The Daily Ittefaq
ঢাকা, শনিবার, ৫ জানুয়ারি ২০১৩, ২২ পৌষ ১৪১৯, ২২ সফর ১৪৩৪
সর্বশেষ সংবাদ 'যুক্তরাষ্ট্র জিএসপি সুবিধার বিষয়টি বিবেচনা করবে' | নারী শিবির সন্দেহে আটক ৭ | তাজরীনের মালিককে গ্রেফতারের দাবি | রাজধানীতে ১২টি গাড়িতে অগ্নিসংযোগ | মালালাকে সম্মাননা জানাতে মার্কিন কংগ্রেসে বিল উত্থাপন | 'চুরি ও দুর্নীতির কারণেই বাড়াতে হয়েছে তেলের দাম' | দিল্লিতে গণধর্ষণ : ঘটনার বর্ণনা দিলেন মেয়েটির বন্ধু

দুই অধিনায়কেরই মুখে টপ অর্ডার ও বোলিং

স্পোর্টস ডেস্ক

পাকিস্তান কেন ভারতের বিপক্ষে এমন সহজ সহজ জয় পাচ্ছে? এ প্রশ্ন নিয়ে বিশেষজ্ঞরা নানা মত দিতে পারেন। তবে দুই অধিনায়ক একটা ব্যাপারে একমত, যার যার টপ অর্ডার এবং বোলিংই ঘটনাটা ঘটাচ্ছে। পাকিস্তান অধিনায়ক মিসবাহ উল হক সিরিজ জয়ের পর পরিষ্কার বলে দিলেন, ভারতের বিপক্ষে স্মরণীয় এই জয় মূলত তার টপ অর্ডার ব্যাটিং ও দুরন্ত বোলিংয়ের ফল। আর ভারতীয় অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি বলছেন, তার টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান ও সামগ্রিক বোলারদের ব্যর্থতা এই পরাজয়ের কারণ।

পাকিস্তানের দু'ম্যাচেই জয়ের নায়ক বলা যায় ওপেনার নাসির জামসেদকে। দ্বিতীয় ম্যাচে নাসিরের দ্বিতীয় সেঞ্চুরির সঙ্গে আরেক ওপেনার মোহাম্মদ হাফিজের ৭৬ রান পাকিস্তানকে এনে দিয়েছিল দুরন্ত এক শুরু। আর এই শুরুতেই ম্যাচটা খানিকটা হাতে চলে এসেছে বলে বিশ্বাস করেন অধিনায়ক মিসবাহ উল হক।

হাফিজ বলছেন, এমন একটা শুরুর পর তাদের আসলে আত্মবিশ্বাসই বেড়ে গিয়েছিল, 'আমাদের দুই ওপেনার অসাধারণ শুরু করল। এটা ঠিক যে, এই শুরুর পর মিডল অর্ডার কাজটা ভালো করতে পারেনি। তবে ওপেনাররা এতো বড় একটা পার্টনারশিপ গড়ে দেয়ায়, ছয়ের ওপরে রান তোলায় কাজটা সহজ হয়ে গিয়েছিল। বাকি কৃতিত্বটা অবশ্যই বোলারদের। অসাধারণ বল করে তারাই জয়টা এনে দিয়েছে ভারতের বিপক্ষে। ভারতের বিপক্ষে যে কোনো ফরম্যাটে যে কোনো সময় জয় পাওয়াটা গুরুত্বপূর্ণ একটা ব্যাপার।' ঠিক এই কথাগুলো উল্টে দিলে যা দাঁড়ায়, তাই বলছেন ধোনি। সেই ২০১১ বিশ্বকাপ জয়ের পর টানা ব্যর্থতার মধ্যে চলছে ধোনির অধিনায়কত্ব। সব ব্যর্থতাকে ভারতীয় সমর্থকদের মনে অন্তত ছাপিয়ে গেছে পাকিস্তানের বিপক্ষে এই পরাজয়। আর ধোনি বলছেন, এ পরাজয়ের দায় অবশ্যই টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানদের নিতে হবে, 'এখানে ভালো শুরু করাটা জরুরী ছিল। শেষ ১০ ওভারে ৮০-৯০ রান দরকার হলেও সেটা করা যেত। এমন নয় যে, টপ অর্ডার চেষ্টা করেনি। তবে তারা পারেনি এমন হয়। আর বোলাররাও পাকিস্তানী ইনিংসের শুরুতে অন্তত খুবই অসহায় ছিল।'

