The Daily Ittefaq
ঢাকা, সোমবার, ১৪ এপ্রিল ২০১৪, ১ বৈশাখ ১৪২১, ১৩ জমাদিউস সানী ১৪৩৫
সর্বশেষ সংবাদ মিল্কি হত্যা মামলায় ১২ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট | বারডেমে চিকিৎসকদের অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতি | কালিয়াকৈরে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৪ | তারেকের বক্তব্যে ভুল থাকলে প্রমাণ করুন : ফখরুল

ব্যাটসম্যানদের দাপট চলছেই

স্পোর্টস রিপোর্টার

ষষ্ঠ রাউন্ডের প্রথম দিনেই চারটি সেঞ্চুরি দেখেছিল চলমান জাতীয় ক্রিকেট লিগ। সেই ধারাবাহিকতায় গতকালও চললো ব্যাটসম্যানদের দাপট। ওয়ালটন ১৫তম জাতীয় ক্রিকেট লিগে গতকাল রবিবারও হল তিনটি সেঞ্চুরি। রাজশাহীর হয়ে মুক্তার আলী, ঢাকার হয়ে তৈয়বুর পারভেজ ও রংপুরের হয়ে তানভীর হায়দার পৌঁছেছেন তিন অংকের ঘরে। সাথে ডাবল সেঞ্চুরি পেয়েছেন ফরহাদ রেজা।

রেজার পর মুক্তার

দিনের প্রথম ঘণ্টায় ইতিহাসের পাতায় নাম লিখিয়ে ফেলেছিলেন ফরহাদ রেজা। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে বাংলাদেশের ইতিহাসে মাত্র ১৭তম ব্যাটসম্যান হিসাবে করেছেন ডাবল সেঞ্চুরি। দিনের বাকিটা সময় আলো ছড়িয়েছেন মুক্তার আলী। ব্যাটিংয়ে সেঞ্চুরির পর বল হাতেও নিয়েছেন তিনটি উইকেট।

গতকাল রবিবার বিকেএসপির তিন নম্বর মাঠে চট্টগ্রামের বিপক্ষে নয় উইকেটে ৬৭৫ রানে ইনিংস ঘোষণা করে রাজশাহী। ফরহাদ ২৫৯ ও মুক্তার আলী করেন ১৬৮ রান। চট্টগ্রামের হয়ে চারটি উইকেট নেন আলী আকবর।

রানের পাহাড় মাথায় নিয়ে যেন খেই হারিয়ে ফেলে চট্টগ্রামের ব্যাটসম্যানরা। মাত্র ১৬৫ রান তুলতেই হারিয়ে ফেলে সাতটি উইকেট। সর্বোচ্চ ৫৪ রান আসে ফয়সাল হোসেনের ব্যাট থেকে। মুক্তার আলী তিনটি ও শরিফুল ইসলাম দুটি করে উইকেট নেন।

মাত্র তিন উইকেট হাতে নিয়ে এখনও ৫১০ রানে পিছিয়ে আছে চট্টগ্রাম। দ্বিতীয় দিনেই জয়ের সুবাস পেতে শুরু করেছে রাজশাহী।

বাঁধার নাম 'রাজ্জাক'

শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে আব্দুর রাজ্জাকের ঘূর্ণি জাদু দ্বিতীয় ইনিংসেও অব্যাহত রয়েছে। খুলনা বিভাগের অধিনায়কের কাছে ২৬ রানের ব্যবধানে তিনটি উইকেট হারালেও শামসুর রহমানের ফিফটিতে ঢাকা মহানগর ৬৩ রানের লিড নিয়েছে।

শনিবার জাতীয় ক্রিকেট লিগের উদ্বোধনী দিনে রাজ্জাকের ঘূর্ণিতে ১৭২ রানে গুটিয়ে যায় ঢাকা মেট্রোর প্রথম ইনিংস। জবাবে এক উইকেট হারিয়ে ৪৬ রানে দিনের ইতি টেনেছিল খুলনা।

গতকাল দ্বিতীয় দিনের খেলায় ৭ রান যোগ করতেই ইমরুল কায়েস (১৪) ইলিয়াস সানির কাছে রান আউট হন। দলটির ব্যাটিং লাইনে বড় ধস নামে এরপরই। ৯৯ রানের মধ্যে পাঁচ উইকেট হারিয়ে ফেলে খুলনা।

তবে তুষার ইমরান ও নিজামউদ্দিন রিপনের হাফ সেঞ্চুরিতে লিড পায় তারা। এই জুটিতে আসে ৯২ রান। তুষার দ্বিতীয় সেরা ৫৫ রানে আরাফাত সানির শিকার হন। দলকে দুশ'র ঘরে নিয়ে গিয়ে আউট হন নিজামউদ্দিন। ৬১ রানের সেরা পারফরমেন্স করেন তিনি। খুলনাকে ৪১ রানের লিড এনে দিতে উল্লেখযোগ্য আরও অবদান রেখেছেন রবিউল ইসলাম রবি (২৯) ও মিথুন আলী (২৬)।

