The Daily Ittefaq
ঢাকা, বুধবার, ২২ জানুয়ারি ২০১৪, ০৯ মাঘ ১৪২০, ২০ রবিউল আওয়াল ১৪৩৫
সর্বশেষ সংবাদ চাঁপাইনবাবগঞ্জে নারী ইউপি সদস্যের রগ কর্তন | জাহাঙ্গীরনগরের ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য এম এ মতিন | ৭ মন্ত্রী-এমপির সম্পদ তদন্তে দুদকের অনুসন্ধান কর্মকর্তা নিয়োগ | ট্রাফিক ব্যারাকে লাশ, পুলিশ কন্সটেবল গ্রেফতার

মুক্তিযোদ্ধার দাপুটে জয়ে ফিরলেন এনামুল

মুক্তিযোদ্ধা ২ :শেখ রাসেল ১

স্পোর্টস রিপোর্টার

কাগজে কলমে নয়। মাঠের পারফরম্যান্সে ভালো দল মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ক্রীড়া চক্র। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের শুরুতেই মুক্তিযোদ্ধাকে লড়তে হয়েছে মোহামেডান, বিজেএমসি, আবাহনী এবং শেখ জামালের মতো বড় দলের বিরুদ্ধে। তাতে দলটি পয়েন্ট পেয়েছে, পয়েন্ট হারিয়েছেও। গতকাল মঙ্গলবার পঞ্চম দল শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রের মুখোমুখি হয় কোচ শফিকুল ইসলাম মানিকের দলটি। পয়েন্টের খাতায় পিছিয়ে থাকা মুক্তিযোদ্ধাকে সামনে তুলে আনতে একটা জয় খুব প্রয়োজন ছিল। সেটাই তারা করে দেখালো গেল মৌসুমের ট্রেবল জয়ী শেখ রাসেলের বিরুদ্ধে ২-১ গোলে জিতে। কোচ মানিকের দল ১২০ গজের লড়াইয়ে সেরা খেলাটা খেলেই জয় পেয়েছে। এনামুলের গোলে মুক্তিযোদ্ধা প্রথমার্ধে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে থাকার পর দ্বিতীয়ার্ধে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন এনকোচা ২-০। শেখ রাসেলের ইউনিস রক্স ব্যবধান কমিয়ে ১-২ করেছেন মাত্র।

মুক্তিযোদ্ধাদের দলটি গত মৌসুমে দুই বারই শেখ রাসেলের কাছে হেরেছিল। এবার শেখ রাসেলকে হারিয়ে মুক্তিযোদ্ধা শিবিরে একটা আনন্দের উপলক্ষ এনে দিয়েছেন দলের কোচ খেলোয়াড়রা। আগের ম্যাচে শেখ জামালের বিরুদ্ধে পেনাল্টি পেয়েও গোল করতে পারেনি। ফাঁকা নেট পেয়েও ব্যর্থ হন মুক্তিযোদ্ধার বিদেশি ফুটবলাররা। কাল শেখ রাসেলের বিরুদ্ধে বিদেশিরাই দারুণ জ্বলে উঠেছিলেন। নাইজেরিয়ান এনকোচা কিংসলে, স্বদেশি এলিটা কিংসলে ম্যাচটার ব্যবধান গড়ে দিয়েছেন।

শেখ রাসেলের বিদেশি ফুটবলাররা খেলছেন ঠিকই। তবে তারা মুক্তিযোদ্ধার উপর কোনো প্রভাবই ফেলতে পারেননি। একমাত্র উরুগুইয়ান ফরোয়ার্ড ফ্রান্সিসকো সুকার কিছুটা দাপিয়ে বেড়ালেও মুক্তিযোদ্ধার মাঝমাঠে আঁচড়ই দিতে পারেননি। তাই দলের খেলা দেখে হতাশ হয়েছেন শেখ রাসেলের কোচ মারুফুল হক। নিজের দলের খেলা দেখে নিজেই কিছুটা অবাক হয়েছেন। ম্যাচের আগে হয় তো ভাবতেও পারেননি মুক্তিযোদ্ধার কাছে এভাবে হারবেন। বিদেশি ফুটবলাররা কোচের প্রয়োজন মতো সামর্থ্য ঢেলে দিতে পারছেন না। মরক্কোর আমিনি এবং উরুগুয়ের সুকার ইনজুরি নিয়ে দলে যাওয়া আসার মধ্যে রয়েছেন। পুরো ফিটনেস নিয়ে খেলার মতো অবস্থা নেই তাদের।

