The Daily Ittefaq
ঢাকা, মঙ্গলবার, ৩১ ডিসেম্বর ২০১৩, ১৭ পৌষ ১৪২০, ২৭ সফর ১৪৩৫
সর্বশেষ সংবাদ বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান এম মোরশেদ খানের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা | ৩ জানুয়ারি জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

এইচএসসি পরীক্ষার জীববিজ্ঞান প্রথমপত্র এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি

জীববিজ্ঞান

মোহাম্মদ আক্তার-উজ-জামান

প্রভাষক, উদ্ভিদবিদ্যা

রূপনগর মডেল স্কুল ও কলেজ

অধ্যায়-১ : উদ্ভিদের বিভিন্নতা

পরিচ্ছেদ-১: উদ্ভিজগতের শ্রেণিবিন্যাস

প্রিয় শিক্ষার্থীরা, আজ তোমাদের জন্য রয়েছে জীববিজ্ঞান প্রথমপত্রের ১ নম্বর অধ্যায়ের প্রথম পরিচ্ছেদ 'উদ্ভিদজগতের শ্রেণিবিন্যাস' থেকে একটি সৃজনশীল প্রশ্নোত্তর।

উদ্ভিদ বিজ্ঞানের ছাত্রী অর্পা লক্ষ্য করল Pericillium notatum বেনথাম ও হুকার প্রদত্ত শ্রেণিবিন্যাসে প্রথম উদ্ভিদ উপজগতের বিভাগ-১-এ স্থান লাভ করলেও Margulis-এর শ্রেণিবিন্যাসে এটি ভিন্ন জগতে স্থান পেয়েছে।

প্রশ্ন: ক. জীববৈচিত্র্য কাকে বলে?

খ. প্রজাতি বলতে কী বুঝায়?

গ. বেনথাম ও হুকার প্রদত্ত শ্রেণিবিন্যাসে অর্পার পর্যবেক্ষণকৃত প্রজাতিটির অবস্থান ব্যাখ্যা কর।

ঘ. Margulis-এর শ্রেণিবিন্যাসে প্রজাতিটি ভিন্ন অবস্থানে থাকার যৌক্তিকতা বিশ্লেষণ কর।

উত্তর:ক) জীবের জিনগত, প্রজাতিগত ও পরিবেশগত বৈচিত্র্যকে একসাথে জীববৈচিত্র্য বলা হয়।

উত্তর: খ) প্রজাতি হলো শ্রেণিবিন্যাসের মৌলিক একক। সাধারণভাবে প্রজাতি বলতে বিভিন্ন বৈশিষ্ট্যে সর্বাধিক মিলসম্পন্ন একদল জীবকে বোঝায়, যারা নিজেদের মধ্যে মিলনে উর্বর সন্তান উত্পাদনে সক্ষম। যেমন: আমাদের দেশে চাষকৃত সকল প্রকার ধানই একই প্রজাতির। সব ধরনের কাঁঠাল একই প্রজাতির অন্তর্ভুক্ত।

উত্তর: গ) বিচিত্র ধরনের উদ্ভিদরাজিকে চারিত্রিক বৈশিষ্ট্যের সাদৃশ্যের ভিত্তিতে একসাথে এবং বৈসাদৃশ্যের ভিত্তিতে পৃথক দলে স্থাপনের নীতিমালায় পৃথিবীর সব উদ্ভিদকে কিংডম, বিভাগ, শ্রেণি, বর্গ, গোত্র, গণ, প্রজাতি প্রভৃতি দল-উপদলে বিন্যাস করার পদ্ধতিকে শ্রেণিবিন্যাস বলে।

