The Daily Ittefaq
ঢাকা, শনিবার, ১৮ জানুয়ারি ২০১৪, ০৫ মাঘ ১৪২০, ১৬ রবিউল আওয়াল ১৪৩৫
সর্বশেষ সংবাদ সামপ্রদায়িক সন্ত্রাস বন্ধে আইন করতে হবে: ইমরান এইচ সরকার | যুদ্ধাপরাধীদের বিচারপ্রক্রিয়া নিয়ে ভবিষ্যতে আর কোনো মন্তব্য করবে না পাকিস্তান | ফেব্রুয়ারিতে উপজেলা নির্বাচন: সিইসি | নাটোরে ইউপি চেয়ারম্যান খুন | সাতক্ষীরার যৌথ বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে নিহত ১

মূত্রথলির ক্যান্সার

ডাঃ মুহাম্মদ হোসেন  সহযোগী অধ্যাপক, ইউরোলজি বিভাগ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়। চেম্বার:ঢাকা রেনাল এন্ড জেনারেল হাসপাতাল, ১৬১/এ, লেক সার্কাস, কলাবাগান, ঢাকা

মূত্রথলি মানুষের তলপেটে অবস্থিত মূত্র সংগ্রহের আধার। এটি সাধারণত পিউবিক বোনের পিছনে থাকে তবে পরিপূর্ণ অবস্থায় তলপেটে চলে আসে। দু'টি কিডনি থেকে দু'টি নালীর মাধ্যমে প্রস্রাব মূত্রথলিতে জমা হয়। যখন মূত্রথলি প্রস্রাবে পরিপূর্ণ হয় তখন এর সংকোচন শুরু হয়। প্রস্রাব নালীর মাধ্যমে মূত্র শরীরের বাহিরে পরিত্যাক্ত হয়। প্রস্রাবের থলির ভিতরের দিকে একধরণের বিশেষ কোষের ঝিল্লি থাকে। এটাকে বলা হয় ট্রাঞ্জিসনাল সেল। এই সেলের বিশেষত্ব হলো এখান থেকে পুনরায় মূত্র শোষণ হয় না এবং প্রসারিত হতে পারে। শরীরের অন্যান্য অঙ্গের মত মূত্রথলিতে ক্যান্সারের ঝুঁকি রয়েছে। মূত্রথলির ক্যান্সার এর মিউকাস মেমব্রেন বা ঝিল্লি থেকে উত্পন্ন হয়। তাই এটাকে বলা হয় ট্রাঞ্জিসনাল সেল ক্যান্সার। মূত্র ও জননতন্ত্রের ক্যান্সারের মধ্যে মূত্রথলির ক্যান্সার দ্ব্বিতীয় স্থানে রয়েছে। এই রোগ মহিলাদের থেকে পুরুষদের মধ্যে বেশী দেখা যায়। এই রোগ অতিরিক্ত ধূমপায়ী, যারা রং, কীটনাশক কিংবা রাসায়নিক দ্রব্য

নাড়াচাড়া করেন, নিয়মিত বেদনানাশক ওষুধ সেবন করেন, অতিরিক্ত কফি পান করেন কিংবা ওজন কমানোর জন্য চাইনিজ টি গ্রহণকারীদের মধ্যে বেশী দেখা যায়। এছাড়াও মূত্রথলির পাথর দীর্ঘদিন বিনা চিকিত্সায় থাকলে বা ঘনঘন সংক্রমণ প্রভৃতিকে এই রোগের কারণ হিসেবে মনে করা হয়। অ-ধূমপায়ীদের তুলনায় ধূমপায়ীদের মধ্যে মূত্রথলির ক্যান্সার ৪ গুণ বেশী। ধূমপায়ীদের মধ্যে ঝুঁকি নির্ভর করে দিনে কতগুলো সিগারেট খাচ্ছেন, কতক্ষণ খাচ্ছেন এবং কি পরিমাণ সিগারেটের ধোঁয়া ফুসফুসে টেনে নিচ্ছেন তার উপর। সিগারেটের ধোঁয়া রক্তের সংস্পর্শে আসার পর তা থেকে নাইট্রোসএমাইন, ২- ন্যাপথালমাইন ও ৪-এমাইনো বাই ফেনাইল রক্তের সাথে মিশে যায় যা মূত্রথলির ক্যান্সার হওয়ার পিছনে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখে। বেদনানাশক ফেনসিটিন উপাদানের

সাথে এনিলিন ডাইর রাসায়নিক গঠনগত সাদৃশ্য রয়েছে। এই এনিলিন ডাই মূত্রথলির ক্যান্সারের জন্য র্ঝুঁকিপূর্ণ রাসায়নিক দ্রব্য। এছাড়াও মূত্রথলির ক্রনিক সংক্রমণ, দীর্ঘদিন মূত্রথলিতে পাথর থাকলে ক্যান্সারের সম্ভাবনা

