The Daily Ittefaq
ঢাকা, সোমবার, ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৪, ৫ ফাল্গুন ১৪২০, ১৬ রবিউস সানী ১৪৩৫
সর্বশেষ সংবাদ ১৩ রানে হারল বাংলাদেশ | নাইজেরিয়ায় সন্ত্রাসী হামলায় নিহত ১০৬ জন | আল-কায়েদার ভিডিও বার্তার সঙ্গে বিএনপির যোগসূত্র নেই: মির্জা ফখরুল | চট্টগ্রামের অপহৃত স্বর্ণ ব্যবসায়ী উদ্ধার

কিশোর উন্নয়ন কেন্দ্রের অব্যবস্থাপনা

গত মঙ্গলবার রাত্রে টঙ্গী কিশোর উন্নয়ন কেন্দ্রের ২০ জন আশ্রিত নিজেদের দেহ ধারালো ব্লেডজাতীয় অস্ত্রে ক্ষতবিক্ষত করে। চিকিত্সা সেবাদানকারী টঙ্গী সরকারি হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিত্সকের মতে, কিশোরদের মাথার তালু হইতে কপাল পর্যন্ত এবং কাঁধ হইতে দুই হাতের বাহু বরাবর লম্বা লম্বা করিয়া কাটা। অঝোরে রক্ত ঝরিবার কারণে জরুরি বিভাগের মেঝে রক্তে ভাসিয়া গিয়াছে। প্রত্যেকের শরীরের পাঁচ-ছয়টা করিয়া জায়গায় কাটা। মাথা ও দুই বাহুর পাশাপাশি দুই-একজনের পা ও পেটেও কাটা ছিল। তিন, চার, ছয় হইতে ১০ ইঞ্চি পর্যন্ত লম্বা কাটা। ভোররাত পর্যন্ত পর পর ২০ কিশোরের ক্ষতস্থান সেলাই করিয়া ব্যান্ডেজ করা হয়। এই সময় কিশোরদের কান্নায় হূদয়বিদারক পরিস্থিতি তৈরি হয়। চিকিত্সা শেষে ওই অবস্থায়ই তাহাদেরকে কিশোর উন্নয়ন কেন্দ্রে ফিরাইয়া নেওয়া হয়। তাহাদের সকলেরই বয়স ১৪ হইতে ১৮ বত্সরের মধ্যে। হাসপাতালের চিকিত্সক ও সেবিকাদেরকে তাহারা জানাইয়াছে যে, ঠিকমতো খাবার না দেওয়ায় এবং পশুর মতো নির্যাতনের প্রতিবাদে তাহারা এই কাজ করিয়াছে। তবে কেন্দ্র কর্তৃপক্ষ বলিতেছে, এক কিশোরের কফ সিরাপ খাওয়া লইয়া ঘটনার সূত্রপাত। জানালার বা টিউবলাইটের ভাঙা কাচ দিয়া তাহারা 'মারামারি' করিয়া শরীর ক্ষতবিক্ষত করিয়াছে। পত্রিকান্তরে প্রকাশিত এই প্রতিবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে অবশ্য ইতোমধ্যেই হাইকোর্ট গাজীপুরের টঙ্গী কিশোর উন্নয়ন কেন্দ্রের এই ভয়ানক ঘটনাটি তদন্তের নির্দেশ দিয়াছে। হাইকোর্ট অব্যবস্থাপনার কারণ দর্শাইতে এবং পুলিশ প্রহরা থাকিতেও কীভাবে এই ঘটনা ঘটিল তাহা তদন্তের জন্য তিন সদস্যের কমিটি গঠন করিয়া দিয়াছে।

উল্লেখ্য, সমাজ কল্যাণ অধিদপ্তরের অধীনে সমগ্র দেশে ছেলে শিশুদের সংশোধনের জন্য টঙ্গী ও যশোরে দুইটি কিশোর উন্নয়ন কেন্দ্র এবং মেয়েশিশুদের সংশোধনের জন্য কোনাবাড়ীতে একটি কিশোরী উন্নয়ন কেন্দ্র রহিয়াছে। প্রতিটি কেন্দ্রই এইসব শিশু-কিশোরদের কাউন্সিলিং, মটিভেশন ও গাইডেন্সের মাধ্যমে তাহাদের মানসিকতার পরিবর্তনের লক্ষ্যে পরিচালিত হয়। পড়ালেখার পাশাপাশি কারিগরি প্রশিক্ষণের মাধ্যমেও সুস্থ সুন্দর স্বাভাবিক জীবন বিনির্মাণ করিতে এই কেন্দ্রগুলি চেষ্টা করে। কিন্তু দুঃখের কথা হইল, এইসব কেন্দ্রে নির্ধারিত সরকারি চিকিত্সক নাই। তাই চিকিত্সাব্যবস্থা অপ্রতুল। মাথাপিছু দৈনিক ৫২ টাকার খাবারে শিশু-কিশোরেরা পর্যাপ্ত পুষ্টি পায় না। উপরন্তু, কেন্দ্রে আটক নিবাসীদের বয়সসীমা ১৮ বত্সর বলা থাকিলেও সেইখানে বয়স নিরূপণের কোনো ব্যবস্থা নাই। ফলে মধ্যবয়সী অনেক কয়েদিকে এইসব কেন্দ্রে রাখিয়া অন্যায্যভাবে নানা সুযোগ-সুবিধা ভোগের সুযোগ করিয়া দেওয়ারও অভিযোগ রহিয়াছে। দেশে ক্রমবর্ধমান শিশু-কিশোর অপরাধ নিয়ন্ত্রণে কিশোর উন্নয়ন কেন্দ্রগুলির ভূমিকা থাকিলেও বর্তমানে এইসব কেন্দ্র নানাবিধ সমস্যায় জর্জরিত। সীমিত বাজেট, প্রশাসনিক দুর্বলতা, অপর্যাপ্ত জনবল, অনুন্নত সংশোধন প্রক্রিয়া ও পুনর্বাসন কার্যক্রম লইয়া চলিতেছে কিশোর উন্নয়ন কেন্দ্রের শিশুদের মানসিক উন্নয়ন ও সামাজিক পুনর্বাসন কর্মসূচি।