বেনথাম ও হুকার প্রদত্ত শ্রেণিবিন্যাসে উদ্ভিদের সামগ্রিক অঙ্গসংস্থানিক বৈশিষ্ট্যের উপর ভিত্তি করে শ্রেণিবিন্যাস করা হয়েছে। বেনথাম ও হুকার যে প্রাকৃতিক শ্রেণিবিন্যাস করেছেন সেখানে অর্পার পর্যবেক্ষণকৃত Penicillium notatum, Cryptogamia উপজগতের Thallophyta বিভাগে অবস্থিত। বেনথাম ও হুকার সমগ্র উদ্ভিদজগেক দুটি উপজগত্ Cryptogamia (অপুষ্পক উদ্ভিদ) ও Phancrogamia (সপুষ্পক উদ্ভিদ)-এ বিভক্ত করেছেন।

Cryptogamiaকে আবার তিনটি বিভাগে বিভক্ত করা হয়েছে।

বিভাগ-১: Thallophytaবিভাগ-২: Bryophyta

বিভাগ-৩: Pteridophyta

এর মধ্যে বিভাগ-১: Thallophyta-এর বৈশিষ্ট্য হলো:

i. এদের দেহ মূল, কাণ্ড ও পাতায় বিভক্ত নয়।

ii. ভ্রূণ সৃষ্টি হয় না।

iii. পরিবহনতন্ত্র নাই।

iv. জননাঙ্গ সাধারণত এককোষী।

বিভাগ-১, Thallophyta-কে দুটি শ্রেণিতে ভাগ করা যায়। যথা:

শ্রেণি-১: Algae শ্রেণি-২:Fungi

শ্রেণি-২:Fungi-এর বৈশিষ্ট্য হলো-

i. কোষে ক্লোরোফিল অনুপস্থিত।

ii. এরা মৃতজীবী বা পরজীবীরূপে বাস করে।

iii. কোষপ্রাচীর কাইটিন দিয়ে গঠিত।

iv. সঞ্চিত খাদ্য গ্লাইকোজেন।

v) হ্যাপ্লয়েড স্পোরের মাধ্যমে বংশ বিস্তার করে।

এ সমস্ত বৈশিষ্ট্যের সাথে Penicillium notatum-এর বৈশিষ্ট্য মিলে যায়। সুতরাং অর্পার পর্যবেক্ষণকৃত উদ্ভিদটি বেনথাম ও হুকার প্রদত্ত শ্রেণিবিন্যাসে পর্যায়ক্রমিক উপরে বর্ণিত অবস্থানে রয়েছে।

উত্তর: ঘ. Margulis সমগ্র জীবজগেক দুটি সুপার কিংডমের আওতায় পাঁচটি কিংডমে ভাগ করেন। কিংডম পাঁচটি হলো: মনেরা (Monera), প্রোটকটিস্টা (Protoctista), ফানজাই (Fungi), প্লান্টি (Plantae) ও অ্যানিমালিয়া (Animalia)।

অর্পার পর্যবেক্ষণকৃত Penicillium notatum, Margulis-এর আধুনিক শ্রেণিবিন্যাসে ফানজাই জগতের অন্তর্ভুক্ত।

কারণ ফানজাই জগতের বৈশিষ্ট্য হলো:

i. এরা মৃতজীবী বা পরজীবীরূপে বাস করে।

ii. মাইসেলিয়্যাল বা পরবর্তী পরিবর্তনে এককোষী।

iii. কোষপ্রাচীর কাইটিন নির্মিত এবং সঞ্চিত খাদ্য গ্লাইকোজেন।

iv. খাদ্য গ্রহণ পদ্ধতি শোষণ।

v. দেহ সাধারণত শাখান্বিত, ফিলামেন্ট সিনোসাইটিক, যাতে ছিদ্রযুক্ত প্রস্থপ্রাচীর সৃষ্টি হতে পারে।

vi. হ্যালয়েড স্পোরের মাধ্যমে বংশ বৃদ্ধি করে।

vii. জাইগোটে মায়োসিস হয়।

viii. এরা সুকেন্দ্রিক।

ix. এদের কোন সালোকসংশ্লেষণকারী বর্ণকণিকা নেই।

x. এদের পরিবহনতন্ত্র নেই।

xi. জননাঙ্গ এককোষী।

xii. নিষেকের পর জাইগোটে মায়োসিস হয়।

xiii. স্ত্রী জননাঙ্গে থাকা অবস্থায় জাইগোট বহুকোষী ভ্রূণে পরিণত হয় না।

Penicillum notatum নামক ছত্রাকের বৈশিষ্ট্য উপরোক্ত বৈশিষ্ট্যের সাথে মিলে যাওয়ায় এটি ফানজাই জগতের অন্তর্ভুক্ত একটি প্রজাতি।

