The Daily Ittefaq
ঢাকা, বৃহস্পতিবার ৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৩, ২৫ মাঘ ১৪১৯, ২৫ রবিউল আওয়াল ১৪৩৪
সর্বশেষ সংবাদ জামিন পেলেন হল-মার্ক চেয়ারম্যান জেসমিন | সাগর-রুনি হত্যা: এনামুল সন্দেহে আটক ২০ জন | ৩৪তম বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ | নির্বাচনের আগেই আন্দোলন করে নেতাদের মুক্ত করা হবে: জামায়াত | বিপিএল: খুলনাকে ৮৯ রানে হারালো চট্টগ্রাম | ময়মনসিংহে সুলতান মীর হত্যা মামলায় চারজনের ফাঁসি | শনিবার চট্টগ্রামে সকাল-সন্ধ্যা হরতাল | 'দেশে নতুন ভোটার সংখ্যা ৭০ লক্ষাধিক' | 'দেশের অর্থে পদ্মা সেতু হলে চালের কেজি ১৫০ টাকা হবে' | বার্সেলোনা আসবে: সংসদে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী | ফেইসবুকে প্রধানমন্ত্রীর নামে অ্যাকাউন্ট খুলল কে? | ফাঁসির দাবি শাহবাগ থেকে এখন সারাদেশে

বিক্ষিপ্ত সংঘর্ষের মধ্যে দ্বিতীয় দিনের হরতাল পালন জামায়াতের

দেশজুড়ে গ্রেফতার শতাধিক

ইত্তেফাক রিপোর্ট

জামায়াতে ইসলামীর ডাকা দ্বিতীয় দিনের সকাল-সন্ধ্যা হরতালে রাজধানীসহ সারাদেশে গাড়ি ভাংচুর, বিক্ষিপ্ত সংঘর্ষ, বোমা বিস্ফোরণ ও ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। দুপুরে সচিবালয়ের উত্তরপাশে একটি হাতবোমার বিস্ফোরণ ঘটে। হরতালে পুলিশ রাজধানীসহ সারাদেশে শতাধিক জামায়াত-শিবির কর্মীকে গ্রেফতার করেছে। অন্যান্য হরতালের তুলনায় গতকাল রাজধানীতে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক যানবাহন চলাচল করে। তবে রাজধানীর সাথে দূরপাল্লার রুটে বাস চলাচল বন্ধ ছিল। কিন্তু ট্রেন, লঞ্চ, বিমান চলাচল ছিল স্বাভাবিক। সচিবালয়সহ অফিস-আদালতে কাজকর্ম চলে। ব্যাংকে যথারীতি লেনদেন হয়।

মঙ্গলবারের হরতালে চট্টগ্রামে সংঘাতে চারজনের প্রাণহানি এবং দেশের বিভিন্ন স্থানে সংঘর্ষ, ভাংচুর ও বিক্ষিপ্ত বোমাবাজির পর গতকাল ঢাকা ও চট্টগ্রামে বিজিবি মোতায়েন করা হয়। তবে হরতালের প্রথম প্রহরে রাজধানীর গুরুত্বপূর্ণ এলাকায় বিজিবি সদস্যদের দেখা যায়নি। বিশৃঙ্খলা এড়াতে রাজধানীর প্রতিটি সড়কে মোতায়েন ছিল বিপুল সংখ্যক পুলিশ ও র্যাব সদস্য। রাজধানীর সড়কগুলোতে হরতাল সমর্থকদের মিছিল-সমাবেশ না দেখা গেলেও হরতাল বিরোধী মিছিল হয়েছে বিভিন্ন স্থানে।

দুপুর আড়াইটার দিকে তোপখানা রোডের হোটেল বাগদাদের সামনে সচিবালয়ের উত্তরপাশে একটি হাতবোমার বিস্ফোরণ ঘটে। বিস্ফোরণে কেউ আহত হয়নি। যারা ঘটিয়েছে, তাদের কাউকেও সনাক্ত কিংবা গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ। হরতাল সমর্থকরা এই ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে বলে পুলিশ ধারণা করছে।

