The Daily Ittefaq
ঢাকা, সোমবার, ৩০ ডিসেম্বর ২০১৩, ১৬ পৌষ ১৪২০, ২৬ সফর ১৪৩৫
সর্বশেষ সংবাদ শমসের মবিন চৌধুরী আটক | বুধবার সকাল ছয়টা থেকে লাগাতার অবরোধের ডাক ১৮ দলের | কাল ব্যাংক ও পুঁজিবাজার বন্ধ | বিএনপি নেতা শমসের মবিন চৌধুরী আটক | ২ দিনের রিমান্ডে হাফিজ | বিরোধী দলের আন্দোলনের মূল লক্ষ্য মানুষ হত্যা: প্রধানমন্ত্রী | ছাড়া পেলেন সেলিমা হীরা হালিমা | ৩১ ডিসেম্বর রাতে সভা-সমাবেশ নিষিদ্ধ : ডিএমপি | রাজশাহীতে ৪৪টি তাজা ককটেল ও সাড়ে ৪ কেজি গানপাউডার উদ্ধার | মোহাম্মদপুরে ২০০ হাতবোমাসহ আটক ৩ | প্রাথমিকে পাস ৯৮.৫৮

নির্বাচনের টুকরো খবর

ইত্তেফাক ডেস্ক

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে জমে উঠেছে প্রচার-প্রচারণা। এরই কিছু টুকরো খবর তুলে ধরেছেন আমাদের প্রতিনিধি ও সংবাদদাতারা।

জামালপুরে জোরালো হচ্ছে নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণা

জামালপুর জেলার ৫টি আসনের মধ্যে ১টিতে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় আওয়ামী লীগ প্রার্থী বিজয়ী হলেও বাকি ৪টি আসনে বইছে নির্বাচনী ঝড়। প্রতিটি এলাকায় নজরে পড়ছে প্রার্থীদের পোস্টার, থেমে থেমে শোনা যাচ্ছে মাইকে নির্বাচনী প্রচারণা। জামালপুর-১ (দেওয়ানগঞ্জ-বকসিগঞ্জ) আসনে নৌকা প্রতীক নিয়ে মাঠে নেমেছেন সাবেক সংস্কৃতিমন্ত্রী আবুল কালাম আজাদ। এখানে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে লড়ছেন আজিজ আহম্মেদ হাসান। তার প্রতীক আনারস। জামালপুর-২ (ইসলামপুর) আসনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী সাবেক এমপি ফরিদুল হক খান দুলালের সাথে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন নতুন মুখ স্বতন্ত্র প্রার্থী আতিকুর রহমান লুইস। তার নির্বাচনী প্রতীক আপেল। জামালপুর-৪ (সরিষাবাড়ী) আসনে জাতীয় পার্টি (জাপা) মনোনীত প্রার্থী হিসেবে লড়ছেন প্রকৌশলী মামুনুর রশিদ জোয়ার্দার। তার সাথে বিএনএফ মনোনীত প্রার্থী মোস্তফা বাবুল টেলিভিশন প্রতীক নিয়ে মাঠে নেমেছেন। জামালপুর-৫ (জামালপুর সদর) আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী সাবেক ভূমিমন্ত্রী রেজাউল করিম হীরা নৌকা প্রতীক নিয়ে ভোটারদের কাছে ভোট প্রার্থনা করছেন। তার সাথে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন জাতীয় পার্টি (জেপি) মনোনীত প্রার্থী অ্যাডভোকেট বাবর আলী।

