The Daily Ittefaq
ঢাকা, বুধবার, ০৩ জুলাই ২০১৩, ১৯ আষাঢ় ১৪২০ এবং ২৩ শাবান ১৪৩৪

সবচেয়ে কম রেমিট্যান্স জুনে: বিনিয়োগ মন্দা, ডলারের দরপতন কারণ

ইত্তেফাক রিপোর্ট

সদ্য শেষ হওয়া ২০১২-১৩ অর্থবছরে অন্য ১১ মাসের তুলনায় সবচেয়ে কম রেমিট্যান্স এসেছে শেষ মাস জুনে। এ মাসে প্রবাসী বাংলাদেশিরা ১০৫ কোটি মার্কিন ডলার সমপরিমাণের রেমিট্যান্স দেশে পাঠিয়েছেন। দেশের চলমান রাজনৈতিক অস্থিরতায় বিনিয়োগে মন্দা ও ডলারের অব্যাহত দরপতনের কারণেই রেমিট্যান্স কমছে বলে সংশ্লিষ্টরা মনে করছেন।

বাংলাদেশ ব্যাংকের বৈদেশিক মুদ্রানীতি বিভাগের হালনাগাদ পরিসংখ্যানে দেখা গেছে—গত অর্থবছরে প্রবাসীরা মোট এক হাজার ৪৪৬ কোটি পাঁচ লাখ মার্কিন ডলারের সমপরিমাণ রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন। অন্য দিকে, ২০১১-১৩ অর্থবছরে রেমিট্যান্স এসেছিল এক হাজার ২৮৪ কোটি ৩৪ লাখ মার্কিন ডলার। সেই হিসাবে আগের অর্থবছরের চেয়ে গত অর্থবছরে ১৬১ কোটি ৭১ লাখ মার্কিন ডলার বেশি রেমিট্যান্স এসেছে। অবশ্য গতবছর রেমিট্যান্স বাড়লেও আগের মাসগুলোর তুলনায় গত তিন মাস ধরে রেমিট্যান্স প্রবাহ ক্রমেই অবনতি হচ্ছে।

পরিসংখ্যানে দেখা গেছে—চলতি অর্থবছরের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ১৪৫ কোটি ৩৬ লাখ মার্কিন ডলার সমপরিমাণ রেমিট্যান্স এসেছিল অক্টোবরে। আর জুনে সবচেয়ে কম ১০৫ কোটি ৭৬ লাখ ডলারের রেমিট্যান্স এসেছে। এ ছাড়া, অন্যান্য মাসের মধ্যে জুলাইতে এসেছিল ১২০ কোটি ডলার, আগস্ট ও সেপ্টেম্বরে ১১৭ কোটি ডলার করে, নভেম্বরে ১১০ কোটি, ডিসেম্বরে ১২৮ কোটি, জানুয়ারিতে ১৩২ কোটি ডলার, ফেব্রুয়ারিতে ১১৬ কোটি, মার্চে ১২২ কোটি, এপ্রিলে ১১৯ কোটি এবং মে মাসে ১০৭ কোটি ৯৩ লাখ ডলার রেমিট্যান্স এসেছিল।

জুনে আসা রেমিট্যান্সের মধ্যে ৩৭ কোটি ১৬ লাখ ডলার এসেছে রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন চার বাণিজ্যিক ব্যাংক এবং এক কোটি ২১ লাখ মার্কিন ডলার রেমিট্যান্স এসেছে বিশেষায়িত দুটি ব্যাংকের মাধ্যমে। আর বেসরকারি ২৯টি বাণিজ্যিক ব্যাংকের মাধ্যমে ৬৫ কোটি ৯১ লাখ ডলার এবং বিদেশি নয় বাণিজ্যিক ব্যাংকের মাধ্যমে রেমিট্যান্স এসেছে এক কোটি ৪৭ লাখ ডলার।

বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তারা বলছেন—টাকার বিপরীতের ডলারের চাঙাভাবের কারণে চলতি বছরের প্রথম থেকেই প্রবাসীরা বেশি বেশি রেমিট্যান্স পাঠাচ্ছিলেন। কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে ডলারের দাম কমে যাওয়ায় প্রবাসীদের কম পরিমাণে রেমিট্যান্স পাঠানোর প্রবণতা দেখা যাচ্ছে। এ ছাড়া, বর্তমান রাজনৈতি অস্থিরতায় দেশে বিনিয়োগের পরিবেশ অনুকূল না থাকায় প্রবাসীরা অর্থ পাঠানো কমিয়ে থাকতে পারেন বলে তারা মনে করছেন।

সর্বশেষ আরো খবর -
font
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন
গভর্নর ড. আতিউর রহমান বলেছেন, 'গ্রামীণ ব্যাংকের কাঠামোগত পরিবর্তনের দরকার নেই।' আপনিও কি তাই মনে করেন?
6 + 1 =  
ফলাফল
আজকের নামাজের সময়সূচী
নভেম্বর - ৬
ফজর৫:০৭
যোহর১১:৫০
আসর৩:৩৬
মাগরিব৫:১৫
এশা৬:৩২
সূর্যোদয় - ৬:২৭সূর্যাস্ত - ০৫:১০
archive
বছর : মাস :
The Daily Ittefaq
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: তাসমিমা হোসেন। উপদেষ্টা সম্পাদক হাবিবুর রহমান মিলন। ইত্তেফাক গ্রুপ অব পাবলিকেশন্স লিঃ-এর পক্ষে তারিন হোসেন কর্তৃক ৪০, কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ থেকে প্রকাশিত ও মুহিবুল আহসান কর্তৃক নিউ নেশন প্রিন্টিং প্রেস, কাজলারপাড়, ডেমরা রোড, ঢাকা-১২৩২ থেকে মুদ্রিত। কাওরান বাজার ফোন: পিএবিএক্স: ৭১২২৬৬০, ৮১৮৯৯৬০, বার্ত ফ্যাক্স: ৮১৮৯০১৭-৮, মফস্বল ফ্যাক্স : ৮১৮৯৩৮৪, বিজ্ঞাপন-ফোন: ৮১৮৯৯৭১, ৭১২২৬৬৪ ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭২, e-mail: [email protected], সার্কুলেশন ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭৩। www.ittefaq.com.bd, e-mail: [email protected]
Copyright The Daily Ittefaq © 2014 Developed By :