The Daily Ittefaq
ঢাকা, শনিবার ১ জুন ২০১৩, ১৮ জৈষ্ঠ্য ১৪২০, ২১ রজব ১৪৩৪
সর্বশেষ সংবাদ ওকলাহোমায় টর্নেডোর আঘাতে নিহত ৫ | নওয়াজ তৃতীয়বারের মতো পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী | রবিবার নোয়াখালী, ফেনী ও লক্ষ্মীপুরে শিবিরের অর্ধবেলা, সোমবার রংপুরে বিএনপির হরতাল | রবিবার ৩ পার্বত্য জেলায় বাঙ্গালী ছাত্র পরিষদের সকাল-সন্ধ্যা হরতাল | মাগুরায় চলন্ত বাসে গৃহবধূর সন্তান প্রসব | আশুলিয়ায় ৩ কারখানায় বিক্ষোভ | হাজারীবাগে ছাদ থেকে পড়ে ঢাবি ছাত্রীর মৃত্যু | নেতাদের মুক্তির বিষয়টি আদালত বিবেচনা করবে: স্পিকার ড. শিরীন | শান্তিরক্ষা মিশনে শহিদ চার বাংলাদেশি জাতিসংঘ পদক পেলেন | আশা করি বিরোধী দল সংসদ নির্বাচনে অংশ নেবে: প্রধানমন্ত্রী

উপকূলে বহু বেড়িবাঁধের অবস্থা নাজুক

ইত্তেফাক ডেস্ক

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট নিম্নচাপের প্রভাবে একটানা ভারি বর্ষণ ও পূর্ণিমার প্রবল জোয়ারে উপকূলীয় অনেক জেলায় বেড়িবাঁধের অবস্থা ঝূঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে। কয়েকটি এলাকা থেকে বাঁধ ভেঙ্গে যাওয়ার খবরও পাওয়া গেছে। বাঁধের ক্ষতিগ্রস্ত অংশ রক্ষায় এখন পর্যন্ত সরকারি কোন উদ্যোগ দেখা যায়নি। স্থানীয়রা নিজস্ব উদ্যোগে মেরামতের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।

শরণখোলা (বাগেরহাট) সংবাদদাতা জানান, বলেশ্বরের প্রচণ্ড ঢেউয়ের আঘাতে বাগেরহাটের শরণখোলা উপজেলার রাজেশ্বর এলাকার একটি বেড়িবাঁধের কিছু অংশ ভেঙ্গে গেছে। বাঁধটির আরো ১০টি পয়েন্ট ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে। যেকোন মুহূর্তে ওই স্থানগুলো ভেঙ্গে পড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। উপজেলার ১০টি গ্রামের অন্তত ২০ হাজার মানুষ আতঙ্কের মধ্যে দিন কাটাচ্ছেন। এলাকাবাসী জানায়, বৃহস্পতিবার রাতে বঙ্গোপসাগরে লঘু চাপের কারণে উপজেলার বলেশ্বর নদীতে প্রচণ্ড ঢেউয়ের সৃষ্টি হয়। এতেই বাঁধের উল্লেখিত অংশটি ভেঙ্গে যায়। রায়েন্দা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান মিলন জানান, ভাটির গোন থাকায় পানির চাপ তেমন নেই। এ কারণে বেড়িবাঁধ ভেঙ্গে গেলেও পানি এলাকায় প্রবেশ করতে পারেনি। তবে, আগামী এক সপ্তাহ পরে অমাবশ্যার সময় জোয়ারের পানি ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি পাবে। তখন ওই স্থান থেকে জোয়ারের পানি প্রবেশ করে বিস্তীর্ণ এলাকা প্লাবিত হওয়ার আশংকা রয়েছে। রাজেশ্বর এলাকার মেম্বর কাওসার হোসেন জানান, এলাকাবাসী গতকাল শুক্রবার সকালে বেড়িবাঁধের ভেঙ্গে যাওয়া অংশ স্বেচ্ছাশ্রমে মাটি দিয়ে মেরামতের চেষ্টা করেছেন। তবে, প্রবল বৃষ্টির কারণে কাজটি তারা শেষ করতে পারেননি। সাউথখালী ইউপি চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হোসেন জানান, তার ইউনিয়নের বগী, গাবতলা, উত্তর সাউথখালী ও তাফালবাড়ি এলাকার বেড়িবাঁধের ৪/৫টি পয়েন্ট ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে। এগুলোও যেকোন মুহূর্তে ভেঙ্গে পড়ে ব্যাপক এলাকা প্লাবিত হওয়ার আশংকা রয়েছে। তিনি আরো জানান, শুক্রবারের ঝড়ো বৃষ্টির সময় সাউথখালী ইউনিয়নের চালিতাবুনিয়া গ্রামের সুন্দরবন মাদ্রাসার টিনের চাল উড়ে গেছে। পাউবোর বাগেরহাটের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. খলিলুর রহমান এ প্রসঙ্গে বলেন, বাঁধ ভেঙ্গে যাওয়ার বিষয়টি তিনি জেনেছেন। বাঁধের ভেঙ্গে যাওয়া অংশ ও ঝুঁকিপূর্ণ স্থানগুলো দ্রুত মেরামত করার উদ্যোগ নেয়া হবে।

