The Daily Ittefaq
ঢাকা, বুধবার, ২২ মে ২০১৩, ৮ জৈষ্ঠ্য ১৪২০, ১১ রজব ১৪৩৪
সর্বশেষ সংবাদ অবশেষে আটক ১২ বাম নেতা-কর্মীকে ছেড়ে দিল পুলিশ | জয়পুরহাটে বিজিবির গুলিতে দুইজন নিহত | রাজশাহীতে যুবলীগ নেতাকে গুলি করে হত্যা | আশুলিয়ার ৫ পোশাক কারখানা বন্ধ ঘোষণা | কিশোরগঞ্জ উপনির্বাচন ৩ জুলাই, গাজীপুর সিটি নির্বচন ৬ জুলাই | মানবতাবিরোধী অপরাধ: কায়সারের জামিন আবেদন নাকচ | সরকারি করা হলো ৮ কলেজ | মাহমুদুরের মা ও সংগ্রাম সম্পাদকের মামলার কার্যক্রম স্থগিত করেছে হাইকোর্ট | আটকে গেল দুই ডিসিসির নির্বাচন | রাজধানীতে 'বন্দুকযুদ্ধে' নিহত ২ | সাভার ভবন ধস: ১২১ পরিবারকে প্রধানমন্ত্রীর আর্থিক সহায়তা প্রধান | ৫ পোশাক মালিক ও রানাকে যাবজ্জীবন সাজার সুপারিশ তদন্ত কমিটির

মার্কিন ধর্মীয় স্বাধীনতা রিপোর্ট ২০১২

বাংলাদেশে সংখ্যালঘুদের ওপর আক্রমণে প্রাণহানি ঘটছে

ইত্তেফাক রিপোর্ট

বাংলাদেশে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের লোকজনের ওপর হামলার কারণে প্রাণ ও সম্পদহানি ঘটছে। বেশিরভাগ সময় এসব আক্রমণের ধরন হয় সংখ্যালঘুদের বাড়িতে অগ্নিসংযোগ এবং লুটপাট। কিন্তু সংখ্যালঘুদের ওপর এ ধরনের হামলার কারণ নির্ধারণ করা সম্ভব হয় না। গতকাল মঙ্গলবার প্রকাশিত মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের ধর্মীয় স্বাধীনতা রিপোর্ট ২০১২ তে বাংলাদেশের ধর্মীয় স্বাধীনতা পরিস্থিতির কথা উল্লেখ করে এ কথা বলা হয়েছে। রিপোর্টে গত বছরের সেপ্টেম্বর ও অক্টোবরে ফতেহপুর, সাতক্ষীরা, রামু, উখিয়া ও কক্সবাজারে বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের উপর বিক্ষিপ্ত হামলার কথাও উল্লেখ করা হয়েছে।

মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের এই বার্ষিক রিপোর্টে বলা হয়, বাংলাদেশে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের লোকেরা সাধারণ সামাজিক অবস্থানে নিচের দিকে রয়েছে। তাদের রাজনৈতিক অবস্থানও তেমন ভালো নয়। তবে দেশটির সংবিধান, আইন ও সরকারের নীতি ধর্মীয় স্বাধীনতা রক্ষা করে চলেছে। সরকারও সাধারণত ধর্মীয় স্বাধীনতার প্রতি শ্রদ্ধাশীল। গত এক বছরে ধর্মীয় স্বাধীনতার বিষয়ে সরকারের মনোভাবের কোনো তাত্পর্যপূর্ণ পরিবর্তন দেখা যায়নি। এছাড়া ধর্মীয় স্বাধীনতার উপর আঘাতের কোনো ঘটনা ঘটেনি। ধর্মীয় বিবেচনায় সরকারি চাকরিতে নিয়োগ দেয়ারও কোনো কথা শোনা যায়নি। এমনকি গত কয়েক বছরের মতো সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের লোকদের সশস্ত্র বাহিনী ও সরকারি চাকরিতে বাধার সম্মুখীন হতে হয়েছে এমন কোনো অভিযোগ উঠেনি।

রিপোর্টে বলা হয়, হিন্দু, খ্রিস্টান, বৌদ্ধ এবং আহমাদিয়া মুসলিম সংখ্যালঘুরা সুন্নি মুসলিমদের হাতে হয়রানি ও নির্যাতনের শিকার হয়। তবে এক্ষেত্রে সরকার ও নাগরিক সমাজের বক্তব্য হলো, রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক কারণে এ ধরনের ঘটনা ঘটে। এখানে এককভাবে ধর্মীয় বিশ্বাসকে দায়ী করা যায় না। রিপোর্টে সংখ্যালঘুদের অধিকার রক্ষার সরকারকে আরো দায়িত্বশীল ভূমিকা পালনের আহবান জানানো হয়।

এই পাতার আরো খবর -
font
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন
ড. আকবর আলি খান বলেছেন, সংসদ নির্বাচন পদ্ধতি নির্ধারণে গণভোট হতে পারে। তার এই বক্তব্য আপনি কি সমর্থন করেন?
5 + 5 =  
ফলাফল
আজকের নামাজের সময়সূচী
নভেম্বর - ১৩
ফজর৪:৫৩
যোহর১১:৪৩
আসর৩:৩৮
মাগরিব৫:১৭
এশা৬:৩২
সূর্যোদয় - ৬:১১সূর্যাস্ত - ০৫:১২
archive
বছর : মাস :
The Daily Ittefaq
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: তাসমিমা হোসেন। উপদেষ্টা সম্পাদক হাবিবুর রহমান মিলন। ইত্তেফাক গ্রুপ অব পাবলিকেশন্স লিঃ-এর পক্ষে তারিন হোসেন কর্তৃক ৪০, কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ থেকে প্রকাশিত ও মুহিবুল আহসান কর্তৃক নিউ নেশন প্রিন্টিং প্রেস, কাজলারপাড়, ডেমরা রোড, ঢাকা-১২৩২ থেকে মুদ্রিত। কাওরান বাজার ফোন: পিএবিএক্স: ৭১২২৬৬০, ৮১৮৯৯৬০, বার্ত ফ্যাক্স: ৮১৮৯০১৭-৮, মফস্বল ফ্যাক্স : ৮১৮৯৩৮৪, বিজ্ঞাপন-ফোন: ৮১৮৯৯৭১, ৭১২২৬৬৪ ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭২, e-mail: [email protected], সার্কুলেশন ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭৩। www.ittefaq.com.bd, e-mail: [email protected]
Copyright The Daily Ittefaq © 2014 Developed By :