The Daily Ittefaq
ঢাকা, রবিবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৩, ০১ পৌষ ১৪২০, ১১ সফর ১৪৩৫
সর্বশেষ সংবাদ ভিকারুন নিসা নূন স্কুলের ভর্তি লটারি ২০, ২১ ও ২২ ডিসেম্বর | জয়পুরহাটে সংঘর্ষে নিহত ৩ | ভোট হচ্ছে ১৪৬ আসনে, প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ৩৮৭ জন | সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচন: পররাষ্ট্রমন্ত্রী | লক্ষ্মীপুরে ছাত্রলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা | নির্বাচন নিয়ে তামাশা নজীরবিহীন : কাজী জাফর | ব্যারিস্টার আনিসুলের বাড়িতে ককটেল হামলা | ১৬ ডিসেম্বরের পর থেকে পাল্টা আঘাত : হানিফ | বিএনপি আসলে এপ্রিলে নির্বাচন : আনন্দবাজার পত্রিকা | সিলেটের কানাইঘটে যুবলীগ নেতা খুন | মিরপুরে পুলিশ খুন, স্ত্রী গ্রেফতার | লালমনিরহাটে সংঘর্ষে উপজেলা শিবির সভাপতিসহ নিহত ৪

যুদ্ধাপরাধীদের শাস্তি দ্রুত কার্যকরের দাবি শহীদ সন্তানদের

ইত্তেফাক রিপোর্ট

বুদ্ধিজীবীদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাবার আকুতি ছিল, শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাবার জন্য ছিল ফুল হাতে বিনম্র পদক্ষেপ। তবে সবকিছু ছাপিয়ে মানুষের চোখে-মুখে বিচ্ছুরিত হয়েছে কাদের মোল্লার ফাঁসি কার্যকর হবার পরে কলঙ্কমুক্তির আনন্দ। আনন্দ থাকলেও রায়ের বাজার বধ্যভূমিতে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে আসা মানুষ জানালেন, এখনই সব শেষ হয়ে যায়নি। একজন যুদ্ধাপরাধীর বিচার কার্যকর করার মধ্য দিয়ে যে নতুন যাত্রা শুরু করলো বাংলাদেশ সেভাবেই সকল যুদ্ধাপরাধীকে সাজা দিয়ে জাতিকে কলঙ্কমুক্তির দাবি জানালেন সবাই।

সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গেই রায়েরবাজার বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানদের শ্রদ্ধা জানাতে গতকাল মানুষের ঢল নামে। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে শহীদ বুদ্ধিজীবীদের পুণ্য স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে আসা জনসাধারণের ভিড়ে রায়েরবাজার বধ্যভূমির চারপাশ লোকে লোকারণ্য হয়ে ওঠে। ফুলে ফুলে ঢেকে যায় সমগ্র স্মৃতিসৌধ চত্বর।

যুদ্ধাপরাধীদের চলমান বিচার প্রক্রিয়ায় কাদের মোল্ল¬ার ফাঁসির রায় কার্যকর হবার ঐতিহাসিক প্রেক্ষাপটে জাতির সূর্য সন্তানদের বিনম্র শ্রদ্ধা জানাতে দলে দলে ছুটে আসেন মুক্তিযোদ্ধা, রাজনৈতিক নেতা-কর্মী, বিভিন্ন পেশাজীবী, সংস্কৃতি কর্মী, স্কুল-কলেজের ছাত্র-ছাত্রী আর শহীদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের স্বজনেরা। সকলের মুখে একটাই কথা, সকল যুদ্ধাপরাধীর বিচারের রায় কার্যকরের মধ্য দিয়ে ৪২ বছর ধরে জাতির ললাটে লেপ্টে থাকা কলঙ্ক তিলক মোচন করতে হবে।

ভোরে নৌ-পরিবহন ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী মুক্তিযোদ্ধা শাজাহান খান মুক্তিযোদ্ধাদের নিয়ে রায়েরবাজার বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। এরপর আওয়ামী লীগ ও এর বিভিন্ন অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের পক্ষ থেকে পুষ্পস্তবক অর্পণ শেষে একে একে বিভিন্ন সংগঠন ও সর্ব সাধারণের শ্রদ্ধা নিবেদন পর্ব শুরু হয়।