রায়পুরে চার হাজার হেক্টর জমির সয়াবিন বিনষ্ট

রায়পুর (লক্ষ্মীপুর) সংবাদদাতা জানান, মেঘনার পানি বৃদ্ধির কারণে গতকাল শুক্রবার পর্যন্ত উপকূলীয় রায়পুর উপজেলায় ফসলের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। জনজীবনে নেমে এসেছে চরম দুর্ভোগ। উপজেলার নিম্নাঞ্চলে জলাবদ্ধতা দেখা দিয়েছে। বহু বাড়িঘরে পানি উঠেছে। চরলক্ষ্মী ও চরকাছিয়া এলাকায় মেঘনা নদীতে ভাঙ্গনের তীব্রতা বেড়েছে। সয়াবিন চাষী ও ব্যবসায়িগণ জানান, মেঘনার জোয়ারের পানিতে চরকাছিয়া, চরলক্ষ্মী, চরজালিয়া, চরঘাসিয়া, টুনুরচর, কানিবগার চরসহ বিভিন্ন এলাকায় চাষকৃত সয়াবিনের ৮০ ভাগ ফসল পানির নিচে তলিয়ে সম্পূর্ণ নষ্ট হয়ে গেছে। বাকি ফসল কৃষকরা ঘরে তুলতে পারলেও শুকাতে না পারায় তা নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। বলা হয়েছে, সয়াবিন চাষীদের ক্ষতির পরিমাণ ৮০ কোটি টাকা ছাড়িয়ে যাবে। উপজেলার কৃষি কর্মকর্তা একেএম শামীম আলম জানান, চলতি মৌসুমে ৫ হাজার ৪০০ হেক্টর জমিতে সয়াবিন চাষ হয়েছে। চাঁদপুর সেচ প্রকল্পের ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী কর্মকর্তা (যান্ত্রিক) মো. শওকত আলী জানান, মেঘনা নদীতে পানির উচ্চতা বৃদ্ধি পাওয়ায় রায়পুরের হাজিমারা রেগুলেটর দিয়ে প্রয়োজনীয় পরিমাণে পানি নিষ্কাশন করা যাচ্ছে না।

ঝুঁকির মধ্যে সাতক্ষীরার বেড়িবাঁধ

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি জানান, সাতক্ষীরার পানি উন্নয়ন বোর্ডের ৩৭ কিলোমিটার বেড়িবাঁধ মারাত্মক ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে। ফলে শ্যামনগর, আশাশুনি ও দেবহাটা এলাকার কয়েক লাখ মানুষ উদ্বেগ-উত্কণ্ঠায় দিন কাটাচ্ছেন। বরাদ্দ না থাকায় বেড়িবাঁধ সংস্কারে কোনো কাজ করতে পারছে না পানি উন্নয়ন বোর্ড।

