The Daily Ittefaq
ঢাকা, বৃহস্পতিবার ৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৩, ২৫ মাঘ ১৪১৯, ২৫ রবিউল আওয়াল ১৪৩৪
সর্বশেষ সংবাদ জামিন পেলেন হল-মার্ক চেয়ারম্যান জেসমিন | সাগর-রুনি হত্যা: এনামুল সন্দেহে আটক ২০ জন | ৩৪তম বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ | নির্বাচনের আগেই আন্দোলন করে নেতাদের মুক্ত করা হবে: জামায়াত | বিপিএল: খুলনাকে ৮৯ রানে হারালো চট্টগ্রাম | ময়মনসিংহে সুলতান মীর হত্যা মামলায় চারজনের ফাঁসি | শনিবার চট্টগ্রামে সকাল-সন্ধ্যা হরতাল | 'দেশে নতুন ভোটার সংখ্যা ৭০ লক্ষাধিক' | 'দেশের অর্থে পদ্মা সেতু হলে চালের কেজি ১৫০ টাকা হবে' | বার্সেলোনা আসবে: সংসদে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী | ফেইসবুকে প্রধানমন্ত্রীর নামে অ্যাকাউন্ট খুলল কে? | ফাঁসির দাবি শাহবাগ থেকে এখন সারাদেশে

'তিনি ফিটফাট ভদ্রলোক'

ট্রেনের ত্রাস পকেটমার সর্দার আলম

পিনাকি দাসগুপ্ত / কাজী রফিক

নামটি তার মোহাম্মদ আলম। বয়স তিরিশের কোঠায়। গায়ের রংটি শ্যামলা। সবসময় থাকেন পরিপাটি। কথাবার্তা— তাও গোচ্ছালো। প্রথম দর্শনেই মনে হবে তিনি কোন অফিসের কর্মকর্তা অথবা ভাল একজন ব্যবসায়ি। সব মিলে তিনি একজন ফিটফাট ভদ্রলোক। কিন্তু এটি তার আসল রূপ নয়। তিনি ট্রেন যাত্রীদের কাছে ত্রাস। মানুষরূপী দানব। তার কথার অবাধ্য হলে যে কাউকেই ট্রেন থেকে ফেলে দিতে তিনি বিন্দুমাত্র দ্বিধা করেন না। শুধু ট্রেনেই নয়। বিমানবন্দর রেলস্টেশন এলাকার ফুটপাতের দোকানদাররাও তার কাছে জিম্মি। কথাগুলো বিমানবন্দর ট্রেন স্টেশনের একজন দোকানদারের। তিনি বিমানবন্দর স্টেশনের দোকানদারী করছেন প্রায় এক যুগ ধরে। আলমকে বিমানবন্দর এলাকা থেকে গতকাল বুধবার গ্রেফতার করে রেলওয়ে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, গত পাঁচ মাসে কমলাপুর-জয়দেবপুর রুটে চলন্ত ট্রেন থেকে ফেলে দিয়ে পকেটমার ও ছিনতাইকারীরা হত্যা করে ৪০ জন যাত্রীকে। এদের অধিকাংশ ঘটনার সঙ্গে আলম ও তার সহযোগীরা জড়িত রয়েছে। সূত্র জানায়, টঙ্গীর মুদাফা ফকির মার্কেট এলাকার নূর মোহাম্মদের ছেলে মোঃ আলম। ২০০৫ সালের দিকে এলাকায় চুরির অভিযোগে গণপিটুনির শিকার হন। এরপর এলাকা ছাড়েন। আশ্রয় নেন রাজধানীর বিমানবন্দর সংলগ্ন আশকোনায়। পরিচয় হয় র্যাব-১ এর এক সদস্যের সঙ্গে। এরপর থেকে ঐ এলাকায় তার পরিচিতি র্যাবের সোর্স হিসেবে। আর এ পরিচয়কে পুঁজি করে গড়ে তোলে অপরাধী চক্র। যাদের প্রধান কাজ ট্রেন যাত্রীদের পকেট কাটা ও ছিনতাই করা। বিমানবন্দর এলাকায় তিনি আলম ওরফে থাপ্পা আলম নামে পরিচিত। তবে দীর্ঘদিন অপরাধের সঙ্গে জড়িত থাকলেও ধরা পড়তে হয়নি পুলিশের হাতে। অভিযোগ রয়েছে, বিমানবন্দর রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ি (জিআরপি) ও বিমানবন্দর ফাঁড়ির বেশ কয়েকজন পুলিশ সদস্যদের সঙ্গেও তার রয়েছে 'দারুণ সখ্যতা'।

র্যাব-১ এর মেজর আহসান হাবিবের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আলম নামে র্যাবের কোন সোর্স নেই।

