The Daily Ittefaq
ঢাকা, শুক্রবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৪, ১৬ ফাল্গুন ১৪২০, ২৭ রবিউস সানী ১৪৩৫
সর্বশেষ সংবাদ যমুনা তেল সংরক্ষণাগারে আগুন, নয়জন হাসপাতালে | ঢাকা বারে বিএনপি-জামায়াত প্যানেলের বড় জয় | এশিয়া কাপ শেষ মাশরাফির

যতীন সরকার

কালের কপোল তলে

যতীন সরকার সমকালীন বাংলা সাহিত্যের অন্যতম শ্রেষ্ঠ প্রাবন্ধিক। চিন্তার প্রখরতায়, মনীষার গভীরতায় ও বক্তব্যের তীক্ষ্মতায় তাঁর রচনা এ দেশের সমাজ সংস্কৃতি রাজনীতির গুরুত্বপূর্ণ ভাষ্যে পরিণত হয়েছে। 'কালের কপোল তলে' এ ধারার মূল্যবান সংকলন। সমকালীনতা এ বইয়ের অন্যতম বৈশিষ্ট্য। তবে সমকালীনতায় তাঁর চিন্তার প্রাসঙ্গিকতা আবদ্ধ থাকেনি। তাঁর বক্তব্য একই সঙ্গে কালজ ও কালোত্তর। আমাদের মননসাহিত্যে 'কালের কপোল তলে' এক অনন্য সংযোজন।

ব্যাকরণশাস্ত্রে বলা হয়েছে যে, 'যে কোনো ধাতু বা ক্রিয়ামূলের আগে উপসর্গ বসালে ধাতুর মূল অর্থটি অন্যত্র নীত হয়।' অর্থাত্ উপসর্গযোগে শব্দের অর্থ বদলে যায়, এমন কি বিপরীতার্থকও হয়ে যায়। যেমন—'জয়' শব্দটির আগে 'পরা' উপসর্গ লাগালে হয় 'পরাজয়'। উপসর্গ সম্পর্কে নানা কথা ভাবতে ভাবতেই সংস্কৃতি আর অপসংস্কৃতির কথা আমার মাথায় এসে গেল।

সংস্কৃত ভাষার 'অপ' উপসর্গটি হলো সকল অপকর্মের কর্তা—সকল কিছুর অর্থকেই উল্টে দেয়, অনেক কিছুকে অর্থহীনও করে ফেলে। 'সংস্কৃতি'র পূর্বেও 'অপ' উপসর্গ যোগ করলে তা আর কোনোমতেই সংস্কৃতি থাকে না, হয়ে যায় সংস্কৃতিঘাতক। তাই, বলতেই হবে যে, 'সংস্কৃতিহীনতা'-ই 'অপসস্কৃতি' শব্দটির আসল অর্থ।

কিন্তু কোনটি সংস্কৃতি আর কোনটি অপসংস্কৃতি, সব সময় তা সহজে নির্ণয় করা যায় না। এক কালে বা এক দেশে যা সংস্কৃতি, অন্য কালে বা অন্যদেশে তা-ই হয়ে যায় অপসংস্কৃতি। আবার একই কালে ও দেশেও পরস্পরবিরোধী স্বার্থের শ্রেণীসমূহের মধ্যে সংস্কৃতি ও অপসংস্কৃতির এ রকম বিভাজন দেখা দেয়। আর্থ-সামাজিক বিভেদ থেকেই ঘটে এই বিভাজন। তাই, অপসংস্কৃতির প্রকৃত অর্থ জানতে হলেও অর্থনীতির দ্বারস্থ না হয়ে উপায় থাকে না।

সংস্কৃতি কথাটির মূলে আছে সংস্কার। আবার, সংস্কার শব্দটিও একাধিক অর্থের দ্যোতক। তবে প্রথেমেই বলতে হয় : কোনো কিছুর পূর্বতন অবস্থার বদল ঘটিয়ে নতুন করে তোলার নামই সংস্কার। এই সংস্কার থেকেই সংস্কৃতি। প্রকৃতিকে সংস্কার করে যা করা হয় তা-ই সংস্কৃতি। মানুষই প্রতিনিয়ত প্রকৃতিকে সংস্কারের মধ্য দিয়ে নবায়িত করে তোলে; পশু তেমনটি পারে না। তাই মানুষেরই সংস্কৃতি আছে, পশুর নেই। বহিঃপ্রকৃতিকে সংস্কার করে মানুষ যা করে, তা-ই বস্তুগত সংস্কৃতি; আর মানুষের অন্তঃপ্রকৃতির সংস্কারের মধ্য দিয়েই গড়ে ওঠে ভাবগত সংস্কৃতি।

