The Daily Ittefaq
ঢাকা, শুক্রবার, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৪, ৯ ফাল্গুন ১৪২০, ২০ রবিউস সানী ১৪৩৫
সর্বশেষ সংবাদ নাটোরে বাস-লেগুনা সংঘর্ষে নিহত ৩ | শাহ আমানতে সাড়ে ১০ কেজি সোনা আটক | একুশের প্রথম প্রহরে শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা নিবেদন

বিসমিল্লাহর বহুমুখি ব্যবহার

ডা. আ. ন. ম নৌশাদ খান 

১। ইসলামী জীবন দর্শনের একটি শিক্ষা হলো সকল কাজ বিসমিল্লাহ দ্বারা আরম্ভ করা। এটি ইসলামী কৃষ্টি ও সংস্কৃতির আবিচ্ছেদ্য অঙ্গ। বিসমিল্লাহ বলে কাজ শুরু করা গুরুত্ব পূর্ণ সুন্নত। এর কয়েকটি সুফল আছে। সুফল :১। আল্লাহ ও তাঁর শক্তির প্রতি ঈমানের নবায়ন হয়। ২। আল্লাহর সাহায্য ও করুণা লাভ সম্ভব হয়। ৩। বিসমিল্লাহ মানুষকে মন্দ কাজ থেকে বিরত রাখে। ৪। বিসমিল্লাহ মানুষকে ভাল কাজে উত্সাহিত করতে পারে। ৫। আল্লাহর নামে কাজ শুরু করলে নিয়ত সঠিক ও সহীহ হওয়ার সম্ভাবনা বেশী থাকে। ৬। বিসমিল্লাহ বলে কাজ শুরু করলে শয়তানের প্রভাব ও অংশ গ্রহণ থেকে মুক্ত থাকা যায়। উপরোক্ত বর্ণনামতে বিসমিল্লাহ ব্যবহার সম্পর্কে জানা গেল। ৩। বর্তমানে আমরা দেখতে পাই-সংসদে, অফিস আদালতে, মাঠে ময়দানে বক্তৃতা শুরুর আগে সরবে বিসমিল্লাহ বলেন। এটা কতটুকু যৌক্তিক। উপরে বর্ণিত বিসমিল্লাহ বলার উদ্দেশ্য আর বক্তৃতার বিসমিল্লাহর উদ্দেশ্য এক নয়। মাঠে ময়দানে বক্তৃতার সময় প্রায় মিথ্যাচার গালিগালাজ করা হয়। বিসমিল্লাহ মন্দ কাজ থেকে বিরত রাখতে পারছে না। অফিস আদালতে বক্তৃতার সময় সরবে বিসমিল্লাহ বলে শুরু করেন তারপর নানান অসত্য কথা, তির্যক কথা ও ব্যক্তিগত আক্রমণ করে কথা বলা হয়। যা বিসমিল্লাহর উদ্দেশ্যের সাথে মিল নেই। বিসমিল্লাহর এই প্রকাশ্য ব্যবহার শুরু করেছিলেন প্রয়াত একজন রাষ্ট্রপতি বীর মুক্তি যোদ্ধা। উদ্দেশ্য ছিল ধর্মের আদর্শে মানুষকে আকৃষ্ট করা অথবা ভাল নিয়তে চালু করেছিলেন। কিন্তু এখন এর প্রায় অপব্যবহার হচ্ছে। সাধারণ মানুষের কাছে এটা বোঝানো যারা বিসমিল্লাহ বলবে তারা খাটি মুসলমান যারা বলবে না তারা ধর্মহীন। বলা যায় রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে এর ব্যবহার। অর্থাত্ দুর্নীতি ব্যভিচার বা মদ্যপান করেও যদি মাঠে ময়দানে সরবে বিসমিল্লাহ বলেন সে খাটি মুসলমান! ধর্মকে আমরা ব্যবসায় নিয়ে গিয়েছি। অথচ মুসলমানেরা সংস্কার হচ্ছেঃ যে নিজের ইচ্ছাকে আল্লাহর কাছে সমর্পন করে অথবা যে আল্লাহর ইচ্ছা অনুসারে চলে। রসূল (স.) বলেছেনঃ সে ব্যক্তি মোমিন নয়, যার হাত ও মুখের অনিষ্ট থেকে প্রতিবেশী রক্ষা না পায়। আর একটি হাদিসে বলা হয়েছেঃ সে মোমিন নয় যে পেট ভরে খায় আর তার প্রতিবেশী অভুক্ত থাকে। এখানে প্রতিবেশী বলতে যে কোন ধর্মের মানুষকে বোঝানো হয়েছে। ইসলামের মূল থেকে আমরা অনেক দুরে আছি বলেই এত হানাহানি, মারামারি। ধর্মকে নিজের মত অনুসারে চালাতে চায়। তখন এটা ধর্ম থাকে না হয়ে যায় সংসার। সংসার জটিল সংকীর্ণ। ধর্ম সহজ সরল উদার। ১৯৪৮ সাল থেকে ২০১৩ইং ৬৫ বছর যাবত প্যালেস্টাইনের মুক্তির জন্য দোয়া ও অস্ত্র ব্যবহার হচ্ছে। আল্লাহ দোয়া কবুল করছেন না অস্ত্র দিয়ে ও কাজ হচ্ছে না। ইসলাম তরবারী দিয়ে প্রচার হয় নাই। হয়েছে জ্ঞান, প্রজ্ঞা, আচরণ তাই সূরা নাহল এর ১২৫ নং আয়াতে বলা হয়েছে (হে নবী) আপনি প্রজ্ঞা ও সদুপদেশ দ্বারা আল্লাহর পথে (মানুষদের) আহবান করুন। (তর্কে যেতে হলে) আপনি বিতর্ক করুন যুক্তি সহকারে উত্তম পন্থা আপনার মালিকই ভাল জানেন, কে তার পথ থেকে বিপথগামী হয়ে গেছে অথবা কে সঠিক পথে রয়েছে। ৪। সরবে বিসমিল্লাহ বলা :মুসলিম শরীফ ৭৭৬ হাদিসে আনাস (রা.) বলেন রসূল (স.) সরব নামাযে সরবে বিসমিল্লাহ বলেন নাই। শাফেঈ (রহ.) সরব নামাযে সরবে বিসমিল্লাহ বলার পক্ষে মত দেন। নিরব নামাযে এর কোন উল্লেখ নেই। সুতরাং নামাযের মধ্যে সরবে নিরবে বিসমিল্লাহ বলার মত ভিন্নতা যেখানে রয়েছে সেখানে বক্তৃতার আগে সরবে বিসমিল্লাহ বলা কতটুকু যৌক্তিক। ৫। বিসমিল্লাহ কুরআনের আয়াত :সকল যুগের আলেমগণের সর্ব সম্মত সিদ্ধান্তঃ 'বিসমিল্লাহির রহমানির রহিম' আল কুরআনের একটি। সূরা নমলের ৩০ নং আয়াতে এভাবে বলা হয়েছে, এটি সুলায়মান থেকে এসেছে এবং তা পরম করুণাময়, অতিদয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করা হয়েছে (আল কুরআন ২৭ঃ৩০) সূরা নাহালের ৯৮ নং আয়াতে বলা হয়েছে আপনি যখন কুরআন পাঠ করেন তখন বিতাড়িত শয়তান থেকে আশ্রয় প্রার্থনা করুন। যেহেতু বিসমিল্লাহ কুরআনের আয়াত তার আগে আউযুবিল্লাহ পড়া উচিত। আর এই কারণে নাকি অন্য কারণে জানা না গেলেও কৃষি মন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী ও প্রফেসর রুহুল হক আউযুবিল্লাহ হিমিনাস শায়তনির রাজিম বলেন তারপর বিসমিল্লাহির রহমানির রহিম বলেন। ধর্ম ব্যবসায়ীদের অপবাদ থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য অনেকেই বিসমিল্লাহ বলছেন। সুতরাং নিয়ত সঠিক কিনা প্রশ্ন থেকেই যায়। সূরা বাকারায় বলা হয়েছে লা ইকরাহা ফিদ্দিন ধর্মে কোন জোরজবরদস্তি নাই। ৬। বিসমিল্লাহ করুণার বাণী : কুরআনের সকল সূরার আগে বিসমিল্লাহ দিয়ে শুরু হয় কিন্তু সূরা তওবা তা দিয়ে শুরু হয়নি। এর একটি কারণ হিসাবে বলা হয়েছে যেহেতু এই সূরায় কাফেরদের সাথে শান্তি চুক্তি রহিতকরণ এবং অবাধ্যতার শাস্তি উল্লেখ রয়েছে সেহেতু এখানে বিসমিল্লাহ লেখা হয়নি। কেননা বিসমিল্লাহ করুণার বাণী। করুণার বিসমিল্লাহ আমরা মাঠে ময়দানে সভা সমাবেশে কিভাবে ও কি নিয়তে ব্যবহার করি তা বিবেচনা করা প্রয়োজন।

