The Daily Ittefaq
ঢাকা, রবিবার, ০৫ জানুয়ারি ২০১৪, ২২ পৌষ ১৪২০, ০৩ রবিউল আওয়াল ১৪৩৫
সর্বশেষ সংবাদ বেসরকারিভাবে প্রাপ্ত ফলাফল: আওয়ামী লীগ (নৌকা) ১০৩টি, জাতীয় পার্টি (লাঙ্গল) ১২টি, অন্যান্য ২২টি

তবু নির্বাচন প্রতিহতের ডাক

চলছে হরতাল-অবরোধ-অবস্থান-মার্চ ফর ডেমোক্রেসি

ইত্তেফাক রিপোর্ট

দেশে এ মুহূর্তে তিন ধরনের আন্দোলন কর্মসূচি চলছে। প্রথমত: ১ জানুয়ারি থেকে চলছে অনির্দিষ্টকালের অবরোধ। দ্বিতীয়ত: গতকাল শনিবার ভোর থেকে চলছে ৪৮ ঘন্টার হরতাল। তৃতীয়ত: রাজপথ, রেলপথ ও নৌপথে অবস্থান। বিএনপি নেতৃত্বাধীন ১৮ দলীয় জোটের এ ধরনের আন্দোলন কর্মসূচিকে কেন্দ্র করে জ্বালাও-পোড়াও-নাশকতা এখন নিত্যদিনের ঘটনায় পরিণত হয়েছে।

আর এ ধরনের আন্দোলন কর্মসূচির মধ্যে আজ রবিবার দেশে দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। প্রতিদ্বন্দ্বী না থাকায় ইতিমধ্যে ১৫৩টি আসনে প্রার্থীরা বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচন হয়েছেন। বাকি ১৪৭টি আসনে আজ ভোট গ্রহণ হচ্ছে।

প্রধান বিরোধী দল বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান সর্বশেষ গতকাল শনিবার এক ভিডিও বার্তায় দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে একদলীয় আখ্যায়িত করে সেটিকে প্রতিহত করার ডাক দিয়েছেন। আহ্বান জানিয়েছেন ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনে ঝাঁপিয়ে পড়ার।

বিরোধী দলীয় নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া গত ২৪ ডিসেম্বর এক সংবাদ সম্মেলনে বর্তমান সরকারকে 'অবৈধ' হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন। একই সঙ্গে তিনি এ 'অবৈধ' সরকারকে অসহযোগিতা করতে সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ সাধারণ মানুষের প্রতি আহ্বান জানান। তিনি ৫ জানুয়ারির নির্বাচনকে প্রহসন হিসেবে আখ্যায়িত করে বলেন, দেশবাসী এ নির্বাচনকে ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যান করেছে। এ নির্বাচন দেশে-বিদেশে কোথাও গ্রহণযোগ্যতা পাবে না।

গত কয়েকদিনের খবর বিশ্লেষণ করলে দেখা যায়- বিরোধী দল বলছে, ৫ জানুয়ারির এ নির্বাচন জনগণ কর্তৃক প্রত্যাখ্যাত হয়েছে। তারা বলেছেন, একদলীয় প্রহসনের নির্বাচনে কেউ ভোট কেন্দ্রে যাবেন না। সর্বশেষ বিরোধী দলীয় নেত্রী বেগম খালেদা জিয়াও এ নির্বাচন বর্জন এবং প্রতিহত করার জন্য দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন এক বিবৃতির মাধ্যমে। তিনি বলেছেন, ৫ জানুয়ারি যা হচ্ছে তাকে কেউ নির্বাচন মনে করছেন না।

এর আগে গত ২৫ অক্টোবর বিরোধী দলীয় নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া বলেছিলেন, এখন থেকে এ সরকার অবৈধ হয়ে গেছে। কারণ হিসেবে তিনি উল্লেখ করেন যে, সংবিধান অনুসারে সংসদের মেয়াদ শেষ হওয়ার পূর্ববর্তী ৯০ দিনের মধ্যে নির্বাচন হতে হবে। আর ওই সময় বর্তমান সরকারের ক্ষমতায় থাকার কোন অধিকার নেই।

বিরোধী দলীয় নেত্রী ওই বক্তৃতা দিলেও এরপর গত দুই মাসে বিরোধী দলের সদস্যদের কেউই জাতীয় সংসদ থেকে পদত্যাগ করেননি। বিরোধী দলীয় নেত্রী, বিরোধী দলের চিফ হুইপ, হুইপ, সংসদ সদস্য— সবাই রয়েছেন বহাল তবিয়তে। এদিকে তত্ত্বাবধায়ক সরকার ইস্যু বিরোধী দলের হাতে থাকলেও এ ইস্যুতে নেতা-কর্মী-সমর্থকদের মাঠে নামাতে ব্যর্থ হন তারা। বরং জোটের একটি শরীক দলের প্রতি বিএনপির নির্ভরতা বেড়েছে।

