The Daily Ittefaq
ঢাকা, রবিবার ২৭ জুলাই ২০১৪, ১২ শ্রাবণ ১৪২১, ২৮ রমজান ১৪৩৫
সর্বশেষ সংবাদ দুই মামলায় খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে পরবর্তী সাক্ষ্যগ্রহণ ৩ সেপ্টেম্বর | বিএনপির সাথে কোন সংলাপ হবে না : নাসিম | খালেদা জিয়াকে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ শুভেচ্ছা | হামাস ২৪ ঘণ্টার যুদ্ধবিরতিতে রাজি | কুমিল্লার চান্দিনায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৩

নিরুত্তাপ কলমানি মার্কেট, ব্যাংকের টাকা তোলায়ও ভিড় কম

রেজাউল হক কৌশিক

সাধারণত ঈদের আগে নগদ টাকার প্রয়োজন অনেক বেশি। তাই গ্রাহকদের চাহিদা অনুযায়ী যোগান দিতে ব্যাংকগুলোকে অন্য ব্যাংকের কাছ থেকে ধার করে। তাই উদ্বৃত্ত টাকা থাকলে এ সময়ে অন্য ব্যাংকে ধার দিয়ে বাড়তি টাকা আয়ের সুযোগ হয় ব্যাংকগুলোর। কিন্তু এবছর ব্যাংকগুলোতে প্রচুর তারল্য উদ্বৃত্ত থাকায় অন্য ব্যাংকের কাছ থেকে ধার করার প্রয়োজন পড়ছে না। ফলে কলমানি মার্কেটে (স্বল্প সময়ের জন্য আন্তব্যাংক লেনদেন) সুদের হারও ছিল স্বাভাবিক। অন্যদিকে ঈদের আগে ব্যাংক থেকে টাকা তোলার জন্য দীর্ঘ লাইন দেখা যায়নি। ঈদের আগে গ্রাহকদের নগদ অর্থের চাহিদা মেটাতে ব্যাংকগুলো হিমশিম খেতে হলেও আজ রবিবার মতিঝিলের ব্যাংক পাড়ায় ঘুরে তেমন চিত্র চোখে পড়েনি।

কেন্দ্রীয় ব্যাংক সূত্রে জানা গেছে, আজ পর্যন্ত কলমানি মার্কেটে সুদের হার আট দশমিক ২৫ শতাংশের বেশি উঠেনি। গতবছর ঈদুল-ফিতরেও কলমানিতে সুদের হার ছিল ৯ শতাংশের আশেপাশে। চার বছর আগে ২০১০ সালের ১৯ ডিসেম্বরে কলমানি মার্কেটে সুদের হার ১৯০ শতাংশ পর্যন্ত উঠেছিল। পরের বছর কলমানি মার্কেটে সুদের হার চড়া হলেও গত দুবছর থেকে বন্ধ হয়েছে রমরমা এ কারবার।

সরকারি ও বেসরকারি ব্যাংকের প্রধান নির্বাহীদের সঙ্গে কথা বলেন জানা গেছে, এবার ব্যাংকিং খাতে অতিরিক্ত তারল্য থাকার কারণেই নগদ টাকার বাজারে টানাপোড়েন না থাকায় সুদের হারও বাড়েনি।

ব্যাংকগুলোতে টাকার চাহিদা বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের মতিঝিল শাখার মহাব্যবস্থাপক সাইফুল ইসলাম খান আজ ইত্তেফাককে বলেন, ঈদ-উল-ফিতর উপলক্ষে বাজারে ছাড়ার জন্য ২২ হাজার ৩০০ কোটি টাকা প্রস্তুত রাখা হয়েছিল। তবে ব্যাংকগুলো নিয়েছে ১৮ হাজার ৫৬২ কোটি টাকা। এরমধ্যে নতুন টাকা নিয়েছে নয় হাজার ৯৫৬ কোটি। বাংলাদেশ ব্যাংকে অন্যান্য ব্যাংকের রক্ষিত হিসাব থেকে এ টাকা নেয় ব্যাংকগুলো। এ বছর চাহিদা কম থাকায় ব্যাংকগুলো কম টাকা নিয়েছে।

