The Daily Ittefaq
বুধবার, ১৩ আগস্ট ২০১৪, ২৯ শ্রাবণ ১৪২১, ১৬ শাওয়াল ১৪৩৫
সর্বশেষ সংবাদ এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফল প্রকাশ, পাসের হার ৭৮.৩৩ শতাংশ | প্রশ্নপত্র ফাঁসের প্রভাব ফলাফলে পড়েনি: শিক্ষামন্ত্রী | পাসের হারে মেয়েরা, জিপিএ-৫-এ ছেলেরা এগিয়ে

যশোর বোর্ডের শীর্ষ ২০ কলেজ

যশোর অফিস

বরাবরের মতো এবারও এইচএসসি পরীক্ষায় যশোর বোর্ডের শীর্ষস্থানে রয়েছে ঝিনাইদহ ক্যাডেট কলেজ। এই কলেজের ৫৩ জন শিক্ষার্থীর সবাই উত্তীর্ণ হয়েছে। আর জিপিএ-৫ পেয়েছে ৫২ জন। গত বছর এই কলেজটির ৪৭ জনের সবাই জিপিএ-৫ পেয়ে উত্তীর্ণ হয়েছিল।

এবার বোর্ড সেরার তালিকায় ২য় স্থানে উঠে এসেছে খুলনার সরকারি এম এম সিটি কলেজ। এই কলেজের ১ হাজার ২৫৮ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে ১ হাজার ১৯৬ জন উত্তীর্ণ হয়েছে, জিপিএ-৫ পেয়েছে ৪৬৪ জন। গত বছর এই কলেজটি ৪র্থ স্থান থেকে ৫ম স্থানে নেমে গিয়েছিল। এবার তারা ৩ ধাপ উঠে এসেছে। গতবারের মতো এবারও তৃতীয় স্থানে রয়েছে যশোর ক্যান্টনমেন্ট কলেজ। তাদের ৮৬৮ জন শিক্ষার্থী উত্তীর্ণ হয়েছে, জিপিএ-৫ পেয়েছে ২৪২ জন। গত বছর দ্বিতীয় স্থানে থাকা খুলনার ফুলতলা মিলিটারি কলেজিয়েট স্কুল এবার নেমে গেছে ৪র্থ স্থানে। তাদের ৫৩ জন পরীক্ষার্থীর সবাই উত্তীর্ণ হলেও জিপিএ-৫ পেয়েছে ২৫ জন।

পরপর দু'বার ৭ম স্থানে থাকা খুলনা পাবলিক কলেজ এবার উঠে এসেছে ৫ম স্থানে। তাদের ৩৭৪ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ৩৭১ জন উত্তীর্ণ হয়েছে। জিপিএ-৫ পেয়েছে ১৩৭ জন। গত বছরের মতো এবারও ৬ষ্ঠ স্থান ধরে রেখেছে কুষ্টিয়া সরকারি কলেজ। তাদের ১ হাজার ১০২ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ১ হাজার ৩৫ জন উত্তীর্ণ হয়েছে। জিপিএ-৫ পেয়েছে ২৩৭ জন। ৭ম স্থানে রয়েছে যশোর সরকারি এমএম কলেজ। গত বছর ১৮তম স্থানে থাকা এ কলেজটি এবার ১১ ধাপ এগিয়ে এসেছে। এ কলেজ থেকে ৩৫৮ জন পরীক্ষার্থী অংশ নিয়ে উত্তীর্ণ হয়েছে ৩০৫ জন, জিপিএ-৫ পেয়েছে ১১৫ জন। ৮ম স্থানে রয়েছে যশোর আকিজ কলেজিয়েট স্কুল। তাদের ১৫৯ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে উত্তীর্ণ হয়েছে ১৫৬ জন, জিপিএ-৫ পেয়েছে ৫৪ জন। গত বছর চার ধাপ নিচে নেমে যাওয়া যশোর আকিজ কলেজিয়েট স্কুলের অবস্থান ছিল ১০-এ। এবার ৯ম স্থানে থাকা খুলনার রূপসার বঙ্গবন্ধু কলেজ গতবছর ছিল ১৫তম অবস্থানে। তাদের ৪৭৮ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে পাস করেছে ৪৬৯ জন, জিপিএ-৫ পেয়েছে ৭২ জন। চার ধাপ এগিয়ে সাতক্ষীরা সরকারি কলেজ এবার রয়েছে ১০ স্থানে। তাদের ৭১৭ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে উত্তীর্ণ হয়েছে ৬৭৬ জন, জিপিএ-৫ পেয়েছে ৭৯ জন।

