The Daily Ittefaq
ঢাকা, বুধবার, ২২ জানুয়ারি ২০১৪, ০৯ মাঘ ১৪২০, ২০ রবিউল আওয়াল ১৪৩৫
সর্বশেষ সংবাদ চাঁপাইনবাবগঞ্জে নারী ইউপি সদস্যের রগ কর্তন | জাহাঙ্গীরনগরের ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য এম এ মতিন | ৭ মন্ত্রী-এমপির সম্পদ তদন্তে দুদকের অনুসন্ধান কর্মকর্তা নিয়োগ | ট্রাফিক ব্যারাকে লাশ, পুলিশ কন্সটেবল গ্রেফতার

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়

আমাদের লাইব্রেরী

শরিফুল ইসলাম নাসের

প্রজন্ম থেকে প্রজন্ম লাইব্রেরীতে বই পড়ার মাধ্যমে জানতে পারে জাতির সোনালি অতীত সম্পর্কে। জানতে পারে বিশ্ব ইতিহাস সম্পর্কে। বই বাড়ায় জ্ঞানের পরিধি। জ্ঞানকে করে সমৃদ্ধ। তার পিছনে সবচেয়ে বড় ভূমিকা পালন করে লাইব্রেরী। তেমনি জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সরকার ও রাজনীতি বিভাগের একটি লাইব্রেরী নিজ বিভাগের প্রয়োজনের পাশাপাশি অন্যান্য বিভাগের ছাত্রছাত্রীদেরও বইয়ের পিপাসা মেটাচ্ছে।

মাহবুব চতুর্থ বর্ষের একজন শিক্ষার্থী। একাডেমিক বইয়ের পাশাপাশি ইতিহাস, ঐতিহ্য, কবিতা, উপন্যাস, মুক্তিযুদ্ধ প্রভৃতি বই তার পড়া। বই পড়ার নেশা সেই ষষ্ঠ শ্রেণি থেকে শুরু। তার কথাতেই পাওয়া গেল বই পড়ার সেই রেশ, বললো- আমাদের বিভাগে এতো সমৃদ্ধ একটি লাইব্রেরী থাকায় আমার বই পড়ার জগত্টাই অনেক বড় হয়ে গেছে। তার মতো বিভাগের প্রায় ৪শ' ছাত্রছাত্রীরও বই পড়ার জগত্টা বিস্তৃতি লাভ করেছে।

আমাদের এই লাইব্রেরীতে বিভিন্ন বিভাগ থেকে আসে বইয়ের খোঁজে। এমনকি অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয় থেকেও শিক্ষার্থীরা আসেন বইয়ের রেফারেন্স নিয়ে। বলছিলেন লাইব্রেরীয়ান সবার প্রিয় শাহজাহান ভাই। সবাইকে বই বের করে দিতে দিতে প্রায় সকল বইয়ের নামই জানা হয়ে গেছে তার। এক্ষেত্রে উনচল্লিশতম ব্যাচের নামটাই জোর দিয়ে বললেন শাহজাহান ভাই।

ইংরেজী এবং বাংলা বইয়ের মিশেলে গড়ে উঠেছে এই লাইব্রেরী। প্লেটো, এরিস্টেটল, কার্ল মার্কস ও মেকিয়াভেলীর মতো রাষ্ট্র বিজ্ঞানী ও দার্শনিকের যথেষ্ট বইয়ের সংগ্রহ রয়েছে এখানে। এমফিল, পিএইচডিতে অধ্যয়ন করা শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন গবেষণাপত্র রয়েছে এখানে। যা লাইব্রেরীকে আরো সমৃদ্ধ করেছে।

বিভাগের এই লাইব্রেরী ছাত্র-ছাত্রীদের বই পড়ার প্রতি আগ্রহ বাড়িয়েছে বহু গুণ। শিক্ষার্থীরাও এই লাইব্রেরীতে কোন বই খুঁজে না পেলে দারস্থ হচ্ছে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় লাইব্রেরীতে। তাই এই লাইব্রেরী বিভাগের শিক্ষার্থীদের কাছে এক অনন্য স্থানে পরিণত হয়েছে।

font
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন
তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেছেন, 'সাতক্ষীরায় যৌথ বাহিনীর অভিযান নিয়ে খালেদা জিয়া যা বলেছেন, তা দেশের জন্য অপমানজনক। এ জন্য জনগণের কাছে তার মাফ চাইতে হবে।' আপনি কি তার সাথে একমত?
2 + 9 =  
ফলাফল
আজকের নামাজের সময়সূচী
এপ্রিল - ২৩
ফজর৪:১০
যোহর১১:৫৭
আসর৪:৩১
মাগরিব৬:২৬
এশা৭:৪৩
সূর্যোদয় - ৫:৩০সূর্যাস্ত - ০৬:২১
archive
বছর : মাস :
The Daily Ittefaq
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: তাসমিমা হোসেন। উপদেষ্টা সম্পাদক হাবিবুর রহমান মিলন। ইত্তেফাক গ্রুপ অব পাবলিকেশন্স লিঃ-এর পক্ষে তারিন হোসেন কর্তৃক ৪০, কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ থেকে প্রকাশিত ও মুহিবুল আহসান কর্তৃক নিউ নেশন প্রিন্টিং প্রেস, কাজলারপাড়, ডেমরা রোড, ঢাকা-১২৩২ থেকে মুদ্রিত। কাওরান বাজার ফোন: পিএবিএক্স: ৭১২২৬৬০, ৮১৮৯৯৬০, বার্ত ফ্যাক্স: ৮১৮৯০১৭-৮, মফস্বল ফ্যাক্স : ৮১৮৯৩৮৪, বিজ্ঞাপন-ফোন: ৮১৮৯৯৭১, ৭১২২৬৬৪ ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭২, e-mail: [email protected], সার্কুলেশন ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭৩। www.ittefaq.com.bd, e-mail: [email protected]
Copyright The Daily Ittefaq © 2014 Developed By :