কুষ্টিয়ার ২টি আসনে বিদ্রোহী প্রার্থী

হানিফের প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনএফ

জেলার চারটি আসনের মধ্যে কুষ্টিয়া-১ ও কুষ্টিয়া-৪ আসনে আওয়ামী মনোনীত প্রার্থীর সাথে মাঠে রয়েছেন দলীয় বিদ্রোহী দুই প্রার্থী। কুষ্টিয়া-১ আসনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী বর্তমান এমপি আফাজউদ্দিন আহম্মেদ (নৌকা) ও দলীয় বিদ্রোহী প্রার্থী রেজাউল হক চৌধুরী (আনারস) গণসংযোগ করছেন। আর ইতিমধ্যে কুষ্টিয়া-২ আসন থেকে জাসদ সভাপতি ও তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। কুষ্টিয়া-৩ আসনে আওয়ামী লীগের হেভিওয়েট প্রার্থী মাহবুব-উল-আলম হানিফের একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বী রয়েছেন বিএনএফ প্রার্থী চৌধুরী লিটন। কুষ্টিয়া-৪ (খোকসা-কুমারখালী) আসনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আব্দুর রউফের (নৌকা প্রতীক) বিরুদ্ধে প্রার্থী রয়েছেন আওয়ামী লীগের জাতীয় পরিষদের সদস্য, খোকসা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সদরউদ্দিন খান (কলস প্রতীক)। এই আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী জাতীয় যুব জোটের সভাপতি রোকনুজ্জামান রোকন (ফুটবল প্রতীক) ও ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টির (ন্যাপ) কেন্দ্রীয় নেতা আব্দুল বারী জোয়ার্দ্দার (কুঁড়েঘর প্রতীক) প্রার্থী হিসাবে মাঠে থাকলেও নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীর মূল প্রতিদ্বন্দ্বী হিসাবে দলীয় বিদ্রোহী প্রার্থী আলহাজ্ব সদরউদ্দিন খান মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন।

রাজশাহী-৬ আসনে চলছে

দুই প্রার্থীর ভোটযুদ্ধ

রাজশাহী-৬ (বাঘা-চারঘাট) আসনে জমে উঠেছে নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণা। এ আসনে এবার একই দলের দু'জন প্রার্থী ভোটযুদ্ধে নেমেছেন। এদের একজন সরকার দলীয় শাহরিয়ার আলম প্রতীক নৌকা। অপরজন হচ্ছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী সাবেক সংসদ রায়হানুল হক রায়হান তার প্রতীক প্রজাপতি। তারা ইতোমধ্যে উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন এবং ওয়ার্ড পর্যায়ে গণসংযোগ শুরু করেছেন।

পাবনা-১ আসনে হেভিওয়েট

প্রার্থীদ্বয়ের লড়াই

পাবনা-১ (সাঁথিয়া-বেড়া আংশিক) আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন সাবেক তথ্য প্রতিমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ নেতা ড. অধ্যাপক আবু সাইয়িদ ও স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী এ্যাড. শামসুল হক টুকু। সারা দেশে নির্বাচনী উত্তাপ তেমন না থাকলেও এখানে চলছে দুই হেভিওয়েট প্রার্থীর মধ্যে হাড্ডা-হাড্ডি লড়াই। দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন দলীয় মনোনয়ন না পেয়ে এ আসন থেকে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে তালা প্রতীক নিয়ে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করছেন সাবেক তথ্য প্রতিমন্ত্রী আবু সাইয়িদ। এদিকে দলীয় মনোনয়ন লাভ করে নৌকা প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করছেন স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শামসুল হক টুকু। এদিকে রবিবার সকালে পাবনা-১ আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী ড. অধ্যাপক আবু সাইয়িদের নির্বাচনী সমন্বয়ক গ্রেফতার হয়েছে। জানা যায়, ঐদিন সকালে কাশিনাথপুর নিজ বাসা থেকে কাশিনাথপুর ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ও পাবনা-১ আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী ড. অধ্যাপক আবু সাইয়িদের নির্বাচনী সমন্বয়ক আব্দুল হাইকে গ্রেফতার করে পাবনা ও সাঁথিয়া থানা পুলিশ। সাঁথিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সাহিদ মাহমুদ খান জানান, উপজেলা আওয়ামী লীগের অফিস ভাংচুর মামলায় তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

রামগঞ্জে স্বতন্ত্র প্রার্থীর

প্রচার গাড়ি ভাংচুর

লক্ষ্মীপুর-১ (রামগঞ্জ) আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি সফিকুল ইসলাম (আনারস) প্রতীকের গাড়ি ভাংচুর করেছে প্রতিপক্ষের লোকজন। এসময় হামলাকারীরা আনারস প্রতীকের একটি প্রচার মাইক ও গাড়ি ভাংচুর করে প্রচারক রাছেলকে বেদম মারধর করে। স্থানীয় লোকজন ছুটে আসলে হামলাকারীরা কয়েক রাউন্ড ফাঁকা গুলি করে ঘটনাস্থল ত্যাগ করে। শনিবার রাতে উপজেলার বালুয়া চৌমুহনী বাজারে ঘটনাটি ঘটে । ্এ ব্যাপারে সফিকুল ইসলাম উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান ভূইয়া সুমন, সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ মামুন আখন, যুবলীগ কর্মী ওয়াসীম, মিলাদ হোসেনসহ বেশ কয়েকজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছেন।