বেনথাম ও হুকার প্রদত্ত শ্রেণিবিন্যাস উদ্ভিদের অঙ্গসংস্থানিক বৈশিষ্ট্যের উপর ভিত্তি করে, বিশেষ করে উদ্ভিদের পুষ্পচরিত্র, অন্তর্গঠন, ভ্রূণচরিত্র ইত্যাদির উপর প্রতিষ্ঠিত। এখানে উদ্ভিদজগতের দুটি উপজগত্ Cryptogamia ও Phancrogamia-এর মধ্যে Cryptogamia-এর বিভাগ-১, Thallophyta-এর আওতায় শ্রেণি-২-এ Penicillium notatum-কে রাখা হয়েছে। অন্যদিকে আধুনিক শ্রেণিবিন্যাসের পাঁচ জগত্ ধারণা কোষ, কোষ অঙ্গানুর গঠন এবং জীববিজ্ঞানের অন্যান্য আধুনিক তথ্যের উপর ভিত্তি করে প্রতিষ্ঠিত। এজন্য এখানে Penicillium notatum-কে সুপার কিংডম ইউক্যারিওটার আওতায় ফানজাই জগতে রাখা হয়েছে। সংগত কারণেই প্রাকৃতিক ও আধুনিক শ্রেণিবিন্যাস দুটি ভিন্ন ধারণার উপর প্রতিষ্ঠিত হওয়ায় Penicillium notatum বেনথাম ও হুকারের শ্রেণিবিন্যাসে একরকম অবস্থানে থাকলেও Margulis-এর শ্রেণিবিন্যাসে তা একই জীব সত্ত্বেও ভিন্ন অবস্থানে রয়েছে।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি

প্রকাশ কুমার দাস

প্রভাষক, কমিপউটার শিক্ষা

মোহাম্মদপুর প্রিপারেটরী গার্লস কলেজ, ঢাকা

প্রিয় শিক্ষার্থীবৃন্দ, প্রথম অধ্যায়-তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি : বিশ্ব ও বাংলাদেশ প্রেক্ষিত থেকে কয়েকটি প্রশ্ন নিয়ে আলোচনা করা হলো। আশা করি তোমরা আবশ্যিক বিষয় হিসেবে মনোযোগ সহকারে প্রতিটি লেখা সংগ্রহ করে পড়বে।

প্রশ্ন-১. যোগাযোগ ক্ষেত্রে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির সেবাসমূহ বর্ণনা কর।

উত্তর: যোগাযোগ ক্ষেত্রে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির সেবাসমূহ :

১. মোবাইল ফোনের মাধ্যমে রেলওয়ের টিকেট ক্রয়।

২. স্টেশনভিত্তিক অনলাইন যাত্রীসেবা।

৩. ওয়েবসাইটভিত্তিক ট্রেন ও বাসের ভাড়া ও সময়সূচি সংক্রান্ত তথ্যাবলি।

৪. ডিটিসিবি কর্তৃক ঢাকা মহানগরীর বাসে ই-টিকেটিং সিস্টেম ও IC Card এর মাধ্যমে যাত্রীসেবা প্রদান।

