The Daily Ittefaq
ঢাকা, শনিবার, ০৯ নভেম্বর ২০১৩, ২৫ কার্তিক ১৪২০, ০৪ মোহাররম ১৪৩৪
সর্বশেষ সংবাদ খালেদা জিয়া 'গৃহবন্দী'! | কুমিল্লায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৮ | বিএনপির পাঁচ নেতাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ | কাল সকাল ৬টা থেকে বুধবার সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত ১৮ দলের হরতাল | হরতালের কারণে জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষার নতুন সময়সূচি

মায়ের অপেক্ষায় সজিব-শানু

অমর চাঁদ গুপ্ত অপু, ফুলবাড়ি (দিনাজপুর) সংবাদদাতা

সাভারের রানা প্লাজা ভবন ধসের ঘটনায় নিখোঁজ দিনাজপুরের ফুলবাড়ির বাসিন্দা গার্মেন্টস শ্রমিক গুলশানে জান্নাত শাবানার (২৯) সন্ধান আজও মেলেনি। দুর্ঘটনার পর ধ্বংসস্তূপের পাশে দীর্ঘদিন অপেক্ষায় থেকেও জীবিত অথবা মৃত কোন অবস্থাতেই শাবানাকে পাননি তার স্বামী আতাউর রহমান ও ভাই ওয়াসিম আলী। ফলে শূন্য হাতে ফিরতে হয়েছে তাদের। শাবানার দুই অবুঝ শিশু সন্তান সজিব (৭) ও শানু (৪) এখনও প্রহর গুনছে মায়ের অপেক্ষায়।

ফুলবাড়ি পৌর এলাকার পশ্চিম গৌরীপাড়া গ্রামের আবুল হোসেনের মেয়ে ও উপজেলার কাজিহাল ডাঙ্গা গ্রামের আতাউর রহমানের স্ত্রী গুলশানে জান্নাত শাবানা (২৯) সাভারে রানা প্লাজার ৬ষ্ঠ তলায় এক গার্মেন্টস কারখানার শ্রমিক ছিলেন। আর স্বামী আতাউর রহমান এনাম মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের সিকিউরিটি শাখায় কাজ করতেন। ঘটনার দিন সকালে দুই শিশু সন্তানকে বাড়িতে রেখে স্বামী-স্ত্রী দুইজনই বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান নিজ নিজ কর্মস্থলে। কিন্তু রানা প্লাজা ধসের পর শাবানা চাপা পড়েন ধ্বংসস্তূপের নিচে। দুর্ঘটনার পর পরই ঘটনাস্থলে ছুটে যান স্বামী আতাউর রহমান এবং ফুলবাড়ি থেকে শাবানার ভাই ওয়াসিম আলী। এর ক'দিন পরই শিশু সজিব ও শানুকে পাঠিয়ে দেয়া হয় তার দাদার বাড়ি ফুলবাড়ির কাজিহাল ডাঙ্গায়। এরপর থেকেই মায়ের অপেক্ষায় প্রহর গুণে চলেছে শিশু সজিব ও শানু।

শাবানার ভাই ওয়াসিম আলী বলেন, ঘটনার পর পরই সাভারে গিয়ে হাসাপাতাল, মর্গে খুঁজতে খুঁজতে হাঁপিয়ে গেছি। কিন্তু বোনের কোন সন্ধান পাইনি। জীবিত না হলেও তার লাশটা পেলেও বাড়ির লোকজন হয়তো কিছুটা সান্ত্বনা পেতো। শাবানা যে আর বেঁচে নেই এটা নিশ্চিত। তবে তার দুই অবুঝ সন্তান এখনও জানে না তাদের মা এ পৃথিবীতে নেই, আর কোনদিন তাদের কাছে ফিরে আসবে না। কোন নারীকণ্ঠ শুনলেই দুই ভাইবোন ছুটে যায় বাড়ির বাইরে মা এসেছে বলতে বলতে। শিশু দুইটির এ আর্তনাদ দেখে বাড়ির সকলের চোখের পানি ধরে রাখা কঠিন হয়ে পড়ে।

স্বামী আতাউর রহমান বলেন, শাবানার জন্য ছেলেমেয়েরা সবসময় কান্নাকাটি করে। এখনও তারা ভাবে তাদের মা তাদের জন্য খেলনাসহ বিভিন্ন খাবার নিয়ে বাড়ি আসবে। যাদের কারণে এরা মা হারা হলো, তার সোনার সংসার ভেঙ্গে চুরমার হয়ে গেল, তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি না হলে শাবানার মতো নিহত শ্রমিকদের আত্মা শান্তি পাবে না।

এই পাতার আরো খবর -
font
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন
যারা নির্বাচিত দুই নেত্রীকে বাদ দেয়ার কথা বলছেন, তারা কি নিয়মতান্ত্রিক গণতন্ত্রে বিশ্বাসী?
3 + 3 =  
ফলাফল
আজকের নামাজের সময়সূচী
নভেম্বর - ২৮
ফজর৫:০২
যোহর১১:৪৭
আসর৩:৩৫
মাগরিব৫:১৪
এশা৬:৩১
সূর্যোদয় - ৬:২২সূর্যাস্ত - ০৫:০৯
archive
বছর : মাস :
The Daily Ittefaq
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: তাসমিমা হোসেন। উপদেষ্টা সম্পাদক হাবিবুর রহমান মিলন। ইত্তেফাক গ্রুপ অব পাবলিকেশন্স লিঃ-এর পক্ষে তারিন হোসেন কর্তৃক ৪০, কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ থেকে প্রকাশিত ও মুহিবুল আহসান কর্তৃক নিউ নেশন প্রিন্টিং প্রেস, কাজলারপাড়, ডেমরা রোড, ঢাকা-১২৩২ থেকে মুদ্রিত। কাওরান বাজার ফোন: পিএবিএক্স: ৭১২২৬৬০, ৮১৮৯৯৬০, বার্ত ফ্যাক্স: ৮১৮৯০১৭-৮, মফস্বল ফ্যাক্স : ৮১৮৯৩৮৪, বিজ্ঞাপন-ফোন: ৮১৮৯৯৭১, ৭১২২৬৬৪ ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭২, e-mail: [email protected], সার্কুলেশন ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭৩। www.ittefaq.com.bd, e-mail: [email protected]
Copyright The Daily Ittefaq © 2014 Developed By :