গাংনীতে দলের বিপক্ষে যাওয়ায় যুবলীগের ৭ নেতা বহিষ্কার

মেহেরপুর-২ (গাংনী) আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী মকবুল হোসেনের পক্ষে নির্বাচনে অংশ নেয়ায় আওয়ামী লীগ ও যুবলীগের ৭ জনকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নিয়েছে মেহেরপুর জেলা আওয়ামী লীগ। শনিবার জেলা আওয়ামী লীগের একাংশের বর্ধিত সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। এরা হচ্ছেন: মেহেরপুর-২ আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মকবুল হোসেন, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য গাংনী পৌর মেয়র আহম্মেদ আলী, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক গাংনী উপজেলা চেয়ারম্যান একেএম শফিকুল আলম, সাংগঠনিক সম্পাদক মকলেছুর রহমান মুকুল, কৃষিবিষয়ক সম্পাদক শহিদুল ইসলাম,গাংনী উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মোশারফ হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক শফি কামাল পলাশ।

বরগুনা-২ আসনে দ্বৈত ভূমিকায় বিএনপি

বরগুনা-২ আসনের নির্বাচনে বিএনপির ভূমিকা স্পষ্ট না হওয়ায় জনমনে নানা প্রশ্নের সৃষ্টি হয়েছে। বিএনপি জাতীয়ভাবে নির্বাচন প্রতিহত ও ভোটারদের কেন্দ্রে না যাওয়ার জন্য নেতা-কর্মীদের উত্সাহিত করার ঘোষণা দিলেও তৃণমূল পর্যায়ের অনেক নেতা-কর্মীর বিপক্ষে অবস্থান নিয়েছেন। স্বতন্ত্র প্রার্থী বিশিষ্ট মুক্তিযোদ্ধা জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি অতীশ দীপঙ্কর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড.এম. আবুল হোসেন সিকদারের পক্ষ নিয়ে তাদের ভিন্ন সুরে কথা বলতে দেখা গেছে। এতে নির্বাচনী এলাকা বেতাগী-বামনা ও পাথরঘাটা এই তিন উপজেলার অনেকেই বিপাকে পড়েছেন।

চট্টগ্রাম-১৫ আসনে লড়াই

হবে দুই সাতকানিয়াবাসীর

সাতকানিয়া ও লোহাগাড়া উপজেলা নিয়ে চট্টগ্রাম-১৫ সংসদীয় আসন গঠিত। ১০ম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এই আসনে প্রতিদ্বন্দ্বী দুই প্রার্থীর বাড়িই সাতকানিয়া উপজেলায়। দুই প্রার্থীর মধ্যে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ড. আবু রেজা মুহাম্মদ নেজামুদ্দীন নদভীর বাড়ি সাতকানিয়ার মাদার্শা ইউনিয়নে। অন্যদিকে বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্টের (বিএনএফ) প্রার্থী আলহাজ্ব জয়নাল আবেদীন কাদেরীর বাড়ি সাতকানিয়ার কাঞ্চনায়। প্রথমজন নৌকা প্রতীকে, দ্বিতীয়জন টেলিভিশন প্রতীকে লড়াইয়ে অবতীর্ণ হয়েছেন। উভয় প্রার্থীর পোস্টার ঝুলছে এলাকায়। নির্বাচনী প্রচারণাও শুরু করেছেন তারা।

কাউনিয়ায় নৌকায় ভোট চাইলেন আব্দুল লতিফ সিদ্দিকী

রংপুর-৪ আসনের আওয়ামী লীগের পথসভায় মন্ত্রী আব্দুল লতিফ সিদ্দিকী এমপি বলেছেন, বিরোধীদলের নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া স্বাধীনতা-বিরোধী রাজাকার, আল-বদরদের বাঁচাতে নির্বাচনে অংশ না নিয়ে, আন্দোলনের নামে সারাদেশে নাশকতা করছে, ককটেল, পেট্রোল বোমা মেরে নিরীহ মানুষদের হত্যা করছে। আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীদের সদস্যের গাড়িতে বোমা মারছে। তিনি বলেন, ৫ জানুয়ারির নির্বাচন হবে মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের নির্বাচন। কোনো শক্তিই এ নির্বাচন বানচাল করতে পারবে না। রংপুর-৪ আসনের আওয়ামী লীগের প্রার্থী টিপু মুনশি এমপির সমর্থনে নির্বাচনী পথসভা শনিবার উপজেলা বাসস্ট্যান্ড মোড়ে অনুষ্ঠিত হয়।

