The Daily Ittefaq
ঢাকা, শুক্রবার, ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৪, ২ ফাল্গুন ১৪২০, ১৩ রবিউস সানী ১৪৩৫
সর্বশেষ সংবাদ গোপালগঞ্জে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে আহত ১৫, আটক ১১ | ২-০ তে সিরিজ জিতল লঙ্কানরা | লন্ডনে বাংলাদেশি নারী খুন, ছেলে গ্রেফতার | যশোরের অভয়নগরে চৈতন্য হত্যার আসামি 'বন্দুকযুদ্ধে' নিহত

স্মরণ

একজন অনালোচিত যোদ্ধার কথা

মেসবাহ্ উল হক

মুক্তিযুদ্ধ বাংলাদেশের ইতিহাসে এক অনন্য ঘটনা যার মাধ্যমে এদেশ তার হাজার বছরের শৃঙ্খলমুক্তির পথ খুঁজে পেয়েছে, পেয়েছে এক স্বতন্ত্র স্বাধীন পরিচিতি। দখলদার পাকিস্তান সামরিক শক্তির বিরুদ্ধে লড়াই করে, রক্ত দিয়ে যারা এ জাতির স্বাধীনতা এনে দিয়েছেন তাদের সমতুল্য আর কেউ না হলেও সেই 'মুক্তির মন্দির সোপানতলে' তাদের পাশাপাশি লক্ষ লক্ষ নিরস্ত্র মানুষের প্রাণ বলিদানসহ বিভিন্ন সহযোগী শক্তির অবদান সে ক্ষেত্রে কোন অংশে কম ছিল না বরং সশস্ত্র যোদ্ধার চেয়ে তাদের সংখ্যা ছিল অনেক বেশি। এমন সহযোগী যোদ্ধাদের একজন যিনি নিজে সংবাদ জগতের এক উজ্জ্বল ব্যক্তিত্ব এবং মুক্তিযুদ্ধে যার উজ্জ্বল অবদান থাকা সত্ত্বেও তা নিয়ে তেমন কোন আলোচনা নেই, তিনি হলেন দৈনিক ইত্তেফাক-এর তত্কালীন বার্তা ও কার্যনির্বাহী সম্পাদক এবং প্রখ্যাত বাগ্মী ও রেডিও ব্রডকাস্টার আসফ-উদ্-দৌলা রেজা যার পিতৃদত্ত নাম রেজাউল মোস্তফা মুহম্মদ আসফ-উদ্-দৌলা, ডাকনাম রেজা। আজ ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ তার ৩১তম মৃত্যুবার্ষিকী।

মার্চ ১৯৭১-এর ২৫ তারিখের কালরাতে হাটখোলার প্রেসে যখন দৈনিক ইত্তেফাক ছাপার কাজ চলছে সহকর্মী কার্যনির্বাহী সম্পাদক সিরাজুদ্দিন হোসেনসহ (পরবর্তীতে শহীদ) তিনি তখন পরের দিনের পত্রিকা প্রকাশের জন্য প্রয়োজনীয় চূড়ান্ত টাচ্-রিটাচ্ নিয়ে ব্যস্ত। এদিকে মাঝরাতের পরপরই শহরব্যাপী বিভিন্ন স্থান হতে ভেসে আসা গোলাগুলির শব্দের মাঝে পত্রিকা অফিসের দিকে অনবরত গুলি ছুঁড়তে ছুঁড়তে দু'টি পাকিস্তানী সামরিক ট্যাংক এসে অবস্থান নেয় ইত্তেফাক ভবনের সামনে। অবস্থা বেগতিক দেখে জীবন বাঁচাতে কয়েকজন সহকর্মীকে সাথে নিয়ে তিনি ও সিরাজুদ্দিন হোসেন পেছনের দেয়াল টপকে অন্ধকারে লাফিয়ে পড়লেন পচা আবর্জনার স্তূপের উপর। পর মুহূর্তেই সামরিক ট্যাংকের গোলায় উড়ে যায় ইত্তেফাক ভবন। সে রাতে তিনি এভাবে বেঁচে গেলেও শত্রু পরিবৃত অবরুদ্ধ বাংলাদেশে পরবর্তী নয় মাসের সারাক্ষণ তার কেটেছে মৃত্যু ঝুঁকির মাঝখানে।

