The Daily Ittefaq
ঢাকা, সোমবার, ৩০ ডিসেম্বর ২০১৩, ১৬ পৌষ ১৪২০, ২৬ সফর ১৪৩৫
সর্বশেষ সংবাদ শমসের মবিন চৌধুরী আটক | বুধবার সকাল ছয়টা থেকে লাগাতার অবরোধের ডাক ১৮ দলের | কাল ব্যাংক ও পুঁজিবাজার বন্ধ | বিএনপি নেতা শমসের মবিন চৌধুরী আটক | ২ দিনের রিমান্ডে হাফিজ | বিরোধী দলের আন্দোলনের মূল লক্ষ্য মানুষ হত্যা: প্রধানমন্ত্রী | ছাড়া পেলেন সেলিমা হীরা হালিমা | ৩১ ডিসেম্বর রাতে সভা-সমাবেশ নিষিদ্ধ : ডিএমপি | রাজশাহীতে ৪৪টি তাজা ককটেল ও সাড়ে ৪ কেজি গানপাউডার উদ্ধার | মোহাম্মদপুরে ২০০ হাতবোমাসহ আটক ৩ | প্রাথমিকে পাস ৯৮.৫৮

ফল বিশ্লেষণ

ঐচ্ছিক বিষয় যোগ হওয়ায় চার গুণ বেড়েছে জিপিএ ৫

ইত্তেফাক রিপোর্ট

এ বছর জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষা প্রথমবারের মতো রাজনৈতিক অস্থিরতায় অনুষ্ঠিত হয়। একের পর এক পরীক্ষা স্থগিত করে নতুন সূচি ঘোষণা। এ নিয়ে নানা শংকায় ছিল কোমলমতি শিক্ষার্থীরা। এক বিষয়ের পরীক্ষার প্রস্তুতি নিলেও একদিন পরে পরীক্ষা দিতে হয়েছে অন্য বিষয়ের। ফলে ফল খারাপ হতে পারে এমন আশংকা ছিল শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের।

কিন্তু গত বছরের তুলনায় এ বছরের ফলে বেশকিছু ইতিবাচক লক্ষণ প্রকাশ পেয়েছে। শতকরা পাসের হার বেড়ে হয়েছে ২ দশমিক ৯ শতাংশ, জিপিএ ৫ প্রাপ্তি বেড়েছে ১ লাখ ২৫ হাজার ২৬৬ জন। মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা বাড়ার পাশাপাশি অনুত্তীর্ণ পরীক্ষার্থীর হার কমেছে। শতভাগ পাস করা প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা বাড়ার পাশাপাশি শূন্য পাস করা প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা কমেছে।

কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক আবুল কাসেম বলেন, এবছর গার্হস্থ্য অর্থনীতি ও কৃষি বিষয়ে ঐচ্ছিক বিষয়ের নম্বর যুক্ত হওয়ায় পাসের হার ও জিপিএ-৪ এর হার চারগুণ বেড়েছে। তিনি বলেন, ভালো ফল করার পেছনে কাজ করেছে শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা।

প্রায় একই মত দিয়েছেন ঢাকা শিক্ষাবোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক তাসলিমা বেগম। তিনি বলেন, এবারই প্রথম ঐচ্ছিক বিষয় যোগ হয়েছে। ঐচ্ছিক বিষয়ে শিক্ষার্থী ৪০ নম্বরের বেশি যা পেয়েছে তা-ই যোগ হয়েছে মোট নম্বরের সাথে। এ কারণে পাসের হার ও জিপিএ-৫ বেড়েছে।

তবে রাজধানীর এ কে উচ্চ বিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ সেলিম ভুঁইয়া বলেন, শিক্ষাবোর্ডগুলো থেকে খাতা দেখার জন্য পর্যাপ্ত সময় দেয়া হয়নি। খাতায় প্রশ্নের উত্তর থাকলেই যথাযথ মূল্যায়ন না করেই নম্বর দেয়া হয়েছে। বোর্ড থেকে এ ধরনের অলিখিত নির্দেশনাও ছিল বলে তিনি অভিযোগ করেন।

