The Daily Ittefaq
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৪, ১ ফাল্গুন ১৪২০, ১২ রবিউস সানী ১৪৩৫
সর্বশেষ সংবাদ মানিকগঞ্জে বাসে ধর্ষণ : চালক-সহকারীর যাবজ্জীবন | লক্ষ্মীপুরে যুবলীগ কর্মীকে গুলি করে হত্যা | বাতিল হওয়া সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা ১৪ মার্চ | কোপা দেল রে'র ফাইনালে বার্সেলোনা

কোন চাপের কাছে নতি স্বীকার করে নির্বাচন দেয়া হবে না

---------সৈয়দ আশরাফ

বিশেষ প্রতিনিধি

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম বলেছেন, বর্তমান সরকার তার পাঁচ বছর মেয়াদ পূর্ণ করবে। সরকার ২০১৯ সালের ২৮ জানুয়ারি পর্যন্ত ক্ষমতায় থাকবে। এর আগে কোন চাপের কাছে নতি স্বীকার করে নির্বাচন দেয়া হবে না। বর্তমান সংবিধান অনুযায়ী যথাসময়ে আগামী নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

গতকাল বুধবার আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের বৈঠকে তিনি এ কথা বলেন। গণভবনে অনুষ্ঠিত এ বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বৈঠকে শুরুতে শোক প্রস্তাব গৃহীত হয়। এরপর সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম। গত নির্বাচনের আগে সারাদেশে বিরোধী দলের হরতাল, অবরোধ, অগ্নিসংযোগ ও নাশকতার মতো কর্মকাণ্ডের প্রতি ইঙ্গিত করে সৈয়দ আশরাফ বলেন, ওই সময় দেশে অনেক কিছু ঘটানোর চেষ্টা করা হয়েছিল, ঘটতেও পারতো। কিন্তু শেখ হাসিনার দৃঢ় পদক্ষেপের কারণে কিছুই ঘটেনি। বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা সঠিক সময়ে সঠিক সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন। তবে আমাদের এখনো আরাম-আয়েশের সময় আসেনি। এখনও কয়েকজন আছেন যারা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন যাতে আগামীকালই নির্বাচন দেয়া যায়। ষড়যন্ত্র যেহেতু চলছে তাই সকলকে সজাগ থাকতে হবে। তিনি বলেন, দায়িত্ব গ্রহণের পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নির্বাচনী অঙ্গীকার বাস্তবায়নের কাজ শুরু করেছেন। পাঁচ বছর মেয়াদকালের মধ্যে সব অঙ্গীকার বাস্তবায়ন করা হবে।

আগামী নির্বাচন প্রসঙ্গে সৈয়দ আশরাফ আরো বলেন, সংসদে আওয়ামী লীগের এক তৃতীয়াংশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা থাকায় সংবিধান সংশোধন করতে পারি। কিন্তু নির্বাচনের ক্ষেত্রে সংবিধান সংশোধনের কোনও ইচ্ছা আওয়ামী লীগের নাই। বর্তমান সংবিধান অনুযায়ী আগামী নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছে আওয়ামী লীগ। সংসদীয় গণতন্ত্রের দেশগুলোতে যেভাবে নির্বাচন হয়, বাংলাদেশেও সেভাবেই নির্বাচন হবে। তিনি বলেন, বিদেশি অনেকে আমাদের একটা অরাজনৈতিক সরকারের অধীনে নির্বাচনের কথা বলেন। আমরা তখন বলি আপনাদের দেশে কিভাবে হয়? তখন তারা বলে আমাদের এ ভাবেই হয়। আমরা বলি আমরা তো সেভাবেই নির্বাচন করতে চাই। যেভাবে আমেরিকা, ইউরোপ, ভারতে নির্বাচন হয় সেভাবে বাংলাদেশেও নির্বাচন হবে। আপনারা করলে রাইট, আর আমরা করলে রং হবে কেন?

দলীয় নেতাকর্মীদেরও সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ডে সম্পৃক্ত হওয়ার আহ্বান জানিয়ে সৈয়দ আশরাফ বলেন, দলের নেতাকর্মীদের কাজ হবে প্রধানমন্ত্রীকে সহযোগিতা করা। শুধুমাত্র প্রধানমন্ত্রী আর কয়েকজন মন্ত্রীকে দিয়ে দেশের উন্নয়ন কর্মকাণ্ড পুরোটা করা সম্ভব না। আপনাদেরও সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ডে অংশ নেয়া প্রয়োজন। দল, সংসদ, সরকার মিলে কাজ করলে বঙ্গবন্ধুর কাঙ্ক্ষিত স্বপ্নের সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব হবে।

উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ওপর গুরুত্বারোপ করে সৈয়দ আশরাফ বলেন, আসন্ন উপজেলা নির্বাচনে দল সমর্থিত একক প্রার্থী বাছাইয়ের জন্য নির্দেশনা দিয়ে প্রধানমন্ত্রী সারাদেশে দলীয় কার্যালয়ে চিঠি পাঠিয়েছেন। প্রতিটি উপজেলাতে তৃণমূলের নেতাকর্মীদের মতামতের ভিত্তিতে প্রার্থী দেয়া শুরু হয়েছে। এ নির্বাচনকে অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে নিয়ে আওয়ামী লীগ। তিনি বলেন, আশা করি আগামী নির্বাচনের পরবর্তী নির্বাচনে দলের 'একজন সদস্যের একটি ভোট' এই হিসেবে সকল নির্বাচনে প্রার্থী চূড়ান্ত করা হবে। এভাবে দেশের পাশাপাশি দলের মধ্যেও গণতন্ত্রের চর্চা করা হবে। উপজেলা নির্বাচনে দলের বিদ্রোহী প্রার্থীদের প্রতি ইঙ্গিত দিয়ে তিনি বলেন, কিছু কিছু জায়গায় সমস্যা আছে। আমাদের সাংগঠনিক সম্পাদকরা এগুলো নিয়ে কাজ করছেন। এটাকে হেলায় নিলে চলবে না। অত্যন্ত গুরুত্বের সাথে নিতে হবে। তিনি বলেন, এই নির্বাচনও অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হবে। আগামীতে প্রতিটি নির্বাচন গুরুত্ব দিয়ে দেখতে দলের নেতাদের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