এ বিষয়ে পূবালী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও ব্যাংকার্স এসোসিয়েশন বাংলাদেশের (এবিবি) ভাইস চেয়ারম্যান হেলাল আহমদ চৌধুরী বলেন, ব্যাংকে অতিরিক্ত তারল্য থাকায় এবার কলমানি মার্কেটে টাকার চাহিদা কিছুটা কম। তবে যে চাহিদা আছে তা মিটাতে সমস্যা হচ্ছেনা। একারণে কলমানি মার্কেটে সুদের হার স্বাভাবিক। টাকা জন্যও নেই কোন হাহাকার। একই ধরনের কথা বলেন চতুর্থ প্রজন্মের ব্যাংক সাউথ বাংলা এগ্রিকালচার এন্ড কমার্স ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক রফিকুল ইসলাম।

গত এক সপ্তাহের কলমানি মার্কেট পর্যালোচনায় দেখা গেছে, গত বুধবার সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে। এদিন কলমানি মার্কেটে মোট ছয় হাজার ৮৪১ কোটি ৫০ হাজার টাকা লেনদেন হয়েছে। তার পরের দিনও লেনদেন হয়েছে ছয় হাজার ৭৫৩ কোটি টাকা। আর গতকাল শেষ কার্যদিবসে ছয় হাজার ৪৭৯ কোটি টাকা ঋণ দিয়েছে ও নিয়েছে ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো। বুধবারের আগের চারদিন কলমানি মার্কেটে লেনদেনে পরিমাণ ছয় হাজার কোটি টাকা নিচে ছিল। আজ কলমানি মার্কেটে সবচেয়ে বেশি ধার দিয়েছে সোনালী ব্যাংক লিমিটেড। রাষ্ট্রায়ত্ব এ ব্যাংক এক হাজার ২৩০ কোটি টাকা ধার দিয়েছে। এদিকে আজ সবচেয়ে বেশি ধার নিয়েছে এনসিসি ব্যাংক লিমিটেড। বেসরকারী খাতের এ ব্যাংক বাজার থেকে ৪৩২ কোটি টাকা ধার নিয়েছে। অন্যদিকে ব্যাংক বহির্ভূত আর্থিক প্রতিষ্ঠানের মধ্যে সবগুলো প্রতিষ্ঠানই বাজার থেকে কমবেশি টাকা নিয়েছে। কেউই ধার দিতে পারেনি। সবচেয়ে বেশি ধার নিয়েছে আইসিবি। এ প্রতিষ্ঠানটি বাজার থেকে ৮৯৫ কোটি টাকা নিয়েছে। আর সবচেয়ে কম রিলায়েন্স ফাইন্যান্স লিমিটেড তিন কোটি টাকা ধার নিয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠান আট দশমিক ২৫ শতাংশ সুদে ধার নিয়েছে।

টাকা তুলতে ব্যাংকে ছিলনা ভিড়:

সাধারণত ঈদের আগে শেষ কার্যদিবসে ব্যাংকে টাকা তোলার জন্য দীর্ঘ লাইন দেখা যায়। কিন্তু এবছর তেমনটি দেখা যায়নি। মতিঝিল ব্যাংকপাড়া সহ রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় ব্যাংকগুলোতে দেখা গেছে টাকা তোলার জন্য ক্যাশ কাউন্টারে গ্রাহকের তেমন ভিড় নেই। বরং অন্যান্য দিনের চেয়ে কম ভিড় দেখা গেছে। ব্যাংকার জানিয়েছেন, ঈদের আগে চলতি সপ্তাহে কার্যদিবস শুধু একদিন হওয়ায় আগের সপ্তাহেই গ্রাহকরা ব্যাংক থেকে প্রয়োজনীয় টাকা তুলে ফেলেছেন। আর অনেকেই রবিবার ছুটি নিয়ে ঢাকা ছেড়েছেন। এজন্যই মূলত ব্যাংকে ভিড় কম।

