The Daily Ittefaq
ঢাকা, সোমবার, ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৪, ৫ ফাল্গুন ১৪২০, ১৬ রবিউস সানী ১৪৩৫
সর্বশেষ সংবাদ ১৩ রানে হারল বাংলাদেশ | নাইজেরিয়ায় সন্ত্রাসী হামলায় নিহত ১০৬ জন | আল-কায়েদার ভিডিও বার্তার সঙ্গে বিএনপির যোগসূত্র নেই: মির্জা ফখরুল | চট্টগ্রামের অপহৃত স্বর্ণ ব্যবসায়ী উদ্ধার

রা হে ল রা জি ব

তার লেখালেখির শুরু সাহিত্য সংগঠন 'কবি মানস'-এর সাথে সম্পৃক্ততার মধ্যে দিয়ে। ১৯৯৭-২০০০ সাল পর্যন্ত এই সংগঠনের আয়োজনে পাঠচক্র করতেন রাহেল রাজিব। প্রতি মাসে ভাঁজপত্র প্রকাশিত হতো, বছরান্তে একটি পাঁচ ফর্মার মুক্তকাগজ প্রকাশিত হতো। প্রতিটি ভাঁজপত্রের পৃথক নাম থাকত। এ ছাড়া ফুলবাড়িতে 'অনির্বাণ সংঘ'র একটি সমৃদ্ধ গ্রন্থাগার ছিল, যেখান থেকে বই নিয়ে এসে পড়তেন। সেই সাথে পারিপার্শ্ব তাকে প্রভাবিত করেছে লেখায়। তার কাছে প্রথম লেখার অনুভূতি একটা নতুন কিছু আবিষ্কার করার মতো নিজের ভেতরের কাউকে আবিষ্কার করার মতো। কৈশোরে নিজের প্রথম লেখা ছাপা হওয়ার পর ঠিক একই অনুভূতি হয়েছিল তার।

শব্দরা সবসময় লুকোচুরি খেলে রাহেল রাজিবের প্রতিপাশে! শব্দরা ধরা দেয় না প্রতিদিন। তবে কবিতা তার নেশা! জীবনে ঘোরলাগা মুহূর্তগুলো দুমড়ে-মুচড়ে শব্দরা যোগসূত্র স্থাপন করে জীবনের সমান্তরালে। তার প্রথম বই কবিতার 'অবচেতন মনে আগুনের ছোঁয়া'। এ ছাড়া তিনি গদ্যও লিখেছেন। তার গদ্যের সংকলন 'রহু চণ্ডালের হাড় ও অন্যান্য প্রবন্ধ' প্রকাশিত হয়েছিল হেমন্তের বইমেলা ২০১০ সালে। এ ছাড়া ছড়া লিখছেন তিনি। 'পাকাপাকি' শিরোনামে একটি ছড়ার গ্রন্থ প্রকাশিত হবে আগামী বইমেলায়। সাংবাদিকতার সাথে জড়িত থাকার কারণে এবং নিজের আগ্রহেই অনেক সাহিত্যিকদের সাক্ষাত্কার নিয়েছেন রাহেল রাজিব। সেই সাক্ষাত্কারের সংকলন 'গুণিন কথা' ডিসেম্বর ২০১২ সালে প্রকাশিত হয়েছে 'মধ্যমা' প্রকাশনী থেকে। সকলে বেশ প্রযুক্তিনির্ভর হওয়ার ফলে শুধু পাঠক প্রতিক্রিয়া কিংবা সাড়া নয়, প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক্স মিডিয়ায় আলোচনা-সমালোচনা, স্তুতি-নিন্দা, মন্তব্য-পরামর্শ, শুভাশীষ-শুভকামনা সবকিছুই পেয়েছেন তিনি।

