The Daily Ittefaq
ঢাকা, বুধবার, ২২ মে ২০১৩, ৮ জৈষ্ঠ্য ১৪২০, ১১ রজব ১৪৩৪
সর্বশেষ সংবাদ অবশেষে আটক ১২ বাম নেতা-কর্মীকে ছেড়ে দিল পুলিশ | জয়পুরহাটে বিজিবির গুলিতে দুইজন নিহত | রাজশাহীতে যুবলীগ নেতাকে গুলি করে হত্যা | আশুলিয়ার ৫ পোশাক কারখানা বন্ধ ঘোষণা | কিশোরগঞ্জ উপনির্বাচন ৩ জুলাই, গাজীপুর সিটি নির্বচন ৬ জুলাই | মানবতাবিরোধী অপরাধ: কায়সারের জামিন আবেদন নাকচ | সরকারি করা হলো ৮ কলেজ | মাহমুদুরের মা ও সংগ্রাম সম্পাদকের মামলার কার্যক্রম স্থগিত করেছে হাইকোর্ট | আটকে গেল দুই ডিসিসির নির্বাচন | রাজধানীতে 'বন্দুকযুদ্ধে' নিহত ২ | সাভার ভবন ধস: ১২১ পরিবারকে প্রধানমন্ত্রীর আর্থিক সহায়তা প্রধান | ৫ পোশাক মালিক ও রানাকে যাবজ্জীবন সাজার সুপারিশ তদন্ত কমিটির

আলীমের নির্দেশে পুঁতে রাখা হয় ১১ জনের লাশ

ট্রাইব্যুনালে রাষ্ট্রপক্ষের সাক্ষী

ইত্তেফাক রিপোর্ট

একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় অভিযুক্ত বিএনপি'র সাবেক নেতা আব্দুল আলীমের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিয়েছেন রাষ্ট্রপক্ষের ২১তম সাক্ষী আব্দুল হামিদ সাকিদার। বিচারপতি ওবায়দুল হাসানের নেতৃত্বাধীন যুদ্ধাপরাধ ট্রাইব্যুনাল-২ এ দেয়া জবানবন্দিতে তিনি বলেন, মুক্তিযুদ্ধের সময় আব্দুল আলীম, পাক বাহিনী ও রাজাকাররা ১১জনের লাশ দুটো গাছের তলায় পুঁতে রাখে। জবানবন্দি শেষে তাকে জেরা করেন আসামিপক্ষের আইনজীবী আহসানুল হক হেনা। জেরা অসমাপ্ত অবস্থায় মামলার কার্যক্রম আজ বুধবার পর্যন্ত মুলতবি করা হয়েছে।

জবানবন্দিতে সাক্ষী বলেন, মুক্তিযুদ্ধকালে আমার বয়স ১৫ থেকে ১৬ বছর ছিলো। সে সময় আব্দুল আলীম মুসলিম লীগের নেতা ছিলেন। শান্তি কমিটিরও চেয়ারম্যান ছিলেন তিনি। মুক্তিযুদ্ধের সময় মুসলিম লীগ ও জামায়াতের কিছু ছেলেদের নিয়ে আলীম শাওন লাল বাজলার গদিঘর দখল করেন। সেখানে রাজাকারদের ট্রেনিং দেয়া এবং সেনা ক্যাম্প স্থাপন করা হয়।মুক্তিযুদ্ধের সময় একদিন ১১জন লোককে আব্দুল আলীম, পাকিস্তানি সেনা এবং রাজাকাররা ধরে নিয়ে আসে। বারোঘটি পুকুরপাড়ের উত্তর পাশে তাদের দাঁড় করিয়ে গুলি করে হত্যা করা হয়। ১১জনের মুখেই কালি মাখানো ছিল। পরে ৬ জনকে পুকুরের দক্ষিণে আম গাছতলায় এবং ৫জনকে পুকুরের উত্তর দিকের লিচু গাছতলায় পুঁতে রাখা হয়। দেশ স্বাধীন হওয়ার ৫ থেকে ৬ মাস পরে বারোঘাটি পুকুরে জাল ফেলা হয়। জালে প্রায় দেড়শ' কঙ্কাল উঠে আসে। সেগুলোকে পুকুরের দক্ষিণপাড়ে মাটিচাপা দিয়ে রাখি আমরা। এ সময় ট্রাইব্যুনালে উপস্থিত আলীমকে সনাক্ত করেন তিনি।