সকাল পৌনে ৮টার দিকে মাতুয়াইল সানারপাড় এলাকায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে জামায়াত-শিবির কর্মীরা রাস্তায় চলাচলকারী যানবাহন লক্ষ্য করে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে। এ সময় বিআরটিসির দোতলা বাসের সামনে দাঁড়িয়ে দুই শিবির কর্মী পিকেটিং করার চেষ্টা করলে চালক তাদের চাপা দিয়ে পালিয়ে যায়। বাসের চাকায় দুই শিবির কর্মীর পা পিষ্ট হয়ে যায়। ঐ সময় পুলিশ ও র্যাব শিবির কর্মীদের আটক করার চেষ্টা করলে তারা তাদের আহত দুই সহকর্মীকে ঘাড়ে তুলে নিয়ে পালিয়ে যায়। সকালে যাত্রাবাড়ীর শহীদ ফারুক রোড এলাকায় জামায়াত-শিবির একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করে। মিছিলকারীরা এ সময় রাস্তায় ১টি পিকআপ ভ্যান ও ১টি লেগুনা ভাংচুর করে। পুলিশ বাধা দিলে মিছিলকারীরা বিভিন্ন গলিতে প্রবেশ করে পালিয়ে যায়।

হরতাল চলাকালে দুপুরে বনানীতে শিবির কর্মীদের তাড়া খেয়ে একটি মাইক্রোবাস রাস্তার ডিভাইডারে লেগে উল্টে গিয়ে চালক আব্দুল খালেক গুরুতর আহত হন। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে বনানীর নৌ বাহিনীর সদর দফতরের সামনে বিমানবন্দর সড়কে কয়েকজন শিবিরকর্মী একটি মাইক্রোবাস লক্ষ্য করে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে। এ সময় মাইক্রোবাসটি রাস্তার ডিভাইডারে লেগে উল্টে যায়। এ ঘটনার পর হামলাকারী শিবির কর্মীরা মোটরসাইকেলে পালিয়ে যায়।

সকাল সাড়ে ৬টার দিকে মিরপুরের শ্যাওড়াপাড়া এলাকায় কয়েকজন শিবির কর্মী রাস্তায় টায়ার জ্বালিয়ে সড়ক অবরোধের চেষ্টা করে। এ সময় পুলিশের মিরপুর অঞ্চলের উপকমিশনার ইমতিয়াজ আহমেদ গাড়ি নিয়ে ঐ সড়ক দিয়ে যাচ্ছিলেন। তার গাড়ি থেকে নিরাপত্তা সদস্যরা নেমে দুজনকে আটক করে কাফরুল থানায় নিয়ে যায়। সকাল ৭টার দিকে মিরপুর-১ নম্বর ও বাঙলা কলেজ এলাকাতেও পুলিশের সঙ্গে শিবির কর্মীদের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া হয়। বাঙলা কলেজ এলাকায় হরতালকারীরা কয়েকটি গাড়ি ভাংচুর করে। মিরপুর-১ নম্বর এলাকায় পুলিশের একটি গাড়িতেও হামলার চেষ্টা করা হয়। এদিকে সকাল সাড়ে ১০টার দিকে মিরপুরে স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও এর সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীরা হরতালবিরোধী মিছিল বের করে। হরতালে পুরো মিরপুর এলাকায় যানবাহন চলাচল প্রায় স্বাভাবিক ছিল। অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে বিভিন্ন পয়েন্টে পুলিশ ও র্যাব সদস্য মোতায়েন ছিল।

এদিকে রাজধানীর বাইরে বিভিন্ন স্থানে বিক্ষিপ্ত সংঘর্ষের মধ্যে হরতাল পালিত হয়েছে। ইত্তেফাক সংবাদদাতাদের পাঠানো খবরঃ

