The Daily Ittefaq
ঢাকা, শনিবার, ১৮ জানুয়ারি ২০১৪, ০৫ মাঘ ১৪২০, ১৬ রবিউল আওয়াল ১৪৩৫
সর্বশেষ সংবাদ সামপ্রদায়িক সন্ত্রাস বন্ধে আইন করতে হবে: ইমরান এইচ সরকার | যুদ্ধাপরাধীদের বিচারপ্রক্রিয়া নিয়ে ভবিষ্যতে আর কোনো মন্তব্য করবে না পাকিস্তান | ফেব্রুয়ারিতে উপজেলা নির্বাচন: সিইসি | নাটোরে ইউপি চেয়ারম্যান খুন | সাতক্ষীরার যৌথ বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে নিহত ১

ষষ্ঠ শ্রেণির সৃজনশীল প্রশ্নোত্তর

'রাঁচি ভ্রমণ'

মো. সুজাউদ দৌলা সিনিয়র প্রভাষক(বাংলা) রাজউক উত্তরা মডেল কলেজ, ঢাকা

১। উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর লেখ :

দীর্ঘ ভ্রমণ — ঢাকা থেকে সেন্টমার্টিন। চারদিকে অসংখ্য দর্শনার্থী। শীতকাল হওয়ায় লোকজন ছুটি নিয়ে পরিবারসহ ঘুরতে বেরিয়েছে। যখন সেন্টমার্টিনে প্রবেশ করলাম তখন দুপুর। অপরিচিত জায়গা — এদিক ওদিক জিজ্ঞেস করে প্রায় দুই ঘণ্টা অতিক্রম করলাম, কিন্তু থাকার বন্দোবস্ত করতে পারলাম না। চড়ামূল্যে সব থাকার জায়গা দখল হয়ে গেছে। নিরুপায় হয়ে চার বন্ধু সিন্ধান্ত নিলাম যে, বাইরে রাত কাটাব। দ্বীপের এক পাশটায় নারিকেল তলায় থাকার বন্দোবস্ত করে রাত কাটানোর প্রস্তুতি নিলাম।

ক. রামগড়ের পর কয় মাইল রাস্তা বিপদসংকুল?

খ. "নিরাশ মনে আমরা রেলওয়ে স্টেশনে রাত্রিযাপনের সংকল্প করছি" — এরূপ সংকল্প করার কারণ ব্যাখ্যা কর।

গ. উদ্দীপকের সাথে 'রাঁচি ভ্রমণ' ভ্রমণকাহিনীর বৈসাদৃশ্য দেখাও।

ঘ. উদ্দীপকটি 'রাঁচি ভ্রমণ' ভ্রমণকাহিনীর সাথে একাত্মতা পোষণ করলেও উদ্দীপকের উপসংহার তা করে না। — যথার্থতা নিরূপণ কর।

প্রশ্নের উত্তর :

ক. রামগড়ের পর প্রায় ১০-১২ মাইল রাস্তা বিপদসংকুল।

খ. "নিরাশ মনে আমরা রেলওয়ে স্টেশনে রাত্রিযাপনের সংকল্প করছি" — লেখকের এরূপ সংকল্প করার কারণ হলো— লেখক রাত্রিযাপনের জন্য আর কোথাও স্থান খুঁজে পান নি। সুবর্ণরেখা নদী অতিক্রম করে অন্ধকার হয়ে যাওয়ায় থাকার জন্য লেখক ও তার সহযাত্রীরা বিভিন্ন দিকে খোঁজাখুজি করে বাংলোয় গেলেন। কিন্তু সেখানে থাকার কোনো স্থান ছিল না। অবশেষে লেখক এক আত্মীয়ের শরণাপন্ন হলেন। কিন্তু তারাও থাকার স্থান খুঁজে পেতে ব্যর্থ হলেন। পরিশেষে লেখক ও তার সহযাত্রীরা নিরুপায় হয়ে রেলওয়ে স্টেশনে থাকার সংকল্প করলেন।

গ.উদ্দীপকের লেখক ও তার বন্ধুরা সেন্টমার্টিনে গিয়ে থাকার কোনো স্থান পেলেন না। আর 'রাঁচি ভ্রমণ' ভ্রমণকাহিনীর লেখক ও তার বন্ধুরা রাত্রিযাপনের স্থান অবশেষে খুঁজে পেয়েছেন, যা উদ্দীপকের সাথে বৈসাদৃশ্য সৃষ্টি করে। অনেক দীর্ঘ আর ক্লান্তিকর ভ্রমণের পর উদ্দীপকের লেখক ও তার বন্ধুরা যখন সেন্টমার্টিনে পৌঁছাল, তখন দুপুর বেলা। সারাদিন খুঁজে তারা রাতে থাকার স্থানের সংকুলান করতে পারল না। যেহেতু অপরিচিত জায়গা, তাই তাদের প্রতি কেউ দরদ দেখাতে এলো না। ফলে নিরুপায় হয়ে তারা দ্বীপের নির্জন নারকেল গাছের নিচে রাত কাটানোর সিদ্ধান্ত নিল। 'রাঁচি ভ্রমণ' ভ্রমণকাহিনীতেও লেখকের রাত্রিযাপনের বিড়ম্বনা খুঁজে পাওয়া যায়। লেখক ও তার বন্ধুরা সুবর্ণরেখা নদী অতিক্রম করলেন। সন্ধ্যা হয়ে যাওয়ায় তারা বাংলোয় গেলেন। সেখানে প্রচুর মানুষ রয়েছে। ফলে বাধ্য হয়ে অন্যত্র বাসার জন্য হানা দিতে হলো। কিন্তু কোথাও বাসা পাওয়া গেল না। এক আত্মীয় চেষ্টা করেও বাসা জোগাড় করতে পারলেন না। অবশেষে লেখকরা যখন রেলওয়ে স্টেশনে রাত্রিযাপনের উদ্যোগ করছিলেন তখন বাবু সত্ নারায়ণ নামের একজন লোক এসে তাদেরকে নিজের বাসায় থাকার আমন্ত্রণ জানাল। এখানেই উদ্দীপকের সাথে 'রাঁচি ভ্রমণ' ভ্রমণকাহিনী বৈসাদৃশ্যের সৃষ্টি করে।

