The Daily Ittefaq
ঢাকা, শনিবার, ৪ মে ২০১৩, ২১ বৈশাখ ১৪২০, ২২ জমাদিউস সানি ১৪৩৪
সর্বশেষ সংবাদ ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে নির্দলীয় সরকার ঘোষণা দেয়ার আল্টিমেটাম : মতিঝিলে ১৮ দলের সমাবেশে খালেদা জিয়া | প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য অন্তসারশূন্য, অবরোধ হবেই: হেফাজত | দয়া করে আর মানুষ হত্যা করবেন না: খালেদা জিয়ার উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী

আপসহীন থাকবে গণজাগরণ মঞ্চ

৩১ মে মহাগণজাগরণ সমাবেশ

বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার

যে কোনো সরকারের আমলে দাবি প্রতিষ্ঠার সংগ্রামে আপোষহীন থাকবে বলে ঘোষণা দিয়েছে গণজাগরণ মঞ্চ। একইসাথে আন্দোলনরতরা এখনই থেমে যেতে চান না বলে মন্তব্য করেছেন মঞ্চের মুখপাত্র ডা. ইমরান এইচ সরকার। এছাড়া দাবির পক্ষে আগামী ৩১ মে ঢাকার শাহবাগে প্রজন্ম চত্বরে মহা গণজাগরণ সমাবেশ আহবান করেছে মঞ্চ।

গতকাল শুক্রবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবনে মঞ্চের জাতীয় প্রতিনিধি সম্মেলনে মঞ্চের মুখপাত্রসহ বিভিন্ন জেলার প্রতিনিধিরা এ ঘোষণা দেন। চেতনায় জ্বালো মুক্তিযুদ্ধের আলো শ্লোগানে এ সম্মেলন গতকাল সকাল সোয়া ১১টার দিকে জাতীয় সঙ্গীতের মাধ্যমে শুরু হয়। এর পর মঞ্চের নিহত কর্মী এবং সাভার ট্রাজেডিতে নিহতদের স্মরণে শোক প্রস্তাব পাঠ করা হয়। দিনব্যাপী সম্মেলনে সকল যুদ্ধাপরাধীর সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যেতে বিভিন্ন কৌশল ও প্রস্তাব উপস্থাপন করেন প্রতিনিধিরা।

সম্মেলনে মঞ্চের মুখপাত্র ডা. ইমরান এইচ সরকার বলেন, আমাদের সকলের এই সম্মিলিত আন্দোলনের তাত্ক্ষণিক অর্জন সুবিশাল। প্রথমে যে দাবি নিয়ে সাধারণ জনগণ রাস্তায় নেমেছিলো সেই লক্ষ্য পূরণ হয়েছে। কাদের মোল্লার রায়ের বিরুদ্ধে আপীল করার অধিকার আদায় করা সম্ভব হয়েছে এবং সেই আপীলের রায়ও সহসাই ঘোষিত হবে বলে আশা করছি। আপীল নিষ্পত্তিতে যাতে দীর্ঘসূত্রিতা না হয় এজন্য একটি সময়সীমা বেঁধে আইন পাস করা হয়েছে। গণজাগরণ মঞ্চের একটি বড় দাবি ছিল যুদ্ধাপরাধী সংগঠন হিসেবে জামায়াত-শিবিরের বিচার হওয়া প্রয়োজন। এই দাবি অনুযায়ীও মহান জাতীয় সংসদে আইন পাস করা হয়েছে।

তিনি বলেন, কিন্তু আমরা এখানেই থেমে যেতে চাই না, আমরা এই মুহূর্তেই ঘরে ফিরে যেতে ইচ্ছুক নই। মঞ্চের মাধ্যমে বিশাল জনস্রোত নতুন করে কথা বলতে শিখেছে, নতুন করে স্বপ্ন ধারণ করতে সক্ষম হয়েছে। তাঁদের সবাইকে নিয়ে আমি আরো দীর্ঘ যাত্রার আহ্বান জানাতেই আজ এখানে সমবেত হয়েছি। গণজাগরণ মঞ্চের বৃহত্তর লক্ষ্য হচ্ছে বাংলাদেশে মুক্তিযুদ্ধের চেতনার পূর্ণাঙ্গ বাস্তবায়নের মাধ্যমে একটি সুখী সুন্দর বাংলাদেশ গড়ে তোলা। এই লক্ষ্যে মঞ্চ দ্বিতীয় দফার কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছে। দলমত নির্বিশেষে যে কোনো সরকারের কাছে এই দাবি প্রতিষ্ঠার সংগ্রামে গণজাগরণ মঞ্চ আপোষহীন থাকবে।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, গণসংযোগের জন্য আমরা ইতোমধ্যেই পক্ষকালব্যাপী গণসংযোগ কর্মসূচী শুরু করেছিলাম। কিন্তু সাভারের মর্মান্তিক মানবিক বিপর্যয়ে এ কর্মসূচী পিছিয়ে যায়। এমনকি এ প্রতিনিধি সম্মেলনটিও তার পূর্ব নির্ধারিত সময়ে হতে পারেনি।