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি ঃ নারায়ণগঞ্জে পুলিশের সঙ্গে শিবির নেতাকর্মীদের বিক্ষিপ্ত সংঘর্ষ ও ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া, যানবাহনে আগুন, পুলিশের গুলিবর্ষণের মধ্যদিয়ে বুধবার হরতালের দ্বিতীয় দিন পালিত হয়েছে। পুলিশের ছোঁড়া গুলিতে শিবিরের ৩ জন গুলিবিদ্ধসহ সংঘর্ষে আহত হয়েছে পুলিশের একজন ওসিসহ অন্তত ১৫ জন। শিবিরের কর্মীরা বাস ও ট্রাকে আগুন ধরিয়ে দেয় ও ভাংচুর চালায়। পুলিশ এসব ঘটনায় গুলিবিদ্ধ ৩ জনসহ ৭ জনকে আটক করেছে। তাদের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে ৪ বোতল পেট্রোল, রড ও দিয়াশলাই।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সকাল পৌনে ৭টায় শহরের গলাচিপা মোড় থেকে নারায়ণগঞ্জ মহানগর ইসলামী ছাত্র শিবিরের একটি মিছিল বের হয়। মিছিলটি শহরের চাষাঢ়ায় মার্ক টাওয়ারে সামনে আসা মাত্র পুলিশ চারদিক থেকে মিছিলটি ঘিরে ফেলে শর্টগান থেকে রাবার বুলেট নিক্ষেপ করতে থাকে। শিবিরের লোকজনও পুলিশকে লক্ষ্য করে পাল্টা ইটপাটকেল নিক্ষেপ করলে শুরু হয় উভয় পক্ষের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া। পুলিশের ছোঁড়া গুলিতে আহত হয় পারভেজ, মামুন ও রেজাউল করীম নামের ৩ জন শিবির কর্মী। আটক করা হয়েছে গুলিবিদ্ধ ৩ জনসহ ৫ জনকে। অপর ২ জন হলেন তরিকুল ও আমির হোসেন নবী। সংঘর্ষের ঘটনায় নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার ওসি এস এম মঞ্জুর কাদের আহত হয়। নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার ওসি মঞ্জুর কাদের জানান, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ ৪২ রাউন্ড রাবার বুলেট ও ৩ রাউন্ড কাদানে গ্যাস ছোঁড়ে। এদিকে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ওসি আব্দুল মতিন জানান, সকাল সাড়ে ১০টার দিকে সদর উপজেলার সিদ্ধিরগঞ্জ পুল এলাকায় লাঠিসোঁটা, রামদা, ধারালো অস্ত্র নিয়ে জামায়াত-শিবির কর্মীরা মিছিল বের করে। এ সময় নারায়ণগঞ্জ-আদমজী-ডেমরা সড়কের সিদ্ধিরগঞ্জ পুলের পাশে রাখা একটি মিনিবাস এবং ট্রাকে আগুন দেয় হরতালকারীরা। দায়িত্বে থাকা পুলিশ সদস্যরা বাধা দিতে গেলে হরতালকারীরা তাদের আক্রমণ করে। একপর্যায়ে পুলিশ পাশের মোহাম্মদিয়া হোটেল ও ফোকাস স্টুডিওতে আশ্রয় নিলে সেখানেও হামলা চালায় হরতালকারীরা।

খুলনা অফিস ঃ গতকাল বুধবার সকালে নগরীর রূপসা বাইপাস সড়কের খেজুরতলা এলাকায় পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে ১০ শিবির কর্মী গুলিবিদ্ধ ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এএসপি) ইমামুর রশীদ ও তার গাড়ীর চালক কনস্টেবল আমজাদ হোসেন আহত হয়েছেন। এ সময় অতিরিক্ত পুলিশ সুপারের গাড়ী ভাংচুর করে শিবির কর্মীরা। পরে পুলিশ ওই এলাকায় অভিযান চালিয়ে বটিয়াঘাটা উপজেলা ছাত্র শিবিরের সাবেক সভাপতিসহ দুই শিবির কর্মীকে আটক করে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ জানায়, সকাল ৮টার দিকে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইমামুর রশীদ রূপসা উপজেলায় হরতালের দায়িত্ব পালন করে নগরীর পার্শ্ববর্তী জিরো পয়েন্ট এলাকায় ফিরছিলেন। তিনি রূপসা বাইপাস সড়কের খেজুরতলায় পৌঁছালে হরতালের সমর্থনে বিক্ষোভরত শিবির কর্মীরা তার গাড়ি লক্ষ্য করে ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করে। এ সময় এএসপির সঙ্গে থাকা চারজন কনস্টেবল তাদের ধাওয়া করলে পুলিশের সাথে শিবির কর্মীদের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। প্রায় আধা ঘন্টাব্যাপী এই সংঘর্ষ চলে। এ সময় পুলিশ শিবির কর্মীদের লক্ষ্য করে ৩২ রাউন্ড শটগানের গুলি ও টিয়ারসেল নিক্ষেপ করে। এতে শিবিরকর্মী ইমরান, লিটন, আব্দুল কুদ্দুস, মোতালেব, রিয়াজ, রাজু, মনি আব্দুল্লাহ, হাফিজ ও রনি গুলিবিদ্ধ হয়। একপর্যায়ে গুলি ফুরিয়ে গেলে পুলিশ পিছু হটলে শিবির কর্মীরা অতিরিক্ত পুলিশ সুপারের গাড়িতে হামলা চালায় ও ভাংচুর করে। দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ খেজুরতলা ও হরিণটানা এলাকায় অভিযান চালিয়ে বটিয়াঘাটা উপজেলা ছাত্র শিবিরের সাবেক সভাপতি আহসান কবির ও শিবির কর্মী মাহবুবুর রহমানকে আটক করে। খুলনার পুলিশ সুপার মোঃ গোলাম রউফ খান জানান, পুলিশের ওপর হামলা ও গাড়ি ভাংচুরকারীদের বিরুদ্ধে গ্রেফতার অভিযান শুরু হয়েছে। ঘটনায় মামলা দায়ের করা হবে। এদিকে জামায়াত-শিবিরের ডাকা হরতাল গতকাল বুধবার খুলনা মহানগরীতে ঢিলেঢালাভাবে পালিত হয়।