প্রথমে বস্তুগত সংস্কৃতির কথাই বলি। বস্তুজগতে তথা প্রকৃতিতে জন্মায় গাছ, সেই গাছের প্রাচুর্যে এক সময় পৃথিবী ছিল ঘনবনসমাকীর্ণ। মানুষ সেই বন কেটে বসত গড়েছে, গাছ কেটে তক্তা বানিয়েছে ও তক্তা দিয়ে বানিয়েছে ঘর তৈরির নানা সরঞ্জাম ও নানা আসবাবপত্র। তক্তা বানানো, ঘর বানানো, আসবাবপত্র বানানো মানে প্রকৃতিজাত গাছের সংস্কার করা। প্রকৃতির এ রকম আরো আরো সংস্কারের ভেতর দিয়েই গড়ে উঠেছে তার বস্তুগত সংস্কৃতি। তবে, এ প্রসঙ্গেই মনে রাখা উচিত : শুধু গাছ নয়, প্রকৃতির আরো অনেক কিছুর সংস্কার করেই গঠিত ও বিবর্তিত হয়েছে এতাবত্কালের মানুষের সংস্কৃতি। কিন্তু সংস্কৃতির উত্স ও উপাদন যেপ্রকৃতি, সেই প্রকৃতিকে বাঁচিয়ে রাখতে হয় সংস্কৃতির স্বার্থেই। প্রকৃতিকে সংহার করলে সংস্কৃতিসংহারেরই আয়োজন করা হয়। সংহার আর সংস্কার এক নয়। বর্তমান পৃথিবীতে প্রকৃতির এই সংহার-প্রক্রিয়া অত্যন্ত ভয়াবহ রূপ ধারণ করেছে। এই প্রকৃতি সংহার তথা পরিবশে বিপর্যয় ঘটানোর ফলে যা হচ্ছে তা-ও আসলে সংস্কৃতিসংহার বা অপসংস্কৃতি। এরকম সংহারকার্য ঘটাচ্ছে যারা, তাদেরকে সঠিকভাবেই চিনে না নিয়ে ও তাদের প্রতি ক্ষমাহীন না হয়ে, পৃথিবী থেকে অপসংস্কৃতির উত্সাদন ঘটানো যাবে না।

এখানে এসে যায় ভাবগত সংস্কৃতির কথা। প্রকৃতিকে সংস্কার করে মানুষ তৈরি করে যে বস্তুগত সংস্কৃতি, সেই বস্তুগত সংস্কৃতির ক্রমোন্নতিই মানুষের জীবনযাত্রাকে উন্নত থেকে উন্নততর করে তুলতে থাকে। সেই উন্নত জীবনযাত্রা মানুষের ভাবের জগতে যে উন্নতি ঘটায় তা থেকেই তার ভাবগত সংস্কৃতির উদ্ভব, বিকাশ ও ক্রমোন্নতি ঘটে চলে। ভাবের ক্ষেত্রে সংস্কার ঘটিয়েই তৈরি হয় মানুষের ভাবগত সংস্কৃতি।

ভাবগত সংস্কৃতির প্রসঙ্গেই 'সংস্কার কথাটির অন্যতর অর্থের দিকে দৃষ্টি দেয়ার প্রয়োজন পড়ে। ভাবের জগতে মানুষ যে সংস্কার ঘটায়, তাতে মানুষের ভেতরে বিশেষ কতকগুলো ধারণা শিকড় গেড়ে বসে। এ রকম ধারণাসমূহেরই আরেক নাম 'সংস্কার'। এই সংস্কারও মানুষের সংস্কৃতি গঠনে বিশেষ ভূমিকা রাখে। যেসব সংস্কার মানুষের চৈতন্যে শুভ ফলদায়ক, সেসব সংস্কারকেই বলে মানবিক মূল্যবোধ। এ রকম মূল্যবোধের ধারক ও রক্ষক মানুষেরা সমাজে সংস্কৃতিমান রূপে নন্দিত হয়। আর মূল্যবোধহীন মানুষ হয় নিন্দিত, তেমন মানুষদের কেউই সংস্কৃতিমান রূপে গণ্য হয় না।

কিন্তু সব সংস্কারই মূল্যবোধের পর্যায়ভুক্ত নয়। অনেক মানুষের ভেতরেই এমন অনেক সংস্কারের অবস্থান থাকে—যেগুলো তাদের চিন্তাকে কুয়াশাচ্ছন্ন করে রাখে, যেগুলোর অপ-প্রভাবে তাদের বুদ্ধি আবদ্ধ হয়ে থাকে।

font
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, 'নির্বাচন ও নবনির্বাচিত সরকারের গ্রহণযোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন তোলার ক্ষেত্রে মহলবিশেষের অসত্ উদ্দেশ্য ব্যর্থ হয়েছে' আপনিও কি তাই মনে করেন?
5 + 2 =  
ফলাফল
আজকের নামাজের সময়সূচী
মে - ১৩
ফজর৩:৫৪
যোহর১১:৫৫
আসর৪:৩৩
মাগরিব৬:৩৫
এশা৭:৫৪
সূর্যোদয় - ৫:১৭সূর্যাস্ত - ০৬:৩০
archive
বছর : মাস :
The Daily Ittefaq
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: তাসমিমা হোসেন। উপদেষ্টা সম্পাদক হাবিবুর রহমান মিলন। ইত্তেফাক গ্রুপ অব পাবলিকেশন্স লিঃ-এর পক্ষে তারিন হোসেন কর্তৃক ৪০, কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ থেকে প্রকাশিত ও মুহিবুল আহসান কর্তৃক নিউ নেশন প্রিন্টিং প্রেস, কাজলারপাড়, ডেমরা রোড, ঢাকা-১২৩২ থেকে মুদ্রিত। কাওরান বাজার ফোন: পিএবিএক্স: ৭১২২৬৬০, ৮১৮৯৯৬০, বার্ত ফ্যাক্স: ৮১৮৯০১৭-৮, মফস্বল ফ্যাক্স : ৮১৮৯৩৮৪, বিজ্ঞাপন-ফোন: ৮১৮৯৯৭১, ৭১২২৬৬৪ ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭২, e-mail: [email protected], সার্কুলেশন ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭৩। www.ittefaq.com.bd, e-mail: [email protected]
Copyright The Daily Ittefaq © 2014 Developed By :