The Daily Ittefaq
ঢাকা, সোমবার, ৩০ ডিসেম্বর ২০১৩, ১৬ পৌষ ১৪২০, ২৬ সফর ১৪৩৫
সর্বশেষ সংবাদ শমসের মবিন চৌধুরী আটক | বুধবার সকাল ছয়টা থেকে লাগাতার অবরোধের ডাক ১৮ দলের | কাল ব্যাংক ও পুঁজিবাজার বন্ধ | বিএনপি নেতা শমসের মবিন চৌধুরী আটক | ২ দিনের রিমান্ডে হাফিজ | বিরোধী দলের আন্দোলনের মূল লক্ষ্য মানুষ হত্যা: প্রধানমন্ত্রী | ছাড়া পেলেন সেলিমা হীরা হালিমা | ৩১ ডিসেম্বর রাতে সভা-সমাবেশ নিষিদ্ধ : ডিএমপি | রাজশাহীতে ৪৪টি তাজা ককটেল ও সাড়ে ৪ কেজি গানপাউডার উদ্ধার | মোহাম্মদপুরে ২০০ হাতবোমাসহ আটক ৩ | প্রাথমিকে পাস ৯৮.৫৮

ঢাকা বোর্ডের সেরা ৮ স্কুল

ইত্তেফাক রিপোর্ট

জেএসসি পরীক্ষায় এবার ঢাকা বোর্ডের সেরা ১০ স্কুলের মধ্যে তৃতীয় অবস্থানে আছে রাজউক উত্তরা মডেল স্কুল এন্ড কলেজ। এবার স্কুলটির ৪১৭ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিয়ে শতভাগ পাস করার পাশাপাশি জিপিএ-৫ পেয়েছে ৪১২ জন। কলেজের অধ্যক্ষ ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ইমামুল হুদা বলেন, শিক্ষার্থীদের সংখ্যার দিক থেকে পিছিয়ে পড়েছে রাজউক কলেজ। তবে রেজাল্টের দিক থেকে আমি মনে করি রাজউকই সেরা। গত তিনবছর ধরে রাজউক জেএসসিতে সারাদেশে তিনবার প্রথম স্থান অর্জন করেছে। এবারই সে স্থান থেকে সরে গেল প্রতিষ্ঠানটি। ফলাফল উপলক্ষে সকাল থেকেই শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা কলেজে জড়ো হতে থাকলেও দুপুরের পর ফলাফল শুনে শিক্ষার্থীরা খানিকটা হতাশ হয়ে পড়ে। দুপুর দু'টার দিকে কলেজের অধ্যক্ষ নিজেই নেমে আসেন শিক্ষার্থীদের মাঝে। তিনি মাইকে ঘোষণা দেন, রাজউক পিছিয়ে যায়নি। তোমরা ফলাফলের দিক থেকে প্রথম স্থানেই আছো। মোট ৪১৭ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে তোমরা ৪১২ জন এ প্লাস পেয়েছো। বাকি যে পাঁচজন এ প্লাস পাওনি তাদের ব্যবধান খুবই সামান্য। সুতরাং লেখাপড়ার বিষয়ে তোমরা অনেক উপরে। রেজাল্টে একটি ইতিহাস গড়েছো তোমরা। আমরা শুধু সংখ্যায় পিছিয়ে গেছি। অধ্যক্ষের এমন বক্তব্যের পর প্রাণ ফিরে পায় পুরো রাজউক কলেজ চত্বর। উল্লাসে ফেটে পড়ে শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা।

চতুর্থ মাইলস্টোন স্কুল এন্ড কলেজ

তালিকায় চতুর্থ স্থানে আছে রাজধানী উত্তরার মাইলস্টোন স্কুল এন্ড কলেজ। এ বছর মাইলস্টোন কলেজ থেকে বাংলা ও ইংরেজি মাধ্যমে ৯৫৮ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে সবাই উত্তীর্ণ হয়েছে। জিপিএ-৫ পেয়েছে ৮৭৭ জন। কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মোঃ সহিদুল ইসলাম এবং উপাধ্যক্ষ লে. কর্নেল এম কামালউদ্দীন ভূঁইয়া (অব.) বলেন, শিক্ষক-ছাত্রছাত্রী-অভিভাবকদের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় আমরা আশানুরূপ সফল হতে পেরেছি। নিয়মিত ক্লাস এবং পরীক্ষার মাধ্যমে ছাত্রছাত্রীদের শ্রেণিমুখী রাখার প্রচেষ্টা ছিল সারাবছরই; যা পরীক্ষার্থীদের মানোন্নয়নে ভূমিকা রেখেছে। মূলত শিক্ষার্থীদের কঠোর পরিশ্রমের পাশাপাশি শিক্ষক-শিক্ষিকা এবং অভিভাবকদের দায়িত্বশীলতা আমাদের বরাবরের মতো সফল হতে সহায়তা করছে। আমরা আগামীতে আরও ভালো করার প্রত্যয় ব্যক্ত করছি।