সাতকানিয়া (চট্টগ্রাম) সংবাদদাতা ঃ গতকাল বুধবার জামায়াতে ইসলামীর ডাকা সকাল-সন্ধ্যা হরতালের ২য় দিন চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের সাতকানিয়া কেরানীহাট এলাকা থেকে ৫ জামায়াত-শিবির নেতা-কর্মীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। হরতাল চলাকালে শিবির সমর্থকরা উপজেলার মহাসড়কসহ বিভিন্ন অভ্যন্তরীণ সড়কে ব্যারিকেড দিয়ে যান চলাচলে বাধা সৃষ্টি করে। এ সময় পুলিশের সাথে পিকেটারদের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে।

বরগুনা (উত্তর) প্রতিনিধি ঃ হরতালে নাশকতা সৃষ্টির আশংকায় বরগুনার বিভিন্ন উপজেলার জামায়াত-শিবিরের ৬ কর্মীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃতরা হচ্ছে- বেতাগীর কাউনিয়ার কবির হোসেন ফরাজী, বরগুনা সদরের ফুলতলা গ্রামের শামীম হোসেন, পাথরঘাটার কালিবাড়ি গ্রামের বাদশা মিয়া, ডাক্তার শাহআলম, আমতলীর গাজীপুর গ্রামের নূরু আলম হাওলাদার ও বামনার খোলপটুয়া গ্রামের শাহাবুদ্দিন বাচ্চু।

রাজশাহী অফিস ঃ

গতকাল বুধবার রাজশাহীতে জামায়াতের সকাল-সন্ধ্যা হরতালের শুরুতে সকাল সাড়ে ৭টার দিকে মহানগরীর দাশপুকুর সড়কে ছাত্রশিবির নেতা-কর্মীদের সঙ্গে পুলিশের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, সকালে মিছিল নিয়ে এসে ছাত্রশিবির নেতা-কর্মীরা দাশপুকুর এলাকার রাস্তার পাশের আড়ত থেকে খড়ি নিয়ে আগুন জ্বালিয়ে অবরোধ ও বিক্ষোভ শুরু করে। খবর পেয়ে পুলিশের একটি পিকআপ ভ্যান ঘটনাস্থলে যাওয়ার চেষ্টা করলে শিবির নেতা-কর্মীরা দূর থেকেই পুলিশের উপর ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করে।

গাজীপুর প্রতিনিধি ঃ দুই-একটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা ছাড়া গাজীপুরে শান্তিপূর্ণ ভাবে গতকাল বুধবার জামায়াতের ডাকা সকাল-সন্ধ্যা হরতাল পালিত হয়েছে। জয়দেবপুর থানার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে নাশকতার পরিকল্পনার অভিযোগে জামায়াত-শিবিরের ১৪ নেতা-কর্মীকে আটক করেছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। সকাল সোয়া ৯টার দিকে ঢাকা-গাজীপুর সড়কের চান্দনা চৌরাস্তা সংলগ্ন রওশন সড়ক এলাকায় পিকেটাররা বেশ কয়েকটি গাড়িতে ভাঙচুর চালায়, এতে আহত হন এক বাস চালক। এছাড়া তারা বেশ কয়েকটি গাড়ি ভাঙচুর করে।

