The Daily Ittefaq
ঢাকা, রবিবার, ২৭ জানুয়ারি ২০১৩, ১৪ মাঘ ১৪১৯, ১৪ রবিউল আওয়াল ১৪৩৪
সর্বশেষ সংবাদ ডিএসই: দিনশেষে সূচক বেড়েছে ৭ পয়েন্ট | সমুদ্রের নিচে ভারতের সফল ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা | ব্রাজিলে নাইটক্লাবে আগুন, নিহত ২৪৫ | বিসিবির গঠনতন্ত্রের সংশোধনী অবৈধ: হাইকোর্ট | কক্সবাজারে পৌরসভার নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের ডাকা আধাবেলা হরতাল পালন | মারমা কিশোরীকে ধর্ষণ-হত্যার প্রতিবাদে তিন পার্বত্য জেলায় অবরোধ পালন | শিক্ষকদের কর্মসূচি স্থগিত | যৌন হয়রানির সাজা হবে তাত্ক্ষণিক: শিক্ষামন্ত্রী | রাজধানীর পল্টন থানার মামলায় মির্জা ফখরুলের জামিন ও রিমান্ড আবেদন নামঞ্জুর | মায়ের মতো মন নিয়ে দেশের জন্য কাজ করছি: প্রধানমন্ত্রী | রাষ্ট্রপতির আহ্বান মূল্যহীন: মওদুদ | বিরোধী দলকে সংসদে এসে প্রস্তাব দিতে রাষ্ট্রপতির আহবান | জাতীয় সংসদের শীতকালীন অধিবেশন শুরু

নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে দেশসেবার সুযোগ দিন

রাঙ্গুনিয়ার জনসভায় শেখ হাসিনা

মোহাম্মদ আলী, রাঙ্গুনিয়া থেকে

প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসলে দেশের উন্নয়ন হয়, আর বিএনপি ক্ষমতায় আসলে দেশে লুটপাট, দুর্নীতি আর মানুষ খুন হয়। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসে সাধারণ মানুষের কাজ করতে আর বিএনপি ক্ষমতায় আসে মানুষের সম্পদ লুট করতে। খালেদা জিয়া দুর্নীতি করে টাকা কামিয়ে সেই কালোটাকা জরিমানা দিয়ে সাদা করেছেন। বিএনপি দুর্নীতি করে বিদেশে পাচার করা অর্থ দেশে ফিরিয়ে এনেছে। আওয়ামী লীগের শাসনামলে গত ৪ বছরে দেশের মানুষ শান্তিতে ঘুমাতে পেরেছে। তাই আগামী নির্বাচনে নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে আওয়ামী লীগকে আবারো নির্বাচিত করার আহ্বান জানান শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গতকাল বিকেলে রাঙ্গুনিয়া পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে উপজেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত এক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিএনপি'র শুধু দুই গুণ, আর তা হলো দুর্নীতি আর মানুষ খুন। শেখ হাসিনা বলেন, ২০১৪ সালের জানুয়ারীর মধ্যে নির্বাচন করতে হবে। উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে আগামী নির্বাচনেও আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় আনতে হবে। চলমান উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষা হবে। রাঙ্গুনিয়ার কর্ণফুলী জুট মিল ও ফোরাত কার্পেট মিল সরকারিভাবে চালুকরণ প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিএনপি জোট সরকার দুর্নীতি আর লুটপাটের মাধ্যমে দেশের পাটকলগুলো বন্ধ করে দিয়ে হাজার হাজার মানুষকে বেকার করেছে। আওয়ামী লীগ ৭৮ লক্ষ মানুষের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করেছে। বেকার যুবকদের জন্য জামানত ছাড়া এক লক্ষ ঋণ পাওয়ার ব্যবস্থা করেছে। আওয়ামী লীগ বন্ধ পাটকলসমূহ পুনরায় চালু করে সোনালী আঁঁশের স্বর্ণালী দিন আবার ফিরিয়ে আনছে।