পঞ্চম মোহাম্মদপুর প্রিপারেটরি উচ্চ মাধ্যমিক স্কুল এন্ড কলেজ

জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) পরীক্ষায় মোহাম্মদপুর প্রিপারেটরি উচ্চ মাধ্যমিক স্কুল এন্ড কলেজ ঢাকা বোর্ডে সম্মিলিত মেধা তালিকায় ৫ম স্থান অধিকার করেছে। তাদের পাসের হার শতভাগ। গতবছরও তাদের পাসের হার শতভাগ হলেও মেধাতালিকায় স্থান ছিল ২০তম। এ বছর ফলাফলে শিক্ষক, অভিভাবক ও শিক্ষার্থীরা সবাই খুশি। প্রিন্সিপাল মো. বেলায়েত হুসেন বলেন, আমাদের স্কুলে (বালক) ইংরেজি মাধ্যম, বাংলা মাধ্যম ও (বালিকা) ইংরেজি মাধ্যম ও বাংলা মাধ্যম মোট চার মাধ্যম মিলে পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ছিল ৫০৭ জন। এরমধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ৪৪৪ জন। 'এ' পেয়েছে ৫৯ জন, বাকি ৩ জন পেয়েছে 'এ' মাইনাস। তিনি আরো বলেন, দেশের সামাজিক, রাজনৈতিক কারণের পরেও অতিরিক্ত ক্লাস নিয়ে সিলেবাস শেষ করা হয়েছে। শিক্ষার্থীদের বছরে চারটি পরীক্ষা নেয়া হয়। এরমধ্যে হাফ-ইয়ারলি পরীক্ষার পর যেসব শিক্ষার্থী ৮০ ভাগ নম্বর পায়নি তাদের অভিভাবকদের নিয়ে মিটিং করে জানার চেষ্টা করা হয় 'তারা কেন ফলাফল খারাপ করলো'। এরপর তাদের সমস্যা চিহ্নিত করে তা সমাধানের চেষ্টা করা হয়।

ষষ্ঠ ঢাকা রেসিডেনসিয়াল মডেল কলেজ

জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) পরীক্ষায় ঢাকা শিক্ষা বোর্ডে সম্মিলিত মেধাতালিকায় ৬ষ্ঠ স্থান অধিকার করেছে রেসিডেনসিয়াল মডেল কলেজের ছাত্ররা। তাদের পাসের হার শতভাগ। এ বছর ৩৯৩ পরীক্ষার্থীর মধ্যে ৩৭৫ জনই গোল্ডেন এ প্লাস পেয়েছে। ভালো ফলাফলের কারণ জানতে চাইলে কলেজের অধ্যক্ষ ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. আসাদুজ্জামান সুবহানী বলেন, প্রতিষ্ঠানের দক্ষ শিক্ষকমন্ডলীর আধুনিক ও আন্তরিক পাঠদান, অভিভাবকদের সচেতনতা ও শিক্ষার্থীদের অধ্যবস্যায়—এই বিষয়গুলোই ভালো ফলাফলের পেছনে বিশেষ ভূমিকা রাখে। গতবছরের চেয়ে এবছর শিক্ষার্থীরা ফলাফল ভালো করেছে বলে জানান তিনি। জেএসসির ফলাফলে শিক্ষার্থী, শিক্ষক ও অভিভাবকরা আনন্দিত।

সপ্তম শামসুল হক খান স্কুল এন্ড কলেজ

জেএসসিতে এবছর সপ্তম হয়েছে শামসুল হক খান স্কুল এন্ড কলেজ। এই স্কুলের ৮৩৭ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে ৮৩৭ জনই উত্তীর্ণ হয়েছে। জিপিএ-৫ পেয়েছে ৬৮১ জন। অধ্যক্ষ বলেন, শিক্ষক-শিক্ষার্থী-অভিভাবকদের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় এ ফলাফল অর্জন সম্ভব হয়েছে। আগামিতে আরো ভালো করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন তিনি।

অষ্টম মতিঝিল গভঃ গার্লস হাইস্কুল

দেশসেরা স্কুলের তালিকায় অষ্টম অবস্থানে আছে মতিঝিল গভঃ গার্লস হাইস্কুল। এই স্কুল থেকে ৩০০ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষা দিয়ে সবাই উত্তীর্ণ হয়েছে। জিপিএ-৫ পেয়েছে ২৭৯ জন শিক্ষার্থী।

