The Daily Ittefaq
ঢাকা, রবিবার, ২৬ জানুয়ারি ২০১৪, ১৩ মাঘ ১৪২০, ২৪ রবিউল আওয়াল ১৪৩৫
সর্বশেষ সংবাদ নাদালের স্বপ্ন ভেঙে দিয়ে চ্যাম্পিয়ন ওয়ারিঙ্কা | তৌফিক-ই-এলাহী চৌধুরীকে প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা নিয়োগ | শাবিতে শিবির-ছাত্রলীগ সংঘর্ষ, ভাংচুর | সংখ্যালঘু নির্যাতনের বিচার বিশেষ ক্ষমতা আইনেই: আইনমন্ত্রী | যুক্তরাষ্ট্রের শপিং মলে হামলা, নিহত ৩ | মওদুদসহ বিএনপির ৪ নেতার জামিন

সময়মত সঠিক সিদ্ধান্ত না নিলে বিপর্যয় নেমে আসে

----- আনোয়ার হোসেন মঞ্জু

নাসিম আলী ও ফজলুর রহমান, ভাণ্ডারিয়া (পিরোজপুর) থেকে

জাতীয় পার্টির (জেপি) চেয়ারম্যান ও পরিবেশ ও বন মন্ত্রী আনোয়ার হোসেন মঞ্জু বলেছেন, রাজনীতি নিয়ে মত পার্থক্য থাকবে কিন্তু কাজের প্রশ্নে বা উন্নয়নের স্বার্থে ঐক্য থাকা আবশ্যক। নির্বাচন বর্জনকারীরা ভোটের আগে বলেছিলেন পশ্চিমা বিশ্ব তাদের পক্ষে। নতুন সরকারকে যুক্তরাষ্ট্রের শুভেচ্ছা জানানোর মধ্য দিয়ে আজ প্রতীয়মান হলো নির্বাচন বর্জনকারীদের অবস্থান ভুল ছিল। শনিবার পিরোজপুর জেলার ভান্ডারিয়া উপজেলা পরিষদ চত্বরে এক সুধী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি আরও বলেন, নির্বাচন অনুষ্ঠান প্রশ্নে ১৮ দলসহ যেসব রাজনৈতিক সংগঠন অবরোধ-হরতাল-ধর্মঘট করে দেশব্যাপী সহিংস রাজনৈতিক অস্থিরতা সৃষ্টি করেছিল তারা যুক্তরাষ্ট্রের এ ঘোষণায় চুপসে গেছে। আমাদের স্বাধীন দেশের আন্দোলন সংগ্রামের চরিত্রের সাথে সাংঘর্ষিক নৈরাজ্য সৃষ্টিকারী তত্পরতা। তারা পেট্রোল বোমা মেরে, রাস্তা কেটে, গাছ উপড়ে ফেলে ব্যাপক প্রাণহানির ঘটনা ঘটিয়ে কিছুই পায়নি। আমরাও অতীতে বহু আন্দোলন কর্মসূচির সাথে সম্পৃক্ত ছিলাম। স্বাধীনতা যুদ্ধের মত সশস্ত্র ঘটনা এ দেশে ঘটেছে। কিন্তু এভাবে নির্বাচন নিয়ে আত্মঘাতী কাজ আমরা লক্ষ্য করিনি। দেশের উন্নয়ন একটি ধারাবাহিক প্রক্রিয়া। গত ৪৩ বছরে যারা রাষ্ট্র ক্ষমতায় ছিলেন তাদেরকে ক্ষমতায় গিয়েই দেশের উন্নয়ন সাধন করতে হয়েছে। গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া চালু না থাকলে কেউই ক্ষমতায় যেতে পারেন না। নৈরাজ্যের পথ, ষড়যন্ত্রের পথ ছেড়ে নির্বাচনের পথে আসতে হবে। আল্লাহর রহমতে আমি পঞ্চম বারের মত সরকারে স্থান পেয়েছি। সামপ্রতিক অনিশ্চিত অবস্থার মধ্যে নির্বাচনের আগে ১৪ দল জাতীয় পার্টিকে (জেপি) একটি রাজনৈতিক আলোচনায় ডেকেছিল। সে সভায় অংশগ্রহণ শেষে বেরিয়ে আমি সাংবাদিকদের বলেছিলাম কেউ যাক বা না যাক আমরা নির্বাচনে যাব। দেশে গণতান্ত্রিক ধারা তথা ভোটের ব্যবস্থা যদি কোন কারণে ব্যাহত হয় তাহলে ক্ষমতা পরিবর্তনের ক্ষেত্রে বিকল্প পথ আসবে। তখন বিপ্লবের পথে বন্দুকের নল দিয়ে ক্ষমতায় আসতে হবে। আমি বিপ্লবী নই। আমি যদি ক্ষমতায় যেতে চাই অবশ্যই নির্বাচনে যেতে হবে। আজ নির্বাচনী প্রক্রিয়ার মধ্যদিয়ে সংসদ সদস্য হয়ে মন্ত্রী সভায় যে অন্তর্ভুক্ত হয়েছি তা আল্লাহরই রহমত। দেশের কঠিন সময় অতিক্রমকালে বা সংকট কালে কারও না কারও দায়িত্ব নিতে হয়। সঠিক সময় সঠিক সিদ্ধান্ত না নিলে দেশ ও জাতির জীবনে বিপর্যয় ঘটে যেতে পারে।

