The Daily Ittefaq
ঢাকা, শুক্রবার, ২৪ মে ২০১৩, ১০ জৈষ্ঠ্য ১৪২০, ১৩ রজব ১৪৩৪
সর্বশেষ সংবাদ অচিরেই দেশে আন্দোলন-সংগ্রামের নেতৃত্ব দেবেন তারেক : শামসুজ্জামান দুদু | ঢাকা-চট্টগ্রাম ও বরিশাল বিভাগে অতিভারী বর্ষণের আশঙ্কা | আগামী রবিবার ১৮ দলের সকাল-সন্ধ্যা হরতাল

অবিলম্বে সংলাপের আয়োজন করুন

সরকারকে বিএনপির স্থায়ী কমিটি

ইত্তেফাক রিপোর্ট

বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটি সব দলের অংশগ্রহণে প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ নির্বাচন অনুষ্ঠানের স্বার্থে জাতীয় নির্বাচনকালীন নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের বিষয় ঐক্যমত গঠনের জন্য বিরোধী দলের সঙ্গে সংলাপের আয়োজনের জন্য আবারো সরকারের প্রতি আহবান জানিয়েছেন। দলের চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার সভাপতিত্বে বুধবার রাতে অনুষ্ঠিত জাতীয় স্থায়ী কমিটির সভায় গৃহীত প্রস্তাবে এ আহবান জানানো হয়। সভায় দেশের চলমান রাজনৈতিক, সামাজিক, অর্থনৈতিক ও আইন-শৃংখলা পরিস্থিতি পর্যালোচনা করে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়। গৃহীত প্রস্তাবে বলা হয়, সর্বক্ষেত্রে বর্তমান সরকারের সীমাহীন ব্যর্থতা, অপশাসন, দুঃশাসন, কুশাসন, দুর্নীতি, সন্ত্রাস, নৈরাজ্য, সমন্বয়হীনতা এবং দায়িত্বশীলদের কাণ্ডজ্ঞানহীন উস্কানিমূলক বক্তব্য ও হঠকারী আচরণ দেশকে নৈরাজ্যে ঠেলে দিয়েছে। সর্বগ্রাসী সংকটে জাতি আজ হাবুডুবু খাচেছ।

গতকাল বৃহস্পতিবার জাতীয় স্থায়ী কমিটির বিবৃতিতে বলা হয়, সরকারের ব্যর্থতার প্রতিবাদে সারা দেশের মানুষ যখন ক্ষোভে ফেটে পড়েছে এবং বিরোধী দল যখন দেশবাসীর অধিকার, জাতীয় স্বার্থ ও গণতন্ত্র রক্ষায় জনগণকে সঙ্গে নিয়ে নিয়মতান্ত্রিক পন্থায় আন্দোলন গড়ে তুলছে, সেই সময় গণবিচ্ছিন্ন সরকার আরো বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। আইন-শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীকে তারা দলীয় সন্ত্রাসী বাহিনীর মতো ব্যবহার করে গণহত্যা চালাচ্ছে। একই সঙ্গে দলীয় সশস্ত্র সন্ত্রাসীদের প্রকাশ্যে জনগণের ওপর হামলায় নামিয়ে দেয়া হয়েছে। সভা-সমাবেশ, শোভাযাত্রায় সরাসরি সশস্ত্র হামলা চালানো হচেছ। বিরোধী দলের জাতীয় নেতৃবৃন্দের ওপরেও সরাসরি গুলিবর্ষণ করা হচেছ। মিছিল, সমাবেশ থেকে নারীদেরকে পর্যন্ত ধরে নিয়ে তাদের ওপর দৈহিক নির্যাতন চালানো হচেছ। জিজ্ঞাসাবাদের নামে দীর্ঘ সময়ের জন্য রিমান্ডে নিয়ে বিরোধী দলের নেতা-কর্মী ও সম্মানিত নাগরিকদের ওপর পৈশাচিক নির্যাতন চালানো হচ্ছে।

জাতীয় স্থায়ী কমিটির পর্যবেক্ষণে বলা হয়, সরকার দেশে গণতন্ত্রের নাম-নিশানাও মুছে দিতে চায়। এই উদ্দেশ্য হাসিলের জন্য তারা এক অস্পষ্ট ও বেআইনি নির্দেশে অনির্দিষ্টকালের জন্য সভা-সমাবেশ করার গণতান্ত্রিক অধিকার হরণ করেছে। এমনকি দেশের বৃহত্তম বিরোধী দল বিএনপিকে দোয়া মাহফিল পর্যন্ত করতে বাধা দেয়া হয়েছে। বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয় বেশির ভাগ সময়ে পুলিশ-র্যাব দিয়ে কার্যত অবরোধ করে রাখা হচ্ছে। দলের পক্ষ থেকে যে নেতা মিডিয়ায় কথা বলছেন, তাকেই মিথ্যা মামলা দিয়ে গ্রেফতার করে নিয়ে যাচ্ছে। বিরোধী দলের প্রতিটি কর্মসূচিতেই সশস্ত্রভাবে বাধা দেয়া হচ্ছে, হামলা চালানো হচ্ছে। জামিনে মুক্ত নেতা-কর্মীদের জেলগেট থেকে ধরে আবারো জেলে ঢোকানো হচ্ছে।