ফলে, মাঝে-মধ্যেই আশ্রিত শিশু-কিশোররা বেসামাল হইয়া উঠে। টঙ্গী কিশোর উন্নয়ন কেন্দ্রের দলবদ্ধ আত্মঘাতী ঘটনাটির প্রকৃত কারণ নিশ্চয় তদন্ত কমিটি উদ্ঘাটন করিতে পারিবে। তবে এইটুকু বলা যাইতে পারে যে, কেন্দ্র কর্তৃপক্ষ কারণ হিসাবে যাহা উল্লেখ করিয়াছে তাহা কিছুতেই দলবদ্ধ হননাকাঙ্ক্ষা জাগাইয়া তুলিতে পারে না, নিজেদের শরীর নির্মমভাবে ক্ষতবিক্ষত ও রক্তাক্ত করিতে প্রণোদিত করিতে পারে না। এইরকম অজুহাত দাখিল করা শাক দিয়া মাছ ঢাকিবার শামিল। নিজেদের ব্যর্থতা কিংবা অব্যবস্থাপনা বা পরিচালনার ত্রুটি শনাক্ত করিয়া উন্নত ব্যবস্থাপনা নিশ্চিত করিতে চাহিলে এইরূপ দায় এড়াইবার কৌশল অন্তরায় হইয়া দাঁড়াইবে। সর্বোপরি মনে রাখা দরকার, বলপ্রয়োগ, অবহেলা বা উপেক্ষা পরিবারবিচ্ছিন্ন অপরাধপ্রবণ শিশুকিশোরদিগকে সুস্থ-স্বাভাবিক সুন্দর জীবনের পথে ফিরাইয়া আনিবার পথে অন্তরায় হইয়া ওঠে এবং তাহাদের মনে সমাজের সকল কিছুর প্রতি অশুভ আক্রোশ জাগাইয়া তোলে। তাহাদের অন্তরের গভীর ক্ষত শুকাইতে প্রয়োজন বিশেষ আন্তরিক মনোযোগ ও উন্নতমানের প্রশিক্ষণ। আমরা আশা করি, সরকারের সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলি সেই চেষ্টাই করিবে।

font
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন
জামায়াতের ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারি জেনারেল শফিকুর রহমান বলেছেন, 'আল-কায়েদার সঙ্গে জামায়াত-শিবিরের কোন সম্পর্ক নেই'। আপনিও কি তাই মনে করেন?
3 + 8 =  
ফলাফল
আজকের নামাজের সময়সূচী
অক্টোবর - ১৫
ফজর৪:৪০
যোহর১১:৪৫
আসর৩:৫৫
মাগরিব৫:৩৬
এশা৬:৪৮
সূর্যোদয় - ৫:৫৬সূর্যাস্ত - ০৫:৩১
archive
বছর : মাস :
The Daily Ittefaq
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: তাসমিমা হোসেন। উপদেষ্টা সম্পাদক হাবিবুর রহমান মিলন। ইত্তেফাক গ্রুপ অব পাবলিকেশন্স লিঃ-এর পক্ষে তারিন হোসেন কর্তৃক ৪০, কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ থেকে প্রকাশিত ও মুহিবুল আহসান কর্তৃক নিউ নেশন প্রিন্টিং প্রেস, কাজলারপাড়, ডেমরা রোড, ঢাকা-১২৩২ থেকে মুদ্রিত। কাওরান বাজার ফোন: পিএবিএক্স: ৭১২২৬৬০, ৮১৮৯৯৬০, বার্ত ফ্যাক্স: ৮১৮৯০১৭-৮, মফস্বল ফ্যাক্স : ৮১৮৯৩৮৪, বিজ্ঞাপন-ফোন: ৮১৮৯৯৭১, ৭১২২৬৬৪ ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭২, e-mail: [email protected], সার্কুলেশন ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭৩। www.ittefaq.com.bd, e-mail: [email protected]
Copyright The Daily Ittefaq © 2014 Developed By :