এবারের বইমেলা রাহেল রাজীবের দুটো বই এসেছে। 'জুঁইদি ও মাতাল প্রেমিক' তার তৃতীয় কাব্যগ্রন্থ। প্রচ্ছদ করেছেন তৌহিন হাসান, প্রকাশিত হয়েছে 'শুদ্ধস্বর' থেকে। জুঁইদি তার কিশোর বয়সের প্রেমিকা! আগ্রহী পাঠক বইটির শেষে 'জুঁইদি সম্পর্কে প্রাসঙ্গিক' সংযুক্তিটি পাঠ করলে বিষয়টি সম্পর্কে জানতে পারবেন। এ ছাড়া প্রকাশিত হয়েছে 'পাঠ উন্মোচনের খসড়া', তার তৃতীয় গদ্যগ্রন্থ। বিভিন্ন সময়ে লেখা তার মুক্তগদ্যগুলোর সংকলন। বইটির প্রকাশক রোদেলা প্রকাশনী, আর এর প্রচ্ছদ করেছেন তৌহিন হাসান। তার পাঠ প্রতিক্রিয়ার একটি ছাপ এই বইতে পাওয়া যাবে বলে মনে তিনি মনে করেন।

আপনি লেখার মাধ্যমে কি সমাজ, রাষ্ট্র আর ব্যক্তি ব্যবস্থায় পরিবর্তনের স্বপ্ন লালন করেন? এমন প্রশ্নের উত্তরে রাহেল রাজিব বলেন, 'লেখক মাত্রই সমাজ সচেতন। ফলে একজন প্রকৃত লেখকের লেখার মধ্যে সমাজের বৈষম্য যেমন উঠে আসে, তেমনি সেই লেখার মধ্যে ভবিষ্যতের একটা বার্তাভাষও থাকে। সমাজ-রাষ্ট্র ও ব্যক্তি একার্থে পরিপূরক; লেখার মধ্যে তারই প্রতিবিম্ব কিংবা প্রতিফলন ঘটতে পারে। আমার অভিজ্ঞতা জারিত কোনো বিষয় হয়তো লেখায় প্রভাব ফেলে থাকতে পারে, সেটা কোনো পরিবর্তন আনবে কি না সে বিষয়ে পাঠক ভালো বিচার করতে পারবেন।'

এই প্রজন্মের পাঠকদের পাঠরুচি মূল্যায়নে রাহেল রাজিব বলেন, 'জনপ্রিয় ধারার পাঠক তো আছেই। প্রকৃত লেখার পাঠক বরাবরই কম থাকে; এই প্রজন্মের পাঠক সাধারণত নিরীক্ষাধর্মী লেখার প্রতি আগ্রহ দেখাচ্ছে। প্রযুক্তিনির্ভর পাঠাভ্যাস আমাদের পাঠকে সম্প্রসারিত করেছে। আইপড, মোবাইল ফোন কিংবা ইলেকট্রনিক বুকসহ ফেসবুকে পাঠ পাঠকের পড়ার বহুমুখী দিককে আলোকপাত করেছে। ফলে পাঠক নিজের পছন্দের লেখাটা সহজে খুঁজে নিয়ে পড়ছে, পড়তে পারছে।'

বর্তমানে একসাথে কয়েকটি বই পড়ছেন রাহেল রাজিব। এখন পড়ছেন বুদ্ধদেব বসুর 'প্রবন্ধ সমগ্র-৩', কাজের জন্য পুনর্পাঠ করছেন সুবোধ ঘোষের গল্প, অরহান পামুকের 'আদার কালারস', মেলায় কেনা নতুন কিছু কবিতার বই। তার প্রিয় লেখকের তালিকায় আছেন রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, জীবনানন্দ দাশ, অমিয়ভূষণ মজুমদার, শক্তি চট্টোপাধ্যায়, বিনয় মজুমদার, আখতারুজ্জামান ইলিয়াস, মহাশ্বেতা দেবী, দেবেশ রায়, অভিজিত্ সেন। অন্য ভাষার ডেরেক ওয়ালকট, চিনুয়া আচেবে, অরহান পামুক, আর্নেস্ট হেমিংওয়ে, হিলারি ম্যানটেল এবং কিরণ দেশাই।