উল্লাপাড়া (সিরাজগঞ্জ) সংবাদদাতা ঃ কাদের মোল্লার রায়ের প্রতিবাদে জামায়াতে ইসলামীর ডাকা হরতালের ২য় দিনে উল্লাপাড়ায় হরতাল সমর্থকদের সাথে পুলিশের ব্যাপক সংঘর্ষ। হরতাল চলাকালীন গতকাল সকালে উপজেলার হাটিকুমরুল বনপাড়া মহাসড়কে গ্যাস লাইন নামক স্থানে হরতাল সমর্থকদের সমাবেশের উপর পুলিশ গুলি চালালে মানিক দিয়ার গ্রামের মুন্নু (৩৫) ও বনবাড়িয়ার রহুলউল্লাহ (৩০) নামের শিবিরের দুই সদস্য গুলিবিদ্ধ ও ৫ জন আহত হয়। এ সময় গুলিবিদ্ধসহ জামায়াতের ৮ সদস্যকে পুলিশ গ্রেফতার করে।

জয়পুরহাট প্রতিনিধি : জামায়াতের দেশব্যাপী ডাকা বুধবার সকাল-সন্ধ্যা হরতালে জয়পুরহাটে সকাল হতেই শহরের বাজলা স্কুলের সামনে, আমতলী, খঞ্জনপুর, জয়পুরহাট-বগুড়া মহাসড়কের হিচমীতে, পাঁচবিবি-হিলি সড়কের পুরানাপৈলসহ জেলার বিভিন্ন স্থানে জামায়াত-শিবির কর্মীরা রাস্তায় টায়ারে আগুন জ্বালিয়ে হরতাল সমর্থনে খণ্ড খণ্ড বিক্ষোভ মিছিল ও পিকেটিং করে। জেলার পাঁচবিবি উপজেলাসহ অন্যান্য স্থান হতে ধুরইল গ্রামের মামুনুর রশীদ ও তার পিতা আমজাদ হোসেন, বালিঘাটার ডাঃ সাজেদুর রহমান ও কাপড় ব্যবসায়ী সিরাজুল ইসলাম সহ মোট ৮ জন জামায়াত-শিবির কর্মীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি: গতকাল বুধবার চাঁপাইনবাবগঞ্জে জামায়াত-শিবিরের ২য় দিনের সকাল-সন্ধ্যা হরতাল পালিত হয়। হরতাল চলাকালে উচ্ছৃংখল যুবকেরা লাঠিসোঠা ও ইটপাটকেল নিয়ে শহরের বিভিন্ন অলিগলিতে মহড়া দেয়। ফলে শহরের দোকানপাট বন্ধ হয়ে যায়।

হরতালে নাশকতার আশংকায় মঙ্গলবার গভীর রাতে পুলিশ জামায়াত- শিবিরের ৪ কর্মীকে গ্রেফতার করে।

পাঁচবিবি (জয়পুরহাট) সংবাদাদতা: গতকাল বুধবার জামায়াতের ডাকে ২য় দিন হরতাল চলাকালীন সময়ে ধ্বংসাত্মক কাজের অভিযোগে জয়পুরহাটের পাঁচবিবি থানা পুলিশ দু'জনকে আটক করে। আটককৃতরা হল পাঁচবিবি উপজেলার বালিঘাটা ইউনিয়ন জামায়াতের সাধারণ সম্পাদক (টিম লিডার) আটুল গ্রামের মোঃ সাজেদুর রহমান (৪৫) ও একই গ্রামের জামায়াত কর্মী সিরাজুল ইসলাম (২০)।

গাংনী (মেহেরপুর) সংবাদদাতা : মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে জামায়াত শিবিরের ৭ জন কর্মীকে আটক করেছে গাংনী থানা পুলিশ।