হাইতির প্যাসকেলের মাঠে নামার কথা ছিল অসুস্থ থাকায় নামতে পারেননি। তার উপর গতকাল ম্যাচে নামার আগে ওয়ার্মআপ করার সময় কুচকিতে টান লাগায় আমিনিকে মাঠ থেকে তুলে নিতে হয়েছে। খেলার সময় শেখ রাসেলের আক্রমণ সামাল দিতে গিয়ে মুক্তিযোদ্ধার নাইজেরিয়ান ডিফেন্ডার এলিটা কিংসলে স্ট্রাইকার মিঠুন চৌধুরীকে পিঠের উপরে হাঁটু দিয়ে আঘাত করলে মাঠেই অচেতন হয়ে গিয়েছিলেন। সঙ্গে সঙ্গে তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার প্রস্তুতি নেয়ার সময় নামিয়ে আনা হয়। মাঠেই অক্সিজেন দেয়া হয়। সেবা শুশ্রূষা করার পর আবার মাঠে ফেরেন মিঠুন। এই সব পরিস্থিতি সামাল দিয়ে শেখ রাসেলের বিরুদ্ধে মুক্তিযোদ্ধার লড়াই অনেকটা একপেশে হয়ে গিয়েছিল।

স্ট্রাইকার এনামুল এদিন শেখ রাসেল মুক্তিযোদ্ধার ম্যাচে গোলের খাতা খোলেন। ২২ মিনিটে গোল করে মুক্তিযোদ্ধাকে এগিয়ে নিয়েছেন জাতীয় দলের সাবেক স্ট্রাইকারটি। নিচু এক শটে জটলা ডিঙ্গিয়ে বল পৌঁছায় শেখ রাসেলের জালে। ডিফেন্ডার রেজার পায়ে লেগে গতিপথ বদলে যাওয়ায় গোলকিপার বিপ্লব ধরতে পারেননি ১-০। ৫০ মিনিটে দ্বিতীয় গোল। শেখ রাসেলের বাপ্পি, মামুন মিয়া এবং আনোয়ারের সামনে দিয়ে এনকোচা দারুণ এক ভলিতে বিপ্লবকে ব্যর্থ করে দেন। বল যায় জালে ২-০। অপরদিকে ৭৩ মিনিটে অসুস্থতা নিয়ে মাঠে ফেরা মিঠুনের পাস থেকে মরক্কোন ইউনিক্স রক্স ব্যবধান কমান ১-২। সমান পাঁচ ম্যাচ শেষে মুক্তিযোদ্ধা ৭ পয়েন্ট ও শেখ রাসেল আছে ৯ পয়েন্টে।

আজকের খেলা

মোহামেডান ঃ শেখ জামাল

(বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়াম, ৪টা ৩০)

তিন বছর পর এনামুলের গোল

স্পোর্টস রিপোর্টার

জাতীয় ফুটবল দলের সাবেক স্ট্রাইকার এনামুল হক ফুটবল থেকে প্রায় হারিয়েই গিয়েছিলেন। তাকে দর্শকরা ভুলেই গিয়েছিলেন। ইনজুরির কারণে আড়ালে থাকা এনামুল আবার সুস্থ হয়ে আবাহনী ছেড়ে গেলেন মুক্তিযোদ্ধায়। কোচ শফিকুল ইসলাম মানিক জেনে শুনেই তাকে ঝুকি নিয়ে দলে টানলেও কাল শেখ রাসেলের বিরুদ্ধে প্রথম গোলটি করে প্রতিদান দিলেন।