উন্নয়নের বর্ণনা দিতে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা দেশে বিদ্যুতের উন্নয়ন করতে সক্ষম হয়েছি। এখন দেশে লোডশেডিং নেই। ডিজিটাল বাংলাদেশ গঠনে গ্রাম পর্যায়ে ইউনিয়ন তথ্য সেবা কেন্দ্র চালু করেছি, ইন্টারনেট সেবার মাধ্যমে প্রবাসীরা তাদের বাড়িতে স্বজনদের সাথে স্কাইপের মাধ্যমে কথা বলতে পারছেন। দেশে থ্রীজি মোবাইল ফোন চালু হয়েছে। গ্রামীণ মানুষের স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করেছি। সরকারিভাবে এখন সামান্য খরচে মালয়েশিয়া লোক পাঠানো হচ্ছে। প্রাথমিক ও মাধ্যমিক শিক্ষার উন্নয়নে শিক্ষার্থীদের হাতে বিনামূল্যে বই বিতরণ করছি।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব খলিলুর রহমান চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজী মোহাম্মদ জসীমের সঞ্চালনায় সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন রাঙ্গুনিয়ার সাংসদ পরিবেশ ও বনমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ এমপি, পাট ও বস্ত্র মন্ত্রী আবদুল লতিফ সিদ্দিকী এমপি, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রী ডাঃ আফসারুল আমীন এমপি, শ্রম ও কর্মসংস্থাপন প্রতিমন্ত্রী মুন্নুজান সুফিয়ান এমপি, উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার মোশারফ হোসেন এমপি, পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের চেয়ারম্যান বীর বাহাদুর এমপি, পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী দীপংকর তালুকদার এমপি, আবুল কাশেম এমপি, এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী এমপি, চেমন আরা তৈয়ব এমপি, হাসিনা মান্নান এমপি, শামসুল হক চৌধুরী এমপি, নুরুল ইসলাম বিএসসি এমপি, চট্টগ্রামের সাবেক মেয়র এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী, সিডিএ চেয়ারম্যান আবদুস সালাম প্রমুখ।

যুদ্ধাপরাধীদের বিচার প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ২০০১ সালে বিএনপি সরকার ক্ষমতায় এসে '৭১ এর হানাদারের দোসর আলবদর রাজাকারদের হাতে ক্ষমতা তুলে দিয়েছিল, রাজনৈতিকভাবে তাদেরকে প্রতিষ্ঠিত করেছিল। আওয়ামী লীগ এই যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন করছে। এদেশের মাটিতে যুদ্ধাপরাধীদের বিচার হবেই।

দেশের অর্থনৈতিক অগ্রগতি প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, দেশে ত্রিশ লক্ষ মেঃ টন খাদ্য ঘাটতি ছিলো। সেই খাদ্য ঘাটতি মিটিয়ে দেশ এখন খাদ্যে স্বয়ং সম্পূর্ণ। বয়স্ক ও বিধবা ভাতা আওয়ামী লীগ সরকারই চালু করেছে। দেশের মানুষ যাতে শান্তিতে থাকতে পারে এটাই আওয়ামী লীগ সরকারের লক্ষ্য। সমাবেশের পূর্বে প্রধানমন্ত্রী রাঙ্গুনিয়ার পোমরা এলাকায় কর্ণফুলী জুট মিল ও ফোরাত কর্ণফুলী কার্পেট ফ্যাক্টরী সরকারিভাবে চালুকরণ কার্যক্রম উদ্বোধন করেন।

আইইবি'র জাতীয় কনভেনশন

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রকৌশলীদের প্রতি মুুক্তিযুদ্ধের চেতনায় ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত বাংলাদেশ গড়ার সংগ্রামে এগিয়ে আসার আহবান জানিয়ে বলেন, বাংলাদেশের বড় শত্রু দারিদ্র্য। তিনি বলেন, দেশের উন্নয়নের জন্য অন্যের কাছ থেকে টাকা ধার নিয়ে তাদের ছবক নেয়াটা অপমানজনক। মুক্তিযুদ্ধে যে জাতি বিজয় অর্জন করেছে, সে জাতি দেশের অর্থনীতিকেও সমৃদ্ধ করতে পারবে এই অভিমত তুলে ধরে তিনি দেশের সকল সম্পদের সর্বোচ্চ ব্যবহারের উপর গুরুত্ব দেন।

গতকাল শনিবার দুপুরে ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন চট্টগ্রাম কেন্দ্র চত্বরে ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন অব বাংলাদেশের ৫৪তম জাতীয় কনভেনশনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন। তিনি ৭দিনব্যাপী এই কনভেনশনের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনও ঘোষণা করেন। প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের গণতান্ত্রিক সরকার আসলেই দেশের উন্নতি হয়। এর আগে যারা ছিলো তারা দেশকে সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, মানিলন্ডারিং ও দুর্নীতির মাধ্যমে পিছিয়ে দিয়েছে। দেশ গণতান্ত্রিক ধারাবাহিকতার অভাবেই বার বার পিছিয়ে গেছে।

