The Daily Ittefaq
ঢাকা, বুধবার, ২২ মে ২০১৩, ৮ জৈষ্ঠ্য ১৪২০, ১১ রজব ১৪৩৪
সর্বশেষ সংবাদ অবশেষে আটক ১২ বাম নেতা-কর্মীকে ছেড়ে দিল পুলিশ | জয়পুরহাটে বিজিবির গুলিতে দুইজন নিহত | রাজশাহীতে যুবলীগ নেতাকে গুলি করে হত্যা | আশুলিয়ার ৫ পোশাক কারখানা বন্ধ ঘোষণা | কিশোরগঞ্জ উপনির্বাচন ৩ জুলাই, গাজীপুর সিটি নির্বচন ৬ জুলাই | মানবতাবিরোধী অপরাধ: কায়সারের জামিন আবেদন নাকচ | সরকারি করা হলো ৮ কলেজ | মাহমুদুরের মা ও সংগ্রাম সম্পাদকের মামলার কার্যক্রম স্থগিত করেছে হাইকোর্ট | আটকে গেল দুই ডিসিসির নির্বাচন | রাজধানীতে 'বন্দুকযুদ্ধে' নিহত ২ | সাভার ভবন ধস: ১২১ পরিবারকে প্রধানমন্ত্রীর আর্থিক সহায়তা প্রধান | ৫ পোশাক মালিক ও রানাকে যাবজ্জীবন সাজার সুপারিশ তদন্ত কমিটির

যুক্তরাষ্ট্রে টর্নেডো

প্রকৃতির রোষানলের কারণে গত সোমবার যুক্তরাষ্ট্রের জন্য একটি 'বেদনাদায়ক দিন' বলিলে অত্যুক্তি হয় না। অতি শক্তিশালী টর্নেডোর আঘাতে সর্বশেষ প্রাপ্ত তথ্যানুযায়ী ৯১ জন নিহত হইয়াছেন, আহত হইয়াছেন কয়েক শত মানুষ। আরো মর্মন্তুদ যে, নিহত ও আহতদের ভিতরে রহিয়াছে অসংখ্য শিশু—যাহারা টর্নেডো বিধ্বস্ত বিদ্যালয়গুলিতে আটকা পড়িয়াছিল।

প্রকৃতিজাত যেকোনো দুর্যোগের কাছেই মানুষ কমবেশি অসহায়। সেই অসহায়ত্ব অধিক প্রকট হয়, যখন সেই দুর্যোগের নাম টর্নেডো। কারণ, আধুনিক প্রযুক্তির সাহায্যেও ইহাদের পূর্বাভাস খুব বেশি পূর্বে প্রদান সম্ভবপর হয় না। যুক্তরাষ্ট্রের সেই প্রযুক্তি রহিয়াছে। তাহার পরও ফি বছর সেইখানে শুধুমাত্র টর্নেডোর কারণে শত শত মানুষ আহত ও নিহত হন। সম্পদের ক্ষয়ক্ষতিরও ইয়ত্তা থাকে না।

টর্নেডো কেন হয়? বিজ্ঞান বলে, কোনো এলাকার তাপমাত্রার অত্যধিক বৃদ্ধি ঘটিলে, বায়ু উত্তপ্ত হইয়া উপরে উঠিলে এবং উক্ত এলাকায় অকস্মাত্ অত্যধিক বায়ু হরাস পাইলে প্রবল বায়ুশূন্যতার সৃষ্টি হয়। সেইক্ষণে ওই বায়ুশূন্য এলাকা পূরণ করিতে পার্শ্ববর্তী এলাকা হইতে প্রবল বেগে বায়ু ধাবিত হয়। এই অত্যধিক গতিসম্পন্ন বায়ু তখন ফাঁকা এলাকায় প্রবেশ করিয়া প্রচন্ড বেগে ঘুরিতে থাকে। এই ঘূর্ণিবাতাস যত বেশি অগ্রসর হয় ততই ইহার শক্তি বৃদ্ধি পায়। দূর হইতে এই ঘূর্ণিপাক হাতির শূঁড়ের মতো দেখায়, যাহা আকাশ হইতে ভূমিতে নামিয়া আসে। অতি অল্প সময়ের ভিতরে এই ঘূর্ণিপাকের প্রবল বাতাসের তোড়ে উড়িয়া যায় বৃক্ষরাজি, বাড়িঘরসহ যেকোনো স্থাপনা। ইহার স্থায়িত্বকাল কয়েক সেকেন্ড হইতে সর্বাধিক ঘণ্টাখানেক হইতে পারে। টর্নেডো অতিক্রান্ত এলাকার ব্যাপ্তিও সাধারণত ১০ হইতে ১৫ কিলোমিটারের বেশি হয় না। তবে এই অল্প ব্যাপ্তি ও স্বল্প সময়ের ভিতরেই ইহা ব্যাপক ধ্বংসলীলা ঘটাইতে পারে। আমাদের দেশে সাধারণত চৈত্র হইতে জ্যৈষ্ঠ মাসের ভিতরে হঠাত্ হঠাত্ আঘাত হানে টর্নেডো। প্রতিবছরই দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে গড়ে ৪/৫টি টর্নেডোর ঘটনা ঘটিয়া থাকে। ২০ বত্সর আগে মানিকগঞ্জের সাটুরিয়ায় টর্নেডোর আঘাতে ওই জনপদই প্রায় নিশ্চিহ্ন হইয়া গিয়াছিল। সর্বশেষ এই বত্সর মার্চে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলার নেয়ামতপুর ও চন্দ্রপুর এবং পার্শ্ববর্তী নবীনগর উপজেলার কোনাউর গ্রামে টর্নেডো আঘাত হানে। মাত্র তিন মিনিটের ওই টর্নেডোয় তিনটি গ্রামের আট শত বাড়িঘর বিধ্বস্ত হইয়াছিল।