অধিনায়ক মাহমুদউল্লা রিয়াদ মেট্রোর হয়ে চারটি উইকেট নেন। দুটি পান আরাফাত। একটি করে শিকার করেছেন শহীদ, ইলিয়াস সানি ও সৈকত আলী। মেট্রোর দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে উদ্বোধনী জুটিতে ভর করে নিরাপদ অবস্থানে যেতে থাকে। কিন্তু ৭৭ থেকে ১০৩ রান যোগ করতে গিয়ে তিনটি উইকেট হারিয়ে বসে তারা। সবগুলো উইকেটই নিয়েছেন রাজ্জাক।

সৈকত ২২ রানে প্রথম উইকেটটি হারান। সাদমান ইসলাম ৭ ও আসিফ আহমেদ রাতুল ৫ রানে আউট হন। ৮১ বলে ১০ চার ও এক ছয়ে ৬৯ রানে অপরাজিত থেকে দিন শেষ করেন।

ঢাকাকে বরিশালের জবাব

শাহরিয়ার নাফীসের (১২৯) অধিনায়কোচিত ইনিংসে বরিশাল বিভাগ প্রথম ইনিংসে ৩২৩ রান করেছিল প্রথম দিন। জাতীয় ক্রিকেট লিগের ষষ্ঠ রাউন্ডের দ্বিতীয় দিন বিনা উইকেটে ১৪ রানে পাল্টা ইনিংস খেলতে নামে ?ঢাকা বিভাগ। একটি সেঞ্চুরি ও দুটি হাফ সেঞ্চুরিতে ১৩ রানের লিড নিয়েছে তারা। রকিবুল হাসানের দল চার উইকেট হারিয়ে ৩৩৬ রানে রবিবারের খেলা শেষ করেছে।

উদ্বোধনী জুটিতে ৬২ রান করে আব্দুল মজিদকে রেখে সাজঘরে ফেরেন রনি তালুকদার (৩৬)। তাতে সমস্যা হয়নি। মজিদের সঙ্গে তাইবুর রহমানের দেড় শতাধিক রানের জুটিতে শক্ত অবস্থান নেয় ঢাকা।

মজিদ ১২০ বলে ছয় চারে ৫০ রান করেছিলেন মধ্যাহ্ন বিরতির পরই। এর আগে তাইবুর ৭০ বলে সাতটি চারে ফিফটি করেন। বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যান পরের ৫০ ছুঁয়েছেন আরও ৭৫ বল খেলে। ১৩টি বাউন্ডারি হাঁকিয়ে তিন অঙ্কের ঘরে পৌঁছান তাইবুর।

এর আগে তার সঙ্গে ১৬০ রানের জুটি গড়ে সাজঘরে ফিরে যেতে হয় মজিদকে। ১৮৮ বল মোকাবিলা করে ১১ চারে ৮৬ রান করেছিলেন এই ওপেনার। তিনি আউট হওয়ার এক ওভার বিরতি দিয়ে সাজঘরে ফিরে যেতে হয় তাইবুরকেও। ১৫০ বলে ১৩ চারে ১০২ রানে সাজানো তার সেরা ইনিংস।

পরবর্তীতে শুভাগত হোম ফিফটি মেরে ও নাদিফ চৌধুরীকে নিয়ে হার না ?মানা ৯১ রানের জুটি গড়ে লিড এনে দেন। ৮৮ বলে আট চার ও দুই ছয়ে ৬৫ রানে অপরাজিত ছিলেন শুভাগত। আর ৩২ রানে অপর প্রান্তে টিকে ছিলেন নাদিফ।

বিপদে সিলেট

প্রথম ইনিংসের ব্যাটিং ব্যর্থতার পর এখন ভয়াবহ রকম বিপদেই আছে সিলেট। ফতুল্লার খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়ামে রংপুরের বিপক্ষে তিন উইকেট হাতে নিয়ে এখনও ২৫৯ রানে পিছিয়ে আছে সিলেট।

এর আগে প্রথম ইনিংসে অল আউট হবার আগে ৩৯১ রান করে রংপুর বিভাগ। নাঈম ইসলামের পর দ্বিতীয় দিনে সেঞ্চুরি করেছেন তানভীর হায়দার। আউট হবার আগে করেছেন ১১১ রান। এছাড়া সোহরাওয়ার্দী শুভ করেন ৭২ রান। নাসুম হোসেন পেয়েছেন সাতটি উইকেট।

জবাবে মাত্র ১৩২ রান করতেই সাতটি উইকেট হারিয়ে ধুঁকছে সিলেট। সর্বোচ্চ ৭১ রান আনে ওপেনার শানাজের ব্যাট থেকে। শুভাশীষ রায় তিনটি ও সোহরাওয়ার্দী শুভ দুটি উইকেট পান।

স ং ক্ষি প্ত স্কো র

রাজশাহী-চট্টগ্রাম

টস: রাজশাহী

রাজশাহী প্রথম ইনিংস ১৩৫.৩ ওভারে ৬৭৫/৯ ডিক্লেয়ার (ফরহাদ রেজা ২৫৯, সাঞ্জামুল ইসলাম ১৭২, মুক্তার আলী ১৬৮, ফরহাদ হোসেন ২২; আলি আকবর ৪/১৫৭, মেহেদি হাসান রানা ২/৬৭, আব্দুল্লাহ আল মামুন ২/৬৭)