এর আগে অন্যান্য বছরের মতই শুক্রবার দিবাগত রাত ১২টা ১ মিনিটে মোমবাতি প্রজ্বলনের মধ্য দিয়ে শহীদ বুদ্ধিজীবীদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনের সূচনা হয়। আওয়ামী লীগ নেতা ও সাবেক এলজিআরডি প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক যুবলীগ নেতা-কর্মীদের সাথে নিয়ে এই কর্মসূচির সূচনা করেন। সকল বয়সের মানুষের হাতে মোমবাতির দ্যুতিতে আলোকোজ্জ্বল হয়ে ওঠে সমগ্র বধ্যভূমি এলাকা।

এ সময় জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেন, বাঙালি জাতিকে যে শকুনেরা ধ্বংস করে দিতে চায় আজ তারা আবার হামলা শুরু করেছে।' এদের বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিরোধ গড়ে তোলার আহ্বান জানান তিনি।

সকাল সাড়ে ৯টায় বুদ্ধিজীবী হত্যার সঙ্গে জড়িতদের ফাঁসির দাবিতে সৌধের সামনের রাস্তায় মানববন্ধন করে 'প্রজন্ম-৭১'। সৌধের পাশে অস্থায়ী মঞ্চ তৈরি করে মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড কাউন্সিল মুক্তিযুদ্ধকালীন সময়ের সংবাদপত্র, আলোকচিত্র এবং শহীদ বুদ্ধিজীবীদের ব্যবহার্য সামগ্রীর এক প্রদর্শনীর আয়োজন করে। একপাশে কেন্দ্রীয় খেলাঘর আসরের উদ্যোগে বুদ্ধিজীবী হত্যা দিবস ১৪ ডিসেম্বর ১৯৭১-এ ঠিক কি ঘটেছিল তার প্রতীকী উপস্থাপনার আয়োজন হয়। দেশ স্বাধীন হবার মাত্র দুইদিন আগে পাকিস্তানি বাহিনীর দোসর দেশীয় রাজাকার-আলবদর গোষ্ঠীর সহায়তায় দেশকে মেধাশূন্য করে দেয়ার ঘৃণ্য পরিকল্পনার অংশ হিসেবে নৃশংসভাবে হত্যা করা হয় তাদের। শাহাদাত্ বরণকারীদের চিত্র প্রদর্শনীরও আয়োজন করা হয় রায়েরবাজার বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে।

শহীদ বুদ্ধিজীবীদের মধ্যে রয়েছেন— অধ্যাপক মুনির চৌধুরী, ডা. আলিম চৌধুরী, অধ্যাপক মুনিরুজ্জামান, ড. ফজলে রাব্বী, সিরাজ উদ্দিন হোসেন, শহীদুল্লাহ কায়সার, অধ্যাপক জিসি দেব, জ্যোর্তিময় গুহ ঠাকুরতা, অধ্যাপক সন্তোষ ভট্টাচার্য, মোফাজ্জল হায়দার চৌধুরী, সাংবাদিক খন্দকার আবু তাহের, নিজামউদ্দিন আহমেদ, এসএ মান্নান (লাডু ভাই), এ এন এম গোলাম মোস্তফা, সৈয়দ নাজমুল হক, সেলিনা পারভিনসহ আরো অনেকে।

শহীদদের সন্তানরা যা বললেন

একাত্তরের নৃশংসতার জন্য প্রথম ব্যক্তি হিসেবে আব্দুল কাদের মোল্লার মৃত্যুদণ্ড কার্যকরের দুই দিন পর শনিবার বুদ্ধিজীবী দিবসে রায়েরবাজার বধ্যভূমিতে শ্রদ্ধা জানাতে এসে নিজেদের প্রত্যাশার কথা জানান তারা।

শহীদ শহীদুল্লাহ কায়সারের মেয়ে শমী কায়সার বলেন, কাদের মোল্লার সাজা দিয়েই যেন এ প্রক্রিয়া শেষ না হয়। একে একে সব যুদ্ধাপরাধীর সাজা বাস্তবায়ন করা হোক— এটাই প্রত্যাশা।

শহীদ ডা. আলীম চৌধুরীর মেয়ে নুজহাত চৌধুরী বলেন, কাদের মোল্লার সাজা একটি যুগান্তকারী ঘটনা। বাংলাদেশের মানুষের কাছে এবারের বুদ্ধিজীবী দিবস একটি নতুন মাত্রা নিয়ে উপস্থিত হয়েছে। যারা এদেশের বিরোধিতা করেছিল, যারা মানুষ হত্যায় জড়িত, যারা বুদ্ধিজীবীদের হত্যা করেছিল, তাদের সকলেরই বিচার করতে হবে।