তিনি বলেন, দেশ পরিচালনায় গণতন্ত্র ও ঐক্যের বিকল্প নেই। গণতন্ত্র ব্যাহত হলে মানুষের অধিকার অর্জনের ব্যবস্থা বাধাগ্রস্ত হয়। গণতন্ত্রকে বহাল রেখে কাজ করার ক্ষেত্রে ঐক্যবদ্ধ থাকার সুবিধা আমাদের দীর্ঘদিনের অভিজ্ঞতায় দেখেছি। এটা মানুষের কল্যাণ সাধনে বার বার সুফল এনে দিয়েছে। অবহেলিত, বঞ্চিত জনগোষ্ঠীর জন্য রাজনৈতিক দলমত নির্বিশেষে এক হয়ে কাজ করা যে কতটা অপরিহার্য তা আবারও অনুধাবন করার সময় এসেছে। আমি ৩০ বছর ধরে দক্ষিণাঞ্চল তথা সমগ্র বাংলাদেশের উন্নয়ন কর্মকাণ্ড বাস্তবায়নে সচেষ্ট থেকেছি। ৮০'র দশকে সাত বছর, ৯৬ সাল থেকে পাঁচ বছর মন্ত্রী হিসাবে সরকারে থেকে দেশের বিদ্যুত্ ব্যবস্থা, খনিজ সম্পদ উন্নয়ন ও যোগাযোগ অবকাঠামো বিনির্মাণে নিবিড়ভাবে সম্পৃক্ত থেকে আমার উপলব্ধি হচ্ছে ঢাকায় বসে যারা সিদ্ধান্ত দেন বা অর্থ সম্পদ বরাদ্দ করেন তারা দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলের মানুষের চাহিদা বা প্রত্যাশা অনুভব করেন না। আজ আমাকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মন্ত্রী সভায় এমন একটি গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব অর্পণ করেছেন যার কাজের পরিধি অনেকের কাছে অজানা। বন অধিদপ্তরের বার্ষিক বরাদ্দ ২৬ হাজার কোটি টাকা। পরিবেশ অধিদপ্তরের কাজের ক্ষেত্র যে কতটা বিস্তৃত তা অনুধাবন করেই অতীতের অভিজ্ঞতার আলোকে আমাকে এ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। বিশ্ব জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবের পরিণতিতে আগামী দিনে বাংলাদেশের অস্তিত্ব রক্ষায় পরিবেশ অধিদপ্তরকে খুবই চ্যালেঞ্জিং ভূমিকা রাখতে হবে। আমাদের রাজনীতি সম্পূর্ণ ভিন্ন ধারার। আমরা মনে করি ঐক্যের কোন বিকল্প নেই। ভান্ডারিয়াবাসীর উদ্দেশে তিনি বলেন, আমি অসত্ উদ্দেশ্যে কারও সাথে হাত মিলাই না। এখানে অতীতে কখনো সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি ক্ষুণ্ন্ন হয়নি। দেশের যেখানে যা ঘটুক ভাণ্ডারিয়ায় তার কোন প্রভাব পড়তে দেয়া হবে না। আমাদেরকে আপনারা শান্তি দেন, দেশবাসীকে শান্তি দেন তাহলে আমরা সবাই উন্নয়ন পাব, উন্নত জীবন-যাপন করব।