৫.ওয়েবসাইটের মাধ্যমে দরপত্র বিজ্ঞপ্তিসমূহ অবলোকন।

৬. ইন্টারনেট ব্যবহার করে বিভিন্ন ফর্ম ডাউনলোড পদ্ধতি।

৭. ওয়েবসাইটভিত্তিক বিভিন্ন ট্যাক্স ও ফিস্ সংক্রান্ত তথ্যাবলি।

৮. অনলাইনে মতামত প্রদান।

৯.মোটরযানের রেজিস্ট্রেশন সার্টিফিকেট, ফিটনেস, রুট পারমিট, ট্যাক্স টোকেন, ড্রাইভিং লাইসেন্স ইস্যু/নবায়ন এবং এ সংক্রান্ত ফি নির্ধারণ, আদায় ও সরকারি খাতে জমাকরণ পদ্ধতি অনলাইনভিত্তিক করা।

১০.ই-গভর্নেস এর মাধ্যমে অফিস ব্যবস্থাপনাসহ যোগাযোগ ক্ষেত্রে সর্বাধুনিক তথ্য প্রযুক্তির ব্যবহার।

প্রশ্ন-২. কর্মসংস্থান ক্ষেত্রে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির বর্ণনা কর।

উত্তর: তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি ব্যবহার করে স্থানীয় আইসিটি শিল্পে বিনিয়োগের জন্য উত্সাহ প্রদান করছে দেশীয় ও বিশ্ববাজারে চাহিদার সাথে সামঞ্জস্য রেখে অধিকসংখ্যক আইসিটি পেশাজীবী তৈরি হচ্ছে। এতে কর্মসংস্থানের সৃষ্টি হচ্ছে। এতে স্থানীয় আইসিটি শিল্পের জন্য দক্ষতা বাড়িয়ে বিশ্ববাজারে জনবলের কর্মসংস্থান সহজতর করা সম্ভব। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি শিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে ব্যাংক, বীমা, বহুজাতিক কোম্পানি, মোবাইল কোম্পানিসহ বিভিন্ন অফিসে কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এক স্থান থেকে অন্য স্থানে দ্রুত টাকা আদান-প্রদানে মোবাইল ব্যাংকিং সেবা চালু করে কর্মসংস্থানের বহুমুখি ক্ষেত্র সৃষ্টি করা হয়েছে। বর্তমানে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির কল্যাণে মোবাইল ফোনের সেবা প্রদানে রিচার্জ করার জন্য প্রচুর লোকের কর্মসংস্থান হয়েছে। ইন্টারনেট সেবা পাওয়ার জন্য ই-ব্যাংকিং সেবার ক্ষেত্রেও কর্মসংস্থান লক্ষণীয়। কম্পিউটারভিত্তিক ব্যাংকিং সেবা ছাড়াও যেকোন ডিজিটাল যন্ত্রপাতি ব্যবহারে বহু লোকের কর্মসংস্থান হচ্ছে।

প্রশ্ন-৩. তথ্য ও যোগাযোগ

প্রযুক্তিতে শিক্ষাক্ষেত্রের বর্ণনা দাও।

উত্তর: তথ্য প্রযুক্তির বিভিন্ন মাধ্যম যেমন- ইন্টারনেট, সিডি, ই-বুক ইত্যাদি ব্যবহার শিক্ষার্থীদের জ্ঞান অর্জনের পথকে অনেক সহজ করে দিয়েছে। ঘরে বসে কম্পিউটারের মাধ্যমে ইন্টারনেটের সাহায্যে পৃথিবীর যেকোন বিশ্ববিদ্যালয়ের লাইব্রেরিতে প্রবেশ করা সম্ভব হচ্ছে। ফলে অনেক গুরুত্বপূর্ণ বিষয় ও নিত্যনতুন তথ্য তোমরা জানতে পারছ। আবার অনলাইন শিক্ষা ব্যবস্থার মাধ্যমে অনেক খ্যাতনামা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের সাথে যোগাযোগ করতে পারছ।