শেখ রাসেলের রক্ষণভাগে ১০-১২ জন ফুটবলারের জটলা ভেদ করে অভিজ্ঞতার জোরে দারুন একটা গোল করেছেন এনামুল। তিন বছর পর এনামুল আবার ঘরোয়া ফুটবলে গোল পেলেন। ২০১১ সালে আবাহনীর বিপক্ষে গোল করেছিলেন শেখ জামালের হয়ে। এরপর আর গোলের দেখা পাননি এই স্ট্রাইকার। তার পরিবার বন্ধু মহল এবং আত্নীয় স্বজনরাও হতাশ হয়ে গিয়েছিলেন, এনামুল প্রচারের আলোয় নেই বলে। এরকম একটা পরিস্থিতি থেকেই নিজের চেষ্টা আর কোচ মানিকের সহযোগিতায় আবার ফেরা এনামুল কাল ম্যাচ শেষে বললেন, 'এই গোলটা আমার জন্য আত্নবিশ্বাস বাড়িয়ে দিয়েছে। অনেক দিন অপেক্ষায় ছিলাম। এবার গোলের খাতা খুলতে পেরেছিল বলে দারুন লাগছে।'

এনামুল স্ট্রাইকার হলেও তাকে খেলতে হচ্ছে দুই বিদেশি স্ট্রাইকারদের পেছনে। গোলের যোগান দেয়ার জন্য। কিন্তু এই দায়িত্ব পালন করে এনামুল কতটুকু সন্তুষ্ট, তা জানতে চাইলে মানিকের পাশে বসা এনামুল বলেন, 'কোচ আমাকে এখানেই দায়িত্ব দিয়েছেন। আর আমি যেখানেই খেলি, আমার দরকার সুযোগ পাওয়া। আমি সেটা কাজে লাগাতে চাই।' কোচ মানিক বলছেন, 'পেছনে থাকলেও এখানে খেলে আনন্দটা উপভোগ করতে হবে।'

এই পাতার আরো খবর -
font
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন
তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেছেন, 'সাতক্ষীরায় যৌথ বাহিনীর অভিযান নিয়ে খালেদা জিয়া যা বলেছেন, তা দেশের জন্য অপমানজনক। এ জন্য জনগণের কাছে তার মাফ চাইতে হবে।' আপনি কি তার সাথে একমত?
6 + 2 =  
ফলাফল
আজকের নামাজের সময়সূচী
মে - ২০
ফজর৩:৪৯
যোহর১১:৫৫
আসর৪:৩৪
মাগরিব৬:৩৯
এশা৭:৫৯
সূর্যোদয় - ৫:১৩সূর্যাস্ত - ০৬:৩৪
archive
বছর : মাস :
The Daily Ittefaq
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: তাসমিমা হোসেন। উপদেষ্টা সম্পাদক হাবিবুর রহমান মিলন। ইত্তেফাক গ্রুপ অব পাবলিকেশন্স লিঃ-এর পক্ষে তারিন হোসেন কর্তৃক ৪০, কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ থেকে প্রকাশিত ও মুহিবুল আহসান কর্তৃক নিউ নেশন প্রিন্টিং প্রেস, কাজলারপাড়, ডেমরা রোড, ঢাকা-১২৩২ থেকে মুদ্রিত। কাওরান বাজার ফোন: পিএবিএক্স: ৭১২২৬৬০, ৮১৮৯৯৬০, বার্ত ফ্যাক্স: ৮১৮৯০১৭-৮, মফস্বল ফ্যাক্স : ৮১৮৯৩৮৪, বিজ্ঞাপন-ফোন: ৮১৮৯৯৭১, ৭১২২৬৬৪ ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭২, e-mail: [email protected], সার্কুলেশন ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭৩। www.ittefaq.com.bd, e-mail: [email protected]
Copyright The Daily Ittefaq © 2014 Developed By :