ভাণ্ডারিয়া উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও জাতীয় পার্টির (জেপি) কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব মনিরুল হক মনি জোমাদ্দারের সভাপতিত্বে এ সুধী সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন জেপি'র কেন্দ্রীয় ভাইস-চেয়ারম্যান ভাণ্ডারিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান মাহিবুল হোসেন মাহিম, উপজেলা নির্বাহী অফিসার কাজী মাহবুবুর রশীদ, উপজেলা ভাইস-চেয়ারম্যান খান মোঃ রুস্তুম আলী, সদর ইউপি চেয়ারম্যান গোলাম সরোয়ার জোমাদ্দার, ধাওয়া ইউপি চেয়ারম্যান সিদ্দিকুর রহমান টুলু ডাকুয়া, নদমুলা ইউপি চেয়ারম্যান শফিকুল কবির তালুকদার বাবুল, ভিটাবাড়িয়া ইউপি চেয়ারম্যান মশিউর রহমান মৃধা, উপজেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক আবুবক্কর সিদ্দিক মন্টু হাওলাদার, যুগ্ম আহ্বায়ক লিয়াকত হোসেন তালুকদার, যুগ্ম আহ্বায়ক ফাইজুর রশীদ তালুকদার, টুঙ্গীপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক হাফিজুর রশীদ তারিক, ভাণ্ডারিয়া উপজেলা জেপি নেতা আবুল কালাম পোদ্দার, আবুল খায়ের লাকী জোমাদ্দার, কলেজ শিক্ষক নেতা অধ্যক্ষ আবুল বাশার বাদশা, মাদ্রাসা শিক্ষক নেতা অধ্যক্ষ মোঃ আবু কায়সার, প্রাথমিক শিক্ষক নেতা মোঃ ওমর ফারুক, জামাল উদ্দিন লিটন, শওকত ইকবাল মিটুল মল্লিক, মোঃ ফোরকান মুন্সি, উপজেলা যুবলীগ সভাপতি এনামুল কবির টিপু, ছাত্রলীগ সভাপতি মোঃ এহসান হাওলাদার, ছাত্র সমাজের সাধারণ সম্পাদক মামুনুর রশীদ সরদার ও সহ-সভাপতি মোঃ রাহাত জোমাদ্দার। অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করেন জামাল উদ্দিন স্বপন ও মোঃ মোস্তফা সিকদার। সমাবেশ শেষে দোয়া ও মোনাজাত পরিচালনা করেন মাওলানা আব্দুর রশীদ। এ সময় মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন জেপি'র কেন্দ্রীয় ভাইস-চেয়ারম্যান মোহাম্মদ হোসেন রেনু, ভাণ্ডারিয়া উপজেলা মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান সৈয়দা জাহানারা বারী, তেলিখালী ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ শাহদাত হোসেন, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির সহ-সম্পাদক ও কেন্দ্রীয় যুবলীগের নির্বাহী সদস্য মহিউদ্দিন মহারাজ, মুক্তিযোদ্ধা দেলোয়ার হোসেন বেপারী, জেপি'র কেন্দ্রীয় সদস্য ইউসুফ আলী আকন প্রমুখ।

মন্ত্রী আনোয়ার হোসেন মঞ্জু বিকালে ভাণ্ডারিয়া উপজেলা পরিষদের কর্মকর্তাদের সাথে এক মতবিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন। এখানে তিনি এ উপজেলায় গৃহীত বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মসূচির বিষয়ে খোঁজ-খবর নেন এবং তা যথাযথভাবে বাস্তবায়নের জন্য সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেন। উপজেলা চেয়ারম্যান মাহিবুল হোসেন মাহিমের সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় অংশ নেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কাজী মাহবুবুর রশীদ, পিরোজপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবু আশরাফ, বাগেরহাটের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মোঃ আমিনুল ইসলাম, পিরোজপুরের সহকারী বন কর্মকর্তা হারুন অর রশীদ মজুমদারসহ সরকারী কর্মকর্তা, উপজেলার ভাইস-চেয়ারম্যান ও ইউপি চেয়ারম্যানবৃন্দ।