ছোট ছোট ছেলেমেয়েরা কম্পিউটার ব্যবহার করে সহজেই লেখাপড়া শিখতে পারে। আজকাল পাঠ উপযোগী অনেক বিষয়ে চলমান ছবি ও তার বর্ণনা সংবলিত সিডি পাওয়া যায়। এছাড়া আধুনিক শিক্ষা ব্যবস্থায় প্রশ্নপত্র তৈরি, পরীক্ষার উত্তরপত্র যাচাই, রেজাল্ট শীট তৈরি ইত্যাদি ক্ষেত্রে কম্পিউটার ব্যবহার হয়ে থাকে। ছাত্র ও গবেষকদের বিভিন্ন জটিল হিসাব ও গাণিতিক সমস্যার সমাধানে কম্পিউটার বিশেষভাবে সাহায্য করে। উন্নত বিশ্বে অনেক আগে থেকেই লাইব্রেরি পরিচালনা ও নিয়ন্ত্রণে কম্পিউটার ব্যবহার শুরু হয়েছে। যেমন- প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষার ফলাফল কম্পিউটারে প্রসেসিং হয় এবং ওয়েবসাইটে পাওয়া যায়। প্রাথমিকস্তরের বিভিন্ন বিষয়ের বই ওয়েবসাইটে পাওয়া যায়। ঠিক তেমনি মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিকসহ বিভিন্ন প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষার ফলাফল কম্পিউটারে প্রসেসিং হয়ে ওয়েবসাইটের মাধ্যমে প্রকাশ করা হয়। বর্তমানে অনেক কলেজে উচ্চ মাধ্যমিক স্তরের ভর্তি প্রক্রিয়া ওয়েবসাইটের মাধ্যমে সম্পন্ন হচ্ছে। পরীক্ষার ফলাফল পুনঃমূল্যায়ন করার জন্য অনলাইনের মাধ্যমে আবেদন করে ফলাফল অতি দ্রুত পাওয়া যাচ্ছে। বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের যাবতীয় তথ্য ওয়েবসাইটের মাধ্যমে পাওয়া যাচ্ছে এবং অনলাইনের মাধ্যমে ভর্তির আবেদন জমা নেওয়া হচ্ছে এবং ভর্তি প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হচ্ছে।

জ.ই. জাহিদ নূর কাজল

সিনিয়র শিক্ষক, ন্যাশনাল আইডিয়াল স্কুল, ঢাকা

font
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, 'বিরোধীদল সরকারের বিরুদ্ধে নয়, জনগণের বিরুদ্ধে আন্দোলন করছে।' আপনিও কি তাই মনে করেন?
3 + 9 =  
ফলাফল
আজকের নামাজের সময়সূচী
মে - ২৫
ফজর৩:৪৭
যোহর১১:৫৬
আসর৪:৩৫
মাগরিব৬:৪১
এশা৮:০৩
সূর্যোদয় - ৫:১৩সূর্যাস্ত - ০৬:৩৬
archive
বছর : মাস :
The Daily Ittefaq
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: তাসমিমা হোসেন। উপদেষ্টা সম্পাদক হাবিবুর রহমান মিলন। ইত্তেফাক গ্রুপ অব পাবলিকেশন্স লিঃ-এর পক্ষে তারিন হোসেন কর্তৃক ৪০, কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ থেকে প্রকাশিত ও মুহিবুল আহসান কর্তৃক নিউ নেশন প্রিন্টিং প্রেস, কাজলারপাড়, ডেমরা রোড, ঢাকা-১২৩২ থেকে মুদ্রিত। কাওরান বাজার ফোন: পিএবিএক্স: ৭১২২৬৬০, ৮১৮৯৯৬০, বার্ত ফ্যাক্স: ৮১৮৯০১৭-৮, মফস্বল ফ্যাক্স : ৮১৮৯৩৮৪, বিজ্ঞাপন-ফোন: ৮১৮৯৯৭১, ৭১২২৬৬৪ ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭২, e-mail: [email protected], সার্কুলেশন ফ্যাক্স: ৮১৮৯৯৭৩। www.ittefaq.com.bd, e-mail: [email protected]
Copyright The Daily Ittefaq © 2014 Developed By :