জিআরপি থানার সাব-ইন্সপেক্টর আলমগীর হোসেন বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গতকাল সকাল ১১টার দিকে আলমকে বিমানবন্দর রেলস্টেশন থেকে গ্রেফতার করা হয়। আলমের অধীনের রয়েছে ৫/৬টি পকেটমার ও ছিনতাইকারী চক্র। এরা কমলাপুর থেকে ছেড়ে যাওয়া রাতের ট্রেনগুলোতে সুযোগ বুঝে যাত্রীদের কাছ থেকে মালামাল কেড়ে নেয়। এদের হাতে বহু রেলযাত্রী প্রাণ হারিয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আলম বেশকিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিয়েছে। তার দলের অপর সদস্যদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। তিনি আরো বলেন, আলম বিমানবন্দর রেলস্টেশনের আশাপাশ এলাকায় অবস্থান করে তার গ্রুপগুলো পরিচালনা করে থাকে। রেলওয়ে পুলিশের কমলাপুর থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুল মজিদ বলেন, কিছু দিন আগে শাহনাজ বেগম সানু নামে এক মহিলা যাত্রীর ব্যাগ ছিনতাই করে আলম। এ ঘটনায় আলম প্রধান আসামী। এ মামলায় আলম ওয়ারেন্টভুক্ত। তাছাড়াও আলমের বিরুদ্ধে বহু অভিযোগ রয়েছে। বিমানবন্দর এলাকা থেকে গ্রেফতারের পরপরই আলমকে কমলাপুর নিয়ে আসা হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার তাকে রিমান্ডের আবেদন জানিয়ে আদালতে পাঠানো হবে। সম্প্রতি সময় ট্রেন থেকে যেসব যাত্রীকে ফেলে দিয়ে হত্যা করা হয়েছে তার সঙ্গে আলম জড়িত রয়েছে বলে তথ্য রয়েছে। তার অপর সহযোগীদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছেন। তিনি আরো বলেন, তিনি জিআরপি কমলাপুর থানায় যোগাদান করেছেন ১০/১২ দিন আগে। যোগদানের পর থেকেই তিনি চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন ট্রেনে যারা নানা অপকর্মের সঙ্গে জড়িত রয়েছে তাদেরকে সনাক্ত ও গ্রেফতার করার।

বিমানবন্দর এলাকার ব্যবসায়ী জামাল উদ্দিন জানান, আলমকে আটক করার পর এলাকার মিষ্টি বিতরণ করে সাধারণ ব্যবসায়ীরা। তার অত্যাচারে অতিষ্ঠ ছিলো ফুটপাতের ব্যবসায়ীরা। আলমকে গ্রেফতারের পর তাকে ছাড়িয়ে নিতে ফাঁড়ির কয়েকজন পুলিশ সদস্য তদবির করে। শেষটায় ওসির হস্তক্ষেপে তাদের সে চেষ্টা ব্যর্থ হয়।

এই পাতার আরো খবর -
font
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন
বিষয়ভিত্তিক টিভি চ্যানেল কেউ স্থাপন করতে চাহিলে সরকার বিবেচনা করবে—তথ্যমন্ত্রীর এই বক্তব্য আপনি সমর্থন করেন কি?
6 + 2 =  
ফলাফল
আজকের নামাজের সময়সূচী
সেপ্টেম্বর - ২২
ফজর৪:৩২
যোহর১১:৫২
আসর৪:১৪
মাগরিব৫:৫৮
এশা৭:১১
সূর্যোদয় - ৫:৪৭সূর্যাস্ত - ০৫:৫৩
archive
বছর : মাস :
The Daily Ittefaq
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: তাসমিমা হোসেন। উপদেষ্টা সম্পাদক হাবিবুর রহমান মিলন। ইত্তেফাক গ্রুপ অব পাবলিকেশন্স লিঃ-এর পক্ষে তারিন হোসেন কর্তৃক ৪০, কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ থেকে প্রকাশিত ও মুহিবুল আহসান কর্তৃক নিউ নেশন প্রিন্টিং প্রেস, কাজলারপাড়, ডেমরা রোড, ঢাকা-১২৩২ থেকে মুদ্রিত। কাওরান বাজার ফোন: পিএবিএক্স: ৭১২২৬৬০, ৮১৮৯৯৬০, বার্ত ফ্যাক্স: ৮১৮৯০১৭-৮, মফস্বল ফ্যাক্স : ৮১৮৯৩৮৪, বিজ্ঞাপন-ফোন: ৮১৮৯৯৭১, ৭১২২৬৬৪ ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭২, e-mail: [email protected], সার্কুলেশন ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭৩। www.ittefaq.com.bd, e-mail: [email protected]
Copyright The Daily Ittefaq © 2014 Developed By :