বিদ্যালয়ের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন

আনোয়ার হোসেন মঞ্জু শনিবার সকালে ভাণ্ডারিয়া উপজেলার গৌরীপুর ইউনিয়ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নতুন ভবনের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন জাতীয় পার্টির (জেপি) কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম মহাসচিব ও ভাণ্ডারিয়ার সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মনিরুল হক মনি জোমাদ্দার, ভাণ্ডারিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান মাহিবুল হোসেন মাহিম, জেপি'র কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব খলিলুর রহমান খলিল প্রমুখ। পরে গৌরীপুর ইউনিয়ন পরিষদ প্রাঙ্গণে দুঃস্থ কল্যাণ সংস্থার উদ্যোগে মন্ত্রীর উপস্থিতিতে সুবিধা বঞ্চিত মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়। এ ত্রাণ কাজ সমন্বয় করেন সংস্থার উপদেষ্টা এম এ রব্বানী ফিরোজ ও ব্যবস্থাপক কাজী আতাহার আলী। এ সময় গৌরীপুর ইউনিয়ন ছাত্র সমাজের সভাপতি আব্দুর রহমানের নেতৃত্বে নেতা-কর্মীরা আনোয়ার হোসেন মঞ্জুকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান। দুপুরে মন্ত্রী উপজেলা ছাত্র সমাজ নেতা শিমুল আকনের পিতা পূর্ব ভাণ্ডারিয়া গ্রামের সমাজ সেবক মরহুম আব্দুস সত্তার আকনের কবর জিয়ারত করেন। পরে ভাণ্ডারিয়া সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ গোলাম মোস্তফাসহ শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা আনোয়ার হোসেন মঞ্জুকে শুভেচ্ছা জানান এবং কলেজে মাস্টার্স কোর্স চালুর দাবি জানান।

শনিবার সন্ধ্যার পর ভিটাবাড়িয়া ইউনিয়নের মঞ্জু মার্কেট প্রাঙ্গণে দুঃস্থ কল্যাণ সংস্থার উদ্যোগে শীতার্ত মানুষের মাঝে কম্বল বিতরণকালে আনোয়ার হোসেন মঞ্জু উপস্থিত ছিলেন। উপজেলার ধাওয়া রাজপাশা গবিন্দ মন্দির প্রাঙ্গণে পিরোজপুর পল্লী বিদ্যুত্ সমিতির উদ্যোগে গ্রাম বিদ্যুতায়ন কর্মসূচির উদ্বোধন করেন। এ সময় মন্ত্রী ছাড়াও সমিতির জিএম রবীন্দ দাস, উপজেলা চেয়ারম্যান মাহিবুল হোসেন মাহিম, ইউপি চেয়ারম্যান সিদ্দিকুর রহমান টুলু প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। এখানেও দুঃস্থ কল্যাণ সংস্থার উদ্যোগে কম্বল বিতরণ করা হয়। রাতে মন্ত্রী ধাওয়া ইউনিয়নের ফুলতলায় ত্রাণ অধিদপ্তরের ব্যবস্থাপনায় ব্রীজ নির্মাণ কাজের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেন।

সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে যোগদান

গত শুক্রবার রাতে আনোয়ার হোসেন মঞ্জু ভাণ্ডারিয়া থানা শিশুপার্ক পরিচালনা কমিটি আয়োজিত এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন। এখানে তিনি বলেন, আমাদের বাংলাদেশ একটি সম্ভাবনাময় দেশ। আর সেটির পরিচর্যা করারও প্রয়োজন আছে। সমগ্র বাংলাদেশকে বসবাসযোগ্য করে গড়ে তুলতে হবে। যে মানুষ স্বপ্ন দেখতে পারে না সে মানুষ দুর্ভোগ ছাড়া কিছুই বোঝে না। তিনি বলেন, ১৯৮৪ সালে আমি যখন ভাণ্ডারিয়ায় আসি তখন এলাকা ছিল অবহেলিত। আজ যতটুকু উন্নয়ন হয়েছে তা সকলের সম্মিলিত চেষ্টার ফসল। আমি কোনদিন এলাকার মানুষের সাথে রাজনীতি করিনি। ক্ষুধামুক্ত বাংলাদেশ গড়তে হলে সব নাগরিকের জন্য কর্মসংস্থান, খাদ্য, স্বাস্থ্য, শিক্ষা অপরিহার্য। উন্নয়নশীল দেশের পক্ষে সব কর্মকাণ্ড বাস্তবায়নে পর্যাপ্ত আর্থিক সঙ্গতি থাকে না। তাই আমাদের সীমাবদ্ধ আয়ের মধ্যেও উন্নয়ন করতে হবে। ভাণ্ডারিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার কাজী মাহবুবুর রশিদ'র সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন পিরোজপুর জেলা প্রশাসক এ কে এম শামীমুল হক ছিদ্দিকী, পুলিশ সুপার এস এম আক্তারুজ্জামান, ভাণ্ডারিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান মাহিবুল হোসেন মাহিম, বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মোঃ আমিনুল ইসলাম, ওসি মতিউর রহমান, জেপি নেতা ধাওয়া ইউপি চেয়ারম্যান সিদ্দিকুর রহমান টুলু, ভিটাবাড়ীয়া ইউপি চেয়ারম্যান মশিউর রহমান মৃধা, উপজেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক আবুবক্কর সিদ্দিক মন্টু হাওলাদার, যুগ্ম আহ্বায়ক লিয়াকত হোসেন তালুকদার, ফাইজুর রশিদ খসরু প্রমুখ। ঢাকা ও খুলনা বেতার ও টেলিভিশনের শিল্পীসহ ওসি মতিউর রহমান, পাপিয়া মজুমদার, নাহিদ সুলতানা, ক্ষুদে শিল্পী মেরি, নুসরাত সুলতানা, মহুয়া, পপিসহ অন্য শিল্পীরা গান পরিবেশন করেন। পরে স্থানীয় শিল্পীরা নৃত্য পরিবেশন করেন। তাদের মধ্যে রয়েছে নিশা, জনি, নাভিলা, বৃষ্টি ও মাহমুদা। কয়েক হাজার নারী-পুরুষ এ মনোমুগ্ধকর সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান উপভোগ করেন।