ঘ. উদ্দীপকে দেখা যায় যে, লেখক সেন্টমার্টিনে গিয়ে কোনো বাসা-ই খুঁজে পায় নি রাত্রিযাপনের জন্য। আর 'রাঁচি ভ্রমণ' ভ্রমণকাহিনীতে দেখা যায় লেখক রাতে থাকার জন্য বাসা খুঁজে পেয়েছেন। সুতরাং বলা যায়, উদ্দীপক 'রাঁচি ভ্রমণ' ভ্রমণকাহিনীর সাথে একাত্মতা পোষণ করলেও উপসংহার তা করে না। মানুষ অপরিচিত স্থানে গেলে বিপদে পড়ার আশঙ্কা থাকে, এটাই স্বাভাবিক। তবে ভাগ্য কখনো কখনো কাউকে সাহায্য করে থাকে। যেমন- উদ্দীপকের লেখক অপরিচিত স্থানে গিয়ে থাকার স্থান খুঁজে পেল না। আর ভাগ্যও তাকে সাহায্য করল না। কিন্তু 'রাঁচি ভ্রমণ' ভ্রমণকাহিনীতে লেখকের সুপ্রসন্ন ভাগ্যের পরিচয় পাওয়া যায়। উদ্দীপকের লেখক যখন জাহাজঘাটে নামলেন, তখন দুপুর। তারা গিয়েই বাসা খোঁজার কাজ করলেন। কিন্তু প্রচুর দর্শনার্থী থাকায় তারা থাকার জন্য কোনো বাসা খুঁজে পেলেন না। নিরুপায় হয়ে লেখক ও তার বন্ধুরা দ্বীপের খোলা পরিবেশে নারিকেল গাছের নিচে রাত কাটানোর সিদ্ধান্ত নিলেন। 'রাঁচি ভ্রমণ' ভ্রমণকাহিনীতে দেখা যায় যে, লেখক ও তার বন্ধুরা যখন মোটর চালিয়ে সুবর্ণরেখা নদী অতিক্রম করলেন তখন সন্ধ্যা ঘনিয়েছে। সমতলভূমিতে লোকালয় থাকায় তারা সেখানে থাকার সিদ্ধান্ত নিলেন। বাংলোয় গিয়ে দেখলেন যে, সেখানে রাত্রিযাপনের অনুকূল সামান্যতম জায়গাও নেই। অন্য কোথাও তারা বাসা খুঁজে পেলেন না। ফলে নিরুপায় হয়ে রেলওয়ে স্টেশনে রাত্রিযাপনের উদ্যোগ করলেন। এমন সময় জনৈক সত্নারায়ণ এসে লেখক ও তার বন্ধুদেরকে তার বাড়িতে থাকার আমন্ত্রণ জানালেন। সুতরাং দেখা যায় যে, উদ্দীপকটি 'রাঁচি ভ্রমণ' ভ্রমণকাহিনীর সাথে একাত্মতা পোষণ করলেও উদ্দীপকের উপসংহার তা করে না।

font
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন
ইইউ পার্লামেন্টে বাংলাদেশ বিষয়ে পাস হওয়া এক প্রস্তাবে বলা হয়েছে, 'যেসব রাজনৈতিক দল সন্ত্রাসী তত্পরতা চালাচ্ছে তাদের নিষিদ্ধ ঘোষণা করা উচিত।' আপনিও কি তাই মনে করেন?
7 + 8 =  
ফলাফল
আজকের নামাজের সময়সূচী
নভেম্বর - ১
ফজর৫:০৪
যোহর১১:৪৮
আসর৩:৩৫
মাগরিব৫:১৪
এশা৬:৩১
সূর্যোদয় - ৬:২৪সূর্যাস্ত - ০৫:০৯
archive
বছর : মাস :
The Daily Ittefaq
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: তাসমিমা হোসেন। উপদেষ্টা সম্পাদক হাবিবুর রহমান মিলন। ইত্তেফাক গ্রুপ অব পাবলিকেশন্স লিঃ-এর পক্ষে তারিন হোসেন কর্তৃক ৪০, কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ থেকে প্রকাশিত ও মুহিবুল আহসান কর্তৃক নিউ নেশন প্রিন্টিং প্রেস, কাজলারপাড়, ডেমরা রোড, ঢাকা-১২৩২ থেকে মুদ্রিত। কাওরান বাজার ফোন: পিএবিএক্স: ৭১২২৬৬০, ৮১৮৯৯৬০, বার্ত ফ্যাক্স: ৮১৮৯০১৭-৮, মফস্বল ফ্যাক্স : ৮১৮৯৩৮৪, বিজ্ঞাপন-ফোন: ৮১৮৯৯৭১, ৭১২২৬৬৪ ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭২, e-mail: [email protected], সার্কুলেশন ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭৩। www.ittefaq.com.bd, e-mail: [email protected]
Copyright The Daily Ittefaq © 2014 Developed By :