সালাহউদ্দিন কাদেরের মামলায় রবিবার জবানবন্দি দেবে তদন্ত কর্মকর্তা: বিএনপি'র স্থায়ী কমিটির সদস্য সালাহউদ্দিন কাদের চৌধুরীর বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিয়েছেন রাষ্ট্রপক্ষের জব্দ তালিকার সাক্ষী মো. কাওসার শেখ। তিনি চট্টগ্রাম পাবলিক লাইব্রেরির একজন কর্মচারী। তাকে জেরা করে আহসানুল হক হেনা। জেরা শেষে আগামী রবিবার মামলার তদন্ত কর্মকর্তার জবানবন্দি গ্রহণের জন্য দিন ধার্য করা হয়েছে।

মোবারকের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষের প্রথম সাক্ষীকে জেরা অব্যাহত:একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগে আটক ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলার মোগড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক নেতা মো. মোবারক হোসেনের ওরফে মোবারক আলীর বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষের প্রথম সাক্ষী দারুল ইসলামকে জেরা অব্যাহত রেখেছে আসামিপক্ষ। গতকাল বিচারপতি এটিএম ফজলে কবীরের নেতৃত্বাধীন যুদ্ধাপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১ এ তাকে জেরা করেন আইনজীবী আহসানুল হক হেনা। জেরা অসমাপ্ত অবস্থায় মামলার কার্যক্রম আজ বুধবার পর্যন্ত মুলতবি করা হয়েছে। এদিকে, একই ট্রাইব্যুনালে জামায়াতের আমীর মতিউর রহমান নিজামীর বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষের অষ্টম সাক্ষী মো. খলিলুর রহমানকে জেরা করেছে আসামিপক্ষের আইনজীবী মিজানুল ইসলাম। জেরা শেষে মামলার কার্যক্রম ২৬ মে রবিবার পর্যন্ত মুলতবি করা হয়েছে।

এই পাতার আরো খবর -
font
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন
ড. আকবর আলি খান বলেছেন, সংসদ নির্বাচন পদ্ধতি নির্ধারণে গণভোট হতে পারে। তার এই বক্তব্য আপনি কি সমর্থন করেন?
1 + 9 =  
ফলাফল
আজকের নামাজের সময়সূচী
নভেম্বর - ১৯
ফজর৪:৫৬
যোহর১১:৪৪
আসর৩:৩৭
মাগরিব৫:১৫
এশা৬:৩১
সূর্যোদয় - ৬:১৫সূর্যাস্ত - ০৫:১০
archive
বছর : মাস :
The Daily Ittefaq
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: তাসমিমা হোসেন। উপদেষ্টা সম্পাদক হাবিবুর রহমান মিলন। ইত্তেফাক গ্রুপ অব পাবলিকেশন্স লিঃ-এর পক্ষে তারিন হোসেন কর্তৃক ৪০, কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ থেকে প্রকাশিত ও মুহিবুল আহসান কর্তৃক নিউ নেশন প্রিন্টিং প্রেস, কাজলারপাড়, ডেমরা রোড, ঢাকা-১২৩২ থেকে মুদ্রিত। কাওরান বাজার ফোন: পিএবিএক্স: ৭১২২৬৬০, ৮১৮৯৯৬০, বার্ত ফ্যাক্স: ৮১৮৯০১৭-৮, মফস্বল ফ্যাক্স : ৮১৮৯৩৮৪, বিজ্ঞাপন-ফোন: ৮১৮৯৯৭১, ৭১২২৬৬৪ ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭২, e-mail: [email protected], সার্কুলেশন ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭৩। www.ittefaq.com.bd, e-mail: [email protected]
Copyright The Daily Ittefaq © 2014 Developed By :