মাগুরায় আওয়ামী লীগ

নেতা-কর্মী দ্বিধাবিভক্ত

মাগুরার দুটি আসনেই নির্বাচনী উত্তাপ দিন দিন বৃদ্ধি পেতে শুরু করেছে। দিন যত ঘনিয়ে আসছে আর প্রার্থীদের ব্যস্ততা ততটা বৃদ্ধি পাচ্ছে। বিদ্রোহী প্রার্থীদের তত্পরতা বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে গত দু'তিনদিন ধরে মাগুরা-১ ও মাগুরা-২ আসনে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থীরা নেতা-কর্মীদের সাথে নিয়ে কোমর বেঁধে মাঠে নেমেছেন। নির্বাচনে জেলার দুটি আসনেই মোট ৩ জন করে প্রার্থী বহাল রয়েছে। এর মধ্যে উভয় আসনেই ১ জন করে আওয়ামী লীগ, বিএনএফ ও বিদ্রোহী প্রার্থী। মাগুরার দুটি আসনেই আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থীর প্রতিদ্বন্দ্বী হয়ে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে স্থানীয় দু'নেতা নির্বাচন করছেন। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দলের নেতা-কর্মীরা পক্ষে-বিপক্ষে অবস্থান গ্রহণ করেছেন। মাগুরা-শ্রীপুর উপজেলা নিয়ে গঠিত মাগুরা-১ আসনে ৩ বার নির্বাচিত এমপি রেডক্রিসেন্ট সোসাইটির চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক প্রফেসর ডা. মোঃ সিরাজুল আকবর এবারে নির্বাচনেও দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন। অপরদিকে শ্রীপুর উপজেলা আ'লীগের সভাপতি আলহাজ্ব আকবর হোসেন মিয়ার পুত্র উপজেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি ও শ্রীকোল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান কুতুবুল্লাহ হোসেন মিয়া কুটি বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে হরিণ প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করছেন। মোহাম্মদপুর ও শালিখা উপজেলা এবং সদরের চার ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত মাগুরা-২ আসনের বর্তমান এমপি মাগুরা জেলা আ'লীগের সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট বীরেন শিকদার নৌকা প্রতীক নিয়ে নির্বাচনে মাঠে নেমেছেন। অথচ তারই প্রতিপক্ষ হয়ে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে মহম্মদপুর উপজেলা আ'লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুল মান্নান হরিণ প্রতীক নিয়ে লড়ছেন ।

এই পাতার আরো খবর -
font
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, 'এক এগারোর কুশলিবরা আবার সক্রিয় ও সোচ্চার হয়েছেন।' আপনিও কি তাই মনে করেন?
7 + 3 =  
ফলাফল
আজকের নামাজের সময়সূচী
সেপ্টেম্বর - ১৮
ফজর৪:২৯
যোহর১১:৫৩
আসর৪:১৭
মাগরিব৬:০৩
এশা৭:১৬
সূর্যোদয় - ৫:৪৫সূর্যাস্ত - ০৫:৫৮
archive
বছর : মাস :
The Daily Ittefaq
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: তাসমিমা হোসেন। উপদেষ্টা সম্পাদক হাবিবুর রহমান মিলন। ইত্তেফাক গ্রুপ অব পাবলিকেশন্স লিঃ-এর পক্ষে তারিন হোসেন কর্তৃক ৪০, কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ থেকে প্রকাশিত ও মুহিবুল আহসান কর্তৃক নিউ নেশন প্রিন্টিং প্রেস, কাজলারপাড়, ডেমরা রোড, ঢাকা-১২৩২ থেকে মুদ্রিত। কাওরান বাজার ফোন: পিএবিএক্স: ৭১২২৬৬০, ৮১৮৯৯৬০, বার্ত ফ্যাক্স: ৮১৮৯০১৭-৮, মফস্বল ফ্যাক্স : ৮১৮৯৩৮৪, বিজ্ঞাপন-ফোন: ৮১৮৯৯৭১, ৭১২২৬৬৪ ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭২, e-mail: [email protected], সার্কুলেশন ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭৩। www.ittefaq.com.bd, e-mail: [email protected]
Copyright The Daily Ittefaq © 2014 Developed By :