উন্নত বিশ্বে রাডার ডেটা, ফটোগ্রামেট্রি এবং ভূমিতে ঘূর্ণনের বিভিন্ন নমুনা বিশ্লেষণের মাধ্যমে টর্নেডোর পূর্বাভাস দেওয়া সম্ভব হয়, তবে তা বিপর্যয়ের সর্বোচ্চ কয়েক ঘণ্টা পূর্বে মাত্র। তাহারপরও ইহার গতিপথের মতিগতি বুঝিয়া ওঠা সম্ভব হয় না বেশিরভাগ সময়। যুক্তরাষ্ট্রের ওকলাহোমা অঙ্গরাজ্যের ওকলাহোমা সিটির মুর শহরতলিতে যেই শক্তিশালী টর্নেডো আঘাত হানিয়াছিল, তাহার প্রস্থে ছিল তিন কিলোমিটার, গতি ছিল ঘণ্টায় ৩২০ কিলোমিটার। টর্নেডোর ধ্বংসাত্মক ক্ষমতা ও প্রকৃতি অনুযায়ী ইহা প্রলয়ঙ্কারী। যেই সব পথ মাড়াইয়াছে এই ঝড় সেইসব অঞ্চল আক্ষরিক অর্থেই মাটিতে মিশিয়া গিয়াছে। সর্বাধিক ক্ষয়ক্ষতি হইয়াছে 'মুর' নামের একটি এলাকা, যেইখানে প্রায় ৫৫ হাজার লোকের বসবাস। প্রায় ৪৫ মিনিট ধরিয়া প্রলয়ঙ্করী টর্নেডোটি ইহার গতিপথে দুই ডজনেরও বেশি বিদ্যালয় ও একটি হাসপাতালসহ সকল বাড়িঘর ধ্বংস করিয়াছে। বিপর্যয়ের ধরন দেখিয়া প্রশাসন আশঙ্কা করিতেছে, আরো বাড়িতে পারে নিহতের সংখ্যা। মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা জরুরি ভিত্তিতে টর্নেডো বিধ্বস্ত অঞ্চলগুলিকে 'দুর্যোগপূর্ণ' ঘোষণা করিয়াছেন। প্রয়লঙ্কারী এই টর্নেডোর আগের দিন রবিবারও যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যে বেশ কয়েকটি টর্নেডো আঘাত হানিয়াছিল। ওই দিন ওকলাহোমা অঙ্গরাজ্যসহ আইওয়া, মিনেসোটা, ক্যানসাস ও ইলিনয় অঙ্গরাজ্যেও আঘাত হানে টর্নেডো।

অধিক পূর্বে পূর্বাভাস প্রদান করা সম্ভব হয় না বলিয়াই ওকলাহোমা অঙ্গরাজ্যে শিশুসহ এত মানুষের মৃত্যু ঘটিয়াছে। প্রকৃতির কাছে মানুষের অসহায়ত্ব কোনো কোনো ক্ষেত্রে অনতিক্রম্য। এই টর্নেডো তাহারই নমুনা। যুক্তরাষ্ট্রের এই প্রাকৃতিক দুর্যোগে আমরাও গভীর শোক ও সহমর্মিতা জ্ঞাপন করিতেছি।

font
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন
ড. আকবর আলি খান বলেছেন, সংসদ নির্বাচন পদ্ধতি নির্ধারণে গণভোট হতে পারে। তার এই বক্তব্য আপনি কি সমর্থন করেন?
6 + 8 =  
ফলাফল
আজকের নামাজের সময়সূচী
নভেম্বর - ১১
ফজর৫:১০
যোহর১১:৫২
আসর৩:৩৭
মাগরিব৫:১৬
এশা৬:৩৩
সূর্যোদয় - ৬:৩০সূর্যাস্ত - ০৫:১১
archive
বছর : মাস :
The Daily Ittefaq
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: তাসমিমা হোসেন। উপদেষ্টা সম্পাদক হাবিবুর রহমান মিলন। ইত্তেফাক গ্রুপ অব পাবলিকেশন্স লিঃ-এর পক্ষে তারিন হোসেন কর্তৃক ৪০, কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ থেকে প্রকাশিত ও মুহিবুল আহসান কর্তৃক নিউ নেশন প্রিন্টিং প্রেস, কাজলারপাড়, ডেমরা রোড, ঢাকা-১২৩২ থেকে মুদ্রিত। কাওরান বাজার ফোন: পিএবিএক্স: ৭১২২৬৬০, ৮১৮৯৯৬০, বার্ত ফ্যাক্স: ৮১৮৯০১৭-৮, মফস্বল ফ্যাক্স : ৮১৮৯৩৮৪, বিজ্ঞাপন-ফোন: ৮১৮৯৯৭১, ৭১২২৬৬৪ ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭২, e-mail: [email protected], সার্কুলেশন ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭৩। www.ittefaq.com.bd, e-mail: [email protected]
Copyright The Daily Ittefaq © 2014 Developed By :