The Daily Ittefaq
ঢাকা, রবিবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৩, ০১ পৌষ ১৪২০, ১১ সফর ১৪৩৫
সর্বশেষ সংবাদ ভিকারুন নিসা নূন স্কুলের ভর্তি লটারি ২০, ২১ ও ২২ ডিসেম্বর | জয়পুরহাটে সংঘর্ষে নিহত ৩ | ভোট হচ্ছে ১৪৬ আসনে, প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ৩৮৭ জন | সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচন: পররাষ্ট্রমন্ত্রী | লক্ষ্মীপুরে ছাত্রলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা | নির্বাচন নিয়ে তামাশা নজীরবিহীন : কাজী জাফর | ব্যারিস্টার আনিসুলের বাড়িতে ককটেল হামলা | ১৬ ডিসেম্বরের পর থেকে পাল্টা আঘাত : হানিফ | বিএনপি আসলে এপ্রিলে নির্বাচন : আনন্দবাজার পত্রিকা | সিলেটের কানাইঘটে যুবলীগ নেতা খুন | মিরপুরে পুলিশ খুন, স্ত্রী গ্রেফতার | লালমনিরহাটে সংঘর্ষে উপজেলা শিবির সভাপতিসহ নিহত ৪

কোম্পানিগঞ্জ ও নীলফামারীতে ব্যাপক সংঘর্ষ, নিহত ১১

আসাদুজ্জামান নূর এমপির গাড়িবহরে জামায়াতের হামলা

ইত্তেফাক ডেস্ক

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলায় গতকাল শনিবার পুলিশের সঙ্গে ছাত্র শিবিরের নেতাকর্মীদের ব্যাপক সংঘর্ষ হয়েছে। সংঘর্ষে তিনজন নিহতের খবর নিশ্চিত করেছেন জেলা পুলিশ সুপার আনিসুর রহমান। তারা হলেন, মতিউর রহমান সজীব, সাইফুল ইসলাম ও রাসেল। তবে গুলিতে রায়হান, আব্দুস ছাত্তারসহ ছয় শিবির কর্মী নিহত হয়েছে বলে বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে। জামায়াতের দাবি নিহতের সংখ্যা আরো বেশি। শহরের গুরুত্বপূর্ণ ১০টি সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে আগুন দিয়েছে শিবির কর্মীরা।

এদিকে নীলফামারী-২ আসনের এমপি আসাদুজ্জামান নূরের গাড়িবহরে হামলা চালিয়েছে জামায়াত-শিবিরের ক্যাডাররা। এ ঘটনার জের ধরে পুলিশ ও আওয়ামী লীগের সঙ্গে বিএনপি-জামায়াতের ব্যাপক সংঘর্ষ হয়েছে। এসময় গুলিতে টুপামারী ইউনিয়ন কৃষক লীগ সভাপতি খোরশেদ চৌধুরী, যুবলীগ নেতা ফরহাদ আলম, ছাত্রলীগ নেতা মুরাদ হোসেন, যুবলীগ নেতা লেবু মিয়া ও বিএনপি কর্মী আবু বকর সিদ্দিক নিহত হয়েছেন।

আমাদের প্রতিনিধি ও সংবাদ-দাতাদের পাঠানো খবর:

কোম্পানীগঞ্জ (নোয়াখালী): বিকাল ৪টার দিকে কোম্পানীগঞ্জ মডেল হাই স্কুল ও কেজি স্কুল রোড থেকে ছাত্রশিবির মিছিল বের করে উপজেলা মসজিদের সামনে এলে পুলিশ তাদেরকে বাধা দেয়। এক পর্যায়ে শিবির কর্মী হেলালের নেতৃত্বে মিছিল থেকে পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছুঁড়লে পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়। এতে বামনীর নুর ইসলামের ছেলে সাইফুল ইসলাম (২৩), সিরাজপুর ইউনিয়নের চাঁড়াভিটির সফি উল্যাহর ছেলে রাসেল (২০) ও বসুরহাট পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ডের নয়ন হাজী বাড়ির আবদুল রহমানের ছেলে সজিব (২৪) নিহত হয়েছেন। নিহত বাকি তিনজনের পরিচয় এখনো নিশ্চিত করা যায়নি। তবে জামায়াতের নেতারা দাবি করেছেন, নিহতের সংখ্যা আরো বেশি। আহত পুলিশ সদস্য বশির, রাসেল ও রাজুকে প্রথমে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়। পরে তাদের নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। গুলিবিদ্ধ আহত শিবির কর্মীদের গোপনে চিকিত্সা দেয়া হচ্ছে।

পরে বিক্ষুব্ধ শিবির কর্মীরা কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা ভূমি অফিস, বিআরডিবি ভবন, পোস্ট অফিস, সহকারী স্যাটেলমেন্ট অফিস, পরিবার পরিকল্পনা, জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলী, আনসার অফিস, উচ্চ মাধ্যমিক ইঞ্জিনিয়ারিং অফিস-এ আগুন ধরিয়ে দেয়। ফায়ার সার্ভিস এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। এছাড়াও শিবির কর্মীরা ২৫-৩০টি দোকানে ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগ করে। এ সময় পুলিশ ১০/১২টি ককটেল উদ্ধার করে।

