The Daily Ittefaq
ঢাকা, শুক্রবার, ২৪ মে ২০১৩, ১০ জৈষ্ঠ্য ১৪২০, ১৩ রজব ১৪৩৪
সর্বশেষ সংবাদ অচিরেই দেশে আন্দোলন-সংগ্রামের নেতৃত্ব দেবেন তারেক : শামসুজ্জামান দুদু | ঢাকা-চট্টগ্রাম ও বরিশাল বিভাগে অতিভারী বর্ষণের আশঙ্কা | আগামী রবিবার ১৮ দলের সকাল-সন্ধ্যা হরতাল

বছরে যক্ষ্মায় আক্রান্ত তিন লক্ষাধিক মানুষ

ইত্তেফাক রিপোর্ট

'জাতীয় যক্ষ্মা নিয়ন্ত্রণ কর্মসূচি বিষয়ক সাংবাদিক ওরিয়েন্টেশনে তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেছেন, যক্ষ্মা একটি প্রাচীন ব্যাধী। যা ক্ষয়রোগ হিসেবেও পরিচিত। দেশে বছরে ৩ লাখেরও বেশি মানুষ যক্ষ্মারোগে আক্রান্ত হচ্ছে। যক্ষা যেমন মানুষের ক্ষয়রোগ; তেমনি সাম্প্রদায়িকতা হচ্ছে সমাজের ক্ষয়রোগ। আর সমাজের এই ক্ষয় প্রতিরোধ করতে হলে সমাজ থেকে সাম্প্রদায়িকতার কাঁটা তুলতে হবে। সামাজিক এই ক্ষয়রোধ করতে পারলে মানুষও বাঁচবে সমাজও বাঁচবে।বুধবার মহাখালীর ব্র্যাক ইন সেন্টারে আয়োজিত ঐ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তথ্যমন্ত্রী এসব কথা বলেন। স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের জাতীয় যক্ষ্মা নিয়ন্ত্রণ কর্মসূচি, বাংলাদেশ নারী সাংবাদিক কেন্দ্র (বিএনএসকে) ও বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা ব্র্যাক এ ওরিয়েন্টেশনের আয়োজন করে। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন নারী সাংবাদিক কেন্দ্রের সভাপতি নাসিমুন আরা হক। যক্ষ্মা বিষয়ক বিভিন্ন দিক-নির্দেশনা সাংবা-দিকদের সামনে তুলে ধরা হয়।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, যে রোগগুলো নিয়ে মানুষের মধ্যে ভীতি রয়েছে যেমন যক্ষ্মা, কুষ্ঠ এসব রোগ সম্বন্ধে সচেতনতা বাড়াতে হবে। তিনি বলেন, গণমাধ্যম গণতন্ত্রের যেমন দর্পণ তেমনি গণমাধ্যম সমাজেরও দর্পণ। গণমাধ্যম কর্মীদের রাজনীতির চাল চিত্রের বাইরেও সমাজের প্রতি একটা দায়বদ্ধতা রয়েছে। সমাজের অগ্রগতি সুখ-দুঃখ বেদনা সবকিছুর দিকেই তাদের নজর রাখতে হয়। সেটা রাখতে গেলে যাদের নিয়ে আমরা কাজ করছি, সেই মানুষরা কেমন আছে, কোথায় আছে, কিভাবে আছে সেটা দেখার দায়িত্বও গণমাধ্যমের। সেই দায়িত্ব থেকে সাধারণ মানুষের সেবাটা পরিপূর্ণ হচ্ছে কি না, সেই কাজের দিকে নজরদারি রাখাও গণমাধ্যমের একটা দায়িত্ব। তিনি বলেন, আমরা যারাই ক্ষমতায় থাকি না কেন আমাদের রাজনৈতিক অঙ্গীকার থাকবে যক্ষ্মা নিয়ন্ত্রণে যেন 'ডিওটিএস' প্রোগ্রামটা বন্ধ না হয়।

অনুষ্ঠানের মূল প্রবন্ধে বলা হয়, দেশে বছরে ৩ লাখেরও বেশি মানুষ নতুন করে যক্ষ্মারোগে আক্রান্ত হচ্ছে। ৬ লাখেরও বেশি মানুষ যক্ষ্মারোগে ভুগছে। প্রতিবছর এ রোগে মারা যায় প্রায় ৬৭ হাজার মানুষ। চিকিত্সা না নিলে একজন যক্ষ্মা রোগী বছরে ১০ জন সুস্থ লোককে আক্রান্ত করতে পারে।