শ্যামনগরের গাবুরা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাসুদুল আলম জানান, গাবুরা ইউনিয়নের লেবুবুনিয়া, কালিবাড়ি, নাপিতখালী, গাগড়াখালী, চাঁদনীমুখা, জেলেখালীর বেড়িবাঁধের অবস্থা খুবই খারাপ। চেয়ারম্যান নিজস্ব উদ্যোগে স্থানীয় লোকজনকে সঙ্গে নিয়ে লেবুবুনিয়া ও জেলেখালী এলাকার বাঁধ মেরামতের চেষ্টা অব্যাহত রেখেছেন। পদ্মপুকুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আমজাদুল ইসলাম জানান, তার ইউনিয়নের পশ্চিম পাতাখালী এলাকার দেড় কিলোমিটার এবং পূর্বপাতাখালী এলাকার আধা কিলোমিটার বেড়িবাঁধ মারাত্মক ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে। তিনি কর্মসৃজন প্রকল্পের লেবারদের দিয়ে ইউনিয়ন পরিষদের নিজস্ব উদ্যোগে কোনো রকম বাঁধ ঠেকানোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।

সাতক্ষীরা পানি উন্নয়ন বোর্ড বিভাগ-১ এর নির্বাহী প্রকৌশলী আব্দুল মান্নান খান জানান, সাতক্ষীরা পানি উন্নয়ন বোর্ডের ১১টি পোল্ডারের আওতাধিন ৮০০ কিলোমিটার উপকূল রক্ষার জন্য বেড়িবাঁধ রয়েছে। এরমধ্যে কেবলমাত্র তার বিভাগের অধীনে ১৫ কিলোমিটার বেড়িবাঁধ ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে। এর মধ্যে মারাত্মক ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে আট কিলোমিটার বেড়িবাঁধ। বিভাগ-২ এর আওতায় ২২ কিলোমিটার বেড়িবাঁধ ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে। এর মধ্যে প্রায় ১৩ কিলোমিটার বাঁধের অবস্থা খুবই খারাপ।

এই পাতার আরো খবর -
font
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন
মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, 'নির্দলীয় অথবা দল নিরপেক্ষ সরকারের অধীনেই আগামী নির্বাচন হতে হবে। আপনি কি তার এই বক্তব্যের সাথে একমত?
4 + 6 =  
ফলাফল
আজকের নামাজের সময়সূচী
সেপ্টেম্বর - ২১
ফজর৪:৩১
যোহর১১:৫২
আসর৪:১৫
মাগরিব৫:৫৯
এশা৭:১২
সূর্যোদয় - ৫:৪৬সূর্যাস্ত - ০৫:৫৪
archive
বছর : মাস :
The Daily Ittefaq
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: তাসমিমা হোসেন। উপদেষ্টা সম্পাদক হাবিবুর রহমান মিলন। ইত্তেফাক গ্রুপ অব পাবলিকেশন্স লিঃ-এর পক্ষে তারিন হোসেন কর্তৃক ৪০, কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ থেকে প্রকাশিত ও মুহিবুল আহসান কর্তৃক নিউ নেশন প্রিন্টিং প্রেস, কাজলারপাড়, ডেমরা রোড, ঢাকা-১২৩২ থেকে মুদ্রিত। কাওরান বাজার ফোন: পিএবিএক্স: ৭১২২৬৬০, ৮১৮৯৯৬০, বার্ত ফ্যাক্স: ৮১৮৯০১৭-৮, মফস্বল ফ্যাক্স : ৮১৮৯৩৮৪, বিজ্ঞাপন-ফোন: ৮১৮৯৯৭১, ৭১২২৬৬৪ ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭২, e-mail: [email protected], সার্কুলেশন ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭৩। www.ittefaq.com.bd, e-mail: [email protected]
Copyright The Daily Ittefaq © 2014 Developed By :