জাতীয় স্থায়ী কমিটি বলেছে, গত ৫ মে ঢাকার শাপলা চত্বরে অবস্থানরত হেফাজতে ইসলামের লাখ লাখ নেতা-কর্মীকে হটাতে আলো নিভিয়ে গভীর রাতে রক্তক্ষয়ী অভিযান চালাবার পর দেশে- বিদেশে সরকার যে ভয়ঙ্কর চেহারায় আবির্ভূত হয়েছে তা আড়াল করতে শাসক দলের বিভিন্ন নেতা বিরোধী দল বিশেষ করে বিএনপি এবং বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে এক ঘৃণ্য প্রচারাভিযান শুরু করেছে। গণহত্যাকারী সরকার এখন সন্ত্রাস, ধ্বংস ও হত্যার পথ ছেড়ে বিরোধী দলকে আলোচনা বসার হাওয়াই আহবান জানাচ্ছে। সশস্ত্র সন্ত্রাসীদের হামলা, অগ্নিসংযোগ, গাড়ি ভাংচুরের ঘটনার ভিডিও ফুটেজ ও অন্যান্য প্রমাণ মিডিয়া ও বিরোধী দলের হাতেও রয়েছে। বিএনপি কোন সন্ত্রাসী কার্যক্রম কিংবা সরকার উত্খাতের ষড়যন্ত্রে কখনো বিশ্বাস করে না। এগুলো আওয়ামী লীগেরই মজ্জাগত অভ্যাস। তারাই সরকার উত্খাতের জন্য 'ট্রামকার্ড ষড়যন্ত্র' করেছিল। তারাই বিগত দিনে লগি-বৈঠা সন্ত্রাসের মাধ্যমে তাদের আন্দোলনের ফসল বলে একটি অসাংবিধানিক সরকারকে ক্ষমতায় বসিয়েছিল। বিতর্কিত মন্ত্রীদের বাদ দিয়ে ভালোভাবে দেশ চালাবার জন্য বেগম খালেদা জিয়া গত ৪ মে'র ঢাকার জনসভা থেকে প্রধানমন্ত্রীর প্রতি আহবান জানিয়ে বলেছিলেন, জাতীয় নির্বাচনকালীন নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের ব্যাপারে ৪৮ ঘন্টার মধ্যে আলোচনায় বসুন। এ ব্যাপারে তিনি প্রধানমন্ত্রীকে চায়ের আমন্ত্রণও জানিয়েছিলেন। সরকার সে আহবানে সাড়া না দিয়ে সমঝোতা প্রতিষ্ঠার এক গুরুত্বপূর্ণ সুযোগ হাতছাড়া করেছে বলে জাতীয় স্থায়ী কমিটি মনে করে।

আগামী ৩০ মে সারা দেশে যথাযোগ্য মর্যাদায় শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান বীর উত্তমের শাহাদত্বার্ষিকী যথাযোগ্য মর্যাদায় পালনের আহবান জানিয়ে জাতীয় স্থায়ী কমিটি বলেছে, শাসক দলের ইশতেহারের প্রতিফলনে বিতর্কিত কোনো বিচারকের পর্যালোচনা, ফরমায়েশি লেখকদের ইতিহাসের বিকৃতি ও সরকারি স্থূল অপপ্রচারণায় গণমানুষের হূদয় থেকে শহীদ জিয়াকে মোছা যাবে না।

এই পাতার আরো খবর -
font
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন
স্থায়ী কমিটির বিবৃতিতে বিএনপি সরকারকে অনতিবিলম্বে সংলাপ আয়োজনের আহ্বান জানিয়েছে। আপনি কি মনে করেন সংলাপ দ্রুত সময়ের মধ্যে অনুষ্ঠিত হবে?
1 + 7 =  
ফলাফল
আজকের নামাজের সময়সূচী
জুন - ৭
ফজর৩:৪৩
যোহর১১:৫৭
আসর৪:৩৭
মাগরিব৬:৪৭
এশা৮:১১
সূর্যোদয় - ৫:১০সূর্যাস্ত - ০৬:৪২
archive
বছর : মাস :
The Daily Ittefaq
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: তাসমিমা হোসেন। উপদেষ্টা সম্পাদক হাবিবুর রহমান মিলন। ইত্তেফাক গ্রুপ অব পাবলিকেশন্স লিঃ-এর পক্ষে তারিন হোসেন কর্তৃক ৪০, কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ থেকে প্রকাশিত ও মুহিবুল আহসান কর্তৃক নিউ নেশন প্রিন্টিং প্রেস, কাজলারপাড়, ডেমরা রোড, ঢাকা-১২৩২ থেকে মুদ্রিত। কাওরান বাজার ফোন: পিএবিএক্স: ৭১২২৬৬০, ৮১৮৯৯৬০, বার্ত ফ্যাক্স: ৮১৮৯০১৭-৮, মফস্বল ফ্যাক্স : ৮১৮৯৩৮৪, বিজ্ঞাপন-ফোন: ৮১৮৯৯৭১, ৭১২২৬৬৪ ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭২, e-mail: [email protected], সার্কুলেশন ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭৩। www.ittefaq.com.bd, e-mail: [email protected]
Copyright The Daily Ittefaq © 2014 Developed By :