কিছু গণমাধ্যম 'ভুয়া সংবাদ' প্রকাশ করছে অভিযোগ করে স্থানীয় সরকার মন্ত্রী সৈয়দ আশরাফ বলেন, আজকাল কিছু পত্রিকা নিউইয়র্ক টাইমস, লন্ডন টাইমস, ওমুক পত্রিকা, গার্ডিয়ানকে উদ্বৃতি দিয়ে ভুয়া সংবাদ পরিবেশন করছে। ওই পত্রিকাগুলো ওয়েবসাইট ব্রাউজ করলেই এই জালিয়াতি বোঝা যাবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, এসব পত্রিকার খবরও মিথ্যা, খবরের সোর্সও মিথ্যা।

বৈঠকে একুশে ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস, ৭ই মার্চ বঙ্গবন্ধুর ভাষণ দিবস, ১৭ মার্চ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মদিন, ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা দিবস, ১৭ এপ্রিল ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবসের কর্মসূচি চূড়ান্ত হয়।

ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ দুই ভাগ হচ্ছে

জানা গেছে, বৈঠকে ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগকে দুই ভাগ করার সিদ্ধান্ত হয়েছে। এক্ষেত্রে নাম দেয়া হবে ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগ ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগ। মার্চ মাসের মধ্যেই ঢাকা মহানগরের সব থানা ও ওয়ার্ড শাখা সম্মেলন শেষ করে ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের দুই ভাগের কমিটি দেয়া হবে। মহানগরের থানা ও ওয়ার্ড সম্মেলনে কেন্দ্রীয় নেতাদের উপস্থিত থাকার নির্দেশ দেন দলীয় সভানেত্রী শেখ হাসিনা।

৭ মার্চ রাজধানীতে আওয়ামী লীগের জনসভা

বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে, আগামী ৭ মার্চ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাষণ দিবসের দিন রাজধানীতে জনসভা করবে আওয়ামী লীগ। এছাড়া আগামী ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবসে জাতীয় প্যারেড গ্রাউন্ডে ৩ লাখ মানুষের অংশগ্রহণে জাতীয় সংগীত পরিবেশনের মাধ্যমে বিশ্ব রেকর্ড গড়ার (গিনেস বুকে নাম ওঠানো) সিদ্ধান্ত হয়। সম্প্রতি বিএনপি নেতারা র্যাবের যে সমালোচনা করছেন সে ব্যাপারে আওয়ামী লীগের হাইকমান্ড বলেন, র্যাব তো বিএনপি-জামায়াতের সৃষ্টি।

সূত্র জানায়, বৈঠকে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে সবাইকে সজাগ ও সতর্ক থাকার আহ্বান জানান। আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে যেসব এলাকায় দলের বিদ্রোহী প্রার্থী রয়েছেন সেখানে দ্রুত কেন্দ্রীয় নেতাদের সফর করার নির্দেশ দিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, সব জায়গায় দল সমর্থিত একক প্রার্থী বাছাই করুন।

এই পাতার আরো খবর -
font
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম বলেছেন, ৫ বছর পর একাদশ সংসদ নির্বাচন হবে এবং তা হবে বর্তমান সংবিধান আলোকেই। আপনি কি তার সাথে একমত?
1 + 5 =  
ফলাফল
আজকের নামাজের সময়সূচী
আগষ্ট - ১৮
ফজর৪:১৬
যোহর১২:০৩
আসর৪:৩৭
মাগরিব৬:৩৩
এশা৭:৪৯
সূর্যোদয় - ৫:৩৫সূর্যাস্ত - ০৬:২৮
archive
বছর : মাস :
The Daily Ittefaq
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: তাসমিমা হোসেন। উপদেষ্টা সম্পাদক হাবিবুর রহমান মিলন। ইত্তেফাক গ্রুপ অব পাবলিকেশন্স লিঃ-এর পক্ষে তারিন হোসেন কর্তৃক ৪০, কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ থেকে প্রকাশিত ও মুহিবুল আহসান কর্তৃক নিউ নেশন প্রিন্টিং প্রেস, কাজলারপাড়, ডেমরা রোড, ঢাকা-১২৩২ থেকে মুদ্রিত। কাওরান বাজার ফোন: পিএবিএক্স: ৭১২২৬৬০, ৮১৮৯৯৬০, বার্ত ফ্যাক্স: ৮১৮৯০১৭-৮, মফস্বল ফ্যাক্স : ৮১৮৯৩৮৪, বিজ্ঞাপন-ফোন: ৮১৮৯৯৭১, ৭১২২৬৬৪ ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭২, e-mail: [email protected], সার্কুলেশন ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭৩। www.ittefaq.com.bd, e-mail: [email protected]
Copyright The Daily Ittefaq © 2014 Developed By :