এ ব্যাপারে কোম্পানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) জানান, শিবির ক্যাডার হেলাল প্রথমে পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি করলে পুলিশ পাল্টা গুলি ছুঁড়ে।

রাতে এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত নোয়াখালী জেলা পুলিশ সুপার আনিসুর রহমান পিপিএম এর নেতৃত্বে র্যাব, বিজিবি, পুলিশ, আনসার বাহিনীর যৌথ অভিযান চলছিল।

পুলিশ সুপার আনিছুর রহমান জানান, শিবির কর্মীরা পুলিশের উপর অতর্কিত গুলি বর্ষণ করলে পুলিশ আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি ছুঁড়ে। এ সময় পুলিশ শিবিরের ২০-২৫ জন নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করে। এ ঘটনার প্রতিবাদে সন্ধ্যা পৌনে ৬টায় যুবলীগ-ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা কোম্পানীগঞ্জ মডেল হাইস্কুল, কোম্পানীগঞ্জ কে.জি স্কুল-এ অগ্নিসংযোগ করে।

নীলফামারী: এমপি আসাদুজ্জামান নূরের গাড়ি বহরটি বিকাল সাড়ে চারটার দিকে রামগঞ্জ বাজারের কাছে আগে থেকেই ওত পেতে থাকা কয়েকশ' জামায়াত-শিবির কর্মীদের হামলার মুখে পড়ে। শিবির কর্মীরা লাঠিসোটা ও ছোরা নিয়ে গাড়িবহরে হঠাত্ হামলা চালায়।

আসাদুজ্জামান নূর গত বৃহস্পতিবার জামায়াত-শিবির কর্মীদের দেয়া আগুনে পুড়ে যাওয়া পলাশবাড়ী বাজার ও লক্ষ্মীচাপ বাজারের ক্ষতিগ্রস্ত দোকান পরিদর্শন করে রামগঞ্জ হয়ে নীলফামারী শহরে আসছিলেন। এসময় তার বহরে থাকা অন্তত ৩০টি মোটর সাইকেল ভাংচুর করে আগুন ধরিয়ে দেয় জামায়াত-শিবির কর্মীরা। এসময় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের সঙ্গে জামায়াত-বিএনপি কর্মীদের ব্যাপক সংঘর্ষ বাধে। এক ঘন্টারও বেশি সময় ধরে চলা ধাওয়া, পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষে গোটা এলাকা রণক্ষেত্রে পরিণত হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ ও বিজিবি সদস্যরা টিয়ারশেল ও গুলি বর্ষণ করে। এসময় নূরের গাড়ি বহরে থাকা টুপামারী ইউনিয়ন সভাপতি খোরশেদ চৌধুরী ও যুবলীগ নেতা ফরহাম আলম নিহত হন। মারা যান বিএনপি নেতা আবু বকর সিদ্দিক। সংঘর্ষে জেলা যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক শাহিদ মাহমুদ ও কৃষক লীগ সাধারণ সম্পাদক ইয়াহিয়া আবিদসহ বিএনপি-জামায়াতের প্রায় শতাধিক নেতাকর্মী আহত হয়েছে। পুলিশের প্রায় ১০ জন আহত হয়েছে ।

এ ব্যাপারে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সফিউল আলমের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। অপর দিকে বিক্ষুব্ধ আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা জামায়াত নেতা মনিরুজ্জামান মন্টুর মালিকানাধীন ওষুধের দোকান ও মোটর সাইকেল শোরুম ভাংচুর করে।

এই পাতার আরো খবর -
font
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন
দলের পক্ষে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান বলেছেন, 'নাটক করার জন্যই আওয়ামী লীগ সংলাপ চালিয়ে যাচ্ছে'। আপনিও কি তাই মনে করেন?
2 + 6 =  
ফলাফল
আজকের নামাজের সময়সূচী
অক্টোবর - ১৯
ফজর৪:৪২
যোহর১১:৪৪
আসর৩:৫২
মাগরিব৫:৩৩
এশা৬:৪৪
সূর্যোদয় - ৫:৫৭সূর্যাস্ত - ০৫:২৮
archive
বছর : মাস :
The Daily Ittefaq
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: তাসমিমা হোসেন। উপদেষ্টা সম্পাদক হাবিবুর রহমান মিলন। ইত্তেফাক গ্রুপ অব পাবলিকেশন্স লিঃ-এর পক্ষে তারিন হোসেন কর্তৃক ৪০, কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ থেকে প্রকাশিত ও মুহিবুল আহসান কর্তৃক নিউ নেশন প্রিন্টিং প্রেস, কাজলারপাড়, ডেমরা রোড, ঢাকা-১২৩২ থেকে মুদ্রিত। কাওরান বাজার ফোন: পিএবিএক্স: ৭১২২৬৬০, ৮১৮৯৯৬০, বার্ত ফ্যাক্স: ৮১৮৯০১৭-৮, মফস্বল ফ্যাক্স : ৮১৮৯৩৮৪, বিজ্ঞাপন-ফোন: ৮১৮৯৯৭১, ৭১২২৬৬৪ ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭২, e-mail: [email protected], সার্কুলেশন ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭৩। www.ittefaq.com.bd, e-mail: [email protected]
Copyright The Daily Ittefaq © 2014 Developed By :