ঈদের ছুটিতে এটিএম বুথে পর্যাপ্ত টাকা রাখতে হবে:

ঈদের ছুটি শুরু হওয়ার আগেই ব্যাংকের অটোমেটেড টেলার মেশিন (এটিএম) বুথগুলোতে পর্যাপ্ত টাকা পাওয়া যাচ্ছে না। ফলে ঈদের কেনাকাটাসহ অন্যান্য লেনদেনের জন্য নগদ টাকা জোগাড় করতে গিয়ে বড় ধরনের ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে গ্রাহকদের। আর এই গ্রাহকদের ভোগান্তির যাতে না হয় সেজন্য এটিএম বুথে পর্যাপ্ত নগদ টাকার সরবরাহ রাখার নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। গতকাল রবিবার বাংলাদেশ ব্যাংকের কারেন্সি ম্যানেজমেন্ট বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত এক সার্কুলার জারি করে সব ব্যাংকের প্রধান নির্বাহীদের পাঠানো হয়েছে। সার্কুলারে কার্ড ভিত্তিক ইলেকট্রিক লেনদেনের ক্ষেত্রে গ্রাহকের স্বার্থ সংরক্ষণসহ সার্বক্ষনিক লেনদেন নিশ্চিত করতে এটিএম ও পিওএস নেটওয়ার্ক সার্বক্ষনিক চালু রাখতে হবে। এটিএম বুথে সার্বক্ষনিক নগদ টাকার সরবরাহ নিশ্চিত করতে হবে। বন্ধ বা অচল এটিএম বুথের সামনে অবশ্যই নোটিশ প্রদর্শনের ব্যবস্থা করতে হবে।

ইঅ/চৌফে/শ৬৮০/০৯:০৫পিএম

সর্বশেষ আরো খবর -
font
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন
বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শমসের মবিন চৌধুরী বলেছেন, 'ভোটারবিহীন নির্বাচনে ক্ষমতায় এসে সরকার এখন অস্থিরতায় ভুগছে।' আপনিও কি তাই

মনে করেন?
9 + 9 =  
ফলাফল
আজকের নামাজের সময়সূচী
সেপ্টেম্বর - ২১
ফজর৪:৩১
যোহর১১:৫২
আসর৪:১৫
মাগরিব৫:৫৯
এশা৭:১২
সূর্যোদয় - ৫:৪৬সূর্যাস্ত - ০৫:৫৪
archive
বছর : মাস :
The Daily Ittefaq
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: তাসমিমা হোসেন। উপদেষ্টা সম্পাদক হাবিবুর রহমান মিলন। ইত্তেফাক গ্রুপ অব পাবলিকেশন্স লিঃ-এর পক্ষে তারিন হোসেন কর্তৃক ৪০, কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ থেকে প্রকাশিত ও মুহিবুল আহসান কর্তৃক নিউ নেশন প্রিন্টিং প্রেস, কাজলারপাড়, ডেমরা রোড, ঢাকা-১২৩২ থেকে মুদ্রিত। কাওরান বাজার ফোন: পিএবিএক্স: ৭১২২৬৬০, ৮১৮৯৯৬০, বার্ত ফ্যাক্স: ৮১৮৯০১৭-৮, মফস্বল ফ্যাক্স : ৮১৮৯৩৮৪, বিজ্ঞাপন-ফোন: ৮১৮৯৯৭১, ৭১২২৬৬৪ ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭২, e-mail: [email protected], সার্কুলেশন ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭৩। www.ittefaq.com.bd, e-mail: [email protected]
Copyright The Daily Ittefaq © 2014 Developed By :