নবম বীরশ্রেষ্ঠ নূর মোহাম্মদ পাবলিক কলেজ

তালিকায় নবম স্থানে রয়েছে রাজধানীর বীরশ্রেষ্ঠ নূর মোহাম্মদ পাবলিক কলেজ। এ প্রতিষ্ঠানের শতভাগ শিক্ষার্থী উত্তীর্ণ হয়েছে। এ বছর বিদ্যালয়টি থেকে পরীক্ষায় অংশ নিয়েছিল ৩০৫ জন। জিপিএ-৫ পেয়েছে ২৭৯ জন। অধ্যক্ষ বললেন, স্কুলের দূরদৃষ্টিসম্পন্ন বোর্ড অব গভর্নরস, সুদক্ষ শিক্ষা প্রশাসনের দিক-নির্দেশনা, ছাত্রদের পাঠ নিয়মিত মনিটরিং ও একাধিক মডেল টেষ্ট গ্রহণ এবছর প্রশংসনীয় ফলাফল অর্জনে সহায়ক হয়েছে। অভিভাবকদের সচেতনতা ও ছাত্রদের একনিষ্ঠ অধ্যয়নও এই ফলাফলের পেছনে বিশেষ অবদান রেখেছে বলে তিনি মন্তব্য করেন।

দশম ময়মনসিংহ বিদ্যাময়ী সরকারি উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি জানান, ঢাকা বোর্ডে জেএসসি পরীক্ষায় ময়মনসিংহ বিদ্যাময়ী সরকারি উচ্চ বালিকা বিদ্যালয় ১০ম স্থান অর্জন করেছে। ময়মনসিংহ বিদ্যাময়ী সরকারি উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ে ২৯৫ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ২৮১ জন। পাসের হার শতভাগ। এ ভাল ফলাফলের ব্যাপারে ময়মনসিংহ বিদ্যাময়ী সরকারি উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক শিরিন বানু জানান, শিক্ষার্থী-শিক্ষকদের কঠোর পরিশ্রম, অভিভাবকদের ও প্রশাসনিক সার্বিক সহযোগিতায় এ ভাল ফলাফল অর্জন সম্ভব হয়েছে।

এছাড়া ১১ থেকে ২০তম স্থান অর্জনকারী সেরা প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে রয়েছে যথাক্রমে: ময়মনসিংহ জিলা স্কুল, শহীদ বীর উত্তম লে. আনোয়ার গার্লস কলেজ, মতিঝিল গভ: বয়েজ হাইস্কুল, হলিক্রস গার্লস হাইস্কুল, মনিপুর হাইস্কুল, রাজধানীর সেন্ট জোসেফ হাইস্কুল, টাঙ্গাইলের বিন্দুবাসিনী সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়, রাজধানীর উদয়ন বিদ্যালয়, টঙ্গীর সফিউদ্দীন সরকার একাডেমি এবং টাঙ্গাইলের বিন্দুবাসিনী সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়।

font
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, 'এক এগারোর কুশলিবরা আবার সক্রিয় ও সোচ্চার হয়েছেন।' আপনিও কি তাই মনে করেন?
2 + 5 =  
ফলাফল
আজকের নামাজের সময়সূচী
নভেম্বর - ২৩
ফজর৪:৫৯
যোহর১১:৪৫
আসর৩:৩৬
মাগরিব৫:১৫
এশা৬:৩১
সূর্যোদয় - ৬:১৮সূর্যাস্ত - ০৫:১০
archive
বছর : মাস :
The Daily Ittefaq
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: তাসমিমা হোসেন। উপদেষ্টা সম্পাদক হাবিবুর রহমান মিলন। ইত্তেফাক গ্রুপ অব পাবলিকেশন্স লিঃ-এর পক্ষে তারিন হোসেন কর্তৃক ৪০, কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ থেকে প্রকাশিত ও মুহিবুল আহসান কর্তৃক নিউ নেশন প্রিন্টিং প্রেস, কাজলারপাড়, ডেমরা রোড, ঢাকা-১২৩২ থেকে মুদ্রিত। কাওরান বাজার ফোন: পিএবিএক্স: ৭১২২৬৬০, ৮১৮৯৯৬০, বার্ত ফ্যাক্স: ৮১৮৯০১৭-৮, মফস্বল ফ্যাক্স : ৮১৮৯৩৮৪, বিজ্ঞাপন-ফোন: ৮১৮৯৯৭১, ৭১২২৬৬৪ ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭২, e-mail: [email protected], সার্কুলেশন ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭৩। www.ittefaq.com.bd, e-mail: [email protected]
Copyright The Daily Ittefaq © 2014 Developed By :