চট্টগ্রাম প্রথম ইনিংস: দ্বিতীয় দিন শেষে ৪১ ওভারে ১৬৫/৭ (ফয়সাল হোসেন ৫৪, ইরফান শুকুর ৩৯, মেহেদী হাসান রানা ২৯; মুক্তার আলী ৩/১০, শরিফুল ইসলাম ২/৪১)

খুলনা-ঢাকা মেট্রো

টস: ঢাকা মেট্রো

ঢাকা মেট্রো প্রথম ইনিংস: ৭০.৫ ওভারে ১৭২ অল আউট (সাদমান ইসলাম অনিক ৪০, শরিফুল্লাহ ৩৪ সামসুর রহমান শুভ ২৫, আসিফ আহমেদ রাতুল ২৪; আব্দুর রাজ্জাক ৪/৭৮, নিজামুদ্দিন রিপন ৩/২৭, রাজিবুল ইসলাম ২/১৭, সৈয়দ রাসেল ১/১২)

খুলনা প্রথম ইনিংস: ৮১.৪ ওভারে ২১৩ অল আউট (নিজামুদ্দিন রিপন ৬১, তুষার ইমরান ৫৫, রবিউল ইসলাম রবি ২৯; মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ ৪/৪৫, আরাফাত সানি ২/৩৯)

ঢাকা মেট্রো দ্বিতীয় ইনিংস: দ্বিতীয় দিন শেষে ২৯ ওভারে ১০৪/৩ (সামসুর রহমান শুভ ৬৯, সৈকত আলী ২২; আব্দুর রাজ্জাক ৩/২৫)

ঢাকা-বরিশাল

টস: ঢাকা

বরিশাল প্রথম ইনিংস: ৭৯.২ ওভারে ৩২৩ অল আউট (শাহরিয়ার নাফিস ১২৯, নুরুজ্জামান ৭৯, সজীব ২৮; শুভাগত হোম ৩/৫৯, নাজমুল অপু ৩/৮৫, নূর হোসেন ২/৬৮)

ঢাকা প্রথম ইনিংস: দ্বিতীয় দিন শেষে ৯৮ ওভারে ৩৩৬/৪ (তৈয়বুর পারভেজ ১০২, শুভাগত হোম ৬৫*, আব্দুল মজিদ ৮৬, রনি তালুকদার ৩৬, নাদিফ চৌধুরী ৩২*; মনির হোসেন ২/৯৭)

সিলেট-রংপুর

টস: রংপুর

রংপুর প্রথম ইনিংস: ১৩২.৪ ওভারে ৩৯১ অল আউট (নাঈম ইসলাম ১৪৪, তানভীর হায়দার ১১১, সোহরাওয়ার্দী শুভ ৭২; নাসুম আহমেদ ৭/৯৭, এনামুল হক জুনিয়র ২/১১৬)

সিলেট প্রথম ইনিংস : দ্বিতীয় দিন শেষে ৪৫ ওভারে ১৩২/৭ (শানাজ ৭১, রাজিন সালেহ ১২, এনামুল হক জুনিয়র ১২; শুভাশীষ রায় ৩/৪০, সোহরাওয়ার্দী শুভ ২/২৮)

এই পাতার আরো খবর -
font
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন
বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া বলেছেন, 'দেশ আজ বন্ধুহীন হয়ে পড়েছে। এদেশে বিদেশিরা বিনিয়োগ করছে না'। আপনিও কি তাই মনে করেন?
5 + 8 =  
ফলাফল
আজকের নামাজের সময়সূচী
নভেম্বর - ১৫
ফজর৪:৫৪
যোহর১১:৪৩
আসর৩:৩৭
মাগরিব৫:১৬
এশা৬:৩১
সূর্যোদয় - ৬:১২সূর্যাস্ত - ০৫:১১
archive
বছর : মাস :
The Daily Ittefaq
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: তাসমিমা হোসেন। উপদেষ্টা সম্পাদক হাবিবুর রহমান মিলন। ইত্তেফাক গ্রুপ অব পাবলিকেশন্স লিঃ-এর পক্ষে তারিন হোসেন কর্তৃক ৪০, কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ থেকে প্রকাশিত ও মুহিবুল আহসান কর্তৃক নিউ নেশন প্রিন্টিং প্রেস, কাজলারপাড়, ডেমরা রোড, ঢাকা-১২৩২ থেকে মুদ্রিত। কাওরান বাজার ফোন: পিএবিএক্স: ৭১২২৬৬০, ৮১৮৯৯৬০, বার্ত ফ্যাক্স: ৮১৮৯০১৭-৮, মফস্বল ফ্যাক্স : ৮১৮৯৩৮৪, বিজ্ঞাপন-ফোন: ৮১৮৯৯৭১, ৭১২২৬৬৪ ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭২, e-mail: [email protected], সার্কুলেশন ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭৩। www.ittefaq.com.bd, e-mail: [email protected]
Copyright The Daily Ittefaq © 2014 Developed By :