বোলাররা যে অসহায় ছিল, সেটা আর বলে দিতে হয় না। পাকিস্তানের উদ্বোধনী জুটিতে ১৪১ রান দেখলেই বোঝা যায়। এই দারুণ উদ্বোধনী জুটি নিয়ে পাকিস্তানী অধিনায়ক যেমন তৃপ্ত, তেমনই মিডল অর্ডারের ভূমিকায় একটু অসন্তুষ্ট। তিনি বলছিলেন, এই শুরুর ওপর দাঁড়িয়ে যে রান হওয়া উচিত ছিল, তা একদমই হয়নি। ফলে বোলাররা দারুণ কিছু না করলে এই ম্যাচ জেতা সম্ভব হত না বলে বিশ্বাস মিসবাহর, 'এই শুরুর ওপর দাঁড়িয়ে স্কোর বোর্ডে অবশ্যই ২৯০ থেকে ৩০০ রান থাকা উচিত ছিল। আমরা যে ২৫০ রান করলাম, ভারতের বিপক্ষে এটা কখনোই উইনিং স্কোর হতে পারে না। আমরা জানতাম, এই ম্যাচ বের করতে হলে বোলারদের অসাধারণ কিছু করতে হবে। বোলাররা শুধু নিয়মিত বিরতিতে উইকেট নিয়েছে, তাই নয়; তারা রানটাও দারুণভাবে চেপে ধরে রেখেছিল।'

অবশ্য ধোনিও বোলারদের কিছু প্রশংসা করছেন। বিশেষ করে পাকিস্তানী ইনিংসটা তার বোলাররা যেভাবে হঠাত্ গুড়িয়ে দিয়েছেন, তাতে ধোনি খুবই আনন্দিত ছিলেন, 'বোলাররাই আমাদের যা একটু খেলায় ফিরিয়ে এনেছিল। ওদের ইনিংসের দ্বিতীয় অংশে আমাদের স্পিনাররা ভালো করছিল। ফাস্ট বোলাররাও উইকেট থেকে যতোটা সম্ভব পেস-বাউন্স তুলছিল। ফলে আমরা বেশ খেলায় ফিরে এসেছিলাম। কিন্তু শুরুতে ওভাবে কয়েকটা উইকেট হারিয়ে ফেলায় আমরা আর ঘুরে দাঁড়াতে পারিনি।' আর এই ঘুরে না দাঁড়ানোই পাকিস্তান পেয়ে গেল আনন্দে ফেটে পড়ার মতো এক উপলক্ষ। এখন মিসবাহরা এই উপলক্ষটা আরও দীর্ঘায়িত করারই পরিকল্পনা আটছেন।

এই পাতার আরো খবর -
font
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন
এবার একুশে বইমেলায় কোন সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও রাজনৈতিক সংগঠন স্টল দিতে পারবে না। বাংলা একাডেমীর এই সিদ্ধান্ত যৌক্তিক বলে মনে করেন?
4 + 7 =  
ফলাফল
আজকের নামাজের সময়সূচী
জুলাই - ২৩
ফজর৩:৫৯
যোহর১২:০৫
আসর৪:৪৪
মাগরিব৬:৪৯
এশা৮:১০
সূর্যোদয় - ৫:২৪সূর্যাস্ত - ০৬:৪৪
archive
বছর : মাস :
The Daily Ittefaq
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: তাসমিমা হোসেন। উপদেষ্টা সম্পাদক হাবিবুর রহমান মিলন। ইত্তেফাক গ্রুপ অব পাবলিকেশন্স লিঃ-এর পক্ষে তারিন হোসেন কর্তৃক ৪০, কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ থেকে প্রকাশিত ও মুহিবুল আহসান কর্তৃক নিউ নেশন প্রিন্টিং প্রেস, কাজলারপাড়, ডেমরা রোড, ঢাকা-১২৩২ থেকে মুদ্রিত। কাওরান বাজার ফোন: পিএবিএক্স: ৭১২২৬৬০, ৮১৮৯৯৬০, বার্ত ফ্যাক্স: ৮১৮৯০১৭-৮, মফস্বল ফ্যাক্স : ৮১৮৯৩৮৪, বিজ্ঞাপন-ফোন: ৮১৮৯৯৭১, ৭১২২৬৬৪ ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭২, e-mail: [email protected], সার্কুলেশন ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭৩। www.ittefaq.com.bd, e-mail: [email protected]
Copyright The Daily Ittefaq © 2014 Developed By :