দুর্ভোগের মধ্যে পরীক্ষা: এবারের জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষা রাজনৈতিক অস্থিরতায় অনুষ্ঠিত হয়েছে। ফলে নানা শংকায় ছিল তারা। ৪ নভেম্বর পরীক্ষা শুরুর নির্ধারিত তারিখ থাকলেও বিরোধী দলের কর্মসূচির কারণে তা শুরু হয় ৭ নভেম্বর। ফলে নির্ধারিত সময়সূচি অনুযায়ী পরীক্ষা শুরু করা যায়নি। এছাড়া রাজনৈতিক কর্মসূচির কারণে ১১ দিনের মধ্যে ৬ দিনের জেএসসিতে ৯টি এবং জেডিসিতে ৮টি মোট ১৭টি পত্রের পরীক্ষার সময়সূচি পরিবর্তন করতে হয়েছে। এতে শিক্ষার্থীদের স্বাভাবিক লেখাপড়ায় বিঘ্নিত হয়েছে। এক বিষয়ের পরীক্ষার প্রস্তুতি নিলেও একদিন পরে পরীক্ষা দিতে হয়েছে অন্য বিষয়ের। ফলে স্বাভাবিকভাবেই বিপাকে পড়েছে শিক্ষার্থীরা।

বর্তমান শিক্ষানীতির আলোকে প্রণীত সিলেবাস অনুযায়ী এ বছর প্রথমবারের মত শারীরিক শিক্ষা ও স্বাস্থ্য এবং চারু ও কারু কলা বিষয়ে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে। যদিও এ বিষয়ে শিক্ষক নেই। অন্য বিষয়ের শিক্ষকরা এ বিষয়ে পাঠদান করেছেন। এ নিয়েও শিক্ষার্থী অভিভাবকদের মধ্যে শংকা ছিল।

এবছর কয়েকটি বিষয়ের প্রশ্নপত্র ফাঁস হয়। ইংরেজি বিষয়ের পরীক্ষার দিন একটি দৈনিকে প্রশ্নপত্রও ছাপা হয়। যার সাথে অনেক মিলও ছিল বলে অভিভাবকরা অভিযোগ করেছেন। শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদও একটি সংবাদ সম্মেলনে প্রশ্নপত্র ফাঁসের বিষয়টি স্বীকার করেন। প্রশ্ন ফাঁসের ফলে প্রভাব না পড়লেও এ বিষয়টি নিয়ে শিক্ষার্থীরা শংকায় ছিল।

এই পাতার আরো খবর -
font
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, 'এক এগারোর কুশলিবরা আবার সক্রিয় ও সোচ্চার হয়েছেন।' আপনিও কি তাই মনে করেন?
5 + 9 =  
ফলাফল
আজকের নামাজের সময়সূচী
জুন - ২৩
ফজর৩:৪৪
যোহর১২:০১
আসর৪:৪১
মাগরিব৬:৫১
এশা৮:১৬
সূর্যোদয় - ৫:১২সূর্যাস্ত - ০৬:৪৬
archive
বছর : মাস :
The Daily Ittefaq
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: তাসমিমা হোসেন। উপদেষ্টা সম্পাদক হাবিবুর রহমান মিলন। ইত্তেফাক গ্রুপ অব পাবলিকেশন্স লিঃ-এর পক্ষে তারিন হোসেন কর্তৃক ৪০, কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ থেকে প্রকাশিত ও মুহিবুল আহসান কর্তৃক নিউ নেশন প্রিন্টিং প্রেস, কাজলারপাড়, ডেমরা রোড, ঢাকা-১২৩২ থেকে মুদ্রিত। কাওরান বাজার ফোন: পিএবিএক্স: ৭১২২৬৬০, ৮১৮৯৯৬০, বার্ত ফ্যাক্স: ৮১৮৯০১৭-৮, মফস্বল ফ্যাক্স : ৮১৮৯৩৮৪, বিজ্ঞাপন-ফোন: ৮১৮৯৯৭১, ৭১২২৬৬৪ ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭২, e-mail: [email protected], সার্কুলেশন ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭৩। www.ittefaq.com.bd, e-mail: [email protected]
Copyright The Daily Ittefaq © 2014 Developed By :