বিশ্বের মোট যক্ষ্মারোগীর ৪০ শতাংশ বাস করে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায়। যে ২২টি দেশের মধ্যে যক্ষ্মা রোগীর সংখ্যা বেশি, বাংলাদেশ তাদের মধ্যে ৬ষ্ঠ স্থানে রয়েছে। দেশের মোট ৮৬৯টি কেন্দ্রে স্বাস্থ্য কর্মীরা সরকারি নজরদারিতে যক্ষ্মা-রোগের চিকিত্সা দিচ্ছে। এতে রোগীর নিয়মিত ওষুধ খাওয়া, সরকারি ও বেসরকারি প্রতি-ষ্ঠানের উদ্যোগে পরিচালিত জাতীয় কর্মসূচিতে বিনা-মূল্যে রোগ নির্ণয় ও ওষুধ দেয়া হয়।

সভায় বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন জাতীয় যক্ষ্মা নিয়ন্ত্রণ কর্মসূচির লাইন ডিরেক্টর (টিবি এ্যান্ড ল্যাপ্রসি) ডা. মো. আশেক হোসেন, ব্র্যাকের স্বাস্থ্য, পুষ্টি ও জনসংখ্যা কর্মসূচির পরিচালক ডা. কাওসার আফসানা এবং বাংলাদেশ নারী সাংবাদিক কেন্দ্রের সাধারণ সম্পাদক পারভীন সুলতানা ঝুমা। অনুষ্ঠানে 'বাংলাদেশে যক্ষ্মা নিয়ন্ত্রণ কর্মসূচি ডটস-্ এর কার্যকারিতা' শীর্ষক মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন যক্ষ্মা নিয়ন্ত্রণ কর্মসূচির ন্যাশনাল প্রোগ্রাম কনসালটেন্ট ডা. মো. মজিবুর রহমান; .টেকনিক্যাল অ্যাসপেক্ট অব টিউবারকুলোসিস (টিবি)' শীর্ষক প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ব্র্যাক স্বাস্থ্য কর্মসূচির সিনিয়র প্রোগ্রাম স্পেশালিস্ট ডা. শায়লা ইসলাম।

এই পাতার আরো খবর -
font
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন
স্থায়ী কমিটির বিবৃতিতে বিএনপি সরকারকে অনতিবিলম্বে সংলাপ আয়োজনের আহ্বান জানিয়েছে। আপনি কি মনে করেন সংলাপ দ্রুত সময়ের মধ্যে অনুষ্ঠিত হবে?
6 + 3 =  
ফলাফল
আজকের নামাজের সময়সূচী
ফেব্রুয়ারী - ২৯
ফজর৫:০৫
যোহর১২:১২
আসর৪:২৩
মাগরিব৬:০৪
এশা৭:১৭
সূর্যোদয় - ৬:২১সূর্যাস্ত - ০৫:৫৯
archive
বছর : মাস :
The Daily Ittefaq
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: তাসমিমা হোসেন। উপদেষ্টা সম্পাদক হাবিবুর রহমান মিলন। ইত্তেফাক গ্রুপ অব পাবলিকেশন্স লিঃ-এর পক্ষে তারিন হোসেন কর্তৃক ৪০, কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ থেকে প্রকাশিত ও মুহিবুল আহসান কর্তৃক নিউ নেশন প্রিন্টিং প্রেস, কাজলারপাড়, ডেমরা রোড, ঢাকা-১২৩২ থেকে মুদ্রিত। কাওরান বাজার ফোন: পিএবিএক্স: ৭১২২৬৬০, ৮১৮৯৯৬০, বার্ত ফ্যাক্স: ৮১৮৯০১৭-৮, মফস্বল ফ্যাক্স : ৮১৮৯৩৮৪, বিজ্ঞাপন-ফোন: ৮১৮৯৯৭১, ৭১২২৬৬৪ ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭২, e-mail: [email protected], সার্কুলেশন ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭৩। www.ittefaq.com.bd, e-mail: [email protected]
Copyright The Daily Ittefaq © 2014 Developed By :