এ বছর ৭ ধাপ নিচে নেমে ১১তম স্থানে রয়েছে খুলনা সরকারি গার্লস কলেজ। তাদের ৬০০ ছাত্রীর মধ্যে উত্তীর্ণ হয়েছে ৫০৫ জন। জিপিএ-৫ পেয়েছে ১৩২ জন। খুলনা কলেজিয়েট গার্লস স্কুল এবার ১২তম স্থানে রয়েছে। তাদের ১৬৬ শিক্ষার্থীর মধ্যে ১৫৮ জন উত্তীর্ণ হয়েছে, জিপিএ-৫ পেয়েছে ৫০ জন। দুই ধাপ নেমে ১১ থেকে ১৩তম অবস্থানে রয়েছে খুলনার সরকারি পাইওনিয়র গার্লস কলেজ। তাদের ৭৫২ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে ৬৯৫ জন উত্তীর্ণ হয়েছে, জিপিএ-৫ পেয়েছে ৮৬ জন। একধাপ নিচে নেমে ১৪তম স্থানে থাকা বাগেরহাটের সরকারি পিসি কলেজের ৭০২ জন শিক্ষার্থীর ৬৩১ জন উত্তীর্ণ হয়েছে, জিপিএ-৫ পেয়েছে ৫৫ জন। ঝিনাইদহের শৈলকুপার মিয়া জিন্নাহ আলম কলেজ যশোর বোর্ডের ১৫তম অবস্থানে রয়েছে। তাদের ৫০২ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে ৪৫৪ জন উত্তীর্ণ হয়েছে, জিপিএ-৫ পেয়েছে ২৯ জন।

১৬তম অবস্থানে রয়েছে ঝিনাইদহের কেসি কলেজ। তাদের ৬২৫ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে ৫০৪ জন উত্তীর্ণ হয়েছে, জিপিএ-৫ পেয়েছে ৯১ জন। গত বছর ৮ম স্থানে থাকা চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজ এবার নেমে গেছে ১৭তম স্থানে। তাদের ১ হাজার ১০৮ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে উত্তীর্ণ হয়েছে ৯১১ জন, জিপিএ-৫ পেয়েছে ১০২ জন। ১৮তম স্থানে রয়েছে খুলনার আজম খান কমার্স কলেজ। তাদের ৪৫৭ শিক্ষার্থীর মধ্যে উত্তীর্ণ হয়েছে ৪০০ জন এবং জিপিএ-৫ পেয়েছে ৯ জন। ঝিনাইদহের সরকারি নুরুন্নাহার মহিলা কলেজ রয়েছে ১৯তম স্থানে। তাদের ৫২২ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে পাস করেছে ৪২১, জিপিএ-৫ পেয়েছে ৫০জন। আর গত বছরের মতো এবারও শীর্ষ ২০-এর সর্বনিম্ন অবস্থানে রয়েছে যশোরের হামিদপুর আল হেরা কলেজ। এ কলেজের ৪৪৬ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে পাস করেছে ৪১০ জন। ৩০ জন পেয়েছে জিপিএ-৫।

গত বছর সেরা ২০-এর তালিকায় থাকা ৫টি কলেজ এবার ছিটকে পড়েছে। এগুলো হলে, ৯ম স্থানে থাকা খুলনা বিএল কলেজ, ১২তম স্থানে থাকা যশোরের শার্শার ডা. আফিল উদ্দিন কলেজ, ১৬তম স্থানে থাকা মাগুরার বিহারীলাল শিকদার কলেজ, ১৭তম অবস্থানের

খুলনা নৌবাহিনী স্কুল অ্যান্ড কলেজ ও ১৯তম অবস্থানের যশোরের বিএএফ শাহীন কলেজ।

সেরা ২০-এর এই তালিকায় খুলনা জেলার ৮টি এবং যশোর ও ঝিনাইদহের ৪টি করে কলেজ রয়েছে। এছাড়া কুষ্টিয়া, চুয়াডাঙ্গা, বাগেরহাট ও সাতক্ষীরার ১টি করে কলেজ ঠাঁই পেয়েছে। এ বোর্ডের আওতাধীন ১০ জেলার মধ্যে মাগুরা, নড়াইল ও মেহেরপুর জেলার কোনো কলেজ ওই তালিকায় স্থান পায়নি।

সর্বশেষ আরো খবর -
font
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন
তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেছেন, 'জাতীয় সম্প্রচার নীতিমালায় কারো নৈতিক অধিকার খর্ব করা হয়নি।' আপনিও কি তাই মনে করেন?
2 + 8 =  
ফলাফল
আজকের নামাজের সময়সূচী
অক্টোবর - ১৪
ফজর৪:৩৯
যোহর১১:৪৫
আসর৩:৫৫
মাগরিব৫:৩৭
এশা৬:৪৮
সূর্যোদয় - ৫:৫৫সূর্যাস্ত - ০৫:৩২
archive
বছর : মাস :
The Daily Ittefaq
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: তাসমিমা হোসেন। উপদেষ্টা সম্পাদক হাবিবুর রহমান মিলন। ইত্তেফাক গ্রুপ অব পাবলিকেশন্স লিঃ-এর পক্ষে তারিন হোসেন কর্তৃক ৪০, কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ থেকে প্রকাশিত ও মুহিবুল আহসান কর্তৃক নিউ নেশন প্রিন্টিং প্রেস, কাজলারপাড়, ডেমরা রোড, ঢাকা-১২৩২ থেকে মুদ্রিত। কাওরান বাজার ফোন: পিএবিএক্স: ৭১২২৬৬০, ৮১৮৯৯৬০, বার্ত ফ্যাক্স: ৮১৮৯০১৭-৮, মফস্বল ফ্যাক্স : ৮১৮৯৩৮৪, বিজ্ঞাপন-ফোন: ৮১৮৯৯৭১, ৭১২২৬৬৪ ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭২, e-mail: [email protected], সার্কুলেশন ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭৩। www.ittefaq.com.bd, e-mail: [email protected]
Copyright The Daily Ittefaq © 2014 Developed By :