিক সহিংসতায় এ যাত্রা দীর্ঘ থেকে দীর্ঘ হচ্ছে। অবস্থাদৃষ্টে মনে হচ্ছে- মৃত্যুই আমাদের দেশের গণতান্ত্রিক রাজনীতির একমাত্র ভরসা। উন্নয়নশীল দেশে গণতন্ত্রের নামে রক্ততন্ত্র বার বার সামনে আসছে। প্রতিটি অপমৃত্যুর পেছনে রয়েছে রাজনৈতিক কোন্দল। রাজনৈতিক নেতাদের নির্দেশে সাধারণ মানুষ বা রাজনৈতিক কর্মীরা ঝাঁপিয়ে পড়ছে অন্যের উপর। গণতন্ত্র রক্ষায় সাধারণ মানুষকে জিম্মি করে ধ্বংসযজ্ঞ চালানো হচ্ছে। সহজ সরল মানুষকে গোলক ধাঁধায় ফেলে নিজেদের স্বার্থে ঠেলে দিচ্ছে সহিংসতায়। মারা যাচ্ছে মানুষ। বাধাগ্রস্ত হচ্ছে উন্নয়নশীল দেশের উন্নয়ন। মানুষ নিঃস্ব থেকে নিঃস্ব হচ্ছে।

নাজমুল হক

শিক্ষার্থী, সাংবাদিকতায় স্নাতকোত্তর ডিপ্লোমা কোর্স,

পিআইবি, ঢাকা।

font
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, 'বিরোধীদল সরকারের বিরুদ্ধে নয়, জনগণের বিরুদ্ধে আন্দোলন করছে।' আপনিও কি তাই মনে করেন?
6 + 8 =  
ফলাফল
আজকের নামাজের সময়সূচী
নভেম্বর - ১
ফজর৫:০৪
যোহর১১:৪৮
আসর৩:৩৫
মাগরিব৫:১৪
এশা৬:৩১
সূর্যোদয় - ৬:২৪সূর্যাস্ত - ০৫:০৯
archive
বছর : মাস :
The Daily Ittefaq
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: তাসমিমা হোসেন। উপদেষ্টা সম্পাদক হাবিবুর রহমান মিলন। ইত্তেফাক গ্রুপ অব পাবলিকেশন্স লিঃ-এর পক্ষে তারিন হোসেন কর্তৃক ৪০, কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ থেকে প্রকাশিত ও মুহিবুল আহসান কর্তৃক নিউ নেশন প্রিন্টিং প্রেস, কাজলারপাড়, ডেমরা রোড, ঢাকা-১২৩২ থেকে মুদ্রিত। কাওরান বাজার ফোন: পিএবিএক্স: ৭১২২৬৬০, ৮১৮৯৯৬০, বার্ত ফ্যাক্স: ৮১৮৯০১৭-৮, মফস্বল ফ্যাক্স : ৮১৮৯৩৮৪, বিজ্ঞাপন-ফোন: ৮১৮৯৯৭১, ৭১২২৬৬৪ ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭২, e-mail: [email protected], সার্কুলেশন ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭৩। www.ittefaq.com.bd, e-mail: [email protected]
Copyright The Daily Ittefaq © 2014 Developed By :