The Daily Ittefaq
ঢাকা, রবিবার, ২৬ জানুয়ারি ২০১৪, ১৩ মাঘ ১৪২০, ২৪ রবিউল আওয়াল ১৪৩৫
সর্বশেষ সংবাদ নাদালের স্বপ্ন ভেঙে দিয়ে চ্যাম্পিয়ন ওয়ারিঙ্কা | তৌফিক-ই-এলাহী চৌধুরীকে প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা নিয়োগ | শাবিতে শিবির-ছাত্রলীগ সংঘর্ষ, ভাংচুর | সংখ্যালঘু নির্যাতনের বিচার বিশেষ ক্ষমতা আইনেই: আইনমন্ত্রী | যুক্তরাষ্ট্রের শপিং মলে হামলা, নিহত ৩ | মওদুদসহ বিএনপির ৪ নেতার জামিন

চট্টগ্রামের মোমিন রোডে জমজমাট ফুল ব্যবসা

সৈয়দ আবদুল ওয়াজেদ, চট্টগ্রাম অফিস

চট্টগ্রামে প্রতিদিন বাড়ছে ফুলের চাহিদা। নগরীর চেরাগী পাহাড়, মোমিন রোডসহ বিভিন্ন স্থানে গড়ে উঠেছে অসংখ্য ফুলের দোকান। গত তিন চার বছরের মধ্যে শুধুমাত্র চেরাগী পাহাড় ও মোমিন রোড এলাকাতেই গড়ে উঠেছে ছোট-বড় মিলিয়ে প্রায় ৫০টি ফুলের দোকান।

নগরীতে আজকাল ফুল পরিণত হয়েছে নিত্যপ্রয়োজনীয় নাগরিক পণ্যে। ভোর থেকে গভীর রাত অবধি মোমিন রোডের ফুলের দোকানগুলোতে ফুল বেচাকেনা আর ব্যস্ততা একটি পরিচিত দৃশ্যে পরিণত হয়েছে। সন্ধ্যার পর হরেক রকম বাহারী ফুলের স্তবক, মালা, বুকেট, সাজঝুড়িতে দোকানের বর্ণালী আলো পড়ে এক অপরূপ নান্দনিক দৃশ্যের সৃষ্টি করছে। চট্টগ্রামসহ দেশের নানা স্থানে আজকাল বাণিজ্যিক ভিত্তিতে ফুলের চাষ হওয়ায় নানা ধরনের ফুলের নিয়মিত সরবরাহ আসছে। অন্যদিকে গত ক'বছরে ফুলের দামও সহনীয় পর্যায়ে নেমে এসছে বলে জানান মোমিন রোডের ফুলের দোকানী ও ব্যবসায়ীরা।

২০০৮ সালে প্রতিষ্ঠিত চট্টগ্রাম ফুল ব্যবসায়ী বহুমুখী সমবায় সমিতির সহ-সভাপতি মোহাম্মদ মিজানুর রহমান শিপলু ইত্তেফাককে বলেন, মোমিন রোডসহ চট্টগ্রামের সকল ফুলের দোকানে যেসব ফুল বিক্রি হচ্ছে তার ৮০ শতাংশ বাংলাদেশে উত্পাদন হচ্ছে। নগরীর ৪০ শতাংশ ফুলের যোগান আসে চট্টগ্রামের চাষীদের কাছ থেকে। বাকী ৪০ শতাংশ ফুল আসে ঢাকা ও যশোরের চাষীদের কাছ থেকে। যশোর থেকে আসে উন্নত জাতের রজনীগন্ধা, গাঁদা ও বিভিন্ন রংয়ের দৃষ্টিনন্দন গ্লাডিওলাস। চট্টগ্রামের চাষীরা সরবরাহ করে থাকেন নানা রংয়ের গোলাপ, বিভিন্ন বর্ণের গ্লাডিওলাস ফুল এবং জারবারা বা জিনিয়া ফুল। মোমিন রোডের ফুলের দোকানগুলো পাইকারি এবং খুচরাভাবে ফুল বিক্রি করছে। মূলত: বিয়ে, গায়ে হলুদ, জন্মদিন, বিভিন্ন জাতীয় দিবস, প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী, মৃত্যুবার্ষিকী, সভা-সেমিনার-সিম্পোজিয়াম এবং বিভিন্ন ধর্মীয় অনুষ্ঠান উপলক্ষে ক্রেতারা আসে ফুল কিনতে। ব্যবসায়ীরা জানান, তারা অর্ডার পেলে মাত্র দেড় থেকে দুই ঘন্টার মধ্যে ২ হাজার থেকে ৩ হাজার টাকার মধ্যে বিয়ের গাড়ি সাজিয়ে দিয়ে থাকেন। এখানে ঘোড়ার গাড়িও ভাড়ায় পাওয়া যায়। অর্ডার পেলে পুরো দিনের জন্য ঘোড়ার গাড়ি ভাড়া দেয়াসহ গাড়িটি ফুল দিয়ে সাজিয়ে দিতে তারা নিয়ে থাকেন ১০ হাজার টাকা। ব্যবসায়ীরা জানান, বর্তমানে এখানে এক তোড়া বাংলা ফুলের দাম ১৫০ থেকে ২০০ টাকা। একটি বিদেশি লাল গোলাপ ৪০ টাকা। একটি দেশি লাল গোলাপ ১০ টাকা। বিভিন্ন জাতের রঙিন ফুল মিশিয়ে তৈরি একটি ফ্লাওয়ার বাস্কেট ৩০০ টাকা। বিভিন্ন ফুলের মিশ্রণে সেলোফিন দিয়ে মোড়ানো একটি ফুলের বুকেট ১৫০ থেকে ২০০ টাকা।

এই পাতার আরো খবর -
font
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন
সিপিডির ফেলো ড. দেবপ্রিয় ভট্টাচার্য বলেছেন সুষ্ঠু ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন না হলে রাজনৈতিক অনিশ্চয়তা কাটবে না। এতে অর্থনীতি দীর্ঘ মেয়াদি সংকটে পড়বে।' আপনিও কি তাই মনে করেন?
1 + 5 =  
ফলাফল
আজকের নামাজের সময়সূচী
আগষ্ট - ২৪
ফজর৪:১৯
যোহর১২:০১
আসর৪:৩৪
মাগরিব৬:২৮
এশা৭:৪৩
সূর্যোদয় - ৫:৩৭সূর্যাস্ত - ০৬:২৩
archive
বছর : মাস :
The Daily Ittefaq
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: তাসমিমা হোসেন। উপদেষ্টা সম্পাদক হাবিবুর রহমান মিলন। ইত্তেফাক গ্রুপ অব পাবলিকেশন্স লিঃ-এর পক্ষে তারিন হোসেন কর্তৃক ৪০, কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ থেকে প্রকাশিত ও মুহিবুল আহসান কর্তৃক নিউ নেশন প্রিন্টিং প্রেস, কাজলারপাড়, ডেমরা রোড, ঢাকা-১২৩২ থেকে মুদ্রিত। কাওরান বাজার ফোন: পিএবিএক্স: ৭১২২৬৬০, ৮১৮৯৯৬০, বার্ত ফ্যাক্স: ৮১৮৯০১৭-৮, মফস্বল ফ্যাক্স : ৮১৮৯৩৮৪, বিজ্ঞাপন-ফোন: ৮১৮৯৯৭১, ৭১২২৬৬৪ ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭২, e-mail: [email protected], সার্কুলেশন ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭৩। www.ittefaq.com.bd, e-mail: [email protected]
Copyright The Daily Ittefaq © 2014 Developed By :