The Daily Ittefaq
ঢাকা, সোমবার ২৮ জুলাই ২০১৪, ১৩ শ্রাবণ ১৪২১, ২৯ রমজান ১৪৩৫
সর্বশেষ সংবাদ তোবায় আটকা শ্রমিক, বেতন দিচ্ছে বিজিএমইএ

খোকার ক্যান্সার হওয়ার খবর নিয়ে রহস্য

শহীদুল ইসলাম, যুক্তরাষ্ট্র

সর্বদা রাজনীতি ও ক্ষমতার কেন্দ্রবিন্দুতে থাকা ঢাকা মহানগর বিএনপির বিদায়ী আহ্বায়ক ও সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকা নিউইয়র্কে অলস দিন কাটাচ্ছেন। চিকিত্সার জন্য তিনি সপরিবারে যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থান করছেন। কী রোগের চিকিত্সা তিনি নিচ্ছেন তা নিয়ে ঘনিষ্ঠজনেরা দিচ্ছেন নানান তথ্য। তবে সাদেক হোসেন খোকা এ প্রতিবেদককে জানিয়েছেন, তার ক্যান্সার ধরা পড়েছে। প্রথম ধাপেই রোগ নির্ণয় হওয়ায় তা নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। শারীরিক অবস্থাও এখন আগের চেয়ে ভালো। আগামী ৬ আগস্ট পরবর্তী চেকআপের দিন ধার্য করেছেন চিকিত্সক। পরের দিন ৭ আগস্ট হবে কনসালটেশন। এরপর জানা যাবে তার পরবর্তী করণীয়।

তিন মাস আগে দুই ছেলে ও এক মেয়েকে নিয়ে সস্ত্রীক যুক্তরাষ্ট্রে আসেন সাদেক হোসেন খোকা। প্রথমে ওঠেন নিউইয়র্কে বোনের বাড়িতে। পরে বাসা ভাড়া নেন কুইন্সের ইস্ট এলমহার্স্টে। সাদেক হোসেন খোকা যে মুহূর্তে নিউইয়র্কে আসেন তখন দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া কয়েক দফায় সরকার পতনের আন্দোলনের হুমকি দেন। কিন্তু খালেদা জিয়ার আন্দোলনের হুমকির চেয়ে নেতা-কর্মীদের কাছে গুরুত্ব পায় সংগঠনকে সক্রিয় করার বিষয়টি। তৃণমূল থেকেও সেরকমই দাবি ওঠে। আর প্রথমেই সামনে আসে ঢাকা মহানগর কমিটি পুনর্গঠন। আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে আসেন সাদেক হোসেন খোকা। তখনই তার ঘনিষ্ঠজনেরা মিডিয়ার কাছে জোরেশোরে প্রচার করেন যে তিনি ক্যান্সারে আক্রান্ত। কেমোথেরাপিও নিচ্ছেন। সাদেক হোসেন নাকি এসব নিয়ে কথাও বলেছেন দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সঙ্গে।

ঢাকা মহানগর কমিটি গঠনের আগে ও পরে সাদেক হোসেন খোকার অসুস্থতার খবর নিয়ে নিউইয়র্কে নানান নাটকীয়তা লক্ষ্য করা গেছে। কমিটি গঠনের আগে তার ঘনিষ্ঠজনেরা ক্যান্সার ধরা পড়া এবং কেমোথেরাপি নিয়ে ব্যাপক প্রচারণা চালান। তারা ঢাকার মিডিয়াপাড়ায়ও খবরটি ছড়িয়ে দেন। কিন্তু ঢাকা মহানগর কমিটি গঠনের পর যারাই এ প্রচারণা চালিয়েছেন তাদের অনেকেই এখন চুপসে গেছেন। মিডিয়ার সঙ্গে এখন তারা কথা বলতে অনাগ্রহী। বরং জানতে চাইলে তারা সাদেক হোসেন খোকার মোবাইল নম্বরটি দিয়ে দিচ্ছেন। এমনকি গণমাধ্যমে ক্যান্সারের খবর বের হলে ঘনিষ্ঠজনদের কেউ কেউ বিস্ময় প্রকাশ করেছেন। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক ঘনিষ্ঠজন এ প্রতিবেদককে জানিয়েছেন, ক্যান্সারের খবরে স্বয়ং সাদেক হোসেন খোকা মর্মাহত হয়েছেন।

সাদেক হোসেন খোকার সঙ্গে ঘনিষ্ঠ একটি সূত্র দাবি করেছে, সাদেক হোসেন খোকার কিডনি সমস্যা ছিল। সেই রোগের চিকিত্সা করিয়েছেন তিনি সিঙ্গাপুরে। কিন্তু ডাক্তার কিডনির সমস্যা নিরাময় করতে পারেননি। সূত্রটি দাবি করেছেন, সাদেক হোসেন খোকার কিডনিতে ইনফেকশন দেখা দিয়েছিল। কিডনির সমস্যা দূর করতে তিনি নিউইয়র্কে এসেছেন এবং তিনি গত তিন মাসে কমপক্ষে দু'বার ডায়ালাইসিস করিয়েছেন। এটাকে তার নিকটজনেরা ক্যান্সার এবং তিনি কেমোথেরাপি বলে চালিয়ে দিয়েছেন। অবশ্য প্রচারণার পেছনেও একটি রাজনৈকি দুরভিসন্ধি ছিল বলে সূত্রটি দাবি করছে।