লেখক: অধ্যক্ষ, রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ মেডিকেল কলেজ, কিশোরগঞ্জ

font
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন
শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু বলেছেন, 'উপজেলা নির্বাচনে বিজয়ী হয়ে বিএনপি প্রমাণ করেছে শেখ হাসিনার অধীনে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন সম্ভব।' আপনিও কি তাই মনে করেন?
3 + 8 =  
ফলাফল
আজকের নামাজের সময়সূচী
অক্টোবর - ২০
ফজর৪:৪২
যোহর১১:৪৪
আসর৩:৫১
মাগরিব৫:৩২
এশা৬:৪৪
সূর্যোদয় - ৫:৫৮সূর্যাস্ত - ০৫:২৭
archive
বছর : মাস :
The Daily Ittefaq
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: তাসমিমা হোসেন। উপদেষ্টা সম্পাদক হাবিবুর রহমান মিলন। ইত্তেফাক গ্রুপ অব পাবলিকেশন্স লিঃ-এর পক্ষে তারিন হোসেন কর্তৃক ৪০, কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ থেকে প্রকাশিত ও মুহিবুল আহসান কর্তৃক নিউ নেশন প্রিন্টিং প্রেস, কাজলারপাড়, ডেমরা রোড, ঢাকা-১২৩২ থেকে মুদ্রিত। কাওরান বাজার ফোন: পিএবিএক্স: ৭১২২৬৬০, ৮১৮৯৯৬০, বার্ত ফ্যাক্স: ৮১৮৯০১৭-৮, মফস্বল ফ্যাক্স : ৮১৮৯৩৮৪, বিজ্ঞাপন-ফোন: ৮১৮৯৯৭১, ৭১২২৬৬৪ ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭২, e-mail: [email protected], সার্কুলেশন ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭৩। www.ittefaq.com.bd, e-mail: [email protected]
Copyright The Daily Ittefaq © 2014 Developed By :