প্রধানমন্ত্রী ১৯৭৪ সালে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমুদ্র সীমানা আইন প্রণয়নের কথা স্মরণ করে বলেন, কোনো দেশই তখন পর্যন্ত এই আইন করতে পারেনি। জাতিসংঘ ১৯৮২ সালে এই আইন করে। '৯৬ সালে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন সরকার ক্ষমতায় এসে জাতিসংঘের আইনের প্রতি অনুসমর্থন জানায়।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বর্তমান সরকার দেশের বিদ্যুত্ চাহিদা মেটাতে পরমাণবিক বিদ্যুত্ প্রকল্প স্থাপনের উদ্যোগ নিয়েছে। সেখানে প্রচুর সংখ্যক প্রকৌশলীর কর্মসংস্থানের সুযোগ হবে। প্রধানমন্ত্রী দেশে গ্যাস, জ্বালানি, আবাসনসহ সকল কর্মকাণ্ডে সবাইকে মিতব্যয়ী হওয়ার আহবান জানিয়ে বলেন, নবায়নযোগ্য শক্তি এবং সৌরশক্তির উপর সরকার সেই দৃষ্টিকোণ থেকে বিশেষ গুরুত্ব দিয়েছে। তিনি বলেন, এক্ষেত্রে প্রকৌশলীরা অবদান রাখতে পারেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট প্রকৌশলী মোহাম্মদ নুরুল হুদা। স্বাগত বক্তব্য রাখেন ৫৪তম জাতীয় কনভেনশন প্রস্তুতি কমিটি ও স্বাগতিক আইইবি চট্টগ্রাম কেন্দ্রের চেয়ারম্যান প্রকৌশলী মোহাম্মদ হারুন। আরো বক্তব্য রাখেন আইইবি'র সেক্রেটারি প্রকৌশলী মোহাম্মদ আব্দুস সবুর এবং কনভেনশনের সদস্য সচিব ও আইইবি চট্টগ্রাম কেন্দ্রের সেক্রেটারি প্রকৌশলী এমএ রশীদ। প্রধানমন্ত্রী অনুষ্ঠানে আইইবি চট্টগ্রাম ভবনের ডিজিটাল ফলক উন্মোচন করেন। তিনি ১০১ জন প্রকৌশলীর মধ্যে সনদ ও পদক বিতরণ করেন।

এই পাতার আরো খবর -
font
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন
সংবিধান সংশোধন ছাড়া সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব নয়। ড. কামাল হোসেনের এই মন্তব্য যৌক্তিক বলে মনে করেন?
8 + 8 =  
ফলাফল
আজকের নামাজের সময়সূচী
ফেব্রুয়ারী - ২৯
ফজর৫:০৫
যোহর১২:১২
আসর৪:২৩
মাগরিব৬:০৪
এশা৭:১৭
সূর্যোদয় - ৬:২১সূর্যাস্ত - ০৫:৫৯
archive
বছর : মাস :
The Daily Ittefaq
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: তাসমিমা হোসেন। উপদেষ্টা সম্পাদক হাবিবুর রহমান মিলন। ইত্তেফাক গ্রুপ অব পাবলিকেশন্স লিঃ-এর পক্ষে তারিন হোসেন কর্তৃক ৪০, কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ থেকে প্রকাশিত ও মুহিবুল আহসান কর্তৃক নিউ নেশন প্রিন্টিং প্রেস, কাজলারপাড়, ডেমরা রোড, ঢাকা-১২৩২ থেকে মুদ্রিত। কাওরান বাজার ফোন: পিএবিএক্স: ৭১২২৬৬০, ৮১৮৯৯৬০, বার্ত ফ্যাক্স: ৮১৮৯০১৭-৮, মফস্বল ফ্যাক্স : ৮১৮৯৩৮৪, বিজ্ঞাপন-ফোন: ৮১৮৯৯৭১, ৭১২২৬৬৪ ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭২, e-mail: [email protected], সার্কুলেশন ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭৩। www.ittefaq.com.bd, e-mail: [email protected]
Copyright The Daily Ittefaq © 2014 Developed By :