The Daily Ittefaq
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৩ মার্চ ২০১৪, ২৯ ফাল্গুন ১৪২০, ১১ জমা. আউয়াল ১৪৩৫
সর্বশেষ সংবাদ বিদ্যুতের দাম বাড়ানোর প্রতিবাদে কাল বিএনপির বিক্ষোভ | টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের উদ্বধোন করলেন প্রধানমন্ত্রী | ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৫ | বিদ্যুতের দাম বাড়ল ৬.৬৯ শতাংশ, ১ মার্চ থেকে কার্যকর | রাজধানীতে ছয় তলা ভবনের আগুন নিয়ন্ত্রণে | আদালত অবমাননা : প্রথম আলোর সম্পাদক-প্রকাশক খালাস | খন্দকার মোশাররফ সরকারের চক্রান্তের শিকার : রিজভী

আদালত অবমাননা : প্রথম আলোর সম্পাদক-প্রকাশককে অব্যাহতি

ইত্তেফাক রিপোর্ট

বিচারপতি ফয়সাল মাহমুদ ফয়েজীর নম্বরপত্র জালিয়াতি বিষয়ে প্রতিবেদন প্রকাশ নিয়ে আদালত অবমাননার মামলা থেকে প্রথম আলোর সম্পাদক, প্রকাশক ও প্রতিবেদককে অব্যাহতি দিয়েছে আপিল বিভাগ। একই মামলায় ভোরের কাগজের প্রকাশক অব্যাহতি পেলেও অভিযুক্ত হয়েছেন তত্কালীন সম্পাদক ও এক প্রতিবেদক। আজ বৃহস্পতিবার বিচারপতি নাজমুন আরা সুলতানা নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগের চার সদস্যের বেঞ্চ এই রায় দেয়।

আপিল মঞ্জুর হওয়ায় অভিযোগ থেকে অব্যাহতি পেয়েছেন প্রথম আলো সম্পাদক মতিউর রহমান, ওই সময়ের প্রকাশক মাহফুজ আনাম (ডেইলি স্টার সম্পাদক), প্রতিবেদক একরামুল হক বুলবুল, মাসুদ মিল্লাত এবং ভোরের কাগজের প্রকাশক সাবের হোসেন চৌধুরী। হাইকোর্ট তাদের সবাইকে একহাজার টাকা করে জরিমানা করেছিল।

তবে ভোরের কাগজের তত্কালীন সম্পাদক আবেদ খান ও প্রতিবেদক সমরেশ বৈদ্যের আপিল মঞ্জুর করেনি আপিল বিভাগ। এর মধ্যে আবেদ খানকে করা একহাজার টাকা জরিমানা বহাল রয়েছে। অন্যদিকে সমরেশ বৈদ্যকে হাইকোর্টের দেয়া দুই মাসের কারাদণ্ড ও একহাজার টাকা জরিমানার দণ্ড কমিয়ে একহাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে সাত দিনের কারাদণ্ড দিয়েছে।

আদালতে প্রথম আলোর সাংবাদিকদের পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার সারা হোসেন। সাবের হোসেন চৌধুরীর পক্ষে ছিলেন এ এম আমিন উদ্দিন। আর আবেদ খান ও সমরেস বৈদ্যর পক্ষে শুনানি করেন রোকনউদ্দিন মাহমুদ। অন্যদিকে অভিযোগকারী ফয়জীর বাবা মোহাম্মদ ফয়েজের পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার আজমালুল হোসেন কিউসি।

বিচারপতি ফয়সাল মাহমুদ ফয়েজীর এলএলবি সনদ নিয়ে ২০০৪ সালের ৩০ অক্টোবর দৈনিক প্রথম আলো পত্রিকায় ভোরের কাগজ এবং প্রথম আলো পত্রিকায় প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। যেখানে ফয়েজীর মার্কসিটে নম্বর ঘষামাজার কথা বলা হয়।

এরপর ফয়েজীর বাবা সাবেক রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ ফয়েজ হাইকোর্টে আদালত অবমাননার মামলা করেন। এ মামলায় ২০০৫ সালের ২১ মার্চ এক রায়ে হাইকোর্ট প্রথম আলো পত্রিকার সম্পাদক মতিউর রহমান, প্রকাশক মাহফুজ আনাম, প্রতিবেদক একরামুল হক বুলবুল ও মাসুদ মিলাদকে এক হাজার টাকা করে জরিমানা করেন। এছাড়া ভোরের কাগজের ঐ সময়কার সম্পাদক আবেদন খান ও প্রকাশক সাবের হোসেন চৌধুরীকে এক হাজার টাকা করে জরিমানা এবং প্রতিবেদক সমরেশ বৈদ্যকে দুই মাসের কারাদণ্ডসহ এক হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। পরে এই রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করেন সংশ্লিষ্টরা। আজ এই বিষয়ে রায় দেয় আপিল বিভাগ।

সর্বশেষ আরো খবর -
font
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন
বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আ স ম হান্নান শাহ বলেছেন, 'ইঁদুর স্বভাবের কিছু নেতার কারণে সংসদ নির্বাচন প্রতিহতের আন্দোলন ঢাকায় সফল হয়নি।' আপনিও কি তাই মনে করেন?
4 + 4 =  
ফলাফল
আজকের নামাজের সময়সূচী
আগষ্ট - ১৯
ফজর৪:১৬
যোহর১২:০৩
আসর৪:৩৭
মাগরিব৬:৩২
এশা৭:৪৮
সূর্যোদয় - ৫:৩৫সূর্যাস্ত - ০৬:২৭
archive
বছর : মাস :
The Daily Ittefaq
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: তাসমিমা হোসেন। উপদেষ্টা সম্পাদক হাবিবুর রহমান মিলন। ইত্তেফাক গ্রুপ অব পাবলিকেশন্স লিঃ-এর পক্ষে তারিন হোসেন কর্তৃক ৪০, কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ থেকে প্রকাশিত ও মুহিবুল আহসান কর্তৃক নিউ নেশন প্রিন্টিং প্রেস, কাজলারপাড়, ডেমরা রোড, ঢাকা-১২৩২ থেকে মুদ্রিত। কাওরান বাজার ফোন: পিএবিএক্স: ৭১২২৬৬০, ৮১৮৯৯৬০, বার্ত ফ্যাক্স: ৮১৮৯০১৭-৮, মফস্বল ফ্যাক্স : ৮১৮৯৩৮৪, বিজ্ঞাপন-ফোন: ৮১৮৯৯৭১, ৭১২২৬৬৪ ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭২, e-mail: [email protected], সার্কুলেশন ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭৩। www.ittefaq.com.bd, e-mail: [email protected]
Copyright The Daily Ittefaq © 2014 Developed By :