রাহেল রাজিবের শৈশব-কৈশোর ছিল দস্যিপনায় ভরা। চারপাশের সবকিছু নিজের চোখ দিয়ে আবিষ্কার করার অদম্য নেশা ছিলই। বাবার প্রশ্রয় এবং বাবার দেখিয়ে দেওয়া পথে চলার অভ্যেস তার পুরোনো। সবশেষে তার ভবিষ্যত্ স্বপ্নের কথা জানাতে গিয়ে তিনি বলেন, 'বাবা বলতেন, 'আমার পায়ের তলায় নাকি সরষে!' চরকির মতো চারপাশ ঘুরে বেড়াই। ভ্রমণের অদম্য নেশা সাধ্যের বাইরে টেনে নিয়ে যায় প্রায়শই এবং এটিই আমার একমাত্র শখ। দেশে-বিদেশে সারাজীবন ঘুরতে চাই, দু'চোখ ভরে দেখতে চাই, স্পর্শ করতে চাই চারপাশ, পড়তে চাই। সরষের গতিতে ছুটতে চাই।'

এক নজরে

রাহেল রাজিব

ডাকনাম :রাহেল

জন্ম তারিখ ও স্থান :২৩ অক্টোবর, দিনাজপুর

মায়ের নাম :মায়া রাণী মন্ডল

বাবার নাম :রামচন্দ্র মন্ডল

প্রথম স্কুল :কাঁটাবাড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়

প্রিয় মানুষ :বাবা

প্রিয় উক্তি :I write because I am unhappy.

I write because it's a war of fighting unhappiness. (Mario Vargas LIosa)

প্রিয় পোশাক :জিন্স, টি-শার্ট, ফতুয়া

অবসর কাটে যেভাবে :দেশে-বিদেশে ঘুরে বেড়িয়ে।

সাফল্যের সংজ্ঞা :নিজেকে আয়নায়

দেখে চিনে নাও।

font
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন
জামায়াতের ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারি জেনারেল শফিকুর রহমান বলেছেন, 'আল-কায়েদার সঙ্গে জামায়াত-শিবিরের কোন সম্পর্ক নেই'। আপনিও কি তাই মনে করেন?
8 + 7 =  
ফলাফল
আজকের নামাজের সময়সূচী
জুলাই - ১৮
ফজর৩:৫৬
যোহর১২:০৫
আসর৪:৪৪
মাগরিব৬:৫১
এশা৮:১৩
সূর্যোদয় - ৫:২১সূর্যাস্ত - ০৬:৪৬
archive
বছর : মাস :
The Daily Ittefaq
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: তাসমিমা হোসেন। উপদেষ্টা সম্পাদক হাবিবুর রহমান মিলন। ইত্তেফাক গ্রুপ অব পাবলিকেশন্স লিঃ-এর পক্ষে তারিন হোসেন কর্তৃক ৪০, কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ থেকে প্রকাশিত ও মুহিবুল আহসান কর্তৃক নিউ নেশন প্রিন্টিং প্রেস, কাজলারপাড়, ডেমরা রোড, ঢাকা-১২৩২ থেকে মুদ্রিত। কাওরান বাজার ফোন: পিএবিএক্স: ৭১২২৬৬০, ৮১৮৯৯৬০, বার্ত ফ্যাক্স: ৮১৮৯০১৭-৮, মফস্বল ফ্যাক্স : ৮১৮৯৩৮৪, বিজ্ঞাপন-ফোন: ৮১৮৯৯৭১, ৭১২২৬৬৪ ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭২, e-mail: [email protected], সার্কুলেশন ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭৩। www.ittefaq.com.bd, e-mail: [email protected]
Copyright The Daily Ittefaq © 2014 Developed By :