এ অবস্থায় আজকের নির্বাচন প্রতিহত করার ডাক দিয়েছে বিএনপি। এ ব্যাপারে বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ড. ওসমান ফারুক সাংবাদিকদের বলেন, দেশের মানুষ, সুশীল সমাজ, বিদেশি বন্ধুদের বৃদ্ধাঙ্গুলী দেখিয়ে এ সরকার আজ একদলীয় নির্বাচন করছে। সে কারণেই বিএনপি নির্বাচনে অংশ না নিতে সকলের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছে। তিনি বলেন, বিরোধী দলীয় নেত্রীকে গৃহবন্দী করে দেশে বিশ্বাসযোগ্য নির্বাচন হতে পারে না। বিরোধী দলীয় নেত্রী তাই নির্বাচন বর্জন ও প্রতিহত করার জন্য দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

জনপ্রিয় লেখক অধ্যাপক জাফর ইকবাল অবশ্য মনে করেন, জামায়াতে ইসলামীকে রক্ষার জন্যই ভোট প্রতিহত করার ডাক দিয়েছে বিএনপি। যতদিন যুদ্ধাপরাধীরা বিএনপির সঙ্গে থাকবে ততদিন এ সংকট থাকবেই। কারণ যুদ্ধাপরাধীদের বিচার নিয়ে কোন আপস হতে পারে না। তিনি বলেন, মার্চ ফর ডেমোক্রেসি কর্মসূচির পর ভোট প্রতিহত করার ডাক বেমানান।

আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মণ্ডলীর সদস্য ও নির্বাচনকালীন সরকারের মন্ত্রী তোফায়েল আহমেদের মতে, এখানে গণতন্ত্রের সংকট নেই। সংকট হলো বিরোধী দলের। যুদ্ধাপরাধী জঙ্গীদের সঙ্গ নিয়ে তারা পথ হারিয়ে ফেলেছেন। আর সে কারণেই অগণতান্ত্রিক ভাষায় এখন তারা নির্বাচন প্রতিহত করতে চাইছেন। ভোট কেন্দ্রে আগুন দিচ্ছেন, মানুষ পুড়িয়ে মারার চেষ্টা করছেন। আলোচনায় না বসে তারা সন্ত্রাসের পথ বেছে নিয়েছেন। এর জবাব জনগণই দেবে।

এই পাতার আরো খবর -
font
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন
পরিবেশ মন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেছেন, '৫ জানুয়ারি নির্বাচন পরবর্তী দুই সপ্তাহের মধ্যে চলমান সন্ত্রাস নির্মূল করা হবে।' আপনি কি মনে করেন এটা সম্ভব হবে?
8 + 3 =  
ফলাফল
আজকের নামাজের সময়সূচী
জুন - ১৮
ফজর৩:৪৪
যোহর১২:০০
আসর৪:৪০
মাগরিব৬:৫০
এশা৮:১৫
সূর্যোদয় - ৫:১২সূর্যাস্ত - ০৬:৪৫
archive
বছর : মাস :
The Daily Ittefaq
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: তাসমিমা হোসেন। উপদেষ্টা সম্পাদক হাবিবুর রহমান মিলন। ইত্তেফাক গ্রুপ অব পাবলিকেশন্স লিঃ-এর পক্ষে তারিন হোসেন কর্তৃক ৪০, কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ থেকে প্রকাশিত ও মুহিবুল আহসান কর্তৃক নিউ নেশন প্রিন্টিং প্রেস, কাজলারপাড়, ডেমরা রোড, ঢাকা-১২৩২ থেকে মুদ্রিত। কাওরান বাজার ফোন: পিএবিএক্স: ৭১২২৬৬০, ৮১৮৯৯৬০, বার্ত ফ্যাক্স: ৮১৮৯০১৭-৮, মফস্বল ফ্যাক্স : ৮১৮৯৩৮৪, বিজ্ঞাপন-ফোন: ৮১৮৯৯৭১, ৭১২২৬৬৪ ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭২, e-mail: [email protected], সার্কুলেশন ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭৩। www.ittefaq.com.bd, e-mail: [email protected]
Copyright The Daily Ittefaq © 2014 Developed By :