শহীদ মুনীর চৌধুরীর ছেলে আসিফ মুনীর বলেন, যারা ধ্বংসাত্মক রাজনীতির মাধ্যমে মানুষ পুড়িয়ে মারছে, তাদের হাত থেকেও দেশকে রক্ষা করতে হবে।

এছাড়া, গণজাগরণ মঞ্চের মুখপাত্র ডা. ইমরান এইচ সরকার বলেন, শুধু কাদের মোল্লার বিচার কার্যকরের মধ্য দিয়ে এ বিচার শেষ হয়ে যায়নি। এটি চলমান প্রক্রিয়া। আমাদের দাবি সকল যুদ্ধাপরাধীর বিচার দ্রুত সম্পন্ন করা এবং জামায়াতে ইসলামীর রাজনীতি নিষিদ্ধ করা।

এদিকে, গতকাল আরো যারা ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান তারা হলেন- বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জেএসডি) প্রধান আ স ম আব্দুর রব, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক প্রমুখ।

যেসব সংগঠন পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করেছে: বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, সিপিবি, জাতীয় পার্টি (জেপি), ছাত্রলীগ, প্রজন্ম-৭১, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট, উদীচী শিল্পী গোষ্ঠী, আইন ও সালিস কেন্দ্র, ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি, বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স এসোসিয়েশন, যুব মহিলা লীগ, ইডেন কলেজের ছাত্রী ও শিক্ষক বৃন্দ, মোহাম্মদপুর উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়, রাজারবাগ মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণ সমবায় সমিতি, বঙ্গবন্ধু পরিষদ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, যুব মৈত্রী, জাফরাবাদ আদর্শ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, চেতনা বিকাশ কেন্দ্র, মোহাম্মদপুর কেন্দ্রীয় বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ, কেন্দ্রীয় খেলাঘর আসর, আমরা মুক্তিযোদ্ধার সন্তান, রিকশা মালিক সমিতি, লালমাটিয়া মহিলা কলেজ, মোহাম্মদপুর থানা কৃষক লীগ, নাগরিক উদ্যোগ, আলহাজ্ব মকবুল হোসেন কলেজ, ডা. মালিকা কলেজ, মুক্তিযোদ্ধা ঐক্য পরিষদ, বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগ, টিএনটি কর্মচারী ফেডারেশন ইউনিট, রেল শ্রমিক লীগ প্রভৃতি।

এই পাতার আরো খবর -
font
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন
দলের পক্ষে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান বলেছেন, 'নাটক করার জন্যই আওয়ামী লীগ সংলাপ চালিয়ে যাচ্ছে'। আপনিও কি তাই মনে করেন?
2 + 1 =  
ফলাফল
আজকের নামাজের সময়সূচী
নভেম্বর - ১১
ফজর৫:১০
যোহর১১:৫২
আসর৩:৩৭
মাগরিব৫:১৬
এশা৬:৩৩
সূর্যোদয় - ৬:৩০সূর্যাস্ত - ০৫:১১
archive
বছর : মাস :
The Daily Ittefaq
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: তাসমিমা হোসেন। উপদেষ্টা সম্পাদক হাবিবুর রহমান মিলন। ইত্তেফাক গ্রুপ অব পাবলিকেশন্স লিঃ-এর পক্ষে তারিন হোসেন কর্তৃক ৪০, কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ থেকে প্রকাশিত ও মুহিবুল আহসান কর্তৃক নিউ নেশন প্রিন্টিং প্রেস, কাজলারপাড়, ডেমরা রোড, ঢাকা-১২৩২ থেকে মুদ্রিত। কাওরান বাজার ফোন: পিএবিএক্স: ৭১২২৬৬০, ৮১৮৯৯৬০, বার্ত ফ্যাক্স: ৮১৮৯০১৭-৮, মফস্বল ফ্যাক্স : ৮১৮৯৩৮৪, বিজ্ঞাপন-ফোন: ৮১৮৯৯৭১, ৭১২২৬৬৪ ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭২, e-mail: [email protected], সার্কুলেশন ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭৩। www.ittefaq.com.bd, e-mail: [email protected]
Copyright The Daily Ittefaq © 2014 Developed By :