সাংবাদিকতার পাশাপাশি ১৯৫১ সাল হতে তিনি তত্কালীন রেডিও পাকিস্তান ঢাকা কেন্দ্র হতে 'আমার দেশ' নামে গ্রামীণ জীবনযাত্রাধর্মী সিরিজ নাটিকা নিয়মিত পরিচালনা করতেন, যা পরে ১৯৬০ সাল হতে ভিন্ন মোড়কে 'বুনিয়াদী গণতন্ত্রের আসর' নামে সম্প্রচারিত হতো; সেখানে সব মিলিয়ে একনাগাড়ে প্রায় দুই দশক ধরে ঐ অনুষ্ঠান পরিচালনা করে 'আসফ ভাই' নামে তিনি এদেশের গ্রামে-গঞ্জে ব্যাপক জনপ্রিয় ব্যক্তিত্বে পরিণত হয়েছিলেন। মুক্তিযুদ্ধ শুরু হবার পর দেশের অবস্থা যে স্বাভাবিক আছে সামরিক সরকার তা দেখানোর জন্য অন্যান্য পত্র-পত্রিকার পাশাপাশি দৈনিক ইত্তেফাক-এর প্রকাশনার উপরও কঠোর নিয়ন্ত্রণ আরোপ করে। সামরিক গোয়েন্দাদের সার্বক্ষণিক নজরদারিতে এবং অনেক সময় তাদের গাড়িতেই সে সময় তাকে প্রতিদিন বিশেষ প্রহরায় শাহজাহানপুরের বাসা থেকে ইত্তেফাক কার্যালয়ে ও শাহবাগে রেডিওর সম্প্রচার কেন্দ্রে যাতায়াত করতে হতো। কখনো এমনও হয়েছে, সন্ধ্যায় ইত্তেফাক অফিসে নেবার সময় পোশাক পরিবর্তনের সুযোগ না দিয়ে জবরদস্তি করে ঘরোয়া পোশাকেই অর্থাত্ লুঙ্গি-গেঞ্জি বা লুঙ্গি-জামা পরিহিত অবস্থায় সামরিক গোয়েন্দারা তাকে ইত্তেফাকে নিয়ে গেছে।

উল্লেখ্য, রেডিওতে 'বুনিয়াদী গণতন্ত্রের আসর' সম্প্রচারিত হতো সপ্তাহে দু'দিন, বিকেলে। অনুষ্ঠানের অন্যান্য চরিত্র যথা মজিদের মা (আয়েশা খাতুন), নসু ভাই, সাহেরা বু (মিরানা জামান) ও মাতবরসহ অন্যান্য চরিত্রের সংলাপ পূর্বনির্ধারিত থাকলেও অনুষ্ঠানের কেন্দ্রীয় চরিত্র 'আসফ ভাই' চরিত্রটি ছিল সম্পূর্ণ স্বতস্ফূর্ত অর্থাত্ একটি আটপৌরে ও অনানুষ্ঠানিক গ্রামীণ আবহ সৃষ্টির জন্য আসফ-উদ্-দৌলা রেজা তার নিজ চরিত্রটিকে রেখেছিলেন উন্মুক্ত ও স্পনটেনিয়াস। তাই সরকারি বিধি মোতাবেক অনুষ্ঠানের পূর্বে তার একটি পূর্ণাঙ্গ লিখিত রূপ কর্তৃপক্ষের কাছে দাখিল করার আবশ্যকতা থাকলেও অনুষ্ঠান পরিচালনার সময় বা বাস্তবে তা অনেকটাই পালটে গিয়ে অবস্থার পরিপ্রেক্ষিতে তাত্ক্ষণিকভাবে সৃষ্ট হতো। এভাবেই অনুুষ্ঠানের ফাঁকে ফাঁকে বিভিন্ন সংলাপের আড়ালে প্রতীকী ঘটনা ও চরিত্রের অবতারণা করে আকারে-ইঙ্গিতে তিনি দেশের ভেতরের প্রকৃত অবস্থা তুলে ধরার চেষ্টা করতেন।

মুক্তিযুদ্ধকালীন এমন অবস্থায় ঘটনাচক্রে এবং নিতান্ত সৌভাগ্যবশত রক্ষা পেলেও এমন আরো অনেক ঝুঁকিপূর্ণ ও উল্লেখযোগ্য অবদানের জন্য আমাদের মহান মুক্তিযুদ্ধের এই অনালোচিত যোদ্ধা আসফ-উদ্-দৌলা রেজার সাহসিকতা চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে।

লেখক:মুক্তিযোদ্ধা ও অবসরপ্রাপ্ত ব্যাংকার

font
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন
বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, 'উপজেলা নির্বাচনেও ভাগ বাটোয়ারার ষড়যন্ত্র করছে আওয়ামী লীগ।' আপনিও কি তাই মনে করেন?
7 + 3 =  
ফলাফল
আজকের নামাজের সময়সূচী
সেপ্টেম্বর - ১৯
ফজর৪:৩০
যোহর১১:৫৩
আসর৪:১৭
মাগরিব৬:০২
এশা৭:১৫
সূর্যোদয় - ৫:৪৬সূর্যাস্ত - ০৫:৫৭
archive
বছর : মাস :
The Daily Ittefaq
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: তাসমিমা হোসেন। উপদেষ্টা সম্পাদক হাবিবুর রহমান মিলন। ইত্তেফাক গ্রুপ অব পাবলিকেশন্স লিঃ-এর পক্ষে তারিন হোসেন কর্তৃক ৪০, কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ থেকে প্রকাশিত ও মুহিবুল আহসান কর্তৃক নিউ নেশন প্রিন্টিং প্রেস, কাজলারপাড়, ডেমরা রোড, ঢাকা-১২৩২ থেকে মুদ্রিত। কাওরান বাজার ফোন: পিএবিএক্স: ৭১২২৬৬০, ৮১৮৯৯৬০, বার্ত ফ্যাক্স: ৮১৮৯০১৭-৮, মফস্বল ফ্যাক্স : ৮১৮৯৩৮৪, বিজ্ঞাপন-ফোন: ৮১৮৯৯৭১, ৭১২২৬৬৪ ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭২, e-mail: [email protected], সার্কুলেশন ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭৩। www.ittefaq.com.bd, e-mail: [email protected]
Copyright The Daily Ittefaq © 2014 Developed By :