এর আগে সভার শুরুতে শোক প্রস্তাবে বলা হয়, গণজাগরণ মঞ্চ তার আন্দোলন শুরু করার পর থেকেই প্রতিক্রিয়াশীল শক্তির আক্রমণের শিকার হন মঞ্চের কর্মীরা এবং মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তির মানুষেরা। জামায়াত-শিবিরের সন্ত্রাসীরা নির্মমভাবে হত্যা করে বিভিন্ন গণজাগরণ মঞ্চের কর্মীদের। বিভিন্নস্থানে আহত হয়েছেন অনেকেই। অনেক গণজাগরণ মঞ্চ ভাঙচুর করা হয়েছে, হুমকি দেয়া হয়েছে বিভিন্ন গণজাগরণ মঞ্চের কর্মী-সংগঠকদের পরিবারের সদস্যদের। জানি, পথের যাত্রা বড়ো দীর্ঘ, নানা সঙ্কটে আবদ্ধ। যে যুদ্ধ শুরু করেছি, তার বিজয় না আসা পর্যন্ত আমরা থামবো না। ৪৭২টি মঞ্চের ৬১৬ জন প্রতিনিধি এতে অংশ নেন।

৩১ মে মহা গণজাগরণ সমাবেশ

সম্মেলনে আগতদের প্রস্তাব অনুযায়ী প্রাথমিকভাবে দুইটি কর্মসূচী গ্রহণ করেছে গণজাগরণ মঞ্চ। এগুলো হলো- আগামী ১৮ মে ময়মনসিংহে জনসমাবেশ এবং ৩১ মে ঢাকার শাহবাগে প্রজন্ম চত্বরে মহা গণজাগরণ সমাবেশ। এই কর্মসূচী সফল করার লক্ষ্যে কেন্দ্র থেকে কয়েকটি দলে বিভক্ত হয়ে গণজাগরণ মঞ্চের সংগঠকবৃন্দ সারাদেশ সফর করবেন।

এই পাতার আরো খবর -
font
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন
বিএনপি বলেছে, তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দাবি মেনে নিলে প্রধানমন্ত্রীর আলোচনায় বসার আহ্বানে সাড়া দেবে। দলটির এই সিদ্ধান্ত যৌক্তিক বলে মনে করেন?
6 + 7 =  
ফলাফল
আজকের নামাজের সময়সূচী
নভেম্বর - ১
ফজর৫:০৪
যোহর১১:৪৮
আসর৩:৩৫
মাগরিব৫:১৪
এশা৬:৩১
সূর্যোদয় - ৬:২৪সূর্যাস্ত - ০৫:০৯
archive
বছর : মাস :
The Daily Ittefaq
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: তাসমিমা হোসেন। উপদেষ্টা সম্পাদক হাবিবুর রহমান মিলন। ইত্তেফাক গ্রুপ অব পাবলিকেশন্স লিঃ-এর পক্ষে তারিন হোসেন কর্তৃক ৪০, কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ থেকে প্রকাশিত ও মুহিবুল আহসান কর্তৃক নিউ নেশন প্রিন্টিং প্রেস, কাজলারপাড়, ডেমরা রোড, ঢাকা-১২৩২ থেকে মুদ্রিত। কাওরান বাজার ফোন: পিএবিএক্স: ৭১২২৬৬০, ৮১৮৯৯৬০, বার্ত ফ্যাক্স: ৮১৮৯০১৭-৮, মফস্বল ফ্যাক্স : ৮১৮৯৩৮৪, বিজ্ঞাপন-ফোন: ৮১৮৯৯৭১, ৭১২২৬৬৪ ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭২, e-mail: [email protected], সার্কুলেশন ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭৩। www.ittefaq.com.bd, e-mail: [email protected]
Copyright The Daily Ittefaq © 2014 Developed By :