সন্ধ্যায় জাতীয় পার্টির (জেপি) চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন মঞ্জু ভাণ্ডারিয়ায় দলীয় কার্যালয়ে জেপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতা-কর্মীদের সাথে মতবিনিময় সভায় মিলিত হন। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে জেপি'র কেন্দ ীয় ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা চেয়ারম্যান মাহিবুল হোসেন মাহিম, যুগ্ম মহাসচিব মোঃ মনিরুল হক মনি জোমাদ্দার ও খলিলুর রহমান খলিল, ভাণ্ডারিয়া সদর ইউপি চেয়ারম্যান গোলাম সরোয়ার জোমাদ্দার, ধাওয়া ইউপি চেয়ারম্যান সিদ্দিকুর রহমান টুলু, ভিটাবাড়িয়ার ইউপি চেয়ারম্যান মশিউর রহমান মৃধা, নদমূলা ইউপি চেয়ারম্যান শফিকুল কবির বাবুল তালুকদার, ভাণ্ডারিয়া সরকারি কলেজের সাবেক ভিপি কামাল উদ্দিন জোমাদ্দারসহ বিপুলসংখ্যক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

এই পাতার আরো খবর -
font
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন
সিপিডির ফেলো ড. দেবপ্রিয় ভট্টাচার্য বলেছেন সুষ্ঠু ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন না হলে রাজনৈতিক অনিশ্চয়তা কাটবে না। এতে অর্থনীতি দীর্ঘ মেয়াদি সংকটে পড়বে।' আপনিও কি তাই মনে করেন?
1 + 4 =  
ফলাফল
আজকের নামাজের সময়সূচী
আগষ্ট - ২৫
ফজর৪:১৯
যোহর১২:০১
আসর৪:৩৪
মাগরিব৬:২৭
এশা৭:৪২
সূর্যোদয় - ৫:৩৮সূর্যাস্ত - ০৬:২২
archive
বছর : মাস :
The Daily Ittefaq
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: তাসমিমা হোসেন। উপদেষ্টা সম্পাদক হাবিবুর রহমান মিলন। ইত্তেফাক গ্রুপ অব পাবলিকেশন্স লিঃ-এর পক্ষে তারিন হোসেন কর্তৃক ৪০, কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ থেকে প্রকাশিত ও মুহিবুল আহসান কর্তৃক নিউ নেশন প্রিন্টিং প্রেস, কাজলারপাড়, ডেমরা রোড, ঢাকা-১২৩২ থেকে মুদ্রিত। কাওরান বাজার ফোন: পিএবিএক্স: ৭১২২৬৬০, ৮১৮৯৯৬০, বার্ত ফ্যাক্স: ৮১৮৯০১৭-৮, মফস্বল ফ্যাক্স : ৮১৮৯৩৮৪, বিজ্ঞাপন-ফোন: ৮১৮৯৯৭১, ৭১২২৬৬৪ ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭২, e-mail: [email protected], সার্কুলেশন ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭৩। www.ittefaq.com.bd, e-mail: [email protected]
Copyright The Daily Ittefaq © 2014 Developed By :