সূত্র মতে, সাদেক হোসেন খোকা ক্যান্সার আক্রান্ত না হলেও কিডনির সমস্যায় শারীরিকভাবে অসুস্থ। এ মুহূর্তে তিনি কোনো রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডে সম্পৃক্ত হয়ে জেল খাটতে রাজি নন। এ কারণেই তিনি ঢাকা মহানগর কমিটির দায়িত্ব নিতে চাননি। অথচ একসময় এই কমিটির সভাপতি হতে তিনি রাজপথে সক্রিয় ছিলেন। পরে কমিটি না হলেও সাদেক হোসেন খোকা আহ্বায়ক মনোনীত হন। কিন্তু বর্তমান রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটে সে অবস্থান থেকে সরে আসেন তিনি। অসুস্থজনিত কারণ দেখিয়ে তিনি রাজনৈতিক কর্মকাণ্ড থেকে দূরে সরে আসেন। বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াও বেশ কয়েকবার ফোনে সাদেক হোসেন খোকার সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন। এ সময় সাদেক হোসেন খোকা তার শারীরিক অবস্থার বর্ণনা করে এই মুহূর্তের রাজনীতিতে নিজের অংশগ্রহণের অপারগতা তুলে ধরেন। এর পরপরই মীর্জা আব্বাসকে আহ্বায়ক এবং হাবিব উন নবী সোহেলকে সদস্য সচিব করে ঢাকা মহানগর কমিটি গঠন করা হয়।

এ প্রসঙ্গে সাদেক হোসেন খোকা এ প্রতিবেদককে বলেন, 'আমি নেত্রীকে বলেছি এই কঠিন (ক্যান্সার) রোগ নিয়ে এত ভারী দায়িত্ব পালন করা সম্ভব নয়। পদও ধরে রাখতে চাই না। নতুন কমিটিতেও আমার অবস্থান ধরে রাখতে চাই না।' নতুন কমিটি আন্দোলনে কতটুকু সফল হতে পারবে এ প্রসঙ্গে সাদেক হোসেন খোকা বলেন, 'এটা আগামী দিনে বোঝা যাবে।'

জানা গেছে, সাদেক হোসেন খোকা দেশের বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে দেশে অবস্থান করতে রাজি নন। তবে আগামী মাসের (আগস্ট) মাঝামাঝি তিনি একবার দেশে ফিরবেন। আবার ফিরে এসে দীর্ঘসময় আমেরিকায় থাকতে চান। তিনি যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডায় বাড়ি কিনতেও আগ্রহী।

অন্য একটি সূত্র জানায়, আগামী ৭ আগস্ট নিউইয়র্কের চিকিত্সক সাদেক হোসেন খোকাকে রিলিজ করে দিতে পারেন। আপাতত তার চিকিত্সার প্রয়োজন হবে না। এ কারণেই তিনি ১৫ আগস্ট দেশে ফিরতে পারেন। তবে এ প্রসঙ্গে সাদেক হোসেন খোকা বলেন, তার ক্যান্সার ওষুধেই নিরাময়যোগ্য। যে কারণে তাকে কোনোপ্রকার কেমো নিতে হয়নি। এদিকে চিকিত্সাকালীন নিউইয়র্কের ভাড়া বাসায় অলস সময় কাটাচ্ছেন সাদেক হোসেন খোকা। তিনি স্থানীয় বিএনপি, সমমনা, এমনকি কমিউনিটির কোনো অনুষ্ঠানে যাচ্ছেন না।

font
আজকের নামাজের সময়সূচী
মে - ২৪
ফজর৩:৪৭
যোহর১১:৫৬
আসর৪:৩৫
মাগরিব৬:৪১
এশা৮:০৩
সূর্যোদয় - ৫:১২সূর্যাস্ত - ০৬:৩৬
archive
বছর : মাস :
The Daily Ittefaq
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: তাসমিমা হোসেন। উপদেষ্টা সম্পাদক হাবিবুর রহমান মিলন। ইত্তেফাক গ্রুপ অব পাবলিকেশন্স লিঃ-এর পক্ষে তারিন হোসেন কর্তৃক ৪০, কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ থেকে প্রকাশিত ও মুহিবুল আহসান কর্তৃক নিউ নেশন প্রিন্টিং প্রেস, কাজলারপাড়, ডেমরা রোড, ঢাকা-১২৩২ থেকে মুদ্রিত। কাওরান বাজার ফোন: পিএবিএক্স: ৭১২২৬৬০, ৮১৮৯৯৬০, বার্ত ফ্যাক্স: ৮১৮৯০১৭-৮, মফস্বল ফ্যাক্স : ৮১৮৯৩৮৪, বিজ্ঞাপন-ফোন: ৮১৮৯৯৭১, ৭১২২৬৬৪ ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭২, e-mail: [email protected], সার্কুলেশন ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭৩। www.ittefaq.com.bd, e-mail: [email protected]
Copyright The Daily Ittefaq © 2014 Developed By :