The Daily Ittefaq
ঢাকা, মঙ্গলবার ১০ জুন ২০১৪, ২৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২১, ১১ শাবান ১৪৩৫
সর্বশেষ সংবাদ বিদেশি বন্ধুদের সম্মাননা স্মারক হিসেবে দেয়া ক্রেস্ট নতুন করে দেবে সরকার | বাণিজ্য ও বিনিয়োগ অনুসন্ধানে বাংলাদেশ সফর করুন : প্রধানমন্ত্রী | বাউল শিল্পী করিম শাহের ইন্তেকাল | মুন্সীগঞ্জের গজারিয়ায় গার্মেন্ট পল্লী নির্মাণে বাংলাদেশ-চীন সমঝোতা স্মারক চুক্তি স্বাক্ষর | সিলেটে দেয়াল চাপায় ৩ ভাই-বোনের মৃত্যু

ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে শিক্ষার্থী খুন

ইত্তেফাক রিপোর্ট

ঢাকা সিটি কলেজের বিজ্ঞান ও ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগের ছাত্রদের মধ্যে ফুটবল খেলার চাঁদা নিয়ে মতবিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে আয়াজ হক (১৬) নামের এক শিক্ষার্থী নিহত হয়েছে। গতকাল সোমবার বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে ধানমন্ডির ঝিগাতলা বাসস্ট্যান্ডের কাছে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত আয়াজ চলতি বছরের এসএসসি পরীক্ষায় গভ. ল্যাবরেটরি স্কুল থেকে উত্তীর্ণ হয়েছিল। সে সিটি কলেজের বিজ্ঞান বিভাগের ফুটবল টিমের দলনেতা আশদিন হকের ছোট ভাই। বাণিজ্য বিভাগের দলনেতা ইনজামামুল হক জিসান। কলেজের বিজ্ঞান বিভাগের ৪টি ও বাণিজ্য বিভাগের ৬টি গ্রুপের মধ্যে এই ফুটবল খেলা অনুষ্ঠিত হবে। প্রতিটি গ্রুপের ক্ষেত্রে খেলায় অংশগ্রহণের জন্য ৩ হাজার টাকা চাঁদা নির্ধারণ করে খেলা পরিচালনা কমিটি। এই চাঁদার হার নিয়ে মতবিরোধে দুই বিভাগের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও পুরাতন দ্বন্দ্বের জের ধরে আয়াজ হককে ছুরিকাঘাত করে হত্যা করা হয়। ঘটনার পর পুলিশ হত্যায় ব্যবহূত ছুরিটি উদ্ধার করেছে। এ ঘটনায় নিহতের বড় ভাই আশদিন হক, ইনজামামুল ইসলাম জিসানসহ ৭ জনকে আটক করেছে পুলিশ ।

পুলিশ ও সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, পরিবারের সঙ্গে কলাবাগানের নর্থ সার্কুলার রোডের ৬৩/৪ নম্বর বাসায় থাকতো আয়াজ। সদ্য এসএসসি পাস করা আয়াজ গতকাল দুপুরে বড় ভাই আশদিন হকের সাথে ঢাকা সিটি কলেজে যায়। বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে কলেজের দু'টি বিভাগের শিক্ষার্থীদের মধ্যে অনুষ্ঠিতব্য ফুটবল খেলার প্রস্তুতির অংশ হিসাবে কমিটি গঠন ও চাঁদা আদায় নিয়ে আলোচনা শুরু হয়। ঐ আলোচনায় ভাইয়ের সাথে আয়াজও অংশ নেয়। এক পর্যায়ে তিন হাজার টাকা করে চাঁদা আদায় নিয়ে দুই বিভাগের শিক্ষার্থীদের মধ্যে দেখা দেয় মতবিরোধ। উত্তেজিত শিক্ষার্থীরা হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়েন। ক্রমে তা সংঘর্ষে রূপ নেয়। দুই দল শিক্ষার্থী লাঠিসোটা নিয়ে পরস্পরের ওপর হামলে পড়ে। সংঘর্ষ ছড়িয়ে পড়ে স্টার কাবাব রেস্তোরাঁর সামনে থেকে ধানমন্ডি আবাসিক এলাকা এবং হ্যাপি আর্কেড সংলগ্ন এলাকায়। এরই মধ্যে জিগাতলা বাসস্ট্যান্ড এলাকায় আয়াজকে প্রতিপক্ষ ভেবে বাণিজ্য বিভাগের একদল ছাত্র বেধড়ক পিটিয়ে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায়। পরে রক্তাক্ত অবস্থায় আয়াজকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে চিকিত্সাধীন অবস্থায় সন্ধ্যা ৬টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

নিহতের বাবা আইনজীবী শহীদুল হক হাসপাতালে সাংবাদিকদের জানান, ঘটনা ঠিক কী ঘটেছে সেটা তার জানা নেই। তবে তার দুই ছেলে এক সঙ্গে সিটি কলেজ এলাকায় গিয়েছিল। পরে কেউ আয়াজকে মারধর ও ছুরিকাঘাত করে।

পারিবারিক সূত্র জানায়, দুই ভাইয়ের মধ্যে ছোট ছিলেন আয়াজ। তাদের গ্রামের বাড়ি গোপালগঞ্জ সদরের থানাপাড়া এলাকায়।

ধানমন্ডি থানার ওসি অশোক কুমার চৌহান বলেন, নিহত আয়াজ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েছিল, না সংঘর্ষের মধ্যে পড়ে নিহত হয়েছে তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। সংঘর্ষের পরে অন্যান্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কিছু ছাত্রও জড়িয়ে পড়ে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে এরই মধ্যে সাত জনকে আটক করা হয়েছে। তাদের সংশ্লিষ্টতার বিষয়টি যাচাই-বাছাই করে দেখা হচ্ছে।

এই পাতার আরো খবর -
font
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন
ব্যাংক জালিয়াতি রোধে রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকে পরিচালক নিয়োগে মানদণ্ড নির্ধারণের ওপর বিশেষ নজর দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। জালিয়াতি রোধে এই সিদ্ধান্ত কার্যকর ভূমিকা রাখবে কি?
7 + 7 =  
ফলাফল
আজকের নামাজের সময়সূচী
অক্টোবর - ২১
ফজর৪:৪৩
যোহর১১:৪৪
আসর৩:৫০
মাগরিব৫:৩১
এশা৬:৪৩
সূর্যোদয় - ৫:৫৮সূর্যাস্ত - ০৫:২৬
archive
বছর : মাস :
The Daily Ittefaq
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: তাসমিমা হোসেন। উপদেষ্টা সম্পাদক হাবিবুর রহমান মিলন। ইত্তেফাক গ্রুপ অব পাবলিকেশন্স লিঃ-এর পক্ষে তারিন হোসেন কর্তৃক ৪০, কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ থেকে প্রকাশিত ও মুহিবুল আহসান কর্তৃক নিউ নেশন প্রিন্টিং প্রেস, কাজলারপাড়, ডেমরা রোড, ঢাকা-১২৩২ থেকে মুদ্রিত। কাওরান বাজার ফোন: পিএবিএক্স: ৭১২২৬৬০, ৮১৮৯৯৬০, বার্ত ফ্যাক্স: ৮১৮৯০১৭-৮, মফস্বল ফ্যাক্স : ৮১৮৯৩৮৪, বিজ্ঞাপন-ফোন: ৮১৮৯৯৭১, ৭১২২৬৬৪ ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭২, e-mail: [email protected]m, সার্কুলেশন ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭৩। www.ittefaq.com.bd, e-mail: [email protected]
Copyright The Daily Ittefaq © 2014 Developed By :