গাংনী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মিজানুর রহমান খান জানান, এদের কার্যবিধির ১৫১ ধারায় আটক করা হয়েছে। আটক ব্যক্তিরা হরতাল চলাকালীন সময়ে এলাকায় নাশকতা ঘটানোর পরিকল্পনা করার চেষ্টা চালানোর আশংকায় আটক করা হয়েছে।

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি: লক্ষ্মীপুরের চন্দ্রগঞ্জ কফিল উদ্দিন ডিগ্রি কলেজের সামনে আজ বুধবার দুপুরে হরতাল চলাকালীন যুবলীগ ও শিবির সংঘর্ষে ৫ শিবির কর্মী আহত হয়েছে। গুরুতর আহত শিবির কর্মী মাকছুদ আলমকে নোয়াখালী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

পঞ্চগড় প্রতিনিধি: পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জে হরতালের সমর্থনে জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মীরা গতকাল বুধবার সকালে মিছিল বের করলে পুলিশ ও আওয়ামীলীগ নেতাকর্মীদের সাথে তাদের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এ সময় পুলিশ মিছিলে লাঠিচার্জসহ টিয়ারসেল ও রাবার বুলেট ছুঁড়ে। এতে জামায়াত-শিবিরের কমপক্ষে ১৫ নেতাকর্মী আহত হয়। মিছিল থেকে পুলিশ জামায়াত-শিবিরের পাঁচ নেতাকর্মীকে আটক করে।

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি: জামায়াত-শিবিরের ডাকা হরতাল চলাকালে সিরাজগঞ্জের হাটিকুমরুলে পুলিশের সাথে পিকেটারদের সংঘর্ষে ২ ওসি ও ১০ পুলিশ সদস্যসহ অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় ২ শিবিরকর্মীসহ ৮জনকে আটক করা হয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ ১৬ রাউন্ড রাবার বুলেট ও ৪ রাউন্ড শর্ট গানের গুলি নিক্ষেপ করে।

রায়গঞ্জ (সিরাজগঞ্জ) সংবাদদাতা: রায়গঞ্জের সলঙ্গায় জামায়াত-পুলিশ সংঘর্ষে পুলিশসহ ১৩ জন আহত ও ৮জন জামায়াত কর্মী গ্রেফতার হয়েছে। পুলিশের গুলি ও লাঠিচার্জে ২জন জামায়াত-শিবিরের অন্তত ৭/৮জন কর্মী গুরুতর আহত হয়।

এই পাতার আরো খবর -
font
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন
বিষয়ভিত্তিক টিভি চ্যানেল কেউ স্থাপন করতে চাহিলে সরকার বিবেচনা করবে—তথ্যমন্ত্রীর এই বক্তব্য আপনি সমর্থন করেন কি?
2 + 3 =  
ফলাফল
আজকের নামাজের সময়সূচী
সেপ্টেম্বর - ১৮
ফজর৪:২৯
যোহর১১:৫৩
আসর৪:১৭
মাগরিব৬:০৩
এশা৭:১৬
সূর্যোদয় - ৫:৪৫সূর্যাস্ত - ০৫:৫৮
archive
বছর : মাস :
The Daily Ittefaq
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: তাসমিমা হোসেন। উপদেষ্টা সম্পাদক হাবিবুর রহমান মিলন। ইত্তেফাক গ্রুপ অব পাবলিকেশন্স লিঃ-এর পক্ষে তারিন হোসেন কর্তৃক ৪০, কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ থেকে প্রকাশিত ও মুহিবুল আহসান কর্তৃক নিউ নেশন প্রিন্টিং প্রেস, কাজলারপাড়, ডেমরা রোড, ঢাকা-১২৩২ থেকে মুদ্রিত। কাওরান বাজার ফোন: পিএবিএক্স: ৭১২২৬৬০, ৮১৮৯৯৬০, বার্ত ফ্যাক্স: ৮১৮৯০১৭-৮, মফস্বল ফ্যাক্স : ৮১৮৯৩৮৪, বিজ্ঞাপন-ফোন: ৮১৮৯৯৭১, ৭১২২৬৬৪ ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭২, e-mail: [email protected], সার্কুলেশন ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭৩। www.ittefaq.com.bd, e-mail: [email protected]
Copyright The Daily Ittefaq © 2014 Developed By :