বেড়ে যায়। মূত্রথলির ক্যান্সার

আক্রান্ত ব্যক্তিরা সাধারণ প্রস্রাবের

সাথে রক্ত যাওয়া উপসর্গ নিয়ে ডাক্তারের পরামর্শ নিতে আসেন। প্রস্রাবের সাথে রক্ত যাওয়া উপসর্গকে হিমাচুরিয়া বলে।

এক্ষেত্রে হিমাচুরিয়ার সাথে ব্যথা থাকে না এবং মাঝে মাঝে প্রস্রাবের সাথে ব্যথাবিহীন রক্ত যেতে দেখা যায়। আরও যে সমস্ত উপসর্গ আছে তা হলো ঘনঘন প্রস্রাব করা, প্রস্রাব ধরে রাখতে অসুবিধা হওয়া, প্রস্রাবে জ্বালাযন্ত্রণা করা, কোমরে ব্যথা ইত্যাদি। প্রাথমিক পরীক্ষা-নিরীক্ষায় প্রস্রাবে রক্ত কণিকা ও পাস সেল পাওয়া যায়। এক্ষেত্রে মূত্রথলি বা নালিতে সংক্রমণ আছে কিনা তা কালচার সেনসিটিভিটি পরীক্ষার মাধ্যমে নির্ণয় করা হয়। আলট্রাসনোগ্রাম করে মূত্রথলিতে কোন টিউমার থাকলে তা দেখা যায। ক্যান্সারটি বহুকেন্দ্রিক হতে পারে। তাই মূত্রথলিতে পাওয়া গেলে মূত্রতন্ত্রের অন্য কোথাও আছে কিনা তা পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে দেখা হয়। মূত্রথলির ক্যান্সারের চিকিত্সা নির্ভর করে রোগটি কোন পর্যায়ে আছে তার উপর। প্রাথমিক পর্যায়ে রোগটি ধরা পড়লে প্রস্রাবের রাস্তা দিয়ে যন্ত্রের সাহায্যে টিউমারটি কেটে ফেলে টিউমারটি যাতে আবার দেখা না দেয় তার জন্য মূত্রথলিতে কেমোথেরাপি প্রয়োগ করা হয়। রোগটি যদি ব্লাডারের মাংসপেশী পর্যন্ত ছড়ায় তা হলে সম্পূর্ণ মূত্রথলি কেটে বাদ দিয়ে পরিপাকতন্ত্রের একটি অংশ নিয়ে মূত্রথলি বানিয়ে দেয়া হয়। রোগটি যদি শরীরে ছড়িয়ে যায়

তবে সিসটেমিক কেমোথেরাপির সাহায্যে চিকিত্সা করা হয়।

আমাদের দেশের ইউরোলজিষ্টরা

অত্যন্ত সাফল্যজনকভাবে মূত্রাধার বানানোসহ সাফল্যজনকভাবে এই রোগের চিকিত্সা করছেন।

font
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন
ইইউ পার্লামেন্টে বাংলাদেশ বিষয়ে পাস হওয়া এক প্রস্তাবে বলা হয়েছে, 'যেসব রাজনৈতিক দল সন্ত্রাসী তত্পরতা চালাচ্ছে তাদের নিষিদ্ধ ঘোষণা করা উচিত।' আপনিও কি তাই মনে করেন?
2 + 7 =  
ফলাফল
আজকের নামাজের সময়সূচী
নভেম্বর - ৮
ফজর৫:০৭
যোহর১১:৫১
আসর৩:৩৬
মাগরিব৫:১৫
এশা৬:৩৩
সূর্যোদয় - ৬:২৭সূর্যাস্ত - ০৫:১০
archive
বছর : মাস :
The Daily Ittefaq
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: তাসমিমা হোসেন। উপদেষ্টা সম্পাদক হাবিবুর রহমান মিলন। ইত্তেফাক গ্রুপ অব পাবলিকেশন্স লিঃ-এর পক্ষে তারিন হোসেন কর্তৃক ৪০, কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ থেকে প্রকাশিত ও মুহিবুল আহসান কর্তৃক নিউ নেশন প্রিন্টিং প্রেস, কাজলারপাড়, ডেমরা রোড, ঢাকা-১২৩২ থেকে মুদ্রিত। কাওরান বাজার ফোন: পিএবিএক্স: ৭১২২৬৬০, ৮১৮৯৯৬০, বার্ত ফ্যাক্স: ৮১৮৯০১৭-৮, মফস্বল ফ্যাক্স : ৮১৮৯৩৮৪, বিজ্ঞাপন-ফোন: ৮১৮৯৯৭১, ৭১২২৬৬৪ ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭২, e-mail: [email protected], সার্কুলেশন ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭৩। www.ittefaq.com.bd, e-mail: [email protected]
Copyright The Daily Ittefaq © 2014 Developed By :